সৌদি বাদশাহর সঙ্গে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর সাক্ষাৎ

ঢাকা অফিস ॥ ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ সৌদি আরবের বাদশাহ ও খাদেমুল হারামাইন আঁশ শারিফাইন সালমান বিন আবদুল আজিজের সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন। গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় মক্কার রাজপ্রাসাদে তিনি বাদশাহর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। মুসলিম ওয়ার্ল্ড লিগ আয়োজিত তিনদিন ব্যাপী ‘কোরআন ও সুন্নাহর আলোকে মধ্যপন্থা ও উদারতার মূল্যবোধ’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন শেষে বিভিন্ন দেশের অংশগ্রহণকারীদের সমন্বয়ে গঠিত একটি প্রতিনিধি দল সৌদি বাদশাহর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে প্রতিনিধিত্ব করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী। সাক্ষাতকালে সৌদি বাদশাহ বাংলাদেশের বিষয়ে তার গভীর আগ্রহের কথা প্রকাশ করেন। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে তাকে সালাম ও শুভেচ্চা জানান। প্রতিমন্ত্রী এ সময় মুসলিম উম্মার কল্যাণে সৌদি বাদশাহর উল্লেখযোগ্য অবদানের কথা স্মরণ করেন এবং সৌদি সরকার ও জনগণের প্রতি বাংলাদেশের জনগনের অকুন্ঠ সমর্থন থাকবে বলে জানান। সৌদি আরব থেকে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইনের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ খবর জানানো হয়।

শুভ জন্মদিন

সুমাইয়া বিন্তে রেজা’র ১ম জন্মদিনে শুভেচ্ছা। দীর্ঘজীবী হও।

শুভেচ্ছান্তেঃ

বাবা-মা, দাদা-দাদী, নানা-নানী, চাচু-চাচী, খালা-খালু এবং চাচাতো-খালাতো সকল ভাই-বোন।

গাংনীর চাঁদপুর গ্রাম উন্নয়ন দলের ফলোআপ সভা অনুষ্ঠিত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার রাইপুর ইউনিয়নের চাঁদপুর (ভিডিটি) গ্রাম উন্নয়ন দলের ফলোআপ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে চাঁদপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে  ফলোআপ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার সহযোগিতা করে দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ। সভায় সভাপতিত্ব করেন চাঁদপুর গ্রাম উন্নয়ন দলের  অন্যতম সদস্য সমাজ সেবক ডাক্তার শরিফ উদ্দীন ঠান্ডু। সভাটি সঞ্চালনা করেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ-এর রাইপুর ইউনিয়ন সমন্বয়কারী (ইউসি) জিএস সাজু। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর গ্রাম উন্নয়ন দলের  সভাপতি আলমগীর কবীর হিরো। এ সময় বক্তব্য রাখেন,গ্রাম উন্নয়ন দলের সদস্য সোহেল রানা, হাফিজুর রহমান, আব্দুল মান্নান, জিয়ারুল ইসলাম, সজিব হোসেনসহ দলের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। অংশগ্রহণকারীদের ঐক্যেমতের ভিত্তিতে আগামী জুন মাসে চাঁদপুর গ্রামের বিভিন্ন সমস্যাগুলো চিহ্নিত ও সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে সামাজিক মানচিত্র তৈরীর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় অনুষ্ঠিত এ ফলোআপ সভায়।

গাংনীতে ছাত্রলীগের ইফতার মাহফিল

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উদ্যোগে আলোচনাসভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় ভাটপাড়া (কসবা) মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বরে আলোচনাসভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, ধানখোলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ওবাইদুর রহমান।

সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুস সালাম বাধন। ধানখোলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াজ্জেল হোসেনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য সাহিদুজ্জামান খোকনের একান্ত সহকারী (পিএস) ও সাবেক ছাত্রনেতা আবু সুফিয়ান, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আব্দুস সামাদ সোহাগ। এ সময় বক্তব্য রাখেন গাংনী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাসন রাজা সেন্টু,  গাংনী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক (বর্তমান) বিপ্লব হোসেন, মেহেরপুর সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহম্মেদ, মেহেরপুর সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা, গাংনী পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিদ আল জাবির প্লাবন, গাংনী উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল অনিক, উপজেলা বঙ্গবন্ধু ফেডারেশনের সভাপতি জামিরুল ইসলাম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, ছাত্রনেতা আবির হামজা, ছাত্রনেতা ও সাংস্কৃতিক কর্মি সামিউজ্জামান সামি, ধানখোলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ন কবির লিখন ও সহ-সভাপতি হোসাইনসহ মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।

