কালুখালীতে পহেলা বৈশাখের প্রস্তুতি সভা

কালুখালী প্রতিনিধি ॥ গত বৃহস্পতিবার রাজবাড়ী জেলাধীন কালুখালীতে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতিমূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ১১টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অফিস কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত প্রস্তুতি সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন নাহার এর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে কৃষি অফিসার ঢেমাঃ মাছিদুর রহমান, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ খোন্দকার আবু জালাল, সমাজসেবা অফিসার মোঃ জিল¬ুর রহমান, সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জয়ন্ত কুমার দাস, উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হোসেন, কালুখালী প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ ফজলুল হক, সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমান, পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি তনয় চক্রবর্তী শম্ভু, রতনদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইসলাম শাহ আজিজসহ অন্যান্য অফিসারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। দিনটি আনন্দ উদ্দীপনার মাধ্যমে উদযাপনের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়।

ব্রনাইয়ের ইসলামিক আইন মানবাধিকারের লঙ্ঘন ঃ জাতিসংঘ

ঢাকা অফিস ॥ ব্র“নাই সমকামিতা এবং ব্যাভিচারের জন্য পাথর ছুড়ে হত্যার মতো কঠোর ইসলামিক আইন বাস্তবায়ন করে মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে বলে সমালোচনা করেছে জাতিসংঘ। ব্র“নাই বুধবার সমকামিতা, বিবাহ বহির্ভূত যৌন সম্পর্ক এবং ধর্ষণের জন্য ওই কঠোর ইসলামিক শরীয়া আইন চালুর ঘোষণা দিয়েছে। একইসঙ্গে চুরির জন্য অঙ্গচ্ছেদের মত বর্বর শাস্তিও চালু করেছে। জাতিসংঘের মুখপাত্র স্টিফেন দুজারিক বলেছেন, “জাতিসংঘ মহাসচিব এন্তনিও গুতেরেস মনে করেন, যে কোনোখানে কোনোরকম বৈষম্য না করে প্রতিটি মানুষের জন্যই মানবাধিকার সমুন্নত রাখা উচিত। অনুমোদিত আইনটি এই নীতির স্পষ্ট লঙ্ঘন। প্রতিটি মানুষেরই স্বাধীনভাবে সমান মর্যাদা এবং অধিকার নিয়ে বাঁচার এখতিয়ার আছে।” আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনানুযায়ী, যে কোনো পরিস্থিতিতে পাথর ছোড়া, অঙ্গচ্ছেদ অথবা বেত্রাঘাত, আইনি সংস্থাগুলোর হেফাজতে নিয়ে নির্যাতনসহ সব ধরনের শারীরিক শাস্তি নিষিদ্ধ। স্বাক্ষর করলেও ব্র“নাই এখনও নির্যাতন ও অন্যান্য নিষ্ঠুর, অমানবিক শাস্তির বিষয়ে ঘোষণাপত্র অনুমোদন করেনি। ২০১৪ সালে জাতিসংঘে দেশটির মানবাধিকার সংক্রান্ত পর্যালোচনায় ওই ঘোষণাপত্রের সব সুপারিশ বাস্তবায়ন করতে অস্বীকার করে তারা।

 

কুষ্টিয়ায় যমুনা টিভির ৫ম বর্ষপূর্তি পালন 

বর্ণাঢ্য আয়োজনে কুষ্টিয়ায় কেক কাটা, র‌্যালী ও আলোচনা সভার মধ্যদিয়ে যমুনা টেলিভিশনের ৫ম বর্ষপূর্তি পালিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় শহরের চিলিস চাইনিজ রেস্টুরেন্টের  পার্টি হলে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটেন অনুষ্ঠানে আগত প্রধান অতিথিসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা। প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান। বিশেষ ছিলেন দৈনিক কুষ্টিয়ার সম্পাদক ড. আমানুর আমান, দি কুষ্টিয়া চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডা: এর সহ-সভাপতি হাজী রবিউল ইসলাম, সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সাধারণ সম্পাদক জামিল হাসান খান খোকন, জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর কুষ্টিয়ার সহকারী পরিচালক মো: সেলিম্জুামান ও কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব-কেপিসি’র সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা। অনুষ্ঠানে শুরুতেই একটি বর্ণ্যাঢ্য র‌্যালী শহরের এনএস রোড প্রদিক্ষন শেষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠানস্থলে গিয়ে শেষ হয়। এসময় অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অথিতিরা যমুনা টিভির প্রচারিত ইনভেষ্টিগেশন ৩৬০ ডিগ্রি, সকালের বাংলাদেশসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের ভূয়সী প্রশংসা করেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক দিনের খবর পত্রিকার সম্পাদক  প্রকাশক ফেরদৌস রিয়াজ জিল্লু, আরটিভির স্টাফ রিপোর্টার শেখ হাসান বেলাল, সময় টেলিভিশনের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি এস এম রাশেদ, ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি মিলন উল্লাহ, দীপ্ত টেলিভিশন এর কুষ্টিয়া প্রতিনিধি দেবেশ চন্দ্র সরকার, দৈনিক সময়ের দিগন্ত পত্রিকার সম্পাদক প্রকাশক নাহিদ হাসান তিতাস, এটিএনর কুষ্টিয়া প্রতিনিধি খন্দকার তুহিন, চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের স্টাফ রিপোর্টার শরিফ বিশ্বাস, দৈনিক প্রথম আলোর কুষ্টিয়া প্রতিনিধি তৌহিদী হাসান, মাই টিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি আব্দুর রাজ্জাক বাচ্চু, এনটিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি সাবিনা ইয়াসমিন শ্যামলী, দৈনিক যুগান্তরের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি আবু জুবায়েদ রিপন, নতুন সময় টেলিভিশনের কুষ্টিয়া প্রতিনিধি সনি আজিমসহ কুষ্টয়ায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন ।

