কুমারখালীতে প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা, খামারি, ডিলার ও ভোক্তা কমিটির সদস্যদের নিয়ে আলোচনা সভা

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ নিরাপদ খাদ্য নিশ্চয়তায়, নিরাপদ পোল্ট্রি উৎপাদনে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা, খামারি, ডিলার (পোল্ট্রি ফিড বিক্রেতা) ও ভোক্তা কমিটির সদস্যদের অংশগ্রহণে মাসিক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার বেলা ৩ টায় উপজেলা প্রাণি সম্পদ দপ্তরের সভাকক্ষে এই মাসিক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ব্রিটিশ কাউন্সিলের প্রোকাশ প্রোগ্রামের কারিগরী সহায়তায় ও ইউকে এইড এর আর্থিক সহায়তায় বীজবিস্তার ফাউন্ডেশন এই আলোচনা সভার আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা: নূর আলম সিদ্দিকী। আলোচনা সভার শুরুতেই প্রকল্প সম্পর্কে ধারণা ও মাসিক আলোচনা সভার উদ্দেশ্য তুলে ধরেন এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন বীজ বিস্তার ফাউন্ডেশনের ফিল্ড কো-অর্ডিনেটর ডলি ভদ্র। আলোচনা সভায় নিরাপদ খাদ্য নিশ্চয়তায় খামার রেজিষ্ট্রেশন, খামার পরিচালনা ও মুরগি পরিচর্যার কৌশল পরিবর্তন, মাত্রাতিরিক্ত এন্টিবায়োটিক ব্যবহার, নিরাপদ পোল্ট্রি ফিড সরবরাহ ও নিরাপদ পোল্ট্রি উৎপাদন বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এ সময় ভোক্তা কমিটির সদস্যরা নিরাপদ পোল্ট্রি উৎপাদনে প্রাণি সম্পদ দপ্তরের কর্মকর্তাদের খামার মনিটরিং কার্যক্রম ও প্রতিটি পোল্ট্রি খামার রেজিষ্ট্রেশনের আওতায় নিয়ে আসার আহবান জানান। সভায় প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা: নুর আলম সিদ্দিকী খামারি ও ডিলারদের উদ্দেশ্যে বলেন, নিরাপদ খাদ্য নিশ্চয়তায় নিরাপদ পোল্ট্রি উৎপাদনে নিরাপদ পোল্ট্রি ফিড ও মুরগি বাজারজাত করণের নির্দিষ্ট সময়ের আগে এন্টিবায়োটিক ব্যবহার করা থেকেও বিরত থাকবে হবে। এ ছাড়াও জনস্বাস্থ্য ও পরিবেশ সুরক্ষায় জনবহুল এলাকায় খামার স্থাপন না করার আহবান জানান তিনি। উল্লেখ্য, দেশের বেকার যুবক-যুব মহিলারা মুরগী খামার স্থাপনে আগ্রহী হওয়ার কারণে দিনে দিনে পোল্ট্রি শিল্প ব্যাপক প্রসার লাভ করেছে। দেশের প্রাণীজ প্রোটিনের চাহিদার প্রায় শতকরা ৪৫ ভাগ পোল্ট্রি সেক্টর পূরণ করে যাচ্ছে। তুলনামূলক দামে সস্তা হওয়ায় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর জন্য প্রোটিনের মূল উৎস হচ্ছে পোল্ট্রি মুরগী। কিন্তু সচেতন নাগরিক ও বিশেষজ্ঞদের মধ্যে নিরাপদ খাদ্যের বিবেচনায় পোল্ট্রি সেক্টর নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে। নিন্মমানের পোল্ট্রি ফিড, পোল্ট্রি ফিডে মাত্রারিক্তি ও অপ্রয়োজনীয় এন্টিবায়োটিকের ব্যবহার পোল্ট্রি খাদ্যকে অনিরাপদ করে তুলছে। এ জন্য নিরাপদ পোল্ট্রি উৎপাদনের লক্ষ্যে কনজুমারস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) ও বীজ বিস্তার ফাউন্ডেশন (বিবিএফ) জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সাথে সমন্বয় রেখে ভোক্তা সাধারন, সিভিল সোসাইটি, মুরগী খামারি, পোল্ট্রি ফিড বিক্রেতা, ডিলার ও বেসরকারি সংগঠনসমূহের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে সম্পৃক্ত থেকে পোল্ট্রি ফিড উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানসমূহকে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে বিধিসম্মতভাবে পরিচালনার গতিপথ প্রদর্শনের সহায়তার জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে বোলিং করবেন না ম্যাক্সওয়েল!