কুষ্টিয়ায় বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল

গতকাল বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উপলক্ষে সাফ‘র আয়োজনে কুষ্টিয়ায় পুনাক ফুড পার্কে আলোচনা সভা ও ইফতার প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়। সাফ‘র নির্বাহী পরিচালক ও জেলা তামাক নিয়ন্ত্রণ টাস্কফোর্স কমিটির সদস্য মীর আব্দুর রাজ্জাক এর পরিচালনায় দৌলতপুর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো: ছানোয়ার আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে আলোচনা করেন কুষ্টিয়া সরকারি মহিলা কলেজের সহযোগী অধ্যাপক অজয় মৈত্র, প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয়ের সহকারি পরিচালক শিরীন আক্তার। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার সামছুল আলম, পরিবেশবিদ গৌতম কুমার রায়, মিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ’র স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা: আব্দুল করিম। বক্তাগণ বলেন, এবারের প্রতিপাদ্য “তামাকে হয় ফুসফুসে ক্ষয়, সুস্বাস্থ্য কাম্য তামাক নয়” তাই তামাক চাষ, তামাকজাত দ্রব্য উৎপাদন ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে হবে। ফুসফুস ও শ্বাসতন্ত্র সংক্রান্ত অসুস্থতা বিশ্বব্যাপী অকাল মৃত্যুর অন্যতম কারণ এবং গোটা বিশ্বে মৃত্যুর ৫টি শীর্ষস্থানীয় কারণের মধ্যে ২টিই ফুসফুস ও শ্বাসতন্ত্র সংক্রান্ত জটিলতা। তামাক ব্যবহার এবং পরোক্ষ ধূমপান ফুসফুসের বিভিন্ন রোগের প্রধানতম কারণ। এই সমস্ত রোগের মধ্যে রয়েছে, ফুসফুস ক্যান্সার, ক্রনিক অবস্ট্রাক্টিভ পালমোনারি ডিজিস (সিওপিডি), যক্ষা এবং অ্যাজমা। তামাক ব্যবহারের ফলে প্রতি বছর বিশ্বে ৮০ লাখেরও বেশী মানুষ মারা যায়। এছাড়া পরোক্ষ ধূমপানের কারণে মৃত্যুবরণ করে আরো প্রায় ১০ লাখ মানুষ, যার বড় একটি অংশ শিশু। তামাকজনিত রোগ ও অকাল মৃত্যুর কারণে বাংলাদেশে প্রতিবছর ৩০ হাজার ৫৭০ কোটি টাকা সমপরিমান অর্থনৈতিক ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছে। ফুসফুসের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় তামাকজাত দ্রব্যের দাম বাড়িয়ে ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণের এডি বলেন, সিগারেট না খেয়ে কেউ মাদকে আসক্ত হয় না। ১৮ বছরের নিচে আইন ভঙ্গ করে কাহারও নিকট সিগারেট বিক্রয় না করলে যুব সমাজকে নেশার হাত থেকে অনেকাংশে রক্ষা করতে পারবো। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার সভাপতি মুকুল খসরু, হাজী মো: আব্দুল মালেক রানা, ডা: হারুন অর রশিদ, ডা:এ মান্নান, রাছেল রানা, সাদিক হাসান প্রমুখ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

 

গাংনীতে অগ্নিকান্ডে লক্ষাধিক টাকার মালামাল ভস্মীভূত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়নের কসবা গ্রামে একটি বসতঘরে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় এক লক্ষাধিক টাকার মালামাল ভস্মীভূত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে কসবা গ্রামের লাভলু হোসেনের বাড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। গৃহকর্তা লাভলু হোসেন জানান, রাতে মশা তাড়াবার জন্য  শোবার ঘরে মশার কয়েল জ্বালিয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। এ সময় ঘরের মধ্য আগুনের ফুলকি ঝলকানোর কারণে আমিসহ পরিবারের লোকজন জেড়ে উঠে। পরে প্রতিবেশীদের সহযোগিতা নিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তার আগেই আগুনে ঘরের রাখা ২০ হাজার টাকা,ধান-চাউলসহ আনুমানিক এক লক্ষ টাকার বেশি ক্ষতি হয়েছে। মশার কয়েলের আগুনে এ ঘটনা ঘটেছে।

 

ভাষা সৈনিক লায়লা নূর আর নেই

ঢাকা অফিস ॥ ভাষা সৈনিক ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজের প্রথম নারী অধ্যাপক লায়লা নূর মারা গেছেন। গতকাল শুক্রবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে কুমিল্লার সিডিপ্যাথ হাসপাতালে ৮৫ বছরে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বলে বলে তার নাতি গোলাম জিলানী জানান। তার মৃত্যুর সংবাদে তার ছাত্র ও সুধীজনেরা হাসপাতালে ছুটে আসেন। বাদ আছর নগরীর ধর্মপুর পূর্বপাড়া জামে মসজিদে জানাজা শেষে তাকে গাজীবাড়ি কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে। পরিবারের সদস্যরা জানান, ১৯৩৪ সালের ৫ অক্টোবর কুমিল্লায় জন্ম নেওয়া লায়লা নূর দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। গত ২৮ মে রাতে নগরীর প্রফেসর পাড়ায় নিজ বাসভবনে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হলে সিডিপ্যাথ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১৯৫২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ছাত্রী লায়লা নূর ভাষা আন্দোলনের পক্ষে মিছিল করে গ্রেফতার হন। ১৯৫৭ সালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজে প্রথম নারী শিক্ষক হিসেবে ইংরেজি বিভাগে যোগদান করেন এবং ১৯৯২ সালে অবসরে গ্রহণ করেন। শিক্ষাক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য প্রফেসর লায়লা নূরকে ‘বিনয় সম্মাননা পদক-২০১৪’ প্রদান করা হয়।

