গাংনীতে পান বরজের সাথে শক্রতা !

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ষোলটাকা ইউনিয়নের মানিকদিয়া গ্রামে এক কৃষকের ১ বিঘা জমির পান বরজ পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মানিকদিয়া গ্রামের আবুছুদ্দীনের ছেলে কৃষক সেলিম রেজার পানের বরজ পুড়িয়েছে দুর্বৃত্তরা। পান বরজ মালিক সেলিম রেজা জানান, বৃহস্পতিবার রাতে গ্রামের ঘোনার মাঠে আমার এক বিঘা জমির পান বরজ পূর্বশক্রতাবশত পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে। আনুমানিক ৪০ হাজার টাকার পানের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ভেড়ামারায় দৈনিক হিসনা বাণী পত্রিকার ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

ভেড়ামারা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা প্রেস ক্লাবের সমানে গতকাল দৈনিক হিসনা বাণী পত্রিকার ৮ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, সম্মাননা স্মারক প্রদান ও কেক কেটে আনুষ্ঠানিকভাবে উদযাপন করেন। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও দৈনিক হিসনা বাণী পত্রিকার প্রকাশক ও  সম্পাদক আরিফুজ্জামান লিপটন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ভেড়ামারা পৌরসভার প্যানেল মেয়র আলহাজ্ব মাহবুব আলম বিশ্বাস, ভেড়ামারা মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আঃ জব্বার, তাহের মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম, হাজী ওযাজেদ আলী মাধ্যামিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আঃ হাই সিদ্দিকী, পৌর কাউন্সিলর ফিরোজ আলী মৃধা, সিরাজুল ইসলাম সিরাজ, সোলাইমান মাষ্টার, মিজানুর রহমান ডাবলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক নাজমুল আলম স্বপন,পৌর ৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস সালাম, মিজানুর রহমান মিজান, ভেড়ামারা উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মানিক মিয়া প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, ভেড়ামারা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাপ্তাহিক চেতনার কুষ্টিয়ার প্রকাশক ও  সম্পাদক প্রভাষক জাহাঙ্গীর হোসেন জুয়েল।

 চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সাথে মত বিনিময় সভায় মিঠু

ভেড়ামারায় আওয়ামীলীগের নানা কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করতে হবে

ভেড়ামারা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আক্তারুজ্জামান মিঠু বলেছেন, বর্তমান সরকার দেশের সব স্থানে উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে দেশকে বিশ্বের দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, চাঁদগ্রাম এলাকাবাসী শান্তি আর উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে, কিন্তু চিহ্নিত যে অপশক্তি এলাকাকে অশান্ত করতে নানামুখী ষড়যন্ত্র-চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে, তাদের ব্যাপারে শান্তিকামী এলাকাবাসীকে সজাগ ও সতর্ক থাকার আহবান জানিয়ে বলেন, সকল দিধাদ্বন্দ্ব ভুলে গিয়ে আগামী দিনে পথচলার জন্য ভেড়ামারায় আওয়ামীলীগের দলীয় নানা কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করতে হবে। গতকাল নব নির্বাচিত ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আক্তারুজ্জামান মিঠু চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সাথে মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্য কালে তিনি উপরোক্ত কথা গুলো বলেন। চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোঃ মসফের আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, ভেড়ামারা উপজেলা বাহিরচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও রেল বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু দাউদ। উপজেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য বুলবুল কবির, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আনোয়ার হোসেন গামা, চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক মজিবুল হক মুকুল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য হাজী গিয়াস উদ্দীন সোনা, চাঁদগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কারিবুল ইসলাম রনি, ইজবার আলী, লুৎফর আলী, ফজলুল হক, ভেড়ামারা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক মোঃ আলমগীর হোসেন, যুদ্ম আহবায়ক এম এস আই সবুজ, মোঃ রাশেদুল ইসলাম রবিন, সদস্য সোহান, আকাশ, মারুফ প্রমূখ।

 

মেহেরপুরে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে থেমে থেমে বৃষ্টি

মেহেরপুর প্রতিনিধি ॥ ভারতে প্রবল ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সীমান্তঘেষা মেহেরপুরে থেমে-থেমে বৃষ্টি হয়েছে।  গতকাল শুক্রবার দুপুর হতে মেহেরপুর জেলায় গুড়ি-গুড়ি বৃষ্টি শুরু হয়। দুপুরের পর থেকে প্রচন্ডবেগে থেমে-থেমে বৃষ্টি হচ্ছে। প্রায় এক মাস এ জেলায় বৃষ্টি না হওয়ায় প্রচন্ড গরম পড়ছিল। গতকাল বৃষ্টি হওয়ায় দিনের বেলায় ঠান্ডা আবহাওয়া বিরাজ করেছে। তবে ঘূর্ণিঝড় ফণী আতঙ্ক বিরাজ করছে জনমনে। মেহেরপুর জেলা প্রশাসক আতাউল গনি জানান, মাইকিংয়ের মাধ্যমে জেলাবাসিকে ঘূর্ণিঝড় থেকে নিরাপদ থাকতে অগ্রিম সর্তক বার্তা পৌঁছে দেয়ায় কাঁচা-ঘর বাড়ির লোকজন নিরাপদ আশ্রয়ের লক্ষ্য সতর্কতায় রয়েছে। আকাশের পরিস্থিতি বেগতিক দেখলেই স্থানীয় স্কুল-কলেজ ও মাদ্রাসায় আশ্রয় নেবে মানুষেরা। ঘূর্ণিঝড়ের তাৎক্ষনিক অবস্থা দেখ ভাল করার জন্য জেলা সদর,গাংনী ও মুজিবনগর উপজেলায় ৩টি কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে।

 

চাকরি না খুঁজে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে ওঠার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি শিক্ষামন্ত্রীর আহ্বান

ঢাকা অফিস ॥ শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি লেখা-পড়া শেষে চাকরি না খুঁজে উদ্যোক্তা হিসেবে নিজেদেরকে গড়ে ওঠার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, ‘লেখা-পড়া শেষে চাকরি খুঁজলে হবে না, তোমাদের উদ্যোক্তা হতে হবে। তোমরা অন্যের জন্য কাজ তৈরি করে দেবে।’ গতকাল শুক্রবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে ‘আন্তঃকলেজ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০১৯’- এর পুরস্কার বিতরণ এবং আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ২০১৬ ও ২০১৭- এর কৃতি ক্রীড়াবিদদের বে¬জার ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান। দীপু মনি বলেন, ‘জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান সুযোগ্য নেতৃত্বে এটি অনেক অগ্রসর হয়েছে। অনেক সমস্যা থেকে উতরে উঠেছে এই বৃহৎ বিশ্ববিদ্যালয়টি। বাংলাদেশ তো বটেই বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ এই বিশ্ববিদ্যালয়টি এখন শিক্ষার মানের দিকে নজর দিচ্ছে।’ শিক্ষার মানোন্নয়নের কোন বিকল্প নেই উলে¬খ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘দেশের সবচেয়ে বড় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মান নিশ্চিত করতে এখন কাজ করতে হবে। শিক্ষার্থীরা যেন শুধু ডিগ্রির জন্য কলেজে না আসে। তারা যেন সত্যিকার অর্থে শিক্ষাগ্রহণ করে সুনাগরিক হতে পারে, তারা যেন স্বাবলম্বী হয়। যোগ্য  নেতৃত্ব যেন উঠে আসে সেই শিক্ষা দিতে হবে শিক্ষার্থীদের।’ অনুষ্ঠানে শেষে আন্তঃকলেজ প্রতিযোগিতায় চূড়ান্ত পর্বে বিজয়ীদের মধ্যে সনদ, ব্লেজার ও পুরস্কার বিতরণ করেন শিক্ষামন্ত্রী। এই পর্বে ছেলে-মেয়ে উভয় গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে খুলনা ব্রজলাল (বিএল) কলেজ। ছেলেদের গ্রুপে রানার্স আপ হয়েছে খুলনার খান জাহান আলী ডিগ্রি কলেজ। আর মেয়েদের গ্রুপে সরকারি সিলেট মহিলা কলেজ রানার্স আপ হয়েছে।

