মিয়ানমার সেনাবাহিনীকে একঘরে করার আহ্বান জাতিসংঘের

ঢাকা অফিস ॥ মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সঙ্গে অর্থনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। রাখাইনে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে হামলার জন্য গঠিত জাতিসংঘের ‘ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশন’ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি এ আহ্বান জানিয়েছে। মিশনটির এক বিবৃতিতে বলা হয়, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের বিষয়ে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও দেশটির সরকার এখন পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো নির্যাতনের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে চাপ প্রয়োগ করতে হবে, যেন তারা এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ নেয়। রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতন বিষয়ক ‘ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনের’ প্রধান মারসুকি ডারুসমান মিয়ানমারের প্রতিবেশী দেশগুলোতে ১০ দিনের এক সফর শেষে বলেন, ‘রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের জন্য মিয়ানমার সরকারের কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার প্রয়োজন ছিল। কিন্তু দুঃখজনক হলো, তারা এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।’ তিনি আরও বলেন, এমন পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ানমারের উপর চাপ প্রয়োগ করতে হবে যেন তারা রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে যথাযথ ও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করে। উল্লেখ্য, পশ্চিমা দেশগুলোর সাথে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সরাসরি কোনো সম্পর্ক নেই। তবে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী দেশটির বেশ কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত, যেসব প্রতিষ্ঠানের সাথে পশ্চিমা দেশগুলোর বাণিজ্যিক সম্পর্ক রয়েছে। পশ্চিমা দেশগুলো যদি এ প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে অর্থনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে, তবে তা মিয়ানমারের সেনাবাহিনীকে চাপের মুখে ফেলবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০১৭ সালে রোহিঙ্গাদের উপর নির্যাতনের ঘটনার পর জাতিসংঘের ‘ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশন’ এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করে। ঘটনার এক বছর পর প্রকাশিত তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের ওপর আন্তর্জাতিক আইন ও মানবাধিকার লঙ্ঘন করে অকথ্য নির্যাতন চালানো হয়েছে। জাতিসংঘের ওই প্রতিবেদনে রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়নসহ এ সংক্রান্ত বিভিন্ন অপরাধের ঘটনায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনার সুপারিশ করা হয়েছে। পাশাপাশি নির্যাতনের শিকার মানুষগুলোকে দেশে ফিরিয়ে নেয়া, মিয়ানমারের উপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ, জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রসমূহের সঙ্গে মিয়ানমারের সম্ভাব্য সম্পর্কসহ ১৪ টি বিষয়ে সুপারিশ করেছে ‘ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশন।’ সুপারিশগুলো বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখার জন্য সদস্য দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে মিয়ানমার। রোহিঙ্গা নির্যাতন বিষয়ে ‘ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনের’ প্রতিবেদন আগামী সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘে জমা দেয়ার কথা রয়েছে।

গাংনীতে ঝড়-বৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতি: বিদ্যুত ব্যবস্থা বিকল

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে ঝড় ও বৃষ্টিতে উঠতি ফসল-গাছপালাসহ অন্যান্য ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিকল হয়ে পড়েছে বিদ্যুত ব্যবস্থা। গত বুধবার দিবাগত রাত পৌনে ১০টা থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত এক টানা ঝড় ও বৃষ্টি হয়। এতে গাংনী উপজেলার বিভিন্ন এলাকার বিশেষ করে উঠতি ধান ফসলের ক্ষতি হয়েছে। এছাড়াও কাঁচা ঘর-বাড়ির কিছুটা ক্ষতি হয়েছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে গাছ-পালা। উপজেলার বিভিন্ন এলাকার গাছপালা ভেঙ্গে পড়ায় রাস্তাগুলো বন্ধ হয়ে চলাচলে বাধাগ্রস্থ হয়েছিল। উপজেলার শহরসহ বিভিন্ন এলাকার বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙ্গে যাওয়ার রাত থেকে বিদ্যুত ব্যবস্থা বিকল হয়ে পড়েছে। স্থানীয় কৃষকরা জানান, ঝড়-বৃষ্টির ফলে বিশেষ করে নিচু জমির ধানক্ষেতগুলো পানির নিচে পড়েছে। তবে আবহাওয়া পরিস্কার হলে, ধান কেটে ঘরে তোলা সম্ভব।

চলতি বছরই ৪৭৯২ চিকিৎসক নিয়োগ – স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ চলতি বছরই দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ৪ হাজার ৭৯২ চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে। চিকিৎসক নিয়োগের জন্য সুপারিশের অনুমোদন দিয়েছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। মন্ত্রণালয়ের ঘোষিত ১০০ দিনের কর্মসূচির অগ্রগতি জানাতে বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন তিনি। মন্ত্রী বলেন, চলতি বছরের মধ্যে ৪ হাজার ৭৯২ চিকিৎসক নিয়োগ দেয়া হবে। আগামী বছর আরও প্রায় পাঁচ হাজার নিয়োগ দেয়া হবে। জাহিদ মালেক বলেন, চিকিৎসক নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। শিগগিরই নিয়োগ দেয়া হবে। প্রসঙ্গত পিএসসি বিশেষ বিসিএসের মাধ্যমে হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসক নিয়োগ দিয়ে থাকে। ৩৯তম বিসিএসও চিকিৎসকদের জন্য আয়োজন করেছিল পিএসসি। সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

জয়নাল আবেদীন প্রধানের ব্যক্তিগত উদ্যোগে ষাটোর্দ্ধ নারীরা পেল খাদ্য ও ইফতার সামগ্রী

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ায় ষাটোর্দ্ধ নারীদের খাদ্য ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ‘বৃদ্ধাশ্রম নয়, পরিবার হোক মায়েদের আনন্দাশ্রম’ এ প্রত্যয় নিয়ে কুষ্টিয়া জেলা চালকল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও দাদা রাইস মিলের স্বত্বাধিকারী জয়নাল আবেদীন প্রধানের ব্যক্তিগত উদ্যোগে ষাটোর্দ্ধ নারীদের মাঝে খাদ্য ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। বুধবার সকালে কুষ্টিয়া মজমপুর অস্ত উদয় শিশু ও বৃদ্ধাশ্রম পুনর্বাসন  কেন্দ্রে এ খাদ্য ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়। সমাজ সেবক আব্দুল হালিমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব বিতরণ করেন কুষ্টিয়া জেলা চালকল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও দাদা রাইস মিলের স্বত্বাধিকারী জয়নাল আবেদীন। এসময় তিনি বলেন, সামাজিক অবক্ষয়ের কারণে পিতা মাতার প্রতি সন্তানের প্রদ্ধা ও ভালোবাসা নষ্ট হচ্ছে। পারিবারিক ও সামাজিক মূল্যবোধ জাগ্রত করতে হবে। সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষেরই দায়িত্ব অবক্ষয় ঠেকানো এবং পারিবারিক বন্ধন টিকিয়ে রাখা। অসহায় এসব মায়েদের প্রতি সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ষাটোর্দ্ধ মায়েরা তাদের অনুভুতি ব্যক্ত করেন। অনুষ্ঠান শেষে ৩০জন মায়ের মাঝে  চাল, ডাল, সয়াবিন তেল, ছোলা, চিড়া, মুড়ি, গুড় ও খেজুর বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সাংবাদিক এসএম জামাল।