 

কুষ্টিয়ায় লালন মাজার শরীফ ও সেবাসদনের আয়োজনে সাংবাদিক সম্মেলন

২লালন একাডেমি উচ্ছেদ নয়, স্থানান্তর চাই এই  শ্লোগানকে সামনে  রেখে মাননীয় সুপ্রিম কোর্টের রায় বাস্তবায়নের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে লালন মাজার শরীফ ও সেবাসদন কমিটি। গতকাল শুক্রবার কুষ্টিয়া সদর উপজেলার  আলামপুরের,  আলামপাড়ার (গাজী বাবার দরগায় মাজার শরীফে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। লালন মাজার  শরীফ ও সেবাসদন কমিটির সভাপতি মোঃ আহসান আলী ( তুফান) বলেন লালন, একাডেমি ও মাজার শরীফ দুটি আলাদা আলাদা প্রতিষ্ঠান। মাননীয় সুপ্রিম কোর্টের রায় দিয়েছে লালন মাজার প্রকৃত ফকির সাধু ভক্তদের ফিরিয়ে দেওয়া হোক। তবে কিছু অদৃশ্য সিন্ডিকেটের কারণে প্রকৃত সাধু ভক্তদের কাছে লালন মাজার হস্তান্তর করা হচ্ছে না। সংবাদ সম্মেলনে লালন মাজার শরীফ ও সেবাদান কমিটির সভাপতি মোঃ আহসান  আলী (তুফান) সেবাসদন কমিটির পক্ষ্য থেকে  লিখিত স্মারকলিপি থেকে বলেন আমরা দেশবাসীকে  জানাতে চাই লালন মাজার শরীফ সেবা সদন কমিটি প্রকৃত লালন ভক্ত অনুসারীদের সার্বভৌমত্ব এক প্রতিনিধিত্বকারী প্রতিষ্ঠান বা সংগঠন। তাই আমি এই প্রতিষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে বলতে চাই  যার ধর্ম তার তার সাম্প্রদায়িক শাসন নিপাত যাক।  আমাদের জায়গা আমরা থাকবো আমাদের তীর্থ আমরা চালাবো। মাননীয় সুপ্রীম কোর্টে রায় বাস্তবায়ন  করতে একাডেমি কুষ্টিয়াকে আজকের সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে অনুরোধ করছি এবং লালন মাজার শরীফ সেবা সদন কমিটির এই অধিকার আদায়ের আইনি সংগ্রাম  ও দাবির সাথে সকল শ্রেণী- পেশার মানুষকে পাশে থাকা ও সহযোগিতা করার জন্য আহবান করছি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন লালন মাজার শরীফ ও সেবাসদন কমিটির সাধারণ সম্পাদক ফকির হাসান হাফিজ, ধর্ম ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফকির শামসুল, সাধুগুরু  ফকির আলাউদ্দিন, সাধুগুরু ফকির সিরাজ সাই, সদস্য আনোয়ারা ফকিরানীসহ লালনের অন্যান্য ভক্তবৃন্দরা। এসময় সমস্ত সাধু ফকিররা বলেন আমারা আমাদের মাজার শরীফ ফিরে  যেতে চাই। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

কোটচাঁদপুর পুলিশের বিশেষ অভিযানে ফেন্সিডিলসহ ৪ জন গ্রেফতার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর থেকে ২৫৩ বোতল ফেন্সিডিলসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করে কোটচাঁদপুর থানা পুলিশ। ঝিনাইদহ জেলার কোটচাঁদপুর থানা পুলিশের একটি চৌকষ দল, বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে মোঃ সাকিল হোসেন, পিতা- মোঃ মহিদুল হোসেন, মোছাঃ হাজেরা বেগম, স্বামী- মোঃ ওমেদুল হোসেন, মোছাঃ জোছনা বেগম,স্বামী- মোঃ আশরাফুল হোসেন, মোছাঃ খাদিজা বেগম,স্বামী- মোঃ আলেক শেখ, উভয় সাং-আন্দুলবাড়ীয়া, থানা-জীবন নগর, জেলা-চুয়াডাঙ্গা। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে ২৫৩ (দুইশত তিপ্পান্ন) বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে কোটচাঁদপুর থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা হয়েছে।