কালুখালীতে ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা

ফজলুল হক ॥  গতকাল শুক্রবার রাজবাড়ী জেলাধীন কালুখালীতে আঃ হালিম স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলার শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে বিকাল ৪টায় পাঁচটিকরি ফুটবল একাদশ বনাম তোফাদিয়া যুব সংঘ এর মধ্যকার খেলা নির্ধারিত সময়ে ড্র হওয়ায় ট্রাইবেকারে ০৪-০৩ গোলে পাঁচটিকরি ফুটবল একাদশ চ্যাম্পিয়নশীপ অর্জন করে। খেলা শেষে স্টেডিয়াম মাঠ চত্ত্বরে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ ইকবাল হোসেন মোল্লা, মরহুম আঃ হালিম শেখের সুযোগ্য পুত্র ইউপি সদস্য শেখ মোহাম্মদ ফারুক এছাড়াও মোঃ আকু শিকদার, মোঃ আয়ুব আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন চিনু মাষ্টার, খেলা পরিচালনাকারী রেফারী মোঃ হাফিজুর রহমান মাষ্টার সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ প্রথমে রানার্সআপ দলের টিম ম্যানেজার মোঃ রাজিব ও অধিনায়ক জীবনের হাতে ২১ ইঞ্চি কালার টিভি এবং চ্যাম্পিয়ন অর্জনকারী দলের অধিনায়ক মোঃ ফারুক হোসেনের হাতে ২৪ ইঞ্চি কালার টিভি তুলে দেন।

 ভেড়ামারায় আলোচিত শরিফুল হত্যার মূল মোটিভ উদ্ধার হয়নি

আল-মাহাদী ॥ পরকিয়া প্রেমের বলি হলেন কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার জগশ্বর গ্রামের শরিফুল ইসলাম (৪১)। প্রেমিকার সাথে গোপন অভিসারের সময় স্বামী দেখা ফেলায় শরিফুলের গলার মাফলার পেঁচিয়ে প্রেমিকার বাড়িতেই শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়। গত ৩ মাসেও শরিফুল হত্যার মুল মোটিভ উদ্ধার হয়নি। হত্যাকান্ডে সরাসরি জড়িত প্রেমিকা মিনা খাতুন এবং তার স্বামী জোবেদ আলী, এমনটাই মনে করেন নিহত শরিফুলের স্ত্রী সেলিনা খাতুন ও তার বাবা-মা। তাদের দাবী অভিযুক্ত এই দুজনকে আটক করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলেই বেরিয়ে আসবে শরিফুল হত্যাকান্ডের মুল মোটিভ। গত ২৯ জানুয়ারী দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জগশ্বর মাঠ থেকে ওই এলাকারই কালু মাল’র পুত্র শরিফুলের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। সে ২৭ জানুয়ারী সন্ধ্যার পর থেকে নিখোঁজ ছিল। এ ঘটনার পর নিহতের পিতা বাদী হয়ে ৩০২/২০১/৩৪ ধারায় একটি হত্যা মামলা করেন। যার নং ২১ তারিখ ঃ ৩০/০৪/২০১৯। র্দীঘ ৩ মাসেও শরিফুল হত্যার মুল মোটিভ উদ্ধার হয়নি। পুলিশ একাধিকবার অভিযান চালিয়ে হত্যার মুল রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা করে কাছাকাছি অবস্থানে গিয়েছে। কিন্তু এখনো মুল মোটিভ উদ্ধার হয়নি। মামলাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে একটি চক্র এখন সক্রিয়। সরজমিনে জগশ্বর এলাকা ঘুরে বিভিন্ন জনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, পরকিয়া কারনেই হত্যার স্বীকার হয় দিনমজুর শরিফুল। এলাকায় মুখরোচক খবর ছিল ওই এলাকারই জোবেদের স্ত্রী মিনা খাতুনের সাথে পরকিয়া প্রেম ছিল শরিফুলের। এ নিয়ে প্রেমিকা মিনা খাতুনের স্বামী জোবেদ খেদোক্তি প্রকাশ করে নাম পরিচয় উল্লেখ না করে কয়েকবার খুন করারও হুমকি দেয়। সে ছিল দুজনকে হাতে নাতে ধরার অপেক্ষায়।  গত ২৯ জানুয়ারী জগশ্বর নি¤œ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় মাঠে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং উৎসবের আয়োজন করা হয়। উৎসবে গ্রামের প্রায় সবাই যোগ দেয়। প্রেমিক শরিফুল এবং প্রেমিকার স্বামী জোবেদ আলীও ভিন্ন ভিন্ন ভাবে যোগ দেয় ওই উৎসবে। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে পরকিয়া প্রেমে অন্ধ শরিফুল প্রেমিকা মিনা খাতুন’র কাছে রাতের অন্ধকারে চলে আসে। ঘরের পাশেই বদ্ধ একটি ঘরে মিনা এবং শরিফুল’র অভিসার চলতে থাকে। অপর দিকে দুজনকে হাতে নাতে ধরার দীর্ঘ অপেক্ষায় থাকা জোবেদ আলীও পিছু নেয় শরিফুলের। সে সংগোপনে দেখতে পায় শরিফুল এবং মিনা খাতুনের গোপন অভিসার। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে শরিফুলের গলায় থাকা মাফলার পেঁচিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়। নিহতের স্ত্রী সেলিনা খাতুন বলেছেন, জোবেদের বউ মিনা খাতুনের সাথে পরকিয়া প্রেম ছিল তার স্বামী শরিফুলের। বহু বাধা ও নিষেধ সত্বেও সে মিনা খাতুনের প্রেম থেকে ফিরে আসেনি। এ পরকিয়া প্রেমই তার জীবন কেড়ে নিয়েছে। স্কুলের মেলার রাতে ওই বদ্ধ ঘরেই জোবেদরাই তার স্বামীকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার পর মাঠের মধ্যে ফেলে রেখে আসে। তিনি জানান, লাশ উদ্ধার করার পর পুলিশ, র‌্যাব’র সাথে আমিও গিয়েছিলাম ওই বদ্ধ করে। পরিত্যাক্ত ঘরটিতে হত্যার আলামতও পায় পুলিশ। এঘটনার পর ৭/৮ দিন পলাতকও ছিল জোবেদ। পুলিশ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদও করেছিল। কিন্তু তাকে ছেড়ে দেয়। নিহত শরিফুলের মাতা আজুরা খাতুন জানিয়েছেন, জোবেদ এবং তার স্ত্রী মিনা খাতুন মিলেই আমার ছেলেকে হত্যা করেছে। হত্যার পর নিজ বাড়িতেই একদিন লাশ রেখে দিয়ে পরদিন রাতের অন্ধকারে লাশ ফেলে রেখে আসে মাঠের মধ্যে। তাদের দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই বেরিয়ে আসবে হত্যার মুল রহস্য। নিহতের পিতা এবং মামলার বাদী কালু মাল জানিয়েছে, শরিফুল হত্যার কয়েকদিন আগে ওই জোবেদ আলী প্রকাশ্যে খুন করার হুমকি দেয়। তখন বুঝতে পারেনি সে আমার ছেলেকে হত্যার কথা কেন বলছে। জোবেদের স্ত্রী মিনার সাথে প্রেমের সর্ম্পক ছিল এটা সবাই জানে। ছেলেকে নিষেধ করেও সে নিষেধ শুনেনি। এটাই তার জীবনের কাল হয়েছে। তিনি বলেন, আমরা নিরীহ মানুষ। কোন শত্রু নেই আমাদের। তারপরও আমার ছেলেকে খুন করা হয়েছে। আমি প্রকৃত হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি চাই। আমার ছেলের সাথে দিনমুজুরীর কাজ করতো পিন্টু এবং মিথুন লস্কর। আমি তাদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ দিয়েছি জোবেদ এবং তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে। পুলিশ তাদের গ্রেফতার না করে নিরীহ ওই দুই ছেলেকে সন্দেহ বশতঃ গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। জোবেদ এবং তার স্ত্রী মিনা খাতুনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই শরিফুল হত্যার মুল মোটিভ উদ্ধার হবে। এ বিষয়ে ভেড়ামারা থানার ওসি (তদন্ত) আন-নুর জায়েদ’র সাথে কথা হলে তিনি বলেন, মামলাটি তদন্তধীন রয়েছে এবং দুইজন আসামী আটক আছে। হত্যার সাথে জরিত ব্যক্তিরা অবশ্যই সাজা পাবে।