মোদীর মন্ত্রিসভা – অমিত শাহ স্বরাষ্ট্র, রাজনাথ প্রতিরক্ষায়

ঢাকা অফিস ॥ ভারতের জাতীয় নির্বাচনে বিজেপির দারুণ জয়ে নেতৃত্ব দেওয়া অমিত শাহই হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডানহাত। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পদে মোদী তার পরীক্ষিত এই সহযোদ্ধাকেই বেছে নিয়েছেন। গত মেয়াদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা রাজনাথ সিংকে এবার দেওয়ার হয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা নির্মলা সীতারামান পেয়েছেন অর্থ মন্ত্রণালয়। ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হওয়া প্রথম নারী নির্মলা এবার দেশটির প্রথম নারী অর্থমন্ত্রী হচ্ছেন। দুর্বল স্বাস্থ্যের কারণে নতুন সরকারের মন্ত্রিসভা থেকে আগেরবারের অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির বাদ পড়া নিশ্চিতই ছিল। একই কারণে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজও এবার বাদ পড়েছেন। তবে নির্মলার অর্থ মন্ত্রণালয়ের মত গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাওয়া কিছুটা অপ্রত্যাশিতই ছিল প্রথমবারের মত মন্ত্রিসভায় জায়গা পাওয়া কূটনীতিক এস জয়শঙ্কর এসেই বাজিমাত করেছেন। পররাষ্ট্রের মত গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন তিনি। কংগ্রেসের ঘরের মাঠ আমেঠীতে খোদ কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে হারিয়ে দেওয়ার পুরস্কার হাতে হাতেই পেয়েছেন স্মৃতি ইরানি। বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের মত কম গুরুত্বপূর্ণ জায়গা থেকে এবার তিনি নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে। প্রকাশ জাভড়েকর তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পাচ্ছেন। খাদ্য মন্ত্রী হচ্ছেন রাম বিলাস পাসওয়ান। বৃহস্পতিবার রাজধানী নয়াদিল্লির রাইসিনা হিলে সন্ধ্যা ৭ টায় মোদী দেশের ১৫ তম প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেন। তাকে শপথবাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। মোদীর সঙ্গে প্রথমেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছেন রাজনাথ সিং, অমিত শাহ, নীতিন গডকরি, সদানন্দ গৌড়া। এরপর একে একে শপথ নেন অন্যান্যরাও। নতুন মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছেন প্রায় ৫৮ জন। এদের মধ্যে ২৫ জন পূর্ণমন্ত্রী। পশ্চিমবঙ্গ থেকে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন দুই সাংসদ- বাবুল সুপ্রিয় এবং দেবশ্রী চৌধুরী। শপথের পর রাতে এক টুইটে মোদী নিজের নতুন দলকে ‘টিম ২.০’ বলে বর্ণনা করেন। বলেন, তার দল ‘তরুণদের শক্তি ও প্রশাসনিকভাবে অভিজ্ঞদের মিশেল’।

 

স্বস্তিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি খোরশেদ ও তার ক্যাডার বাহিনীর তান্ডব!

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া সদর উপজেলার স্বস্তিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি খোরশেদ আলম ও তার পক্ষীয় ১৫-১৬ জনের একদল সশস্ত্র ক্যাডার ওই বিদ্যালয়ের সহ-শিক্ষক ও শিক্ষক প্রতিনিধি, ম্যানেজিং কমিটি এর বাড়ীতে গিয়ে বল প্রয়োগ করে তথাকথিত রেজুলেশন খাতায় স্বাক্ষর করিয়ে নিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । এ ঘটনায় অপমান ও চরম লাঞ্ছনার স্বীকার উক্ত শিক্ষক সজ্ঞাহীন হয়ে পড়েলে তাকে জরুরী ভিত্তিতে চিকিৎসকের স্মরনাপন্ন হতে হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মিজানুর রহমান স্যালাইনরত অবস্থায় ছিলেন। সূত্রে জানা যায় মিজানুর রহমান গত ১৪ মে ম্যানেজিং কমিটি থেকে ইস্তফা দেন। গত ৮ মে স্বস্তিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রুহুল আমীন ম্যানেজিং কামিটির সভাপতির বিরুদ্ধে যশোর শিক্ষা বোর্ডে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ প্রেক্ষিতে বোর্ড কর্তৃপক্ষ গত ২২ জেলা প্রশাসক, কুষ্টিয়া বরাবর উক্ত অভিযোগের তদন্ত চেয়ে একটি পত্র প্রেরণ করে। তদন্তের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। এরই মধ্যে সভাপতি খোরশেদ আলম ক্ষিপ্ত হয়ে কোন নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে প্রধান শিক্ষককে একের পর এক কারণ দর্শানো নোটিশ জারি করে যাচ্ছেন। সর্বশেষ গত ২৫ মে ম্যানেজিং কমিটির কোন সভা ছাড়ায় চুড়ান্ত কারণ দর্শনো নোটিশ জারি করেছেন। এবারে প্রধান শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করার অপপ্রয়াসে একটি সভা প্রয়োজন তাই মিজানুর রহমানকে দিয়ে জোর পূর্বক স্বাক্ষর নিয়ে ম্যানেজিং কমিটির কোরাম পুরণ করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে এই খোরশেদ বাহিনী। সুত্রমতে জানাযায় গত ১৪ মে ১৩ জন সদস্যের ৭ জন সদস্য ম্যানেজিং কমিটির পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। সভাপতি খোরশেদ আলমের এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার জন্য এলাকার সূধীজনচরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তার এই দূর্বৃত্তায়ন কার্যকলাপের দ্রুত প্রতিকার চেয়ে পুলিশ সুপারসহ জেলা প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার সাধারন মানুষ।