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥  পেস অলরাউন্ডার মার্কাস স্টয়নিসের অনুপস্থিতি অস্ট্রেলিয়া একাদশে ভারসাম্যে ব্যঘাত ঘটাচ্ছে। যে কারণে আগের তুলনায় বেশি বোলিং করতে হচ্ছে ব্যাটিং অলরাউন্ডার গে¬ন ম্যাক্সওয়েলকে। বাংলাদেশের বিপক্ষে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে স্টয়নিসের, যা ম্যাক্সওয়েলের ওপর চাপ কমাবে। পাকিস্তানের বিপক্ষে বল হাতে বাজে সময় কাটিয়েছেন ম্যাক্সওয়েল। ৭ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৫৮ রান দিয়েছেন তিনি। পাননি কোনো উইকেটের দেখা। তবে পরের ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন এই অফস্পিনার। ১০ ওভারের কোটা পূরণ করেছেন মাত্র ৪৬ রান খরচায়। তবে ঘুরে ফিরে পাক ম্যাচের কথায় তার মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই অস্ট্রেলিয়া দলে স্টয়নিস ফিরলে বাংলাদেশের বিপক্ষে যথাসম্ভব কম বোলিং করতে চাইবেন ম্যাক্স। যেটা তার কথাতেই স্পষ্ট। ম্যাচের আগের দিন এক ভিডিওবার্তায় তিনি বলেন, আমরা ভাগ্যবান বাংলাদেশ ম্যাচের আগে কিছু সময় অনুশীলন করার সুযোগ পেয়েছি। স্টয়নিস ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। নেটে বোলিং করেছে সে। দলের জন্য এটা ইতিবাচক দিক। তিনি বলেন, গেল কয়েক ম্যাচে পরিকল্পনার তুলনায় আমাকে বেশি বোলিং করতে হয়েছে। শেষ ১০ ম্যাচে ভাগ্যক্রমে পার পেয়ে গিয়েছিলাম। তবে পাকিস্তানের বিপক্ষে আমার সময়টা ভালো যায়নি। তারা আমাকে চতুর্দিকেই মেরেছে। আশা করছি, স্টয়নিস দলে ফিরবে এবং আমার ওপর চাপ কমবে। গেল কয়েক ম্যাচে বোলিং করেছেন অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চও। ম্যাক্সওয়েল মনে করেন, ফিঞ্চকেও টুর্নামেন্টের বাকি অংশে বল করতে হবে না। স্টয়নিস ফিরলে সেটা প্রয়োজন পড়বে না।

আজ বৃহস্পতিবার নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচটিকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন টাইগাররাও। এ ম্যাচে জয় পেলেই সেমিফাইনালের পথে আরও একধাপ এগিয়ে যাবেন তারা।

বিশ্বকাপে মার্তার ইতিহাস

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥  ফুটবল বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড গড়েছেন ব্রাজিলের নারী খেলোয়াড় মার্তা। ছাড়িয়ে গেছেন পুরুষদের প্রতিযোগিতায় সর্বোচ্চ গোলের মালিক মিরোস্লাভ ক্লোসাকেও। ফ্রান্সে নারী বিশ্বকাপে মঙ্গলবার রাতে ‘সি’ গ্রুপে ইতালির বিপক্ষে ম্যাচের ৭৪তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে বিশ্বকাপে ১৭তম গোলটি করেন মার্তা। ছয়বারের বর্ষসেরা নারী ফুটবলারের পুরস্কার জয়ীর এই গোলেই জিতে শেষ ষোলোয় ওঠে ব্রাজিল। চলতি আসরের আগে নারী ও পুরুষ বিশ্বকাপ মিলে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটি ছিল জার্মানির সাবেক স্ট্রাইকার ক্লোসার দখলে। ১৬ গোল করে তালিকার শীর্ষে ছিলেন তিনি। গত বৃহস্পতিবার গ্রুপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৩-২ ব্যবধানে হেরে যাওয়া ম্যাচে পেনাল্টি থেকে একটি গোল করে ক্লোসার রেকর্ড স্পর্শ করেন মার্তা। এবার আরেকটি পেনাল্টিতে দলকে নকআউটে পর্বে তোলার পাশাপাশি নতুন ইতিহাস গড়লেন ৩৩ বছর বয়সী এই ফুটবলার। ইতিহাস গড়ে মার্তা বলেন, “অনুভূতিটা উচ্ছ্বাসের। শুধু রেকর্ড ভাঙার জন্য নয়, বরং এটা করে মেয়েদের প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে।” ১৯ ম্যাচ খেলে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড গড়লেন ফরোয়ার্ড মার্তা। ২৪ ম্যাচ খেলে ১৬ গোল করেছিলেন ক্লোসা। ১৯ ম্যাচে ১৫ গোল নিয়ে তালিকার তৃতীয় স্থানে আছেন ব্রাজিলের সাবেক ফরোয়ার্ড রোনালদো। ম্যাচটি হারলেও তিন ম্যাচের দুই জয়ে গ্রুপ সেরা হয়ে শেষ ষোলোয় উঠেছে ইতালি।