 

 

ভেড়ামারায় বর্ণিল ঘুড়ি উৎসব

ভেড়ামারা অফিস ॥ নীল আকাশে দোলা দিচ্ছে রঙ বে-রঙের হরেক রকমের ঘুড়ি। লাটাই হাতে নিয়ন্ত্রন করছেন বিভিন্ন বয়সী মানুষ। দৃশ্য ঘুড়ি উৎসবের। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা কলেজ মাঠে বর্ণিল এই ঘুড়ি উৎসব হয়ে গেল শুক্রবার। চিলি করে ঢিলিমিলি, কুয়াড়ি করে টান, ঢাউস উঠি বলে আরও সুতি আন এই স্লোগানে বিলুপ্তিপ্রায় বিভিন্ন রকম খেলাধুলা মধ্যে এই ঘুড়ি উৎসব ফিরিয়ে আনার লক্ষেই ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ এর ব্যবস্থাপনায় ও মনি গ্রুপের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি’র পৃষ্ঠপোষকতায় এই আয়োজন। শুক্রবার সকাল ৯ টায় ঘুড়ি উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন কালে উপস্থিত ছিলেন, ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ, মনি গ্রুপের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি, ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আক্তারুজ্জামান মিঠু, পৌর মেয়র শামিমুল ইসলাম ছানা সহ প্রমূখ। বিলুপ্তিপ্রায় এই উৎসবে অংশ নিতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করেন অংশগ্রহনকারীরা। ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ বলেন, এই ঘুড়ি উৎসবসহ বিলুপ্তিপ্রায় সব খেলাধুলা ফিরিয়ে আনার লক্ষে আমার সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের সাথে সাথে নীল আকাশে উড়তে থাকে বর্ণিল সব হরেক রকমের ঘুড়ি। ঢাউস, চিলি কিংবা বাক্স এমন হরেক রকমের ঘুড়ি উড়াল দেয় নীল আকাশে। ঘুড়ি উৎসবের এমন জমকালো আয়োজনে অংশ নিতে পেরে খুঁশি দর্শনার্থীরা। সব বয়সী মানুষ ছুটে আসেন ওই বর্ণিল আয়োজন উপভোগ করতে। ঘুড়ি উৎসব শেষে সকল প্রতিযোগিদের মাঝে শুভেচ্ছা স্বারক তুলে দেন ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ এবং মনি গ্র“পের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম মনি।

গাংনীতে ৪ দিন ব্যাপি উজ্জীবক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়নের চিৎলা গ্রামে ৪দিন ব্যাপি উজ্জীবক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে চিৎলা মৎস্য সমবায় সমিতির সভাকক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করা হয়। দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ প্রশিক্ষণের আয়োজনে করে। প্রশিক্ষণে ধানখোলা ইউনিয়নের (খ-অঞ্চলের) বিভিন্ন গ্রামের ৪৪জন নারী-পুরুষ অংশগ্রহণ করেন। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ-এর ভিটিআর বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী,সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সিরাজুল ইসলাম স্যার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ-এর ভিটিআর-প্রশিক্ষক ও গাংনী ডিগ্রী কলেজের প্রভাষক মহিবুর রহমান মিন্টু, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ-এর গাংনী অঞ্চল সমন্বয়কারী হেলাল উদ্দীন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ-এর ধানখোলা ইউনিয়ন সমন্বয়কারী গোলাম আম্বিয়া,ষোলটাকা ইউনিয়ন সমন্বয়কারী আসাদুজ্জামান আসাদ।

ওড়িশায় ফণীর তান্ডব ৩ জনের মৃত্যু

ঢাকা অফিস ॥ অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতে ওড়িশায় শত শত গাছ উপড়ে গেছে। বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙ্গে পড়ায় রাজ্যের বেশির ভাগ অংশ বিদ্যুৎ  বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। স্থানীয় সময় শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে ঘূর্ণিঝড় ফণী তীর্থ নগরী পুরীর ২৫ কিলোমিটার দক্ষিণ দক্ষিণপশ্চিমে গোপালপুর আর চাঁদবালির মাঝামাঝি এলাকা দিয়ে ওড়িশা উপকূল অতিক্রম করতে শুরু করে।ওই সময় বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১৭৫ থেকে ১৮৫ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১৯৫ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছিল। ওড়িশা উপকূল অতিক্রম করার পর ঘূর্ণিঝড়টি এখন পশ্চিমবঙ্গের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। ওড়িশার স্পেশাল রিলিফ কমিশনার বিষ্ণুপদ বলেন, “আমি এখন পর্যন্ত রাজ্যে দুইজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করছি। তাদের মধ্যে এক বৃদ্ধা আমাদের একটি আশ্রয় কেন্দ্রে হৃদরোগ জনিত কারণে মারা গেছেন। অন্য একজন আমাদের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ঝড়ের মধ্যে বাইরে বের হন এবং গাছ চাপা পড়ে মারা যান।” গাছের নীচে চাপা পড়া ওই কিশোরের বাড়ি পুরীতে। এছাড়া নৈয়াগড়ে নির্মাণাধীন একটি স্থাপনা থেকে ইট পড়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানার আগেই ওড়িশা উপকূল থেকে প্রায় ১১ লাখ মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়। রাজস্থানে এক নির্বাচনী র‌্যালিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত লোকজনকে আশ্বস্ত করে বলেন, “পুরো দেশ এবং কেন্দ্র আপনাদের পাশে আছে।” গত মাস থেকে ভারতের জাতীয় নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। মোট সাত দফায় এই ভোট গ্রহণের পঞ্চম দফা ভোট হবে আগামী সোমবার। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঝড়ের কারণে আগামী ৪৮ ঘণ্টা সব ধরণের নির্বাচনী র‌্যালি বাতিল ঘোষণা করেছেন।