আলমডাঙ্গায় গাঙচিল সাহিত্য ও সাংস্কৃৃতিক পরিষদের উদ্যোগে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গায় গাঙচিল সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের উদ্যোগে মোড়ক উন্মোচন, আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। আলমডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদের সভাপতি আফম সিরাজ সামজীর সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মুন্সি আসাদুজ্জামান মুন্সি। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহ আলম মন্টু। বিশেষ অতিথি ছিলেন থানার ওসি তদন্ত শেখ মাহবুবুর রহমান, প্রভাষক ও কবি আসিফ জাহান, বিআরডিবির চেয়ারম্যান মহিদুল ইসলাম মহিদ, গবেষক ও কবি ডঃ হেলাল উদ্দিন, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান কবি আরশাদুল আলম মন্টু। গাঙচিল  কেন্দ্রীয় কমিটি সমন্বয়ক প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক হামিদুল ইসলাম আজমের উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন মীর শামছদ্দীন আহম্মেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ার রশীদ সাগর, এ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন মঞ্জু, কলেজিয়েট স্কুলের উপাধ্যক্ষ শামীম রেজা, প্রধান শিক্ষক নাসির উদ্দিন এটোম, শিক্ষক জামিরুল ইসলাম, বিশিষ্ট কবি ডাঃ জাকারিয়া আলম, প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক প্রশান্ত বিশ^াস, শরিফুল ইসলাম রোকন প্রচার সম্পাদক, কবি গোলাম রহমান চৌধুরী, প্রেসক্লাব সদস্য নাসির উদ্দিন,  গোলাম সরওয়ার প্রমুখ। অনুষ্ঠানে লেখক ড. হেলাল উদ্দিনের “বর্ণ বিজ্ঞান” বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

ইসি কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ গঠিত

ঢাকা অফিস ॥ নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয় ও মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ১১১ সদস্য বিশিষ্ট ঐক্য পরিষদ গঠন করেছেন। ঐক্য পরিষদে সভাপতি হিসেবে জীবন ইবনে মাসুম, সহ-সভাপতি আশরাফুল আলম, আবু সুফিয়ান, অরবিন্দ দাশ, মুনছুর আহমদ, মহাসচিব হিসেবে রকিব হোসেন, যুগ্ম-মহাসচিব হিসেবে মুহাম্মদ উসমান গণি (হিসাব), সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে মো. আসাদুজ্জামান, জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ বিভিন্ন পদে নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর গেজেটেড অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারী সমিতি, মাঠ পর্যায়ের তৃতীয় শ্রেণীর কর্মচারী সমিতি, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়, মাঠ পর্যায়ের গাড়ি চালক সমিতি, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী সমিতি, মাঠ পর্যায়ের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী সমিতির কার্যকরী কমিটির সদস্যদের উপস্থিতি ও সম্মতিতে গঠিত এ কমিটি আগামি দুই বছর দায়িত্ব পালন করবে। ইসির জনসংযোগ শাখার কর্মকর্তা ও সংগঠনের সহ-সভাপতি আশারাফুল আলম বলেন, ইসি কর্মকর্তা কর্মচারীদের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে কাজ করাসহ নানামুখী দায়িত্ব পালনের জন্য ২৯ মে এ কমিটি গঠিত হয়।

সুরঞ্জন ঘোষ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় হালসায় গণসংবর্ধনা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার আমবাড়ীয়া ইউনিয়নের কৃতিসন্তান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সুরঞ্জন ঘোষ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায় হালসায় গণসংবর্ধনা দিয়েছে  জেলা, উপজেলা ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতৃবৃন্দ ৷ জানা যায় সুরঞ্জন ঘোষ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথমবারের মত নিজ জন্মস্থান আমবাড়ীয়ার নগরবাকা গ্রামে আগমন করছে সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার দুপুরে হালসা বাজারে পৌঁছানো মাত্র জেলা ছাত্রলীগ, মিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগ, ইউনিয়ন ছাত্রলীগ, বিভিন্ন কলেজ শাখা ছাত্রলীগ একত্রে মিলিত হয়ে ফুলের মালা ও ফুলের তোড়া দিয়ে সুরঞ্জন ঘোষকে গণসংবর্ধণা দেন ৷ ফুলেল ভালবাসায় শিক্ত সুরঞ্জন ঘোষ সকলের প্রতি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ৷ হালসা কলেজ মাঠে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আনিসুর রহমান, সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহিল মাসুদ (সুইট), কাজী মিলন আহমেদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তানভীর আনছারী রঞ্জু, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা শান্ত বিশ্বাস, এসকেন আহমেদ, রাসলে আহমেদ, কুষ্টিয়া সরকারী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সিনিঃ সহ-সভাপতি খাদেমুল, কুর্শা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সুমন, সাধারণ সম্পাদক মুক্তার, যুবলীগ নেতা সুমন আহম্মেদ, ছাতিয়ান ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা বোরহান উদ্দিন, হালসা কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আহবায়ক সাদ্দাম আহমেদ, যুগ্ম-আহবায়ক জাহিদ হাসান মামুন প্রমূখ ৷ এছাড়াও সদর উপজেলার  গোস্বামী দূর্গাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ, সদর উপজেলা যুবলীগ নেতা আনোয়ারুল হক বাচ্চু, শামসুজ্জামান শিপন, আব্দুল কুদ্দুস (মাসুদ) ফুলের তোড়া দিয়ে সুরঞ্জন ঘোষকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করেন ৷

দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র পৃথক অভিযানে ফেনসিডিল, গাঁজা ও মদ উদ্ধার 