সরকার দেশে বাকশাল কায়েমের চক্রান্ত করছে – চরমোনাই পীর

ঢাকা অফিস ॥ ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) বলেছেন, সরকার নির্বাচনব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিয়ে দেশে বাকশাল কায়েমের চক্রান্ত করছে। জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়ে আজীবন ক্ষমতায় টিকে থাকতে দেশকে পুলিশি রাষ্ট্রে পরিণত করছে। তিনি বলেন, দেশ এক অনিশ্চিত গন্তব্যের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। মানুষের জানমাল, ইজ্জত-আব্র“র নিরাপত্তা নেই। আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও মাদক সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে ঢুকে পড়েছে। সামাজিক অবক্ষয় মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। এমতাবস্থায় একটি দেশ চলতে পারে না। এর দ্রুত সমাধান প্রয়োজন। গতকাল শুক্রবার বিকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। চরমোনাইর পীর আরও বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোকে সুষ্ঠু নির্বাচনের আশ্বাস দিয়ে সরকার জাতির সঙ্গে যে প্রতারণা করেছে, তা বিশ্বে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। তিনি বলেন, পেট্রোবাংলা ও তিতাস কর্মকর্তাদের দুর্নীতি বন্ধ করতে পারলে আগামী ১০ বছরেও গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি করার প্রয়োজন হবে না। কিন্তু সরকার দুর্নীতি ও সিস্টেম লস বন্ধ না করে এর দায় জনগণের ওপর চাপানোর চক্রান্ত করছে। ইসলামি কল্যাণ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা এবং বাসযোগ্য নগর গড়ার দাবিতে অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে ইসলামী আন্দোলনের নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন। সংগঠনটির ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারি মাওলানা এবিএম জাকারিয়ার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল মাদানী, মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, রাজনৈতিক উপদেষ্টা অধ্যাপক আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব অধ্যাপক মাওলানা এটিএম হেমায়েত উদ্দিন, মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ুম, মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ, ছাত্রনেতা শেখ ফজলুল করীম মারূফ।

সম্মেলন শেষে পীর সাহেব চরমোনাই মহানগর দক্ষিণ ২০১৯-২০ সেশনের জন্য সভাপতি মাওলানা ইমতিয়াজ আলম ও সেক্রেটারি মাওলানা এবিএম জাকারিয়া এর নাম ঘোষণা করেন।

কুষ্টিয়ায় ‘চতুরঙ্গ প্রকাশন’র শুভ উদ্বোধন ও “হৃদয়ে স্বদেশ” বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

বইয়ের আলোয় আঁধার কাটুক’ শ্লোগান নিয়ে কুষ্টিয়াতে প্রথমবারের মত চতুরঙ্গ প্রকাশনর শুভ উদ্বোধন এবং “হৃদয়ে স্বদেশ” বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে কুষ্টিয়া থানা মোড়ে অবস্থিত ডাইন ডিভাইন চাইনিজ রেস্টুরেন্টে জমকালো পরিবেশের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে চতুরঙ্গ প্রকাশার প্রকাশক ও একটু পাশে দাঁড়াই সামাজিক সংগঠনের সভাপতি সুমন মোস্তাফিজ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে “হৃদয়ে স্বদেশ” কাব্য সংকলনের মোড়ক উন্মোচন করেন, কুষ্টিয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি, দৈনিক বাংলাদেশ বার্তা পত্রিকার সম্পাদক, কবি ও বিশিষ্ট কলামিস্ট আব্দুর রশিদ চৌধুরী ৷ তিনি তার বক্তব্যে বলেন, সাংস্কৃতিক রাজধানী খ্যাত কুষ্টিয়ায় চতুরঙ্গ প্রকাশন এর পথচলা সফল হবে এবং নবীন লেখকদের বই প্রকাশের ক্ষেত্রে সহায়ক হবে ৷ ‘চতুরঙ্গ প্রকাশন’ এর শুভ উদ্বোধন ও মোড়ক উন্মোচন শেষে বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক ড. আমানুর আমান, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আলম আরা জুঁই, কবি ও কথা সাহিত্যিক হাসান টুটুল, ম্যাক কলেজের সহকারী অধ্যাপক সমাজকর্মী জামিরুল ইসলাম ও নাট্যকার জাফর আহমদ ৷ অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সাহিত্য বাড়ি সংস্কৃতি পরিষদের সভাপতি রিতা ফারিয়া রিচি, ডিজিটাল সাহিত্য আড্ডা’র সভাপতি শ্যামলী ইসলাম, কবি আসমান আলী, কবি জসীম উল্লাহ আল হামিদ ৷ অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন আব্দুল আওয়াল ৷ অনুষ্ঠানে অতিথিদের আসন গ্রহন শেষে উত্তরীয় প্রদান ও নবীন লেখকদের সম্মাননাসহ উত্তরীয় প্রদান করা হয় ৷ নবীন লেখকদের মধ্য থেকে কবি ও সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ সানি, কবি কামরুল আহসান লিটন ও নীলুফা আলমগীরকে সেরা লেখক হিসেবে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অতিথিবৃন্দ ৷ এ সময় হৃদয়ে স্বদেশ কাব্য সংকলন এর কবিদের মধ্যে থেকে উপস্থিত ছিলেন শেখ আক্তার, এস আই স্বাধীন, মোসাদ্দিক হোসেন সজল, ডা. মুকুল, এস এম রাসেল হাসান রাজিব, হুমায়ন কবির তরুণ প্রমুখ ৷ অনুষ্ঠানে প্রকাশনের পক্ষ থেকে প্রতিভাবান নতুন লেখকদের বই প্রকাশে পূর্ণ সহায়তা প্রদান এবং প্রতি বছর সাহিত্যে অবদান রাখার জন্য চতুরঙ্গ সাহিত্য পুরস্কার প্রদানের ঘোষণা দেওয়া হয়৷ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন “হৃদয়ে স্বদেশ” কাব্য সংকলনের সম্পাদক ও কথাসাহিত্যিক ওয়াহেদ সবুজ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে রাজধানীতে যুবদলের মিছিল