সৌদি আরবে সড়ক দূর্ঘটনা

নিহত ভেড়ামারার রফিকুলের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতম

ভেড়ামারা অফিস ॥ সৌদি আরবের সাকরায় সড়ক দূর্ঘটনায় যে ১০জন নিহত হয়েছে এর মধ্যে রফিকুল ইসলামের বাড়ী কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলায়। নিহত রফিকুল ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের মাধবপুর গ্রামের মোঃ আনোয়ার হোসেনের ছেলে। নিহত রফিকুলের ১৫ ও ১০ বছরের ২টি মেয়ে ও ৪ বছরের ১টি পুত্র সন্তান রয়েছে। মৃত্যুর সংবাদ শোনার পরে নিহত রফিকুলের বাড়ীতে এখন চলছে শোকের মাতম। নিহত রফিকুলের স্ত্রী হিরা খাতুন জানান, চলতি বছরের মার্চ মাসের ২৪ তারিখে রফিকুল সৌদি আরবে যায়। মৃত্যুর ১ ঘন্টা আগেও পরিবারের সাথে ভিডিও কলের মাধ্যেমে কথা হয় রফিকুলের। এরপর থেকে রফিকুলের মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে সৌদি আরবে একই গাড়ীতে থাকা সহকর্মী রাশিদুলের স্ত্রীর মাধ্যেমে তারা জানতে পারে রফিকুল সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। নিহত রফিকুলের বাবা আনোয়ার  হোসেন জানান, রফিকুলের মৃত্যুর সংবাদ সরকারী ভাবে জানানো না হলেও লোক মারফত শুনেছি। তবে আসলে আমার ছেলের কি হয়েছে তা সঠিকভাবে আমরা জানতে পারেনি। এই দুর্ঘটনায় রাশিদুলও গুরুতর আহত হয়েছে। আহত রাশিদুলের বাড়ী কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার জুনিয়াদহ ইউনিয়নে। উল্লেখ্য, নিহত রফিকুল ইসলাম ও আহত রাশিদুল ইসলাম সৌদি আরবের দাম্মামের আল হাবিব ক্যাটারিং সার্ভিস কর্মী হিসেবে যোগদান করতে বৃহস্পতিবার দাম্মাম থেকে মদিনায় যাচ্ছিলেন। পথে মধ্যে রিয়াদ থেকে ১০০ কিলোমিটার উত্তরে সাকরা এলাকায় গাড়ীর চাকা ফেটে একটি কাভার্ট ভ্যানের সাথে সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই কুষ্টিয়ার রফিকুল ইসলামসহ ১০জন বাংলাদেশী নিহত হয়।

মির্জা ফখরুল বিএনপির অতিকৌশলের বলি – হাছান মাহমুদ

ঢাকা অফিস ॥ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের শপথ না নেয়ার বিষয়ে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির অতিকৌশলের বলি হয়েছেন দলটির মহাসচিব। রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে গতকাল শুক্রবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপির ৫ জনপ্রতিনিধি শপথ নিয়েছেন। আর দলটির অতিকৌশলের বলি হয়ে গেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম। তিনি নির্বাচিত হয়েও শপথ নিতে পারেননি। পদ্মা সেতু ও কর্ণফুলী টানেলের প্রয়োজন নেই মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি দেশের উন্নয়ন চায় না, অগ্রগতি চায় না-এ কথা আমরা দীর্ঘদিন ধরে বলে আসছি। মির্জা ফখরুলের বক্তব্যে বিষয়টি আবারও প্রমাণ করেছে। পদ্মা সেতু ও কর্ণফুলী টানেল দেশের জন্য জরুরি উলে¬খ করে তিনি বলেন, এ দুটি প্রকল্প হচ্ছে জাতির গর্বের প্রকল্প। বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা গেছে-এ দুটি প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়বে। কর্ণফুলী টানেল হলো এশিয়ার সর্বপ্রথম টানেল। এটি এখনও ভারতে নেই, পাকিস্তানেও নেই। প্রধানমন্ত্রীর লন্ডন সফর নিয়ে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর বক্তব্যের সমালোচনাও করেন হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, বিএনপির অভ্যাস সবসময় অপরাজনীতি করা। তারা ঘূর্ণিঝড় নিয়েও নোংরা রাজনীতি করছে। বিএনপিকে বক্তব্য না দিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দুর্যোগ নিয়ে বিএনপি লোক দেখানো বিবৃতির মধ্যে সীমাবদ্ধ আছে। বিবৃতির মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে দুর্যোগ মোকাবেলায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়ান। প্রসঙ্গত, একাদশ জাতীয় নির্বাচনের ফল বর্জন করা বিএনপি সংসদে যোগ না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু বহু নাটকীয়তার পর দুই দফায় বিএনপির পাঁচ সংসদ সদস্য শপথ নিয়েছেন।এ নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে। খালেদা জিয়ার মুক্তির শর্তে বিএনপির এমপিরা সংসদে যোগ দিয়েছেন বলে গুঞ্জন চলছে।

কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে টাকায় মিমাংসা !

কুমারখালীতে অবৈধ পরিবহনের চাকায় পিষ্ঠ হয়ে শিশু করুণ মৃত্যু

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ কুমারখালীতে শ্যালো মেশিনের ইঞ্জিন চালিত অবৈধ বাটাহাম্বা (স্থানীয়ভাবে নামকরন) পরিবহনের চাকায় পিষ্ঠ হয়ে হুসাইন (৭)  নামের এক শিশু’র মৃত্যু হয়েছে। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শিলাইদহ ইউনিয়নের কসবা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শিশুটিকে পিষ্ঠ করে পালিয়ে যাওয়ার মুহুর্তে অবৈধ পরিবহণ ও ঘাতক চালক উবাই (২৪) কে ঘটনাস্থলেই আটক করে স্থানীয়রা। এ সময় বিক্ষুব্ধ জনতা অবৈধ পরিবহণে অগ্নিসংযোগ ও ভাংচুর চালানোর চেষ্টা করে। নিহত শিশুটির বাবা রোকনুজ্জামান সহ স্বজনদের আর্তনাদে কেঁদেছে এলাকাবাসী। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চালককে আটক করে।