ব্রাজিলকে রুখে দিল ভেনেজুয়েলা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ বল দখলে রেখে একের পর এক আক্রমণ করলে কি হবে, গোলই পেল না ব্রাজিল। ভেনেজুয়েলার কাছে পয়েন্ট হারানোর হতাশায় তাই মাঠ ছাড়তে হয়েছে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। সালভাদরে বাংলাদেশ সময় বুধবার সকালে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছে। স্কোরশিটে না উঠলেও জালে কিন্তু তিনবার বল পাঠিয়েছিল স্বাগতিকরা। তবে প্রথমার্ধে রবের্তো ফিরমিনোর প্রচেষ্টা বিফলে যায় রেফারির ফাউলের বাঁশিতে। আর দ্বিতীয়ার্ধে গাব্রিয়েল জেসুস ও ফিলিপে কৌতিনিয়ো জালের দেখা পেলেও দুবারই ভিএআর প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে অফসাইডের জন্য তা বাতিল করেন রেফারি। ম্যাচের শুরু থেকে প্রতিপক্ষের রক্ষণে চাপ তৈরি করা ব্রাজিল পঞ্চদশ মিনিটে প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগটি পেয়েছিল। তবে ডি-বক্সে ফাঁকায় বল পেয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে হতাশ করেন দাভিদ নেরেস। দুই মিনিট পর ডান দিক থেকে রিশার্লিসনের জোরালো নিচু শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান গোলরক্ষক। প্রথমার্ধের বাকি সময়ও আক্রমণে ছিল না তেমন ধার। ফলে ভেনেজুয়েলার রক্ষণভাগকে ব্যস্ত রাখলেও বিরতির আগে গোলরক্ষককে তেমন কোনো পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি তিতের শিষ্যরা। দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণাত্মক শুরু করা ব্রাজিলের ৫০তম মিনিটে আরেকটি ভালো সুযোগ নষ্ট হয় অরক্ষিত নেরেসের জোরালো শট প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়ের গায়ে প্রতিহত হলে। ৬০তম মিনিটে জালে বল পাঠিয়েছিলেন রিশার্লিসনের বদলি নামা ম্যানচেস্টার সিটির ফরোয়ার্ড গাব্রিয়েল জেসুস। কিন্তু ভিএআরের সাহায্যে অফসাইডের বাঁশি বাজান রেফারি। শেষ দিকে এভেরতনের কাটব্যাক পেয়ে কাছ থেকে লক্ষ্যভেদ করেছিলেন বার্সেলোনার মিডফিল্ডার কৌতিনিয়ো। এবারও ভিএআর প্রযুক্তি ব্যবহার করে গোল দেননি রেফারি। কৌতিনিয়োর কাছে বল যাওয়ার আগে তা ফিরমিনোর হাতে লেগেছিল বলে মনে হয়েছে। যোগ করা সময়ের শেষ মুহূর্তে কৌতিনিয়োর কর্নারে ফের্নান্দিনিয়োর হেড পোস্ট ঘেঁষে চলে গেলে পয়েন্ট হারানোর হতাশায় মাঠ ছাড়ে টুর্নামেন্টটির আটবারের চ্যাম্পিয়নরা। দুই ম্যাচে একটি করে জয় ও ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে আছে ব্রাজিল। আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে বলিভিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল দানি আলভেসের দল। রিও দে জেনেইরোয় দিনের প্রথম ম্যাচে বলিভিয়াকে ৩-১ গোলে হারানো পেরু সমান ৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। তৃতীয় স্থানে থাকা ভেনেজুয়েলার পয়েন্ট ২। আগামী শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে সাও পাওলোয় পেরুর মুখোমুখি হবে ব্রাজিল।

বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলা নিশ্চিত নয় স্টয়নিসের

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার পরের ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলা নিশ্চিত নয় মার্কাস স্টয়নিসের। তবে ফিটনেস ফিরে পাওয়ার লড়াইয়ে থাকা এই অলরাউন্ডার বিশ্বকাপ দলে জায়গা ধরে রেখেছেন বলে জানিয়েছেন কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। ওভালে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে সাইড স্ট্রেইনের চোটে পড়েন স্টয়নিস। খেলতে পারেননি পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দলের পরের দুই ম্যাচে। তার ‘কাভার’ হিসেবে মিচেল মার্শকে উড়িয়ে আনে অস্ট্রেলিয়া। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে তিনটায় ট্রেন্ট ব্রিজে বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে অ্যারন ফিঞ্চের দল। অনুশীলনে স্টয়নিস নিজের সর্বোচ্চটা দিচ্ছেন বলে জানান ল্যাঙ্গার। “নিজেকে ফিট করে তুলতে সে সম্ভাব্য সবকিছুই করেছে। কোনো কিছুর জন্যই সে এই সুযোগের ব্যাপারে হাল ছাড়বে না।” “সে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, তাই সে এখন যেখানে আছে তা আমাকে অবাক করে না।.. আশা করি, টুর্নামেন্টে সে সত্যিকারের একটা প্রভাব বিস্তার করতে পারবে।” শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বিশ্রামে থাকা ন্যাথান কোল্টার-নাইলও দলে ফিরতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন ল্যাঙ্গার। “সে ফিট এবং পরের ম্যাচ খেলার জন্য সে নিশ্চিতভাবেই ফিট।” এখন পর্যন্ত প্রতিযোগিতায় নিজেদের পাঁচ ম্যাচের চারটিতেই জয় পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। শীর্ষে থাকা ইংল্যান্ডের সমান ৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।