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জাতীয়তাবাদী যুবদল। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বিক্ষোভ মিছিলে নেতৃত্ব দেন। গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে যুবদলের কয়েকশ নেতাকর্মীর অংশগ্রহণে একটি বিক্ষোভ মিছিল নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়। মিছিলটি নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে মিছিলে বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, জাতীয়তাবাদী যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব, সিনিয়র সহসভাপতি মোরতাজুল করিম বাদরু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহীন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। মিছিল শেষে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অসুস্থতা ক্রমান্বয়ে চরম অবনতির দিকে ধাবিত হচ্ছে। দেশনেত্রীকে চিকিৎসা দেয়ার নামে নানা টালবাহানা ও জনগণকে ধোঁকা দেয়ার চেষ্টা করছে সরকার। তিনি বলেন, সরকার আমাদের দাবি উপেক্ষা করে বেগম জিয়ার পছন্দের হাসপাতালে চিকিৎসার সুযোগ না দিয়ে বরং বারবার বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা দেয়ার নামে তাকে এনে তিনি সুস্থ আছেন বলে মিথ্যার বেসাতি করে যাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে রিজভী বলেন, খালেদা জিয়াকে আর কষ্ট দেবেন না, তাকে অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দিন। দেশনেত্রীর পছন্দের বিশেষায়িত ইউনাইটেড হাসপাতালে সুচিকিৎসার সুযোগ দিন। কারণ আপনার নির্দেশেই খালেদা জিয়া কারাগারে। ‘দেশের কারাগারগুলো এখন প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত লোহার খাঁচায় পরিণত হয়েছে। শেখ হাসিনা যাকে অপছন্দ করেন তাকেই সেই খাঁচায় যতদিন ইচ্ছা আটকে রাখেন। অভ্রান্ত কোনো আইনকানুনের দ্বারা এখন কারও সাজা হয় না, এখন হয় প্রতিহিংসার সাজা। আবারও অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের হাসপাতালে সুচিকিৎসার সুযোগসহ নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান তিনি। এদিকে জাতীয়তাবাদী যুবদল ঢাকা মহানগর উত্তরের উদ্যোগে একই দাবিতে একটি বিক্ষোভ মিছিল মগবাজার থেকে শুরু হয়ে হাতিরঝিলে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অংশ নেন যুবদলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন হাসান, উত্তরের সভাপতি এসএম জাহাঙ্গীর, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিল্টনসহ অসংখ্য নেতাকর্মী। এ সময় নেতাকর্মীরা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মুহুর্মুহ স্লোগান দেন।

‘বিএনপির নতুন জেলা কমিটিতে ত্যাগী-সাহসীদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে’

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক ভূমি উপমন্ত্রী অ্যাডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া এ দেশে গণতন্ত্র নিরাপদ নয়। এ জন্য দলের সব পর্যায়ের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে বেগম জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে শরিক হতে হবে। তিনি বলেন, তারেক রহমানের পরিকল্পনা অনুযায়ী সারা দেশে শিগগিরই নতুন জেলা কমিটি গঠন করা হবে। এসব কমিটিতে ত্যাগী, সাহসী, পরীক্ষিত ও তরুণ নেতৃত্বকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। শুক্রবার দুপুরে পাবনায় জেলা বিএনপির নির্বাহী কমিটির এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু এসব কথা বলেন। জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুস সামাদ খান মন্টুর সভাপতিত্বে এবং জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার হাবিবুর রহমান তোতার পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহিন শওকত।

অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, সাবেক এমপি কেএম আনোয়ারুল ইসলাম, একেএম সেলিম রেজা হাবিব, আবদুল হালিম সাজ্জাদ, আবদুল্লাহ আল মাহমুদ মান্নান, জহুরুল ইসলাম বাবু, অ্যাডভোকেট নাজমুল হোসেন শাহিন, জহুরুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য দেন। এদিকে দলীয় সূত্র জানায়, শুক্রবারের সভায় পাবনা জেলা কমিটি ভেঙে নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠনের কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তা হয়নি। সভায় জেলা এবং কেন্দ্রের সব নেতার বক্তব্য অনুযায়ী সভায় বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শিমুল বিশ্বাসের মুক্তির পর ভোটের মাধ্যমে পাবনা জেলা কমিটি গঠন করা হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়।

দৌলতপুর কলেজের শিক্ষার্থী সঞ্চারী দেশ গানে বিভাগ সেরা

দৌলতপুর প্রতিনিধ ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী তাবাসুম তাসনিম সঞ্চারী দেশ গানে খুলনা বিভাগ সেরা হয়েছে। এছাড়াও কবিতায় দৌলতপুর সরকারী পাইলট হাইস্কুলের ৭ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী নুবাহ্ ফাইজা বিভাগ সেরা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার খুলনায় বিভাগীয় পর্যায়ে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় দৌলতপুরের দুই কৃতি শিক্ষার্থী বিভাগ পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করে। এরআগে তারা উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করলে বিভাগীয় পর্যায়েও প্রতিযোগিতায় তারা শ্রেষ্ঠত্বের ধারা অব্যাহত রাখে। তাবাসুম তাসনিম সঞ্চারী দৌলতপুর কলেজের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সরকার আমিরুল ইসলামের মেয়ে এবং নুবাহ্ ফাইজা দৌলতপুর গার্লস কলেজের প্রভাষক মো. গিয়াস উদ্দিনের মেয়ে। এদিকে দৌলতপুর কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থী তাবাসুম তাসনিম সঞ্চারী দেশ গানে বিভাগ সেরা হওয়ায় দৌলতপুর কলেজের অধ্যক্ষ মো. ছাদিকুজ্জামান খান তাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

আমলাপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির কমিটির জরুরী সভা

নিজ সংবাদ ॥ আমলাপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির কমিটি ও ১৭ হাঁত উচ্চতা বিশিষ্ট কালী পূজা মন্দির কমিটির জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৫ এপ্রিল শুক্রবার রাত ৮টায় আমলাপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির প্রাঙ্গনে এ জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন আমলাপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির কমিটির সভাপতি এ্যাডঃ অঘোর কুমার সরকার। সভা পরিচালনা করেন উক্ত মন্দির কমিটির সাধারণ সম্পাদক সুজিত কুমার ঘোষ। গত ৪ ও ৫ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে স্থানীয় একটি পত্রিকায় উক্ত মন্দির কমিটির কোষাধ্যক্ষ সহদেব অধিকারী সাধুর বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় সর্বসম্মতিক্রমে ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। সেই সাথে নেতৃবৃন্দ বলেন, একটি মহল মন্দিরের উন্নয়ন কাজে হিংসা পরায়ণ হয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। এরই ফলে একটি মহল অত্র মন্দিরের কোষাধ্যক্ষ সাধুর বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়ে, উদ্দেশ্য প্রণদিত হয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করিয়েছেন। মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে এর নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। সেই সাথে এধরণের সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয়। এ সময় মন্দির কমিটির সহ-সভাপতি সনৎ কুমার পাল বাবলু, সহ-সভাপতি সাংবাদিক সুজন কুমার কর্মকার, সাংগঠনিক সম্পাদক নিশিত কুমার বিশ্বাস, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক নিমাই অধিকারী, দপ্তর সম্পাদক সমীর সরকার সোনা, সৎকার সম্পাদক প্রতাপ ঘোষ, সহ-সৎকার সম্পাদক শয়ন ঘোষ, ধর্ম সম্পাদক নরেশ ঘোষ, প্রচার সম্পাদক নিপেন চক্রবর্তী, সহ-প্রচার সম্পাদক বিপুল অধিকারী, সদস্য খুদিরাম ঘোষ, বাবলু অধিকারী, সুমন বিশ্বাস, শুভ অধিকারী, বলাই অধিকারী, সমীর সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

কালুখালীতে সরকারী সিলযুক্ত ৪৪ বস্তা চাউল জব্দ; থানায় মামলা

ফজলুল হক ॥ রাজবাড়ীর জেলার কালুখালী উপজেলার মৃগী বাজারের মুন্সি মোঃ সেলিম উদ্দিনের সার ও কীটনাশকের দোকান থেকে ৪৪ বস্তা সরকারী সিলযুক্ত চাউল জব্দ করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে চাউল জব্দ করেছেন কালুখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেট কামরুন নাহার। পরে উদ্ধারকৃত চাউল মৃগী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে গচ্ছিত রাখা হয়। এসময় উপ-সহকারী খাদ্য কর্মকর্তা মোঃ একরাম হোসেন খান, মৃগী বাজার বণিক সমিতির সভাপতি মোঃ আবুল হোসেন জোয়াদ্দার, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রাকিবুল ইসলাম আকমল খান সহ অন্যান্যাদের উপস্থিতিতে এ চাউল জব্দ করা হয়। এরপর রাত ১২টার পর কালুখালী থানায় উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তহমিদা খানম বাদী হয়ে সেলিম মুন্সির বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করে। স্থানীয়রা জানান কোথাকার চাউল এখানে এলো সে বিষয়ে সংশি¬ষ্ট কর্মকর্তারা তদন্তপূর্বক বের করে দোষীদের শাস্তির দাবী জানাই।

চুয়াডাঙ্গার ৫০ হাজার মার্কিন ডলারসহ এক পাচারকারী আটক

চুয়াডাঙ্গা অফিস ॥ চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় বিজিবি অভিযান চালিয়ে ৫০ হাজার মার্কিন ডলার ও পাঁচটি নতুন মোবাইলফোন সেটসহ এক পাচারকারীকে আটক করেছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে দর্শনা চেকপোস্টে এই অভিযান পরিচালিত হয়। ডলারসহ আটক ব্যাক্তির নাম নূর ইসলাম (৪০)। তিনি মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার মাঠপাড়া গ্রামের মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে। বিজিবি-৬ এর পরিচালক লে.কর্ণেল ইমাম হাসান জানান, দর্শনা চেকপোস্টে হাবিলদার ইকবাল হোসেন সন্দেহজনক যাত্রীর ব্যাগ তল্লাশী করে ডলার ও হুয়াউ অনার নাইন এন মডেলের পাঁচটি মোবাইলফোন  সেট পান। এসব ডলার সরকারের ট্রেজারীতে জমা এবং আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে দামুড়হুদা মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হবে।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনার রাজনীতি প্রতিষ্ঠিত করতে চাই – গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ. ম. রেজাউল করিম মানুষের সেবায় রাজনীতি করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন। তিনি বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার রাজনীতি প্রতিষ্ঠিত করতে চাই। ক্ষমতায় থাকবে মুক্তিযুদ্ধের দল, ক্ষমতার বাইরে বিরোধী দলেও থাকবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার দল। আমাদের পরিষ্কার কথা, জীবনকে উৎসর্গ করতে হবে মানুষের কল্যাণে, মানুষের সেবায়- সেটাই হবে রাজনীতি।’শ.ম. রেজাউল করিম বাংলাদেশ কংগ্রেসের ৬ষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘আদর্শ রাষ্ট্র ও সমাজ গঠনে রাজনৈতিক দলসমূহের ভূমিকা’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।মন্ত্রী বলেন, ‘আমি রাজনৈতিক নেতা হয়েছি, মন্ত্রী হয়েছি। আমার যদি টার্গেট থাকে বিত্ত-বৈভব অর্জন করে আমি রাজনীতি করবো-সেটা রাজনীতি হতে পারেনা। এ রাজনীতি থেকে বেরিয়ে আসার চলমান প্রক্রিয়ায় দেশবাসীকে শামিল হতে তিনি আহ্বান জানান।’গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, তার কাছে বাংলাদেশ হচ্ছে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বাংলাদেশ, অসম্প্রাদায়িক রাজনীতির বাংলাদেশ।তিনি বলেন,বর্তমান সরকার উন্নয়নের রাজনীতিতে একটা জায়গায় দাঁড়ানোর প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সামাজিক সূচকে, অর্থনৈতিক সূচকে বাংলাদেশ এখন অনেক দূর এগিয়ে গেছে।বাংলাদেশ কংগ্রেসের চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেনের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন ও অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক।