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র পৃথক অভিযানে ফেনসিডিল, গাঁজা ও মদ উদ্ধার হয়েছে। তবে উদ্ধার হওয়া মাদকের সাথে জড়িত কেউ আটক হয়নি। বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১২টার দিকে উপজেলা প্রাগপুর ইউনিয়নের সীমান্ত সংলগ্ন জামালপুর কবরস্থানে জামালপুর বিওপি’র টহল দল অভিযান চালিয়ে মালিক বিহীন অবস্থায় ২৫বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। অপরদিকে বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে ধর্মদহ বিওপি’র টহল দল আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের ধর্মদহ কাঠাল বাগানে অভিযান চালিয়ে ২কেজি গাঁজা ২০বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। এছাড়াও মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিলগাথুয়া বিওপি’র টহল দল প্রাগপুর ইউনিয়নের বিলগাথুয়া মাঠে অভিযান চালিয়ে ১৫ বোতল ফেনসিডিল ও ৭ বোতল ভারতীয় বেঙ্গল টাইগার মদ উদ্ধার করেছে। তবে উদ্ধার হওয়া মাদকের সাথে জড়িত কেউ আটক হয়নি।

কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে ঈদ বস্ত্র বিতরণ

বঙ্গবন্ধু পরিষদের কেন্দ্রিয় সাধারণ সম্পদক এবং প্রধানমন্ত্রীর সাবেক রাজনৈতিক উপদেষ্টা ডা.এস এ মালেকের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখা দীর্ঘ ৩৪ বছর যাবত বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে প্রতি বছরের ন্যায় এবারো কুষ্টিয়ায় অসহায় দুস্থদের মাঝে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় শহরের আমলাপাড়াস্থ সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ বস্ত্র বিতরণ করা হয়। বস্ত্র বিতরণ করেন বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি মতিউর রহমান লাল্টু। এসময় কয়েকশ হতদরিদ্রদের মাঝে শাড়ী ও লুঙ্গী বিতরণ করা হয়। বিতরণ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সিনিয়র সহসভাপতি এ্যাড. নজরুল ইসলাম সরকার, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. শামসুর রহমান বাবু প্রমুখ। এসময় মতিউর রহমান লাল্টু বলেন, দরিদ্রদের সাহায্যে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। গুটি কয়েক লোকের জন্য সমাজের অধিকাংশ মানুষ দারিদ্রতায় আবদ্ধ হয়ে থাকছে। ফলে সমাজে ভেদাভেদ সৃষ্টি হচ্ছে। এ থেকে মুক্তি পেতে আমাদের সকলকে দেওয়ার হাত প্রসারিত করতে হবে। বঙ্গবন্ধু মহিলা পরিষদ নেত্রী নিলুফার রহমান এ্যানি ও আমেরিকা প্রবাসী কানিজ হাসান মালার সৌজন্যে এ বস্ত্র বিতরণ করা হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

গাংনীতে একশ পরিবারের মাঝে সেমাই চিনি বিতরন

গাংনী অফিস ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার বামন্দী ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের একশ গরীব ও দুস্থ পরিবারের মাঝে সেমাই চিনি বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে দেবীপুর গ্রামের সমাজ সেবক নুরে আলম রিন্টু ব্যক্তিগতভাবে সেমাই চিনি প্রদান প্রদান করেন। এসময় তিনি বলেন সমাজের বিত্তবানরাও যদি এগিয়ে আসে তাহলে সমাজের কোন অসহায় মানুষ ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত হবে না। ঈদের আগে সেমাই চিনি পেয়ে খুশি পরিবার গুলো।

আলমডাঙ্গায় ২ টাকায় আইসিটি প্রশিক্ষণ কর্মশালা

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গায় ২ টাকায় আইসিটি ক্লাস কার্যক্রমের সমাপনী দিনে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে। সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি-২০১৪ ব্যাচ ও স্বপ্ন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কে-টু লার্ন আইসিটি বিষয়ক ৫ দিনের কর্মশালার সমাপনী দিনের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রশিক্ষণের মুল উদ্যোক্তা বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের ছাত্র মুসাব ইবনে শাফায়েত। প্রধান অতিথি ছিলেন সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল ইসলাম খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন আলমডাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহ আলম মন্টু, সাধারন সম্পাদক খন্দকার হামিদুল ইসলাম আজম, সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজী বিষয়ের শিক্ষক আনোয়ারুজ্জামান।

রমজানে রাত্রিকালিন ইবাদতের গুরুত্ব অনেক বেশি

আ.ফ.ম নুরুল কাদের ॥ রাসুল সা: রমজান মাসে কিয়ামুল লাইল বা রাত্রিকালীন ইবাদতকে অত্যধিক গুরুত্ব দিয়েছেন। তিনি অন্য যেকোনো মাসের তুলনায় এ মাসে বেশি কিয়ামুল লাইল করেছেন। কিয়ামুল লাইল করলে গুনাহ মাফের নিশ্চয়তা রাসূল সা: দিয়েছেন। রাসূল সা: বলেছেনÑ নিশ্চয়ই আল্লাহ পাক রমজান মাসের রোজা তোমাদের উপর ফরজ করেছেন। আর আমি তোমাদের জন্য নিয়ম করেছি এ মাসের কিয়ামুল লাইল বা রাত্রিকালীন ইবাদতকে। সুতরাং কোনো ব্যক্তি যদি পূর্ণ ঈমান সহকারে এবং গুনাহ মাফের আশায় এ মাসে রোজা রাখে ও কিয়ামুল লাইল করে, তাহলে সে এমন নিষ্পাপ হয়ে যায়, যেমন নিষ্পাপ তার মা তাকে প্রসব করেছে। তিনি আরো বলেনÑ যে ব্যক্তি রমজান মাসে পূর্ণ ঈমান সহকারে ও গোনাহ মাফের আশায় কিয়ামুল লাইল করবে, তার আগের সব গোনাহ মাফ করে দেয়া হবে। এ মাসে রাসূল সা: নিজেও কিয়ামুল লাইল করেছেন এবং আমাদেরও তা করতে বলেছেন।