ঝিনাইদহে প্রতিবেশীদের মধ্যে মারামারিতে একজন নিহত, আটক-২

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামে প্রতিবেশীদের মধ্যে মারামারিতে আলমগীর হোসেন (৩৫) নামের একজন নিহত হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় ২ জনকে আটক করেছে। নিহত নিহত আলমগীর হোসেন ওই গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। মহেশপুর থানার ওসি রাশেদুল আলম জানান, ওই গ্রামের খাস জমিতে কয়েকটি পরিবার ঘরে তুলে বসবাস করে। নিহত আলমগীরের বড়ভাই জাহাঙ্গীর হোসেন প্রতিবেশী আব্দুল মজিদের ভাগ্নে ইমরানের ঘরের সাথে লাগোয়া একচিলতে জমিতে খড়ের গাদা দেয়। বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টার দিকে এ নিয়ে আলমগীরের সাথে আব্দুল মজিদের কথা কাটা-কাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে তারা মারামারিতে লিপ্ত হয়। এতে আলমগীর হোসেন ঘটনাস্থলেই মারা যায়। ওসি বলেন, আলমগীরের শরীরে বাহ্যিক কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে তা ময়নাতদন্তের পর বলা যাবে। এই ঘটনায় পুলিশ প্রতিবেশী আব্দুল মজিদ ও সাহেব আলীকে আটক করেছে।

গাংনীতে ঝড়ে ৪শ মুরগীর মৃত্যু

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার তেঁতুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের করমদী গ্রামে ঝড় ও বৃষ্টির কারণে ঘরের ছাউনি উল্টে ৪শ মুরগীর মৃত্যু হয়েছে। করমদী গ্রামের সাইফুল ইসলাম সাঈদের দাদি নামক পোল্ট্রি ফার্মের মুরগীর মৃত্যু হয়। গত বুধবার দিবাগত রাতে প্রচন্ড ঝড় ও বৃষ্টি হলে,ঘরের টিনের ছাউনি উল্টে মুরগী মারা যাওয়ার ঘটনা ঘটে। মুরগীর মালিক সাইফুল ইসলাম সাঈদ জানান,রাতে প্রচন্ড বেগে ঝড় ও বৃষ্টি হচ্ছিল। এ সময় আমার মুরগীর ফার্মের উপরের টিনের ছাউনি উল্টে পড়ে মুরগীর শরীরের উপর পড়লে,মারা যায়। সেই সাথে বৃষ্টির ঠান্ডা পানির কারণেও কিছু মুরগীর মৃত্যু হয়।

আমলায় এক্সিলেন্ট ওয়ার্ল্ডের ইফতার ও দোয়া মাহফিল

আমলা অফিস ॥ আমলায় এক্সিলেন্ট ওয়ার্ল্ডের ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মাল্টি লেভেল নেওয়ার্ক কোম্পানী এক্সিলেন্ট ওয়ার্ল্ডের উদ্যোগে আমলাসদরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় অডিটোরিয়ামে এ ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ইফতার ও দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন এক্সিলেন্ট ওয়ালর্ডের কামিং স্টার এবং গ্লোরিয়াস এসোসিয়টের সিইও ইদ্রিস আলী জয়। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, এক্সিলেন্ট ওয়ালর্ডের খুলনা ডিভিশনের জেনারেল ম্যানেজার জাকির হোসেন টিটু, জেনারেল ম্যানেজার সোহাগ-উর রহমান পাপ্পু, জেনারেল ম্যানেজার মারফিদুল আলম মোমিন, সহকারী জেনারেল ম্যানেজার বিপ্লব হোসেন রনি, মার্কেটিং অফিসার আশিকুল ইসলাম, সেলস অফিসার ইনজামুল হক, জনি, বশির, শাহীন, সবুজ, শাকিলসহ অনান্য সদস্যরা। অনুষ্ঠানে অনান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মিরপুর প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কাঞ্চন কুমার, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক মুন্সি মাসুদ রানা, আমলা ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সাধারন সম্পাদক সাইফুজ্জামান হীরাসহ প্রায় দুই শতাধিক কোম্পানীর সদস্য এবং এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