কুষ্টিয়া পৌরসভার ১৫০ বছর পূর্তির আলোচনায় হেলাল উদ্দিন

কুষ্টিয়া পৌরসভা যুগের সাথে তাল মিলিয়ে প্রযুক্তিগতভাবে এগিয়ে চলেছে

বাংলাদেশ টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ¦ালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের  চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ হেলাল উদ্দিন বলেছেন, দেশের অতি প্রাচীনতম এই কুষ্টিয়া পৌরসভার রয়েছে গৌরবান্বিত ইতিহাস। নানামুখি কর্মকান্ডের মধ্যদিয়ে এই পৌরসভাটি তার ইতিহাস ও ঐতিহ্য ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। তিনি বলেন, কুষ্টিয়া পৌরসভা নাগরিক সেবার পাশাপাশি যুগের সাথে তাল মিলিয়ে প্রযুক্তিগতভাবে এগিয়ে চলেছে। আমরা আজ আনান্দিত যে, কুষ্টিয়া পৌরসভা মানব বর্জদিয়ে সার তৈরি করে বাংলাদেশে এক অনন্য দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করেছে। তিনি বলেন, আরও একটি আনন্দের সংবাদ হচ্ছে এই যে, কুষ্টিয়া পৌরসভা এবার তরকারীর উচ্ছিষ্ট দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনের কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। আর এ কাজে নাগরিকদেরও অনেক দায়িত্ব আছে। উন্নত দেশের নাগরিকদের মত রান্নাঘরে তিনটি পাত্র রাখতে হবে। পচনশীল, প্লাস্টিক ও কাঁচ আলাদা করে রাখতে হবে। সেগুলো দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদিত হবে। কুষ্টিয়া পৌরসভার ১৫০ বছর উদযাপন উপলক্ষ্যে পঞ্চম দিনের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বাংলাদেশ টেকসই ও নবায়নযোগ্য জ¦ালানি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ হেলাল উদ্দিন এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া খোকসা পৌরসভার মেয়র তারিকুল ইসলাম। সভার সভাপতির বক্তৃতায় মেয়র আনোয়ার আলী বলেন, আমাদের রাজস্ব আয় দিয়ে পৌরসভার উন্নয়ন করা সম্ভব নয়। এজন্য দাতা সংস্থার আর্থিক সহযোগিতায় উন্নয়ন করা হয়। তিনি  পৌর নাগরিকদের প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষা করার জন্য পানি অপচয় করা থেকে বিরত থাকার আহবান জানান। সেইসাথে পৌরসভার পানির লাইনে সরাসরি পানির পাম্প মেশিং দিয়ে পানি না তোলার আহবান জানান। আলোচনাসভায় আলোচক হিসেবে আলোাচনা করেন মুক্তি নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মমতাজ আরা বেগম। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পৌর সাবেক কাউন্সিলর নাসির উদ্দিন আহম্মেদ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পৌর শিল্পীগোষ্টির পরিবেশনায় জাতীয় সংগীত পরিবেশিত হয়। এছাড়াও সন্ধ্যা  হতে সানআপ স্কুল এন্ড কলেজ, আনন্দ ধারা, সরকারী মহিলা কলেজ’র পরিবেশনায় সংগীত সন্ধ্যা এবং আবৃত্তি পরিষদ আবৃত্তি করেন পরে নৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।  রাতে নাচ মহল য্ত্রাাপালার পরিবেশনায় যাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। উল্লেখ্য কুষ্টিয়া পৌরসভার প্রতিষ্ঠার পর হতে যারা বিভিন্ন সময় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, কমিশনার, ওয়ার্ড চেয়ারম্যান ও কাউন্সিলরের দায়িক্ত পালন করেছিল তাদের সম্মানরা ক্রেষ্ট উপহার দেন অতিথিবৃন্দ। অনুষ্ঠানে সঞ্চালক ছিলেন কুষ্টিয়া পৌর নগর পরিকল্পনাবিদ রানভীর আহমেদ ও পৌর উপ-সহকারী প্রকৌশলী সাবিনা ইসলাম। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

 