রাত্রিকালীন ইবাদত তারাবিহ বা অন্য নামাজও হতে পারে। তারাবিহ নামাজে কুরআন খতম করার  রেওয়াজ সারা দুনিয়ায় আছে। কুরআন নাজিলের মাসে প্রতি রমজানে তারাবিহর মাধ্যমে কুরআন অন্তত এক খতম হয়। রমজানে কুরআনের এক খতম অন্যান্য মাসের অন্তত ১০ খতমের সমান। আমাদের মনে রাখা উচিত, নামাজে যত বেশি সহিহ শুদ্ধ করে কুরআন তিলাওয়াত করা হবে, আমাদের নামাজ তত বেশি সহিহ শুদ্ধ হবে। রাসূল সা: তার জীবনে রাত্রিকালীন নফল নামাজ ও তাহাজ্জুদ নামাজই বেশি পড়েছেন। রাসূল সা: তাঁর জীবনে মাত্র তিন রাত তারাবিহ নামাজ পড়েছেন এবং জামাত সহকারে তিনি পড়েছেন। তিনি তিন রাতই রাতের শেষভাগে তারাবিহ আদায় করেছেন। তারাবিহ নামাজ ফরজ বা অপরিহার্য হওয়ার ভয়ে রাসূল সা: তা পরিত্যাগ করেছেন। যেমন রাসূল সা: নিজেই বলেছেনÑ আমার আশঙ্কা হচ্ছে, তোমরা একে ফরজ করে নিবে অথবা তোমাদের উপর ফরজ করা হবে। রাসূল সা: পরিত্যাগ করলেও সাহাবিগণ ব্যক্তিগতভাবে তা অব্যাহত রেখেছেন। রাসূল সা:-এর সাথে সাহাবিগণ জামাতে আট রাকাত আদায় করতেন এবং বাকি ১২ রাকাত অনেকে ব্যক্তিগতভাবে পড়ে নিতেন। তারাবিহ নামাজ অপরিহার্য হওয়ার ভয়ে রাসূল সা: জামাত পরিত্যাগের পর তা পুনরায় চালু করেন হজরত ওমর রা:। মাঝখানে কয়েক বছর সাহাবিগণ তা ব্যক্তিগতভাবে বা ছোট ছোট জামাত আকারে আদায় করেছেন। হজরত ওমর রা: ছোট ছোট জামাতের প্রথা বিলুপ্ত করে একসাথে তারাবিহ নামাজ পড়ার আদেশ দেন। হজরত ওমর রা: মনে করলেন, রাসূল সা: যেহেতু আট রাকাত জামাতের সাথে এবং বাকি ১২ রাকাত ব্যক্তিগতভাবে পড়েছেন, তাই (৮+১২)=২০ রাকাত নামাজই পড়া দরকার। তাই তিনি ২০ রাকাত নামাজ কেন্দ্রীয়ভাবে বা সবাই সম্মিলিতভাবে আদায় করার জন্য হজরত উবাই ইবনে কাবকে ইমাম নিযুক্ত করেন। তৎকালীন কোনো সাহাবায়ে কেরাম এর বিরোধীতা করেননি বরং সব সাহাবায়ে কেরামের ঐক্যমতের ভিত্তিতেই তা হয়েছে। হজরত ওসমান রা: এবং হজরত আলীর রা: শাসনামলেও এর অনুসরণ করা হয়। তিনজন খলিফার একমত হওয়া এবং সাহাবায়ে কেরামগণের ভিন্নমত পোষণ না করার কারণে বলা যায়, রাসূল সা:-এর সময় থেকে তা ২০ রাকাত পড়ার অভ্যাস ছিল। ইমাম আবু হানিফা র:, ইমাম শাফেয়ি র: ও ইমাম আহমদ র: তারাবিহ ২০ রাকাত পড়তেন। তবে আহলে হাদিসের অনুসারীরা আট রাকাত নামাজ আদায় করে। তারা আট রাকাতকেই প্রতিষ্ঠিত সুন্নত বলে মনে করেন। ইমাম মালেক র: ৩৬ রাকাতে তারাবিহ আদায় করতেন। তিনি বলেনÑ শতাধিক কাল ধরে মদিনায় তিন রাকাত বিতর ও ৩৬ রাকাত তারাবিহ পড়ার প্রচলন ছিল। সুতরাং তারাবিহ নামাজ যত রাকাতই পড়া হোক না কেন, তা কিয়ামুল লাইল হিসেবে গণ্য হবে। মসজিদে ইমাম সাহেব যত রাকাত তারাবিহ নামাজ জামাতের সাথে আদায় করেন ঠিক তত রাকাত নামাজ ইমাম সাহেবের সাথে আদায় করলে বা শেষ রাকাত পর্যন্ত আদায় করলে, রাসূল সা: বলেছেনÑ সারারাত কিয়ামুল লাইলের ছওয়াব তাকে দেয়া হবে।

এবারও অসহায় দুস্থ মানুষের মাঝে ঈদবস্ত্র বিতরণ করলেন ড. মোফাজ্জেল হক

নিজ সংবাদ ॥ প্রতিবারের মত এবারের ঈদ-উল ফিতরেও অসহায় হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ালেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটির অন্যতম সদস্য ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ড. মোফাজ্জেল হক। তিনি গতকাল শুক্রবার দিনব্যাপী কুষ্টিয়ার সীমান্তবর্তী উপজেলা দৌলতপুরের মহিষকুন্ডি ও লালনগর এলাকায় অসহায় দুস্থদের মাঝে ঈদবস্ত্র বিতরণ করেন। এসময় ড. মোফাজ্জেল হক বলেন অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো প্রত্যেক সামর্থবান মানুষের পবিত্র দায়িত্ব। সেই দায়িত্ব যদি সবাই যথাযথভাবে পালন করেন তাহলে দরিত্র অসহায় মানুষ বলে কিছুই থাকতনা। আমার সামর্থ অনুযায়ী প্রতিবারই আল্লাহ আমাকে ওইসব মানুষের পাশে দাঁড়ানোর তৌফিক দান করেন। এবারও ওইসব মানুষের সহায়তায় পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে করছি।

সহায়তা পেয়ে অসহায় ওইসব মানুষ ড. মোফাজ্জেল হকের দীর্ঘায়ু কামনা করে দোয়া করেন।  সকাল ১১টায় মহিষকুন্ডি গ্রামে ঈদবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে ড. মোফাজ্জেল হক ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন থানা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক রুবেল হালসানাসহ স্থানীয় গণমান্য ব্যক্তিবর্গ। এছাড়া লালনগর এলাকায় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও জেলা যুবলীগের অন্যতম নেতা প্রভাষক স্বপন আলীসহ স্থানীয় নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

 

তারেক রহমানের নেতৃত্বে এগিয়ে চলছে বিএনপি – রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নেতৃত্বে সব পর্যায়ের নেতাকর্মী ঐক্যবদ্ধ। তার নেতৃত্বে এগিয়ে চলছে বিএনপি। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ মিছিল শেষে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। ঈদের আগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এ বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করা হয়। সমাবেশে রিজভী বলেন, বিএনপির সিনিয়র নেতা থেকে তৃণমূল পর্যন্ত সব পর্যায়ের নেতাকর্মীর সঙ্গে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রাখছেন তারেক রহমান। তিনি বিভিন্ন মাধ্যমে তাদের সঙ্গে কথা বলছেন, খোঁজখবর রাখছেন এবং সাংগঠনিক নির্দেশনা দিচ্ছেন। বিএনপির এ নেতা আরও বলেন, দলকে গতিশীল রাখতে ও সাংগঠনিক তৎপরতা বাড়াতে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক টিম ইতিমধ্যে প্রায় সব জেলা সফর করে সাংগঠনিক প্রতিবেদন পেশ করেছেন। ‘বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদকরা সংশি¬ষ্ট জেলার সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ করে সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করছেন এবং সেই অনুযায়ী দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দলের পরবর্তী কার্যক্রমের দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন।’ রিজভী বলেন, তারেক রহমানের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন। দলের কমিটি গঠন, বিভিন্ন কর্মসূচি প্রণয়ন সবই দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ করে বাস্তবায়ন করছেন। এ সময় তিনি বিএনপিকে ভাঙার সরকারের কোনো অপচেষ্টাই সফল হয়নি বলে মন্তব্য করেন। রিজভী বলেন, জাতীয় নির্বাচনের আগের রাতে ব্যালটে সিল মেরে সরকার গঠন করেও তাদের স্বস্তি নেই। দেশ-বিদেশে বিতর্কিত সেই নির্বাচন বৈধতা পায়নি। তাই বিভিন্ন সংস্থা দিয়ে সরকার বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কুৎসা রটানোর অপচেষ্টা করছে। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি। তিনি বলেন, সরকার ও গোয়েন্দা সংস্থা নানা কূটকৌশল করে বিএনপির মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে না পেরে এখন কিছু গণমাধ্যমকে দিয়ে মনগড়া কল্পকাহিনি রচনা করছেন, যার সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই। রিজভী আরও বলেন, গত দুদিন আগে ইংরেজি পত্রিকার সম্পাদক মাহফুজ আনাম বলেছেন, যা চাচ্ছি তা লিখতে পারছি না। অনেক ইস্যুতে লেখা উচিত, যেমন ধরুন- গত নির্বাচন। এ ছাড়া আরও ছোট নির্বাচনগুলো নিয়ে লেখা উচিত, যা লেখা ও বলা উচিত তা ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও লিখতে ও বলতে পারছি না। ‘এ হলো বর্তমানে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা! কীভাবে গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে যে, মাহফুজ আনামের মতো বরেণ্য সাংবাদিকরাও কলম চালাতে সাহস পান না।’ রিজভী বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে সরকারের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সংস্থাগুলো কার্যত গণমাধ্যমের ‘সুপার এডিটর’ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। গণমাধ্যমের কোন খবর ছাপানো যাবে, কোনটি ছাপানো যাবে না- এসব কিছু তাদের খেয়ালখুশির ওপর নির্ভর করছে। আর সে কারণেই বিরোধী দলের বিরুদ্ধে মিথ্যা সাজানো গল্প বানিয়ে দিচ্ছে গোয়েন্দা সংস্থা, আর সেগুলোই কিছু মিডিয়া হেডলাইন করে ছাপাচ্ছে। এর আগে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়। নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে এসে মিছিলটি শেষ হয়। রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে মিছিলে অংশগ্রহণ করেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য টিএস আইয়ুব, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সহসভাপতি আলমগীর হোসেন সোহান, সহসাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলাম মিঠু, সহসাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ইফতে খায়রুজ্জামান শিমুল, ছাত্রদল নেতা জিসান, সুমন হোসেনসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের কয়েক শতাধিক নেতাকর্মী।

কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক ট্রাক্টর কাভার্ডভ্যান ট্রাক লরি শ্রমিক ইউনিয়নের উদ্যোগে মৃত পঙ্গু ও অসুস্থ শ্রমিকদের আর্থিক অনুদান প্রদান

কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক ট্রাক্টর কাভার্ডভ্যান ট্রাক লরি শ্রমিক ইউনিয়ন রেজিঃ নং খুলনা ১১১৮ সাবেক কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক ট্রাকলরি ও কাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে মৃত পঙ্গু ও অসুস্থ শ্রমিকদের আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান (আতা)। সংগঠনের সভাপতি মাহাবুল হাসান রানা অসুস্থ থাকার কারনে তার পক্ষে বক্তব্য রাখেন জেলা ট্রাক ট্রাক্টর কাভার্ডভ্যান ট্রাক লরি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক শাহিন বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে ৮৪ জন পঙ্গু, অসুস্থ ও মৃত শ্রমিক সদস্যের স্বজনদের হাতে সর্বমোট ৮লক্ষ টাকা অনুদান প্রদান করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া জেলা ট্রাক ট্রাক্টর কাভার্ডভ্যান ট্রাকলরি শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরি-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ শাজাহান আলী, সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাহিন বিশ্বাস, যুগ্ন সম্পাদক মোহাম্মদ আলম মালিথা, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ওমর ফারুক, কোষাধ্যক্ষ আসাদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিচ্ছাদ আলী, প্রচার সম্পাদক আজাদুল ইসলাম তারেক, দপ্তর সম্পাদক ইমদাদুল হক নান্টু, সড়ক সম্পাদক সরোয়ার আলী, ক্রীড়া সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, সদস্য আক্তার হোসেন, সদস্য ফারুক হোসেন, ভুটু মন্ডল, অফিস সেক্রেটারী শাহজাহান আলী প্রমুখ। অনুদান অনুষ্ঠানে সকল শ্রমিকদের সুস্থতা ও মঙ্গল কামনা করা হয়।

এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে – সেতুমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এবারের ঈদযাত্রা অন্যান্য বছরের চেয়ে অনেকটা স্বস্তি ও আরামদায়ক হবে। তিনি বলেন, ‘এ বছর ঈদে সড়ক কিংবা মহাসড়কে কোথাও যানজট হওয়ার আশঙ্কা নেই। রাস্তায় সমস্যা নেই, সমস্যা শুধু যানবাহনের শৃঙ্খলায়। যানবাহনে শৃঙ্খলা এলে আমার মনে হয় এবার ঢাকাসহ সারা দেশে কোথাও রাস্তায় যানজট হবে না।’ গতকাল শুক্রবার রাজধানীর গাবতলী বাস টার্মিনালে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিরুদ্ধে পরিচালিত মোবাইল কোর্টের কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। সেতুমন্ত্রী বলেন, এবার কিছুটা সমস্যা হবে গাজীপুর থেকে বিমানবন্দর সড়কে। এ রাস্তায় বিআরটিএর কাজ চলছে। গাজীপুরের মেয়র সেখানে ৩০০ স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করবেন। সেখানে একটু অস্বস্তি হবে। এই অংশ ছাড়া বাংলাদেশের আর কোথাও সমস্যা হবে না। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, গাজীপুর, টঙ্গী ও বিমানবন্দর সড়কে কোনো নির্মাণকাজ যদি সমস্যার সৃষ্টি করে, তাহলে ঈদের সময় সে কাজ প্রয়োজনে বন্ধ রাখা হবে। মন্ত্রী বলেন, ঈদে যানজটমুক্ত পরিবেশে মানুষ যেন তাদের প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদ করতে যেতে পারে, এ জন্য সরকারের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিনি বলেন, দূরপাল্লার যাত্রায় চাঁদাবাজি যেন না হয়, সে দিকে কঠোর নজরদারি রাখা হচ্ছে। চাঁদাবাজি বন্ধে ইতিমধ্যে পুলিশ, র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ ও সুনির্দিষ্ট প্রমাণ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মন্ত্রী বলেন, ঈদের সময় যানবাহনে অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরকার তথা বিআরটিএ নির্ধারিত ভাড়ার বেশি টাকা নেওয়া যাবে না।

গাড়িচালক ও মালিকদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, গাড়ির চালকেরা রাস্তায় গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোনে কথা বলতে পারবেন না। তাঁরা যেন এ সময় মোবাইল ফোন ব্যবহার না করেন, সেদিকে নজর দিতে হবে। পরিবহন মালিকেরাও যেন নিয়মনীতি মেনে গাড়ি চালান। গাবতলীতে বিআরটিসি এসি বাসে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘৮০০ টাকার ভাড়া ১৫০০ টাকা হবে, এটা হতে পারে না। চলতে পারে না। তার একটা সীমারেখা থাকা দরকার। মানুষের যেন কষ্ট না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এসি টিকিটের ভাড়া যেন রিজনেবল থাকে। বিবেকের অনুশাসন যেন মানা হয়।’ এ সময় বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথোরিটির (বিআরটিএ) চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মশিয়ার রহমান, ঢাকা জেলা যানবাহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো. আব্বাস উদ্দিন, বিআরটিএ’ ভিজিল্যান্স টিমের কর্মকর্তা আনিছুর রহমান, গাবতলী আন্তজেলা টার্মিনালের নেতা মো. রায়হানসহ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর, পুলিশ, র‌্যাবের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।