এদিকে, স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানাগেছে, অবৈধ পরিবহণের চাকায় পিষ্ঠ হয়ে প্রাণ হারানোর ঘটনাটি কয়েক ঘন্টার ব্যবধানেই মাত্র দেড় লক্ষ টাকার বিনিময়ে মীমাংসা করা হয়েছে। শিলাইদহ রবীন্দ্র কঠিবাড়ি সংলগ্ন আলো ট্যুরিষ্ট কমপ্লেক্সের কক্ষে এ বিষয়ের মিমাংসা বৈঠকে থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) শুভ্র প্রকাশ সরদার, উপ পরিদর্শক (এসআই) মহসিন উপস্থিত ছিলেন। শিলাইদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সালাহ্উদ্দিন খান তারেক আড়ালে থাকলেও তার ঘনিষ্ঠজনদের উদ্যোগেই শিশুটির স্বজনেরা মিমাংসা বৈঠকে বসতে রাজী হয়েছে বলে জানাগেছে। এদিকে বিকালে নিহত শিশু হুসাইনের লাশ সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে কসবা গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকেই নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, পদ্মা নদী থেকে মাটি ও বালি টানা এই অবৈধ পরিবহণগুলো বেপরোয়া গতিতে রাস্তায় চলাচল করে। এই গাড়ির চালকেরা একেবারেই অদক্ষ। এই গাড়ি চলাচলের কারণে শিশুদের স্কুলে পাঠিয়ে চরম দুশ্চিন্তায় থাকতে হয়। আর এই ঘটনাগুলো যদি বিচারের পরিবর্তে এভাবে টাকায় মীমাংসা হয় তাহলে সড়ক দুর্ঘটনা রোধ করা আদৌ সম্ভব নয়। স্থানীয় গ্রামবাসী ও শিক্ষক বলেন, নদী থেকে মাটি, বালি ও ইট বোঝাই গাড়িগুলোর চালকেরা একেবারেই অদক্ষ এবং চালকদের অধিকাংশই শিশু শ্রেণীর। তারা গ্রামের সড়ক দিয়ে বেপরোয়া গতিতে চলাচল করায় আমাদেরকে নিরাপত্তাহীনতায় চলাচল করতে হয়।  এদিকে, আরেকটি সূত্র জানাযায়, প্রায় এক বছর আগে ইউপি চেয়ারম্যান সালাহ্উদ্দিন খান তারেকের নিজস্ব পরিবহনের চাকায় পিষ্ঠ হয়ে একজন নিহত হলেও টাকার বিনিময়ে ওই ঘটনাও মিমাংসা করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘাতক চালক পুলিশ হেফাজতে রয়েছে এবং ঘটনাটি নিহত শিশু’র স্বজনদের সঙ্গে মিমাংসার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম মিজানুর রহমান।

 

ফখরুলের শপথ না নেয়ার বিষয়ে যা বললেন গয়েশ্বর

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপির জনপ্রতিনিধিদের সংসদে যাওয়ার বিষয়ে কথা বলেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।পাশাপাশি দলের মহাসচিবের শপথ না নেয়ার বিষয়েও কথা বলেন তিনি। গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের আব্দুস সালাম হলে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ বিষয়ে খোলামেলা কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ সব রাজবন্দির মুক্তির দাবিতে এ সভার আয়োজন করেন জাতীয়তাবাদী নবীন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা। দলীয় জনপ্রতিনিধিদের শপথ গ্রহণের ঘোর বিরোধী হিসেবে পরিচিত গয়েশ্বর রায় বলেন, যারা সংসদে যোগ দিয়েছেন, তারা জনগণের চাপে নাকি সরকারের চাপে যোগ দিয়েছেন- এ নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। তবে তাদের শপথের সঙ্গে খালেদা জিয়ার মুক্তির কোনো সম্পর্ক নেই। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের শপথ না নেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল কেন সংসদে যোগ দিলেন না, নিশ্চয়ই সে বিষয়ে তিনি ব্যাখ্যা দেবেন। এ বিষয়ে আমার কিছুই বলার নেই। সরকারের সঙ্গে বিএনপির কোনো আপস হয়নি উল্লেখ করে গয়েশ্বর বলেন, সরকারের সঙ্গে সমঝোতা করলে খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করে রাখা হতো না। প্রসঙ্গত, একাদশ জাতীয় নির্বাচনের ফল বর্জন করা বিএনপি সংসদে যোগ না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু বহু নাটকীয়তার পর দুই দফায় বিএনপির পাঁচ সংসদ সদস্য শপথ নিয়েছেন।এ নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে। খালেদা জিয়ার মুক্তির শর্তে বিএনপির এমপিরা সংসদে যোগ দিয়েছেন বলে গুঞ্জন চলছে। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়ার বিরুদ্ধে সরকার নতুন করে ষড়যন্ত্র করছে অভিযোগ করে আলোচনা সভায় গয়েশ্বর বলেন, লন্ডনে সফররত সরকারপ্রধানের কথায় এটি স্পষ্ট যে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে নতুন ষড়যন্ত্র হচ্ছে। গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘আমাদের সময়টা এখন সবচেয়ে খারাপ। কারণ, প্রধানমন্ত্রী যদি জনগণের ভোটে জয়লাভ করতেন, তাহলে তার মুখ থেকে নাবালকসূচক বক্তব্য আসতো না। আর তারেক রহমানের বিরুদ্ধে যখন শেখ হাসিনা বলেন আমি তখন খুব প্রাউড ফিল (গর্ববোধ) করি। কেন? কারণ, তারেক রহমান রাজনীতিতে একটা ফ্যাক্টর। তারেক রহমান বাংলাদেশের রাজনীতিতে আলোচিত। তিনি দেশপ্রেমিক জনগণের নেতা। এ কারণে তিনি (প্রধানমন্ত্রী) লন্ডন গেছেন চোখের চিকিৎসা করাতে, নাকি মনের চিকিৎসা করতে, আমি জানি না।’ দলীয় নেতাদের আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়ে এই বিএনপি নেতা বলেন, ‘আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি, আমরা যখন সাহস করে মাঠে নামার জন্য ডাক দেবো, তখন তারা (জনগণ) নেমে যাবেন। দেশবাসী আমাদের সঙ্গে নামার জন্য অপেক্ষা করছেন। জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী, আমরা কর্মসূচি দিলে তারা আমাদের সঙ্গে থাকবে। কারণ, বিএনপি জনগণের দল।’ খালেদা জিয়ার জামিন না পাওয়ার বিষয়টি তুলে ধরে গয়েশ্বর বলেন, ‘১৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা তিনদিনের মধ্যে জামিনে পেলেন। কিন্তু খালেদা জিয়ার ১৪ মাস লাগবে কেন? বিচারপতিদের সঙ্গে আমাদের শত্রুতা আছে? তাহলে, তারা কেন এরকম আচরণ করছেন? তারা এরকম করছেন সরকারের নির্দেশে। সরকারের নির্দেশ না মানলে তাদের চাকরি থাকবে না।’

গয়েশ্বর রায় বলেন, ‘তারেক রহমানকে একটি মামলায় খালাস দিয়েছিলেন যে বিচারক, তিনি দেশ ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়েছেন। আপাতত দেশে আসতে পারবেন এরকম কোনো সম্ভাবনাও নেই।’ সংগঠনের সভাপতি হুমায়ুন আহমেদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানার সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, কৃষক দলের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।