কৃষিখাতের উন্নয়নে ৩৩ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে চীন

ঢাকা অফিস ॥ বাংলাদেশের কৃষিখাতের উন্নয়নে চীন ৩৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিয়োগ করছে বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্র দূত ঝাং জুয়া। তিনি বলেন, চীনের এক কোম্পানি এদেশে তিনটি কৃষি প্রক্রিয়াজাত শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপন করবে। একই সঙ্গে বাংলাদেশ থেকে আমদানি করবে কৃষিজাত পণ্য। গতকাল বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রীর দপ্তরে কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাকের সঙ্গে ঢাকায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্র দূত ঝাং জুয়ার সাক্ষাৎকালে একথা বলেন তিনি। এ সময় চীনা দূতাবাসের রাজনৈতিক পরিচালক জেং ত্রিংজোসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশের কৃষি উন্নয়নে সব সময় পাশে থাকবে চীন। সরকারের দূরদর্শিতা ও সময়োপযোগী পদক্ষেপ দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করতে সক্ষম হয়েছে। শুধু তাই নয়, বৈশ্বিক দারিদ্র্য বিমোচনেও বাংলাদেশের অবদান অনস্বীকার্য। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক বিশ্বায়নের সুযোগ কাজে লাগিয়ে উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলছে। দেশটিতে শিল্পায়ন ও নগরায়নের প্রক্রিয়াও ধাপে ধাপে এগিয়ে যাচ্ছে। এ ছাড়া বাংলাদেশ স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ সামাজিক ও অর্থনৈতিক দিক দিয়ে যে সাফল্য অর্জন করেছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। বাংলাদেশে চলমান রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান চেয়ে রাষ্ট্রদূত রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী নিরাপদে যথাযথ সম্মান ও মর্যাদার সঙ্গে মিয়ানমারে ফেরত যাবে এই প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও নাশকতা দমনে চীন বাংলাদেশ একসঙ্গে কাজ করবে বলেও জানান তিনি। কৃষিমন্ত্রী ড. রাজ্জাক বলেন, অধিক ফলনশীল ধানের জাত উদ্ভবান করেছে বাংলাদেশ। যদিও এ বিষয় চীন অনেক এগিয়ে রয়েছে। কৃষির আধুনিকায়নের মাধ্যমে জনগণের মানসম্মত খাদ্য ও পুষ্টি নিশ্চিত করে ২০৪১ সালের আগেই উন্নত বাংলাদেশে পরিণত হতে সব খাতে কাজ করছে সরকার। কৃষি প্রক্রিয়াজাত ও মূল্যসংযোজনের মাধ্যমে কৃষিকে লাভজনক করতেও কাজ করছে সরকার। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, চলমান ধানের দাম নিয়ে সরকার বেশ গুরুত্বের সঙ্গে কাজ করছে। কৃষক তার কৃষিপণ্যের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না। কী পদক্ষেপ নিলে এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করে কৃষকের মুখে হাসি ফোটানো যায়, এ ক্ষেত্রে স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে। এই মুহূর্তে চাল রপ্তানির কথা ভাবছে সরকার। তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নে অন্যতম সহযোগী চীন। আন্তর্জাতিক, কৃষি, বিনিয়োগ ও শিল্প-বাণিজ্যে চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের আরও উন্নয়ন চায় সরকার। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চীনের সঙ্গে যে সম্পর্কের সূচনা করেছিলেন তা আরও টেকসই করে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে চায় বাংলাদেশ। দেশের অর্থনৈতিক অঞ্চল, অবকাঠামো উন্নয়ন, বিদ্যুৎ ও যোগাযোগসহ অনেক মেগা প্রকল্পে চীনের অংশগ্রহণ রয়েছে। চীন-বাংলাদেশে কৃষিপ্রধান দেশ, দুই দেশের শিল্প সংস্কৃতিতে একটা মিল রয়েছে। কৃষি শিল্পের উন্নয়নে চীনের সহযোগিতা সব সময় কাম্য।

এপ্রিল পর্যন্ত পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্বিক ভৌত অগ্রগতি ৬৭ ভাগ

ঢাকা অফিস ॥ সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় জানানো হয়েছে গত মাস (এপ্রিল) পর্যন্ত পদ্মা সেতু প্রকল্পের সার্বিক ভৌত অগ্রগতি শতকরা ৬৭ ভাগ। কমিটির সভাপতি মো. একাব্বর হোসেনের সভাপতিত্বে  গতকাল সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সভায় এ তথ্য জানানো হয়। কমিটির সদস্য এনামুল হক, মো. হাসিবুর রহমান স্বপন, মো. আবু জাহির, মো. ছলিম উদ্দীন তরফদার, শেখ সালাহউদ্দিন, সৈয়দ আবু হোসেন এবং রাবেয়া আলীম সভায় অংশগ্রহণ করেন। সভায় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ এবং সেতু বিভাগের কার্যক্রম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। সভায় জানানো হয়, বর্তমান সরকার দেশের সকল অঞ্চলের মধ্যে সুষ্ঠু এবং সমন্বিত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে মাওয়া-জাজিরা অবস্থানে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। ৩০হাজার ১৯৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে এই অবকাঠামোর বাস্তবায়ন কাজ পুরোদমে এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে ১২টি স্প্যান স্থাপনের মাধ্যমে সেতুর ১ দশমিক ৮০ কিলোমিটার দৃশ্যমান হয়েছে। সভায় পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্পের কাজ সংসদীয় স্থায়ী কমিটি কর্তৃক সরেজমিন পরিদর্শনের লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে উদ্যোগ গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। কমিটি আসন্ন পবিত্র ঈদুল-উল ফিতর উপলক্ষে ঘরমুখো মানুষের নিরাপদে বাড়ি পৌঁছাতে এবং মহাসড়কে যানযট কমাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে। সভায় মহাসড়কের পাশে বৈদ্যুতিক খুঁটি এবং গতিরোধক অপসারণ করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রণালয়কে উদ্যোগ গ্রহণের সুপারিশ করা হয়। সভার শুরুতে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের পরিপূর্ণ সুস্থতা কামনায় মোনাজাত করা হয়। সেতু বিভাগের সিনিয়র সচিব, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিবসহ মন্ত্রণালয় ও সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ সভায় উপস্থিত ছিলেন।

স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা হালিমুজ্জামান ওমরাহ করছেন

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হালিমুজ্জামান ওমরাহ পালন করছেন। তিনি গত ৯মে দুপুর ২টায় সৌদির উদ্দেশ্যে রওনা হন। আগামী ১৭ রমজান তিনি দেশের ফিরবেন বলে জানিয়েছেন। ওমরাহ পালনকালে তিনি দেশ ও জাতির সমৃদ্ধির পাশাপাশি কুষ্টিয়ার সকল শুভানুধ্যায়ীর জন্য দোয়া কামনা করেন। একই সাথে তিনি যাতে করে পবিত্র ভূমি থেকে সুস্থভাবে দেশে ফিরে আসতে পারেন এজন্য সকালের কাছে দোয়া কামনা করেন।

দৌলতপুর সীমান্তে ৯৮ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে ভারতীয় ৯৮বোতল  ফেনসিডিল উদ্ধার হয়েছে। তবে উদ্ধার হওয়া মাদকের মালিক বা জড়িত কেউ আটক হয়নি। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের সীমান্ত সংলগ্ন মাঠপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে এসব মাদক উদ্ধার করা হয়। বিজিবি সূত্র জানায়, মাদক বিরোধী অভিযানে ৪৭বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনস্থ জয়পুর বিওপি’র হাবিলদার মো. জুনায়েত আহমেদের নেতৃত্বে বিজিবি’র টহল দল মহিষকুন্ডি মাঠপাড়া নামক স্থানে অভিযান চালিয়ে মালিক বিহীন অবস্থায় ৯৮বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল উদ্ধার করে।