রোহিঙ্গাদের জন্য বিদেশী সাহায্য কমে গেছে – পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের জন্য বিদেশী সাহায্য আগের তুলনায় এখন কমে গেছে। তাদের থাকা-খাওয়া নিয়ে সরকার ভীষণভাবে চিন্তিত। গতকাল শুক্রবার শ্রীমঙ্গলে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে রোহিঙ্গা ইস্যুতে তিনি এসব কথা বলেন। আজ দুপুরে ৩৫টি দেশের রাষ্ট্রদূত ও ৭টি আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধিদের নিয়ে চায়ের দেশ হিসেবে পরিচিত শ্রীমঙ্গলে যান মন্ত্রী। প্রতিনিধিদের মধ্যে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ভারত, স্পেন, ফ্রান্স, নিউজিল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিশরসহ ৩৫টি দেশের রাষ্টদূত ও তাদের পরিবারে সদস্যরা রয়েছেন। আব্দুল মোমেন বলেন, বর্ষা মৌসুমে বাংলাদেশের পাহাড়ী এলাকাগুলোতে প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘটে। বিভিন্ন সময় ভূমিধস হয়। এ কারণে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ আবাসন নিয়ে দুশ্চিন্তা আরো বাড়ছে। তাই, রোহিঙ্গাদেরকে তাদের দেশে ফেরত পাঠানো এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গারা যাতে নিজেদের দেশে ফেরত যায় সে ব্যাপারে আমরা সব ধরনের তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছি। রোহিঙ্গারা নির্ধারিত এলাকা ছেড়ে যাতে অন্য কোথাও না যায় সে ব্যবস্থাও নিচ্ছে সরকার। এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা শিশুদের বাংলা শিখিয়ে তো লাভ নেই, একদিন তো তারা নিজেদের দেশ মায়ানমারে ফিরে যাবে সেখানে তারা তাদের নিজেদের ভাষায় শিক্ষিত হবে। ৩৫টি দেশের রাষ্ট্রদূত ও ৭টি আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধিদের নিয়ে এই ভ্রমণের কারণে এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

মিরপুরে যৌতুকের দাবীতে দুই সন্তানের জননীকে হত্যার অভিযোগ, শাশুড়ী আটক

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরের পৌর এলাকায় দুই সন্তানের জননী সানজিদা খাতুনের (২৫) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত সানজিদার মা-বাবার অভিযোগ, যৌতুকের টাকা না পেয়ে তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন সানজিদাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ঘরের ডাবের সাথে লাশ ঝুলিয়ে রাখে। এই হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে নিহতের শাশুড়ী খাদিজা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার সকালে মিরপুর  পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের সুলতানপুরে এই ঘটনা ঘটে। মিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল আলিম জানান, নিহত সানজিদার বাবা সাইদুল ইসলাম শুক্রবার সকালে থানায় অভিযোগ করেন সানজিদাকে তার শশুর বাড়ীর লোকজন হত্যা করে ঘরের ডাবের সাথে ঝুলিয়ে রেখেছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা সানজিদার শশুরবাড়ি থেকে তার ঝুলন্ত  লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছি। এবং এই হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে সানজিদার শাশুড়ী খাদিজা বেগমকে আটক করা হয়েছে। সানজিদার স্বামী ট্রাক চালক খোকন পলাতক রয়েছে। সানজিদার বাবা সাইদুল ইসলাম জানান, ৬ বছর আগে সানজিদার সাথে একই গ্রামের ট্রাক চালক খোকনের বিয়ে হওয়ার পর থেকেই তার শশুর বাড়ির লোকজন বিভিন্ন সময় যৌতুকের জন্য চাপ দিয়ে আসছিল । সর্বশেষ শুক্রবার সকালে সানজিদাকে তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন যৌতুকের ১ লক্ষ টাকা আনতে বলে, সে অপারগতা জানালে সানজিদাকে পিটিয়ে হত্যা করে তার শ্বশুর বাড়ীর লোকজন। নিহত সানজিদার মরিয়ম নামের ৪ বছরের একটি কন্যা ও ওমর ফারুক নামের ১ বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

কুষ্টিয়ার ৬ উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনকের মাজার জিয়ারত

নিজ সংবাদ ॥ সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট মহানায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের টুঙ্গিপাড়াস্থ মাজার জিয়ারত করলেন কুষ্টিয়া জেলার ৬টি উপজেলায় নির্বাচিত চেয়ারম্যান, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান। এ উপলক্ষ্যে গতকাল সকালে কুষ্টিয়া শহর  থেকে সদ্য নির্বাচিত সদর উপজেলার চেয়ারম্যান ও শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান আতার নেতৃত্বে খোকসা উপজেলার চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান, কুমারখালী উপজেলার চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান, মিরপুর উপজেলার চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন, ভেড়ামারা উপজেলার চেয়ারম্যান হাজী আখতারুজ্জামান মিঠু, দৌলতপুর উপজেলার চেয়ারম্যান এ্যাডঃ এজাজ আহম্মেদ মামুনসহ ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানগণ। এ সময় চেয়ারম্যাণগণ জাতির জনকের কবর জিয়ারত শেষে ৭৫’র ১৫ই আগষ্ট ঘাতকের গুলিতে নিহত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদের  আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মহান আল্লাহপাকের দরবারে বিশেষ মোনাজাত করেন।

রাজনীতি একটা দলের কাছে চলে গেছে – ফখরুল

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বাংলাদেশে এখন কোনো রাজনীতি নেই, রাজনীতি তো একটা দলের কাছেই চলে গেছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও কালিবাড়িতে তার নিজ বাসবভনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি। মির্জা ফখরুল বলেন, দেশে একদলীয় শাসনব্যবস্থা একবার এসেছিল ১৯৭৫ সালে। সেটা চলে যাওয়ার পরে এখন আবার একদলীয় শাসন ব্যবস্থা পুরোপুরি কার্যকর হয়ে গেছে। এখন যেটা আছে সেটা হলো ছদ্মবেশী গণতন্ত্র। সাংবাদিকদের প্রশ্নে মির্জা ফখরুল বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলা দিয়ে আজকে কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে এবং যেটা তার আইনগতভাবে পাওনা জামিন সেটাও তিনি পাচ্ছেন না। তিনি আরো বলেন, বেআইনি দখলদারি সরকারকে মেনে নেয়ার কোনো কারণই নেই। আমরা সরকারকে বলেছি এই নির্বাচন বাতিল করে পুনরায় একটি নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, সহ-সভাপতি আবু তাহের দুলাল, জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক মামুন-উর-রশিদ, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক জেলা বিএনপি আমিনুল ইসলাম সোহাগসহ দলটির নেতাকর্মীরা।