খোকসায় নিজের ঘরের মেঝে থেকে শ্রমিকের লাশ উদ্ধার

মেয়ের দেন মহড়ের টাকাই কাল হয় তার, ছেলে আটক

খোকসা  প্রতিনিধি ॥ খোকসায় নিজের বাড়ির রান্না ঘরের মেঝে খুড়ে রহস্য জনক ভাবে নিখোজ তাঁত শ্রমিক ছানাউল্লাহ বিশ্বাস ওরফে ছানাই (৪৫) এর অর্ধ গলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সে নিখোজ হওয়ার তিন মাস পর বৃহস্পতিবার দিন গত রাতে মৃতদেহটি উদ্ধার হয়। বাবাকে হত্যার পর লাশ গুমের অভিযোগে ছেলে রানা বিশ্বাস আটক হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত নিহতের স্ত্রী রানী খাতুনসহ অন্যরা আত্মগোপন করেছে। উপজেলা বেতাড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক মেম্বর ও নিহতের ভাই আব্দুল বারিক জানান, গত ফেব্রুয়ারী মাসে হঠাৎ করে তার ছোট ভাই ছানাউল্লাহ বিশ্বাস নিখোঁজ হয়। কয়েক দিন পর তার স্ত্রী রানী খাতুন দুই মেয়ে সনিয়া ও তানিয়া কে নিয়ে ঢাকায় যাওয়ার কথা বলে বাড়ি ছাড়ে। নিহতের একমাত্র ছেলে রানা বিশ্বাস উপজেলার ভবনীপুড়েরর বাড়িতে থেকে যায়। ভাইয়ের সন্ধানে বারিক নিজে কয়েক দফায় রানার সাথে যোগাযোগ করেন। সম্প্রতি এক রাতে বাড়িতে তালা লাগিয়ে সে পাশের গ্রাম মুকশিদপুরে (শ্বশুর বাড়ি) আত্মগোপন করে। এ ঘটনায় বারিকের সন্দেহ ঘনিভূত হলে তিনি নিজে খোকসা থানায় ৩০ এপ্রিল লিখিত অভিযোগ করেন। এক পর্যায়ে পুলিশ নিখোজ ব্যক্তি ও তার স্ত্রী সন্তানদের সন্ধান করতে অভিযোগ কারির উপর দায়িত্ব দেয়। অবশেষে বৃহস্প্রতিবার সন্ধায় নিহতের ছেলে আত্মগোপনে থাকা রানাকে জনতা ধওে ফেলে। সে তার বাবার হত্যার কথা স্বীকার করলে তাকে পুলিশে সপর্দ করা হয়। ছেলের স্বীকার উক্তির পর রাতেই নিহতের বাড়ির রান্না ঘরের মেঝেতে পুতি রাখা ছানাউল্লাহ বিশ্বসের অর্ধ গলিত মৃতদেহটি পুলিশ উদ্ধার করেছে। তিনি আরো জানান, বড় মেয়ে তানিয়ার তালাকের পর স্বামীর কাছ থেকে পাওয়া দেন মহরের প্রায় দেড় লাখ টাকা নিহতের স্ত্রী তার এক আত্মীয়র কাছে গচ্ছিত রাখে। এ ঘটনায় পরিবারিক বিরোধের সৃষ্টি হয়। এ নিয়ে স্ত্রী সন্তানেরা তাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে রান্না ঘরের মেঝেতে পুতে রেখেছিল। নিহত ছানাউল্লা ওরফে ছানাই মৃত আফসার বিশ্বাসের ছেলে। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবিএম মেহেদী মাসুদ সাংবাদিকদের জানান, নিহত ছানাউল্লাহ ওরফে ছানাই এর ভায়ের অভিযোগের প্রেক্ষিতে নিখোজের ছেলে রানা বিশ্বাসকে আটক করি। তার স্বীকার উক্তি অনুযায়ী নিহতের রান্না ঘরের মেঝে থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহতের ভায়ের দেওয়া অভিযোগটি মামলা হিসেবে নেওয়া হয়েছে। এটি একটি চাঞ্চল্যকর মামলা বলেও তিনি জানান।

 

‘ফণি’ মোকাবেলায় সরকারের পাশাপাশি প্রস্তুত আওয়ামী লীগ, আতংকিত না হতে সকলের প্রতি হানিফের আহবান

ঢাকা অফিস ॥ আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় ‘ফণি’র ধ্বংসলীলা মোকাবেলা করার জন্য সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগও প্রস্তুত রয়েছে । তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষতা ও বিচক্ষণতায় বর্তমানে যে কোন ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকার অনেক বেশি সক্ষম। ভারতের উড়িষ্যায় ফনি আঘাত হেনেছে, রাতে আমাদের দেশে আঘাত হানতে পারে। এ সময় ফনির গতি অনেকটাই কমে যাবে। তাই এটা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোন কারণ নেই। হানিফ বলেন, সরকারের পাশাপাশি যে কোন ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমরাও প্রস্তুত রয়েছি। শুধুমাত্র ঘূর্ণিঝড়ের সর্বোচ্চ সতর্কতা জারির সঙ্গে সঙ্গে অবহেলা না করে সকলকে নিরাপদ স্থানে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। মাহবুব-উল আলম হানিফ গতকাল শুক্রবার সকালে রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে ঘূর্ণিঝড় ‘ ফনি ’ মোকাবেলার প্রস্তুতি উপলক্ষ্যে আয়োজিত দলের সম্পাদকমন্ডলীর এক জরুরী সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন। এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, একেএম এনামুল হক শামীম, ত্রাণ ও সমাজকল্যান সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন নাহার লাইলী ও কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য মির্জা আজম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশাসন ও আমাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন এবং প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিচ্ছেন। তিনি বলেন, ফণির যে কোন ধরনের ধ্বংসলীলা মোকাবেলায় সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা দেশের উপকূলীয় এলাকার ১৯টি জেলার কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশ প্রদান করেছেন। এ জেলাগুলোর সরকারী কর্মকর্তা, বিআইডবি¬উটিএ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। তিনি বলেন, দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য সকল নৌযান বন্ধ রাখা হয়েছে, সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে এবং সরকারী স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার প্রধানদের চাবি হাতে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে হাজির থাকতে বলা হয়েছে। দুর্যোগের জন্য যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হলে শুকনো খাবার, বিশুদ্ধ পানি ও মেডিকেল টিম রাখা হয়েছে। হানিফ বলেন, আমরা উপকূলীয় জেলাগুলোতে প্রশাসনের পাশাপাশি দলীয় নেতা-কর্মীদেরও যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছি। প্রশাসনের পাশাপাশি তারাও দুর্যোগ মোকাবেলায় কাজ করবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ঘূর্নিঝড় ‘ফনি’র সার্বক্ষনিক পর্যবেক্ষণের জন্য একটি মনিটরিং টিম গঠন করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ড. ফখরুল ইসলাম মুন্সী ও ত্রাণ ও সমাজকল্যান সম্পাদক সুজিত রায়ের নেতৃত্বে ১৬ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি সার্বক্ষনিক মনিটরিং করবেন। তিনি আরো বলেন, ঘূর্নিঝড়ের যে কোন তথ্য জানাতে ৯৬৭৭৮৮১ ও ৯৬৭৭৮৮২ নাম্বারে যে কেউ যোগাযোগ করতে পারবেন। আওয়ামী লীগের অন্যতম মুখপাত্র হানিফ বলেন, সার্বিক পরিস্থিতি মনিটরিংয়ে আমাকেসহ দলের সিনিয়র নেতাদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির সদস্যরা হলেন, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, ফখরুল ইসলাম মুন্সী, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য আবুল হাসনাত আব্দুল¬াহ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, একেএম এনামুল হক শামীম, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন নাহার লাইলী, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য মির্জা আজম ও এস এম কামাল হোসেন। হানিফ বলেন, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকরাও সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবারের জুমআ নামাজের পর যাতে ঘূর্নিঝড় ফনির আঘাতে কোন ধরনের ক্ষয়ক্ষতি না হয় সেজন্য বিশেষ মোনাজাত করতে সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে হানিফ বলেন, বিএনপি মানুষের দুর্ভোগ নিয়ে নোংরা রাজনীতি করার চেষ্টা করছে। অথচ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় সার্বক্ষণিক প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিচ্ছেন। মানুষের দুর্ভোগ নিয়ে নোংরা রাজনীতি না করতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের প্রতি আহবান জানান তিনি।