ভেজাল নির্মূলে কাজ করছে ১৯টি মন্ত্রণালয় – খাদ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ভেজাল নির্মূলে ১৯টি মন্ত্রনালয় কাজ করছে। এজন্য সারা বাংলাদেশে ৪৬৫টি সংস্থা রয়েছে। যারা ভেজাল দেয় তারা শত শত মানুষকে তিলে তিলে ক্ষয় করছে। এটা কোনো ক্রমেই গ্রহণযোগ্য নয়। যার জন্য প্রধানমন্ত্রী খাদ্য নিরাপদ আইন ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ তৈরি করে পরিচালনা করছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার নওগাঁ সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির বিশেষ সভায় এসব কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, আগে মানুষকে না খেয়েও থাকতে হয়েছে। আগে মঙ্গা ছিল। দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ন। আগে পেট ভরলেই সন্তুষ্ট হতাম। এখন কম খেয়েও সন্তুষ্ট হতে পারি যদি আমরা পুষ্টি ও নিরাপদ খাদ্য খাই। এখন আমরা সেখানে গেছি। প্রতিটি মানুষের মাথায় সেই চিন্তা ঢুকেছে বলেই আমরা নিরাপদ খাদ্য নিয়ে চিন্তা করছি। ভেজাল নিয়ে উঠে পড়ে লেগেছি। সাধন চন্দ্র মজুমদার আরো বলেন, জঙ্গিবাদ, মাদক ও বাল্যবিবাহর বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এবার নির্বাচনী ইশতেহারে ভেজালবিরোধী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চয়তা বিধান করা সাংবিধানিক অঙ্গীকার। ভেজালবিরোধী আইন পাস হয়েছে, সেই হিসেবে কাজ চলছে। যার যার অবস্থান থেকে প্রত্যেককে সচেতন হওয়ার জন্য আহ্বান জানান তিনি। নওগাঁর জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন, ১৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল জাহিদ হাসান, ১৬ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল তুহিন মোহাম্মদ মাসুদ প্রমুখ বক্তব্য দেন। ওই সময় জেলার সব বিভাগের কর্মকর্তা, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অভিনেত্রী অপ্সরা সুহির আজ জন্মদিন

নিজ সংবাদ ॥ অভিনেত্রী অপ্সরা সুহির আজ জন্মদিন। এই সময়ের অন্যতম প্রতিভাময়ী টিভি অভিনেত্রী অপ্সরা সুহি। কুষ্টিয়ার মেয়ে সুহি ২০১৬ সালে নাট্যপরিচালক জি.এম সৈকতের মাধ্যমে টিভি মিডিয়াতে প্রদার্পণ করেন। সুহি এই পর্যন্ত সাতটি একক নাটক, চারটি টেলিফিল্ম, তিনটি ধারাবাহিক নাটকে প্রধান নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেছেন। গত বছর  ‘মন যেখানে হৃদয় সেখানে’ টিলিফিল্মে অভিনয় করে দর্শকের নজরে আসেন। জনপ্রিয় অভিনেতা ডি.এ তায়েব, আমিন খান, ইমন জয়, কল্যাণ, নিলয়, সাব্বির আহমেদ, ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল, তথাগত, রাজিব বোসসহ অনেক অভিনেতার সঙ্গে অভিনয় করেছেন তিনি। বর্তমানে সুহি বড় পার্দায় কাজ করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সুহি বলেন, এত অল্প সময়ে এত ভালো কাজ করবো ভাবতে পারিনি। অভিনয় ও পড়াশোনার পাশাপাশি মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশনের একজন কর্মী হয়ে অসহায় ও অসুস্থ মানুষের পাশে দাড়াঁতে চাই। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন। আজ শুক্রবার অপ্সরা সুহির জন্মদিন উপলক্ষ্যে এই দিনটি সুহি একটি মাদ্রাসার ছোট বাচ্চাদের সঙ্গে কাটাবেন।

চিনিকল সিবিএ নেতৃবৃন্দের কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত সভাপতি গাজী মাহাবুব রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আনিসুজ্জামান ডাবলুসহ সকল নেতৃবৃন্দকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছে কুষ্টিয়া চিনিকল শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ। গতকাল ইউনিয়নের সভাপতি মিরাজুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক কামারুজ্জামান মিথুনের নেতৃত্বে সিবিএ নেতৃবৃন্দ কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের নব-নির্বাচিত পরিষদকে শুভেচ্ছা জানান। এসময় চিনিকল সিবিএ নেতৃবৃন্দ প্রেসক্লাবের সকল নেতৃবৃন্দ কুষ্টিয়ার উন্নয়নে ভূমিকা রাখবেন বলেন বলে প্রত্যাশা করেন।

 গাংনী উপজেলা পরিষদের সাথে সিবিও নেতাদের মতবিনিময় সভা

গাংনী প্রতিনিধি  ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা পরিষদের সাথে সিবিও নেতাদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে মতবিনিময় সভার আয়োজন করে পলাশীপাড়া সমাজ কল্যাণ সমিতি। সেভ চিলড্রেনের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ খালেক। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন। সিবিও নেতা আব্দুল হাদী মাস্টারের সঞ্চালনায় এ সময় বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মাহবুবুর রহমান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মীর হাবিবুল বাসার, উপজেলা শিক্ষা অফিসার আতিয়ার রহমান, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাসিমা  বেগম, উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার তৌকিকুর রহমান, পলাশীপাড়া সমাজ কল্যাণ সমিতির প্রকল্প পরিচালক সুনীল কুমার রায়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পলাশীপাড়া সমাজ কল্যাণ সমিতির শিশুদের জন্য শিক্ষা প্রকল্পের টেকনিক্যাল অফিসার হোসনা বানু রানী ও প্রকল্পের মুজিবনগর উপজেলা টেকনিক্যাল অফিসার ফারহানা ইয়াসমিন, রাইপুর ইউনিয়ন সমন্বয়কারী মাহবুবুর রহমান, এফএফ রোজিনা খাতুন, রাবেয়া খাতুনসহ গাংনী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন সিবিও’র সদস্যবৃন্দ ।

কুমারখালীতে মুরগী ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

কুমরখালী প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে শামীম আহমেদ (৫৫) নামের এক মুরগী ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল সকালে উপজেলার পান্টি ইউনিয়নের রামনগর দক্ষিণপাড়ার একটি পুকুর পাড় থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত শামীম রামনগর গ্রামের কাজী বজলুর রহমানের ছেলে। বুধবার বিকালে পান্টি বাজারে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন এবং সারারাত নিখোঁজ থাকেন। রাতে বাড়িতে না আসায় খুব সকাল থেকেই স্বজনেরা বিভিন্ন এলাকায় খোঁজা-খুঁজি করতে থাকে। এক পর্যায়ে রামনগর দক্ষিণপাড়ার একটি পুকুর পাড়ে শামীমের মরদেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। এ খবর পেয়ে পান্টি ক্যাম্পের পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দুপুরে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান জানান, মরদেহে কোন প্রকার আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে স্ট্রোক বা অন্য কোন কারণে তার মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে। এ ব্যাপারে কুমারখালী থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। অন্যদিকে, নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে, বুধবার ব্যবসায়ীক পাওনাদারেরা পাওনা টাকার দাবীতে শামীমের বাড়িতে আসে এবং তাকে টাকা ফেরত দিতে চাপ দেয়। এ ঘটনার পরপরই (বিকালে) শামীম বাড়ি থেকে বের হয় এবং রাতে বাড়ি ফেরেনি। নিহত শামীমের ভাই দাবী করেন, পাওনাদারদের পাওনা টাকা না দেওয়ার কারণে তাকে কৌশলে হত্যা করে থাকতে পারে।