হাসপাতাল ছাড়লেন ওবায়দুল কাদের

ঢাকা অফিস ॥ দীর্ঘ এক মাস সিঙ্গাপুরে চিকিৎসা নেওয়ার পর মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তবে এখনই তিনি দেশে ফিরতে পারছেন না। ফলোআপ চিকিৎসার জন্য আরও কিছুদিন তাকে সিঙ্গাপুরে থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী। সিঙ্গাপুর থেকে তিনি জানান, গতকাল শুক্রবার বিকাল ৩টায় মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওবায়দুল কাদেরকে ছাড়পত্র দেয়। উনি শারীরিকভাবে সুস্থ আছেন। উনার হার্ট, ব্লাড প্রেশার, ডায়াবেটিস সবই ভালো আছে। দুই তিন সপ্তাহ পরে পরবর্তী ফলোআপ করে উনি দেশে ফিরে যাবেন। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপপ্রধান তথ্য কর্মকর্তা আবু নাছের টিপু জানান, হাসপাতালের কাছেই একটি বাসা ভাড়া নেওয়া হয়েছে সেতুমন্ত্রীর জন্য। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী আপাতত সেখান থেকেই তার ফলোআপ চিকিৎসা হবে। এ দিকে গণমাধ্যমে পাঠানো একটি ভিডিও চিত্রে হাসপাতাল থেকে গাড়িতে উঠার সময়ে ওবায়দুল কাদেরকে বেশ প্রাণবন্ত ও হাস্যোজ্জ¦ল দেখা গেছে। এসময় তিনি উপস্থিত সবাইকে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানান। ৬৭ বছর বয়সী ওবায়দুল কাদের হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ছাড়াও শ্বাসতন্ত্রের জটিল রোগ সিওপিডিতে (ক্রনিক অবসট্রাকটিভপালমোনারি ডিজিজ) ভুগছেন। গত ২ মার্চ সকালে শ্বাসকষ্ট নিয়ে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তি হলে এনজিওগ্রামে কাদেরের হৃদপিন্ডের রক্তনালীতে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লক স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করেন চিকিৎসকরা। অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ৪ মার্চ এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। সেই রাতেই একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা শুরু করেন মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের চিকিৎসকরা। কয়েকদিন চিকিৎসার পর অবস্থার উন্নতি হলে গত ২০ মার্চ কার্ডিও থোরাসিক সার্জন ডা. শিভাথাসান কুমারস্বামীর নেতৃত্বে কাদেরের বাইপাস সার্জারি হয়। ছয় দিন পর তাকে আইসিইউ থেকে স্থানান্তর করা হয় কেবিনে। ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে তার স্ত্রী ইসরাতুন্নেসা কাদেরও সিঙ্গাপুরে রয়েছেন। সেখান থেকে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের শারীরিক অবস্থার অগ্রগতির খবর নিয়মিত জানিয়ে আসছেন ডা. রিজভী।

কোন চক্রান্ত করে উন্নয়ন অগ্রযাত্রা বন্ধ করা যাবে না – নাসিম

ঢাকা অফিস ॥ আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিম এমপি বলেছেন, ‘কোন চক্রান্ত ষড়যন্ত্র করে উন্নয়ন অগ্রযাত্রা বন্ধ করা যাবে না।’ বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, ‘কোন অপশক্তিই এ অগ্রযাত্রাকে নস্যাৎ করতে পারবে না। ১৪ দল ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার পক্ষে থাকবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সর্বাত্মক সহযোগিতা দেবে।’ তিনি গতকাল শুক্রবার বিকেলে কাজিপুর উপজেলা সদরে নির্মিত স্বাধীনতা স্কয়ারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ও শহীদ এম মনসুর আলীসহ জাতীয় চার নেতার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানানো শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। পরে তিনি উপজেলা সদরে নির্মিত বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ পরিদর্শন করেন। এর আগে মোহাম্মদ নাসিম উপজেলা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুম্মার নামায আদায় করেন এবং মুসুল্লীদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ সরকার আছে বলেই দেশের উন্নয়ন হচ্ছে। আলোকিত বাংলাদেশ গড়ে উঠেছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সরকার মানেই উন্নয়নের সরকার। এই কাজিপুরের দুর্গম চরে ১০ শয্যাবিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ, পাকা সড়ক নির্মাণ, রেস্ট হাউস নির্মাণ, উপজেলা পরিষদের নতুন ভবন, শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ, আইএইচটি, আমেনা মনসুর টেক্সটাইল, পাঁচশ আসন বিশিস্ট শহীদ এম মনসুর আলী অডিটোরিয়াম নির্মাণসহ উন্নয়ন কর্মকান্ডের চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেছেন সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে উন্নয়ন হয়। দেশের সমৃদ্ধি হয়। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকারের ধারাবাহিকতার কোন বিকল্প নেই ‘ এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদ হাসান সিদ্দিকী, আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ শওকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সিরাজী, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম মোস্তফা তালুকদার, ইউপি চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান মুকুল প্রমুখ।