কুমারখালীতে একই মঞ্চে জনপ্রতিনিধি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ কুমারখালীতে একই মঞ্চে কুষ্টিয়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য, নবনির্বাচিত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, অবসরপ্রাপ্ত প্রবীণ শিক্ষক ও কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় কুমারখালী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি কুমারখালী শাখা এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া- ৪ (খোকসা-কুমারখালী) আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, কুমারখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো: আব্দুল মান্নান খান, কুমারখালী পৌর সভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মো: সামছুজ্জামান অরুণ। উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো: জালাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ প্রাথিমক শিক্ষক সমিতি কুমারখালী শাখার সভাপতি মো: আদালত হোসেন, সাধারন সম্পাদক খন্দকার মোস্তফা শাহীন, সিনিয়র সহ সভাপতি সাধন আচার্য্য, সিনিয়র সহ সভাপতি রেজাউল ইসলাম। এ উপলক্ষে আলোচনা সভা শেষে সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো: আব্দুল মান্নান খানের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন, পৌর সভার মেয়র, উপজেলা শিক্ষা অফিসার সহ শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ। পরে তাঁরা ২০১৮ সালে অবসরে যাওয়া ৭ জন প্রবীণ শিক্ষক ও একই বছরে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পাওয়া ৭৭ জন শিক্ষার্থীদের হাতে সম্মাননা স্মারক (ক্রেস্ট) তুলে দেন। এর আগে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হন সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, পৌর সভার মেয়র সহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি কুমারখালী শাখার অন্যতম যুগ্ম সাধারন সম্পাদক দিপেন কুমার পাল।

এসএসসির ফল ৬ মে

ঢাকা অফিস ॥ এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে আগামী সোমবার। আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক এ তথ্য জানিয়েছেন । গতকাল শুক্রবার বিকালে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ৬ মে সকাল ১০টায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির হাতে ফলাফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেবেন বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা। “সেখানেই ফলাফলের বিস্তারিত প্রকাশ করবেন শিক্ষামন্ত্রী।” সাধারণত প্রধানমন্ত্রীর হাতে ফলাফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেন বোর্ড চেয়ারম্যানরা। পরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে শিক্ষামন্ত্রী ফলাফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডন সফরে থাকায় এবার তা হচ্ছে না। এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় এবার ২১ লাখ ৩৫ হাজার ৩৩৩ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে ১০ লাখ ৬৪ হাজার ৮৯২ জন ছাত্রী এবং ১০ লাখ ৭০ হাজার ৪৪১ জন ছাত্র।

 

সৌদিতে নিহত ১০ বাংলাদেশির পরিচয় মিলেছে

ঢাকা অফিস ॥ সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত প্রবাসী বাংলাদেশিদের পরিচয় মিলেছে। দেশটির সাগরা এলাকায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাংলাদেশি নিহত হন। গুরুতর আহত হন আরও চারজন। বুধবার (১ মে) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- ১. বাহাদুর, পিতা- হাবেজ উদ্দিন। মাতা- মালেকা। ঝাগরমান কালিহাতি, টাঙ্গাইল। পাসপোর্ট নম্বর- ইড ০৩৩৭২৯৯

২. মো. রফিকুল ইসলাম, পিতা- মো. আনোয়ার হোসেন। মাতা- মোছা. হিরা খাতুন। মাধবপুর বাহাদুরপুর, ভেড়ামাড়া, কুষ্টিয়া। পাসপোর্ট নম্বর- ইড০৭৯৮০৭৪

৩. মো. ইউনুস আলি, পিতা- মো. আব্দুল খালেক, মাতা- মোছা. আমেনা খাতুন। রঘুনাথপুর আলিপুর, ফুলবাড়িয়া, ময়মনসিংহ। পাসপোর্ট নম্বর ইণ ০৫২৫৪৯৩

৪. মো. জামাল উদ্দিন মাঝি, পিতা- মান্নান মাঝি, মাতা- নুরজাহান। তারাকান্দি মনোহরদি, নরসিংদী। পাসপোর্ট নম্বর: ইঘ ০৫৭১৭৩৬

৫. মো. গিয়াসউদ্দিন মৃধা, পিতা- মো. তফিজউদ্দিন মৃধা। মাতা- মোছা. হামিদা। তেগরা মান্দা, নওগাঁ। পাসপোর্ট নম্বর: ইখ ০১৭৭৮১৭

৬. মো. জুয়েল, পিতা- মো. গিয়াসউদ্দিন মাতা- আমেনা খাতুন। বাহাদিয়া পাকুন্দিয়া, কিশোরগঞ্জ। পাসপোর্ট নম্বর: ইঊ ০২৪৫৪০৬

৭. মো. ইমদাদুল, পিতা- রশিদ, মাতা- মোছা. কাজলি বেগম। তাতারদি শেখেরগাঁ মনোহরদি, নরসিংদী। পাসপোর্ট নম্বর: ইঢ ০৪০০৩৪৮

৮. মো. মানিক, পিতা- মো. রমজান আলী, মাতা- মোছা. মানিকজান। তুরুকবাড়িয়া মান্দা, নওগাঁ। পাসপোর্ট নম্বর: ইঢ ০৫০৫৯৫৩

৯. মো. আল আমিন, পিতা- আব্দুল মান্নান শেখ মাতা- পদেনা বেগম। দমনমারা খিদিরপুর মনোহরদি, নরসিংদী। পাসপোর্ট নম্বর: ইচ ০০৪৯৫২৩

১০. মো. মনির হোসেন, পিতা- মো. শামসুল হক, মাতা- মমতাজ বেগম। কস্তুরিপাড়া কালিহাতি, টাঙ্গাইল। পাসপোর্ট নম্বর: ইঢ ০৫৬৪৮১৮

দেশটির রাজধানী রিয়াদ থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরের শহর সাগরায় যাওয়ার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে। সাগরা প্রবেশপথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি দুর্ঘটনাকবলিত হয়। চালকসহ মোট ১৭ জন ছিলেন বলে জানা গেছে।  দুর্ঘটনায় আহত নাজমুল নামের এক বাংলাদেশি জানান, আমরা দু’জন সুস্থ আছি। তিনজনের অবস্থা একটু খারাপ। মাইক্রোবাসে ১৭ জন ছিলেন। ঘটনার আগের দিন (৩০ এপ্রিল) রাতে দাম্মাম থেকে মদিনার দিকে যাচ্ছিলেন তারা।  পরদিন সকাল সাড়ে ৭টায় হঠাৎ গাড়ির চাকা বার্স্ট হয়। গাড়িটা ডিগবাজি খেয়ে পড়ে যায়। এতেই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