কুষ্টিয়ায় বটতৈল বাইপাস রোডে ট্রাফিক পুলিশ বক্স উদ্বোধন

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ায় বটতৈল বাইপাস রোডে ট্রাফিক পুলিশ বক্স নির্মাণ করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার সময় নবনির্মিত ট্রাফিক পুলিশ বক্সটি কৃষ্ণচুড়া ও বকুল ফুলের গাছ  রোপন, বেলুন উড়িয়ে উদ্বোধন করেন কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস.এম তানভীর আরাফাত পি.পি.এম (বার) ও কেএনবি এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক কামরুজ্জামান (নাসির)। এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, (প্রশাসন ও অপরাধ) এ.কে. এম. জহিরুল ইসলাম।

খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য মরার দরকার নেই, রাস্তায় আসেন – নজরুল

ঢাকা অফিস ॥ কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য রাস্তায় নামাটাই জরুরি বলে মনে করেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। দলীয় চেয়ারপারসনের মুক্তির জন্য ‘আত্মাহুতি’ দিতে দলীয় এক নেতার আহ্বানের পরিপ্রেক্ষিতে এ কথা বলেছেন তিনি। নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, ‘খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আপনার মরার দরকার নেই। সাহস করে রাস্তায় আসেন। চলেন, একসঙ্গে রাস্তায় নেমে মিছিল করি। তাহলেই খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে।’ গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘ঐতিহাসিক ফারাক্কা দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় নজরুল ইসলাম খান এ মন্তব্য করেন। জাতীয়তাবাদী কৃষক দল আলোচনা সভার আয়োজন করে। নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘এখানে একজন বলেছেন, আত্মাহুতি দেওয়া দরকার। আত্মাহুতি দেওয়ার জন্য কারও অনুমতি লাগে নাকি? আমি যদি আত্মাহুতি দিতে চাই, তাহলে একা একাই আত্মাহুতি দিতে পারি। কিন্তু আপনার মৃত্যু তো আমার চাওয়া না। আমার চাওয়া হলো খালেদা জিয়ার মুক্তি।’ নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘আমরা সবাই বলছি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য কী করা দরকার। এ নিয়ে বহু আলোচনা করছি। কিন্তু আসলে কিছুই করছি না। কী করা দরকার, এ বিষয়ে কারও বুদ্ধির অভাব নেই। তবে সেই বুদ্ধির কাজটা করার মতো কোনো উদ্যোগ নেই।’ ফারাক্কা বাঁধের বিষয়ে নজরুল ইসলাম বলেন, ‘কেন আজকে আমরা ফারাক্কা বাঁধ ও মাওলানা ভাসানীর কথা মনে করব? কারণ, পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা এই ফারাক্কা বাঁধ, সেই পরীক্ষা আজ পর্যন্ত শেষ হলো না।’ আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে সভায় বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা নজমুল হক, ভাইস চেয়ারম্যান বেগম সেলিমা রহমান, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ বক্তব্য দেন।

 

ছাত্রলীগের কমিটিতে বিতর্কিত ৯৯ জনের নাম প্রকাশ করলো পদবঞ্চিতরা

ঢাকা অফিস ॥ ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে ৯৯ জনকে বিতর্কিত দাবি করে নাম প্রকাশ করেছে পদবঞ্চিতরা। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তালিকা প্রকাশ করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের সাবেক কমিটির প্রচার সম্পাদক সাইফউদ্দিন বাবু। তিনি বলেন, তিনদিন আগে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়েছে, যা অত্যন্ত ক্রটিপূর্ণ। ৩০১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটিতে শতাধিক বিতর্কিত হওয়ার পরও ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মাত্র ১৭ জনের নাম উল্লেখ করেছেন। ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বারবার একটি কথাই বলেন যে, ছাত্রলীগের কমিটি চুলচেরা বিশ্লেষণ করা হয়েছে। চুলচেরা বিশ্লেষণের পরও যদি তারা ১৭ জনের নাম পায়, তাহলে আরেকটু বিশ্লেষণ করলে সেটা একশর বেশি হতে পারে। তাই বিতর্কিত ১৭ জন নয়, আরও বেশি হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মতো সকলকে খুঁজে বের করে সংগঠন থেকে বিতাড়ন করার আহ্বান জানান ছাত্রলীগের সাবেক কমিটির প্রচার সম্পাদক সাইফউদ্দিন বাবু। ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকও মাদকাসক্ত, এ তথ্যের সত্যতা কী? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ছাত্রলীগের সাবেক কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন বলেন, গোলাম রাব্বানী যে মাদকাসক্ত এমন অনেক ভিডিও ইউটিউবে আছে। আমাদের কাছেও সব তথ্য প্রমাণ আছে। পদবঞ্চিতদের দাবি অনুযায়ী, সহ-সভাপতি পদে বিতর্কিতরা হলেন -তানজিল ভূইয়া তানভীর (বয়স উত্তীর্ণ ও ঠিকাদারি ব্যবসায় জড়িত, সম্মেলনের সময় বয়স ২৯ বছর ৬ মাস ১৭ দিন), রেজাউল করিম সুমন (চাকরিজীবী ও মাদকাসক্ত), আরেফিন সিদ্দিক সুজন (মাদকব্যবসায়ী, সূর্যসেন হলে তার নিজ কক্ষ ৩১৫ রুম থেকে হল প্রভোস্টের উপস্থিতিতে মাদক উদ্ধার করা হয় এবং রুম সিলগালা করা হয়। তার পিতা মাদারীপুরের পাঁচখোলা ইউনিয়ন জামাতের আমির), আতিকুর রহমান খান (মাদকাসক্ত ও অস্ত্রব্যবসায়ী এবং ক্যাম্পাসে বিভিন্ন ছিনতাই ঘটনার সঙ্গে সরাসরি জড়িত, দীর্ঘদিন রাজনীতিতে অনুপস্থিত), বরকত হোসেন হাওলাদার (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কার), আবু সালমান প্রধান শাওন (মাদকাসক্ত ও দীর্ঘদিন যাবৎ রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয়), শাহরিয়ার কবির বিদ্যুৎ (মাদকাসক্ত ও মাদকের মামলা রয়েছে), ফুয়াদ রহমান খান (বয়স উত্তীর্ণ ও দীর্ঘদিন রাজনীতিতে অনুপস্থিত), সাদিক খান (বিবাহিত, মাদকাসক্ত ও দীর্ঘদিন রাজনীতিতে অনুপস্থিত), তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী (বিএনপি-জামাত ঘেঁষা পরিবারেরর সন্তান), এসএম তৌফিকুল হাসান সাগর (পিতা যুদ্ধাপরাধী), তৌহিদুর রহমান হিমেল (ঠিকাদার), মাহমুদুল হাসান (জামাত পরিবারের সন্তান), সৃজন ভূইয়া (চাকরিজীবী, অগ্রণী ব্যাংক), তৌহিদুর রহমান পরশ (জীবনের প্রথম পদ), কামাল খান (কোটা আন্দোলনকারী), আবু সাইদ (সাস্ট, ছাত্রলীগ থেকে আজীবন বহিষ্কার ও শিক্ষককে অপমান করায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত), খালিদ হাসান নয়ন (বয়স উত্তীর্ণ ও মেডিকেলের প্রশ্নফাঁসের সাথে জড়িত ও ডাকাতি মামলার বর্তমান আসামি), আমিনুল ইসলাম বুলবুল (হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি এবং ৬টি মামলার আসামি), রুহুল আমিন (সাবেক ছাত্রদল নেতা ও বিবাহিত), সোহানী হাসান তিথি (একাধিকবার বিবাহিত), মাহমুদুল হাসান তুষার (শিবির কর্মী), এসএম হাসান আতিক (৩৯তম বিসিএসে সুপারিশপ্রাপ্ত ও বিবাহিত), সুরঞ্জন ঘোষ (বয়স উত্তীর্ণ), জিয়ান আল রশিদ (ব্যবসায়ী, গ্লোব কোম্পানির পরিচালক), সোহেল রানা (বয়স উত্তীর্ণ ও প্রথম পদ), মুনমুন নাহার বৈশাখী (বিবাহিত ও জামাত পরিবারের সন্তান), তরিকুল ইসলাম (চার্জশিটভুক্ত ছয়টি মামলার আসামি ও নিয়োগ বাণিজ্য ও প্রতারণা)। তিনজন যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকরা হলেনÑ প্রদীপ চৌধুরী (নকলের দায়ে ঢাবি থেকে তিন বছরের জন্য বহিষ্কার ও পহেলা বৈশাখের অনুষ্ঠানে আগুন-ভাঙচুর), শাকিল ভূইয়া (পিতা খোকন ভূইয়া মাদারীপুর পৌর ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক), মোর্শেদুল হাসান রুপম (ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল)। সাংগঠনিক সম্পাদক ফেরদৌস আলম (রাজাকার পরিবারের সন্তান, যৌন হয়রানিকারী এবং বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত), উপ-প্রচার সম্পাদক সিজাদ আরেফিন শাওন (বিবাহিত ও সন্তান রয়েছে), উপ-দপ্তর সম্পাদক মাহমুদ আব্দুল্লাহ বিন মুন্সি (কোটা আন্দোলনের সংগঠক, বঙ্গবন্ধু হল) উপ-গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক সৌরভ নাথ (লুবনান থেকে চাঁদাবাজির দায়ে ৩ মাসের সাজাপ্রাপ্ত আসামি), উপ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক আফরীন লাবনী (একাধিক বিবাহিত), উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক ফুয়াদ হাসান (বয়স উত্তীর্ণ, মাদক ব্যবসায়ী), উপ-পাঠাগার সম্পাদক রুশী চৌধুরী (বিবাহিত), ধর্ম সম্পাদক তাজউদ্দিন (শিবিরের অর্থ সম্পাদক), উপ-গণশিক্ষা সম্পাদক মনিরুজ্জামান তরুন (প্রথম পদ), উপ-ত্রাণ ও দুর্যোগ সম্পদক সালেকুর রহমান শাকিল (প্রথম পদ), উপ-স্বাস্থ্য সম্পাদক ডা. শাহজালাল (প্রথম পদ ও সাবেক শিবিরকর্মী, ঢাকা মহানগর উত্তর ছাত্রলীগের প্রেস রিলিজে আছে), উপ-গণযোগাযোগ সালাউদ্দিন জসিম (ওয়ারী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক, বিবাহিত), সুশোভন অর্ক (উপ-গণযোগাযোগ, চাকরিজীবী, বাংলাট্রিবিউন পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার), আসিফ ইকবাল অনিক (বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়ক সম্পাদক, বিবাহিত), মো. তুষার (উপ-বেসরকারি, প্রথম পদ), রাকিবুল ইসলাম সাকিব (উপ-বেসরকারি, বিবাহিত), শাহরিয়ার মাহমুদ রাজু (উপ-আপ্যয়ন, জসিমউদ্দিন হলের ৩২১ নং রুম থেকে ইয়াবা সেবনকালে হল প্রোভোস্টের সহায়তায় পুলিশে সোপর্দ), হিরণ ভুইয়া (উপ-মানবসম্পদ, ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিস্কৃত), এস এম মাসুদুর রহমান মিঠু (কৃষি সম্পাদক, বিবাহিত)। অভিমুন্য বিশ্বাস অভি (উপ-কর্মসংস্থান, ইউনানি ওষুধ ব্যবসায়ী), জাফর আহমেদ ইমন (সহ-সম্পাদক, ছাত্রদল নেতা, প্রথম পদ), তানভীর আব্দুল্লাহ (সহ-সম্পাদক, ব্যবসায়ী/প্রথম পদ), সামিহা সরকার (সহ-সম্পাদক, পিতা-গাজিপুর সিটি কর্পেরেশনের বিএনপি মনোনীত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, বিবাহিত), ফারজানা ইসলাম রাখি (সহ-সম্পাদক, বিবাহিত), তামান্না তাসনিম তমা (সহ-সম্পাদক, বিবাহিত/প্রথম পদ), মো. মেহেদী হাসান রাজু (সহ-সম্পাদক) এস আই পরীক্ষার প্রক্সি দিতে গিয়ে পুলিশের হাতে আটক এবং সাজাপ্রাপ্ত আসামি, আঞ্জুমান আরা অনু (সহ-সম্পাদক, বিবাহিত, প্রশ্নফাঁস জালিয়াতের সাথে জড়িত), আসিফ রায়হান (সহ-সম্পাদক, পিতা-০৬ নং গুপ্তি ইউনিয়ন, চাঁদপুর বিএনপির সভাপতি), শফিকুল ইসলাম কোতয়াল (সহ-সম্পাদক, ১ম পদ), শেখ আরজু (সহ-সম্পাদক, বিবাহিত), ফয়সাল করিম দাউদ খান (সদস্য, ১ম পদ), আল ইমরান (উপ-কর্মসংস্থান, বাবা জামাতের রাজনীতির সাথে জড়িত, প্রথম পদ), ওয়াহিদুজ্জামান লিখন (উপ-আন্তর্জাতিক, ১ম পদ), সোহেল রানা সান্ত (সহ-সম্পাদক, আজীবন বহিষ্কার), বেলাল মুন্না (উপ-মানব, বিবাহিত) মেসকাত হোসেন (উপ-প্রশিক্ষণ, সাংবাদিকদের রুম ভাঙচুর করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২ বৎসর এর জন্য বহিষ্কার), শহিদুল ইসলাম (সহ-সভাপতি, সাবেক চাকরিজীবী ও দীর্ঘদিন রাজনীতিতে অনুপস্থিত), ফরহাদ হোসেন তপু (সহ-সভাপতি, বিবাহিত) তানজীদুল ইসলাম শিমুল (সহ-সভাপতি, বিগত চার থেকে পাঁচ বছর ছাত্রলীগের কোনো মিছিল-মিটিংয়ে দেখা যায়নি)। সোহানুর রহমান সোহান (সাংগঠনিক সম্পাদক, ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের পূর্বে ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিল। মাদকাসক্ত ও মাদকব্যবসায়ী), আরিফ শেখ (উপ-প্রচার, পুলিশের কাছে মাদকসহ আটক), বায়েজিদ কোতয়াল (উপ-ক্রীড়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশ্নফাঁসের সাথে জড়িত), মহসিন খন্দকার (উপ-অর্থ সম্পাদক, সাধারণ সম্পাদকের বাসার দেখাশোনা করে), রাকিনুল হক চৌধুরী (আন্তর্জতিক সম্পাদক, সভাপতির আপন ভাই), রনি চৌধুরী (সহ-সম্পাদক, মুন্সিগঞ্জ এর কোলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আসিফ হাওলাদার এর হত্যামামলার আসামী), এম সাজ্জাদ হোসেন(সহ-সভাপতি, ছাত্রলীগের প্রথম পদ ও বিবাহিত), এস এম মাহবুবুর রহমান সালেহী (উপ-আন্তর্জাতিক, দীর্ঘদিন নিষ্ক্রীয়), ওমর ফারুখ পাংকু (সহ-সম্পাদক, বিএনপি পরিবার, আপন চাচা শরীয়তপুর জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক, বাবা শরীয়তপুর সদর উপজেলা যুবদলের সহ-সভাপতি), আলিমুল হক (সহ-সভাপতি, পহেলা বৈশাখের কনসার্টে অগ্নি সংযোগকারী। বড় ভাই মঞ্জিল হক শুনই ইউনিয়ন বিএনপির নেতা)। মো. রাকিব হোসেন (অর্থ সম্পাদক, আপন বড় ভাইরাজু আহমেদ সহ-সভাপতি, নড়ীয়া উপজেলা ছাত্রদল, মামা অ্যাডভোকেট হেলাল আকন্দ শরীয়তপুর জেলা বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক), শফিউল ইসলাম সজিব (উপ-স্বাস্থ্য, ৩৯তম বিসিএসের সহকারী সার্জন হিসেবে সুপারিশপ্রাপ্ত, ছাত্রলীগের প্রথম পদ), মাজহারুল ইসলাম মিরাজ (সহ-সভাপতি, বিএনপি পরিবারের সন্তান), রাকিব উদ্দিন (সহ-সভাপতি, ঠিকাদার) নাজিম উদ্দিন (সাংগঠনিক সম্পাদক, ৫ জানুয়ারী নির্বাচনের পূর্বে ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে), রেজাউল করিম (সহ-সম্পাদক, বিবাহিত, বয়সউত্তীর্ণ ও মাদক মামলা আছে), ফেরদৌস শাহরিয়ার নিলয় (উপ-ত্রাণ ও দুর্যোগসম্পাদক, বিএনপি পরিবার), নিলায়ন বাপ্পী (উপ-প্রচার, বিবাহিত), মোমিন শাহরিয়ার (উপ-দপ্তর, মামলার আসামী), মাজহারুল কবির শয়ন (উপ-নাট্য বিতর্ক, কোটা আন্দোলনকারী)। নাজমুল হুদা সুমন (উপ-গণযোগাযোগ ও উন্নয়ন, বিবাহিত), রবিউল ইসলাম হাসিব মীর (উপ-কৃষি শিক্ষা, ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল বলে অভিযোগ আছে), ইন্দ্রনীল দেব শর্মা রনি (সদস্য, সাবেক চাকুরিজীবী), জাভেদ হোসেন (পাঠাগার সম্পাদক, তার বাবা জামাত করে, চাচা কুমিল্লার লাঙ্গল কোট উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক), ফুয়াদ হোসেন শাহাদাৎ (আইন সম্পাদক, বিবাহিত), সালেকুর রহমান শাকিল (উপ-ত্রান ও দুর্যোগ, পিতা-ভুরুঙ্গামারি উপজেলার বিএনপির মৎস্য বিষয়ক সম্পাদক), আরিফ হোসেন (বিএনপি পরিবারের সন্তান), শফিউল ইসলাম সজিব (উপ-সাস্থ্য, বিএনপি পরিবারের সন্তান), তৌহিদুল ইসলাম জহির (সহ-সভাপতি, পিতা-ইদ্রিস চৌধুরী শোভন ডন্ডি ইউনিয়নবিএনপির সহ-সভাপতি, মেজভাই গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী পুটিয়া উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক। মাতা শাহনেওয়াজ চৌধুরী ১৯৯১ সালে জাতীয় নির্বাচনে বিএনপির পুলিং এজেন্ট ছিল)। সংবাদ সম্মেলনে সাবেক কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন, সাবেক দপ্তর সম্পাদক দেলোয়ার শাহজাদা, সাবেক উপ-অর্থ সম্পাদক তিলোত্তমা শিকদার, জসিম উদদীন হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহেদ খান, বঙ্গবন্ধু হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন রহমান, কুয়েত মৈত্রী হলের সভাপতি ফরিদা পারভীনসহ শতাধিক পদবঞ্চিত নেতা উপস্থিত ছিলেন।