ফণী মোকাবিলায় সমন্বিতভাবে কাজ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা অফিস ॥ ঘূর্ণিঝড় ফণী মোকাবিলায় সমন্বিতভাবে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। লন্ডনে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতির সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখছেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন এবং প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ শুক্রবার এসব কথা জানানো হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানার আগেই মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে আসার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। ইতিমধ্যে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় উপকূলীয় এলাকা থেকে মানুষকে কাছের ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র এবং স্কুল-কলেজে নেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সরকারের সব সংস্থা এবং বেসরকারি সংগঠনগুলোকে সুসমন্বিতভাবে ঘূর্ণিঝড় ফণী মোকাবিলায় কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন। তাঁর নির্দেশনা মোতাবেক প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের তত্ত্বাবধানে সারা দেশে সম্ভাব্য দুর্যোগ মোকাবিলার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে। সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি মোকাবিলারও সব ধরনের প্রস্তুতি সরকারের রয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনী, কোস্টগার্ডসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুতি রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় ফণীর সম্ভাব্য আঘাতের আশঙ্কায় দেশবাসীকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. নজিবুর রহমান উপকূলবর্তী ১৯টি জেলার প্রশাসনের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দুর্যোগ মোকাবিলার প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশনা দিয়েছেন। সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় আজ ও আগামীকাল খোলা রাখা হয়েছে। উপকূলীয় এলাকার সংশ্লিষ্ট জেলাগুলোর সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রক্ষা করা হচ্ছে।

আজ কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব’র দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন

নিজ সংবাদ ॥ আজ কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব এর দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে (২০১৯-২০২১)। ইতমধ্যে নির্বাচন কমিশন সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন। নির্বাচনকে ঘিরে কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব প্রাঙ্গনসহ শহরের বিভিন্ন স্থানে প্রার্থীদের ব্যানার-ফেস্টুন লাগানো হয়েছে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানাগেছে, আজ ৪ মে ২০১৯ তারিখ শনিবার সকাল ৮ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মোট পদের সংখ্যা ১৯টি। ১৯ পদের মধ্যে রয়েছে সভাপতি, ২জন সহ-সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, ২জন যুগ্ম-সম্পাদক, কোষাধাক্ষ্য, দপ্তর সম্পাদক, প্রচার প্রকাশনা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক, ক্রীড়া ও সমাজকল্যাণ এবং ৯জন নির্বাহী সদস্য। মোট ভোটার সংখ্যা ১০৭ জন। কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব এর এ দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে (২০১৯-২০২১) নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন ৩ জন। এর মধ্যে রির্টানিং/প্রিজাইডিং অফিসার হিসেবে আছেন কুষ্টিয়া জেলা সমবায় অফিসার কাজী মিজানুর রহমান। নির্বাচন পরিচালনার অন্য দুজন সদস্যরা হলেন কুষ্টিয়া জেলা সমবায় কার্যালয়ের পরিদর্শক মোঃ আসাদুজ্জামান ও শ.ম. রাশিদুল আলম। কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব এর দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে (২০১৯-২০২১) দুটি প্যানেল প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। গাজী মাহাবুব রহমান-আনিসুজ্জামান ডাবলু প্যানেল এবং চৌধুরী মুরশেদ আলম মধু-মজিবুল শেখ প্যানেল। কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে (২০১৯-২০২১) গাজী মাহাবুব-ডাবলু প্যানেলের ১৯ পদে প্রার্থীরা হলেন, সভাপতি পদে গাজী মাহাবুব রহমান (সম্পাদক দৈনিক আজকের আলো), সহ-সভাপতি পদে লুৎফর রহমান কুমার (সম্পাদক দৈনিক মাটির ডাক) ও তারিকুল হক তারিক (স্টাফ রিপোর্টার দৈনিক কালের কন্ঠ), সাধারণ সম্পাদক পদে আনিসুজ্জামান ডাবলু (সম্পাদক দৈনিক আন্দোলনের বাজার ও জেলা প্রতিনিধি চ্যানেল আই), যুগ্ম-সম্পাদক পদে শরিফ বিশ্বাস (সম্পাদক দৈনিক দি টিচার ও স্টাফ রিপোর্টার চ্যানেল ২৪ ) ও নুরুন্নবী বাবু (ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক দৈনিক সময়ের কাগজ), কোষাধ্যক্ষ পদে আবু মনি জুবায়েদ রিপন (সম্পাদক দৈনিক কুষ্টিয়ার খবর ও জেলা প্রতিনিধি দৈনিক যুগান্তর), দপ্তর সম্পাদক পদে এম.লিটন-উজ-জামান (জেলা প্রতিনিধি বাংলা টিভি), প্রচার প্রকাশনা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে তৌহিদী হাসান (জেলা প্রতিনিধি দৈনিক প্রথম আলো), ক্রীড়া ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে আ.ফ.ম নূরুল কাদের (জেলা প্রতিনিধি দৈনিক নয়া দিগন্ত), নির্বাহী সদস্য পদে মিজানুর রহমান লাকী (সম্পাদক,সাপ্তাহিক কুষ্টিয়ার সংবাদ ও জেলা প্রতিনিধি দৈনিক সংবাদ), আক্তার হোসেন ফিরোজ (সম্পাদক দৈনিক আজকের সূত্রপাত), মোকাদ্দেস হোসেন সেলিম (সম্পাদক দৈনিক সূত্রপাত), আব্দুল জিহাদ (সম্পাদক দৈনিক মাটির পৃথিবী), পি.এম.সিরাজুল ইসলাম (সম্পাদক দৈনিক ইন্টারন্যাশনাল ও জেলা প্রতিনিধি ডেইলী অবজারভার), দেবাশীষ দত্ত (ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক দৈনিক আজকের আলো ও সাপ্তাহিক কুষ্টিয়ার মুখ এবং জেলা প্রতিনিধি চ্যানেল নাইন ও খোলা কাগজ), নিজাম উদ্দিন (জেলা প্রতিনিধি দেশ টেলিভিশন), ডালিয়া পারভিন (জেলা প্রতিনিধি দৈনিক বাংলাদেশের খবর) এবং সুজন কুমার কর্মকার (সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার দৈনিক আন্দোলনের বাজার, জেলা প্রতিনিধি দৈনিক তৃতীয় মাত্রা, দৈনিক সকালের সময়, দৈনিক আজকের বিজনেস বাংলাদেশ)।

অপরদিকে চৌধুরী মুরশেদ আলম মধু-মজিবুল শেখ প্যানেলে ১৯টি পদের বিপরীতে ১৬ জন প্রার্থী নির্বাচন করছেন। এরমধ্যে সভাপতি পদে চৌধুরী মুরশেদ আলম মধু , সহ-সভাপতি পদে মোঃ হাসান আলী ও মোঃ রবিউল ইসলাম দোলন, সাধারণ সম্পাদক পদে মোঃ মজিবুল শেখ, যুগ্মসম্পাদক পদে মোঃ নজরুল ইসলাম মুকুল ও এস এম মাহফুজ-উর রহমান, কোষাধ্যক্ষ পদে মোঃ এনামূল হক , দপ্তর সম্পাদক পদে গোলাম মওলা, ক্রীড়া ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক পদে শরিফ মাহমুদ, প্রচার প্রকাশনা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে রবিউল আলম ইভান, নির্বাহী সদস্য পদে মফিজুর রহমান বাবু, মোঃ খালিদ হাসান সিপাই, মোঃ নজরুল ইসলাম, অঅহসান আলী বিশ্বাস, সোহেল রানা ও মোঃ আসলাম আলী।