ঈদে নতুন নোট পাওয়া যাবে ২২ মে থেকে

ঢাকা অফিস ॥ ঈদে নতুন নোট বাজারে ছাড়ছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ২২ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত সময়ের মধ্যে নতুন নোট ছাড়া হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক ও বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে জনসাধারণ ও গ্রাহকদের মাঝে এই নতুন নোট বিনিময় করা হবে বলে গতকাল বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে আগামি ২২ মে হতে ৩০ মে পর্যন্ত (সাপ্তাহিক ও সরকারী ছুটির দিন ব্যতিত) বাংলাদেশ ব্যাংকের বিভিন্ন অফিসের কাউন্টারের মাধ্যমে জনসাধারণের মাঝে নতুন নোট বিনিময় করা হবে। এছাড়া ৩০টি বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকের ৩০টি শাখা থেকে রাজধানী ঢাকা এবং সাভার, গাজীপুরসহ আশপাশ এলাকায় ১০, ২০, ৫০ ও ১০০ টাকা মূল্যমানের নতুন নোট বিশেষ ব্যবস্থায় বিনিময় করা হবে। একই ব্যক্তি একাধিকবার নতুন নোট গ্রহণ করতে পারবেন না। তবে নোট উত্তোলনকালে কেউ ইচ্ছে করলে কাউন্টার থেকে যে কোন পরিমাণ ধাতব মুদ্রা গ্রহণ করতে পারবেন। চাহিদা মেটাতে বিভিন্ন ব্যাংকের মাধ্যমে সারা বছরই কাগুজে নোট সরবরাহ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তবে দুই ঈদে সাধারণ মানুষের মাঝেও নতুন টাকার নোট বিতরণ করা হয়।

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট ব্যাবহার করে ডিটিএইচ সেবার উদ্বোধন

ঢাকা অফিস ॥ দেশে প্রথমবারের মতো বিশ্বমানের ডিটিএইচ (ডিরেক্ট টু হোম) সেবা নিয়ে এসেছে বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেড। ‘আকাশ’ ব্র্যান্ড নামে এ সেবাপণ্য বাজারজাত করা হচ্ছে। বিশ্বে নিজস্ব স্যাটেলাইট থাকা ৫৭তম দেশ বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ থেকে ডিটিএইচ সেবা দেবে ‘আকাশ’। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে ডিটিএইচ সেবা আকাশের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেড জানায়, বিশ্বব্যাপী পে-টিভি শিল্পে ডিটিএইচ একটি উচ্চতর প্রযুক্তি। আগামি ১৯ মে থেকে সর্বোচ্চ মানের ছবি ও শব্দের নিশ্চয়তা দিয়ে প্রায় ১১০টি চ্যানেল ও ২০টি হাইডেফিনেশন চ্যানেল নিয়ে সেবা চালু করছে আকাশ ডিটিএইচ। ভ্যাটসহ মাসিক ৩৯৯ টাকার এ সেবা উপভোগ করতে পারবেন গ্রাহক। শিগগিরই আরও নতুন চ্যানেল এবং ভিডিও অন ডিমান্ড ও প্রোগ্রাম রেকর্ডিংয়ের মতো নতুন সেবা-ফিচার যুক্ত করা হবে। বিদ্যমান ফিচারগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রোগ্রাম রিমাইন্ডার, ফেভারিট প্রোগ্রাম লিস্টিং ও প্যারেন্টাল কট্রোল। এছাড়া আকাশ ডিটিএইচ এর এককালীন সংযোগ খরচ ৬ হাজার ৪৯৯ টাকা। সংযোগ সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে অত্যাধুনিক এইচডি সেট টপ বক্স, গ্রাহকবান্ধব ও বহুমুখী ব্যবহার উপযোগী রিমোট কট্রোল, তাপ ও বৃষ্টি প্রতিরোধী ইউনিভার্সাল কেইউ ব্যান্ড ডিশ এবং অন্যান্য উপকরণ। তাছাড়া সীমিত সময়ের জন্য বিনামূল্যে ইনস্টলেশন ও এক মাসের সাবক্রিপশন পাওয়া যাবে। সার্বক্ষণিক ২৪/৭ গ্রাহকসেবার জন্য কল সেন্টার এবং পেশাদার ইনস্টলেশন ও বিক্রয় পরবর্তী সেরা নিশ্চিত করবে আকাশ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আকাশের উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি বলেন, দেশ ডিজিটালাইজেশনের পথে আরো একধাপ এগিয়ে গেলো। এই ব্যবস্থার মাধ্যমে আমাদের রাস্তার তারের জঞ্জাল কমবে। এ ছাড়া এই ব্যবস্থাপনায় স্যাটেলাইট চ্যানেল সরবরাহের ব্যবসায় সরকারের কর সঠিকভাবে আদায় করা আরো সহজ হবে। তাছাড়া টেলিভিশন সম্প্রচার আইন বাস্তবায়নেও যথেষ্ট সহযোগিতা পাওয়া যাবে। মন্ত্রী আরো বলেন, টেলিভিশন সম্প্রচারের ক্ষেত্রে আমরা শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনার কাজ করছি। বিজ্ঞাপন আইন অনুসারে অন্য কোনো দেশই বিদেশি চ্যানেল সম্প্রচারে বিজ্ঞাপন দেখাতে পারে না। আমাদের দেশে তা পারে। ২০০৬ সালে এই আইন পাস হলেও বাস্তবায়ন হয়নি। সেটা বাস্তবায়নের কাজ চলছে। আমাদের দেশেও বিদেশি চ্যানেলগুলো বিজ্ঞাপন না দেখিয়ে সম্প্রচার করতে পারবে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি তার বক্তব্যে বলেন, আমাদের আকাশপথে বিচরণের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হচ্ছে, অর্থাৎ দেশ ডিজিটালাইজেশন হচ্ছে। আমাদের লক্ষ্য সারাদেশের জনগণকে উন্নয়ন কাজে সম্পৃক্ত করা। তাই গ্রামে এই সেবা সহজে পৌঁছে দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। পেমেন্ট ব্যবস্থাপনাকে আরো সহজ করতে হবে। তাছাড়া সব বিভাগে পৌঁছে দিতে হবে সেবা। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা এবং বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্সের ভাইস চেয়ারম্যান সালমান এফ রহমান, বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্সের চেয়ারম্যান শায়ান এফ রহমান একই কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ডিএস ফায়সাল হায়দার, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু প্রমুখ। দেশের ২০টি জেলায় আকাশ ডিটিএইএচ বাণিজ্যিকভাবে পাওয়া যাবে। জেলাগুলো হলো- ঢাকা, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, কিশোরগঞ্জ, নরসিংদী, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও সুনামগঞ্জ। এছাড়া শিগগিরই দেশের অন্য জেলাগুলোতেও অনুমোদিত খুচরা বিক্রেতাদের কাছ থেকে এ ডিটিএইচ পাওয়া যাবে বলেও জানায় বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স।