সম্ভাব্য নোবেল পুরস্কার যোগ্য ব্যক্তিদের তালিকায় ইমরান খান!

ঢাকা অফিস ॥ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে নোবেল শান্তি পুরস্কারের যোগ্য প্রার্থী হিসেবে মনোনিত করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক একটি সংবাদ প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান। প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে চলমান উত্তেজনা নিরসনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখায় ইমরান খানকে এ তালিকায় মনোনিত করা হয়। দ্য ক্রিশ্চিয়ান সায়েন্স মনিটর নামের ওই প্রতিষ্ঠানের সম্পাদকীয় বোর্ড নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য যোগ্য প্রার্থীদের সঙ্গে ইমরান খানকেও তালিকাভূক্ত করেছে। খবর এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের। গত কয়েকদিন আগে পাকিস্তানের হাতে আটক ভারতীয় পাইলট অভিনন্দনকে ছেড়ে দেয়ায় ইমরান খানকে নোবেল পুরস্কার দেয়ার দাবি জানিয়েছিলেন অনেক সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারী। টুইটারে ইমরানকে নোবেল দেয়ার দাবিতে হ্যাশট্যাগ ঝড় তুলেছেন তারা। পাকিস্তানজুড়ে টুইটার ট্রেন্ডে পরিণত হয়েছিল ‘নোবেল প্রাইজ ফর ইমরান খান’ হ্যাশট্যাগ। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক হইচইয়ের মধ্যে ইমরান বলেছিলেন, তিনি নোবেল পুরস্কারের যোগ্য নন। ইমরান জানিয়েছিলেন, কাশ্মীরবাসীর আকাঙ্খার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে সংকট নিরসন এবং উপমহাদেশে শান্তি ও স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে পারবেন যিনি, তারই এই পুরস্কার পাওয়া উচিত। দ্য ক্রিশ্চিয়ান সায়েন্স মনিটর নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য যোগ্য প্রার্থীদের আগাম তালিকা প্রকাশ করেছে। নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য যোগ্য হিসেবে ইমরান খানকে তালিকাভূক্ত করার কারণ হিসেবে জানিয়েছে, ‘শান্তি প্রতিষ্ঠায় তিনি যে কাজটি করেছেন; তা বিবেদপূর্ণ বর্তমান বিশ্বের শান্তিপ্রিয় নেতৃত্বের একটি ব্যতিক্রমী দৃষ্টান্ত।’ দ্য ক্রিশ্চিয়ান সায়েন্স মনিটর ইমরান খানকে নোবলে পুরস্কারের জন্য যোগ্য বর্ণনা দিয়ে লিখেছে, ‘শান্তি প্রতিষ্ঠার নিদর্শন হিসেবে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান নিজেদের সীমানায় বিমান ভূপাতিত করে আটক পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ভারতের কাছে হস্তান্তর করায় বিদ্যমান পরিস্থিতির নাটকীয় পরিবর্তন ঘটে। দেশটির প্রথাগত রাজনৈতিক আচরণের সঙ্গে তার এমন সিদ্ধান্ত অনেকটা আশ্চর্যের।’ প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্র“য়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় ভারতের আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে হামলায় অন্তত ৪০ সেনা নিহত হন। এই আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মোহাম্মদ। ভারত এ হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে দাবি করে আসছে।

এই হামলার জেরে কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাকিস্তানের বালাকোটে বিমান হামলা চালায় ভারতীয় বাহিনী। হামলায় ২০০ থেকে ৩০০ জঙ্গি নিহত হয় বলে দাবি করেছে দেশটি। এরপর ভারতীয় বিমানবাহিনী পাকিস্তানে বালাকোট এলাকায় সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ রেখা পার হয়ে বোমা হামলা চালায়। ভারতীয় গণমাধ্যম দাবি করে এতে অনেক জঙ্গি হতাহত হয়েছে। তবে পাকিস্তান বলছে, এতে তাদের দেশে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। এর পর এদিন বিকালে পাকিস্তান সীমান্তবর্তী এলাকায় ব্যাপক গোলা বর্ষণ করে। এতে ভারতীয় দুই নাগরিক নিহত হওয়া দাবি করা হয়েছে। পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ভারতীয় দুটি বিমান ঢুকে পড়লে পাকিস্তান তা ভূপাতিত করে। এ ঘটনায় দুইজন নিহত ও এক ভারতীয় পাইলটকে আটক করেছে পাকিস্তান। দুই দেশের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আটক ভারতের পাইলটকে মুক্তি দিয়েছে পাকিস্তান। পাক ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলিতে এ মুক্তির ঘোষণা দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পাইলটকে মুক্তির কারণ হিসেবে ইমরান খান বলেছেন, শান্তির বার্তা দিতেই ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয়া হয়েছে।

নিবন্ধন ছাড়া মিলবে না ট্রেনের টিকিট

ঢাকা অফিস ॥ নিবন্ধন ছাড়া মিলবে না আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট। আর এই নিবন্ধন করতে লাগবে যাত্রীর নাম, ফোন ও জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) বা জন্মসনদ নম্বর। এসব তথ্য টিকিটে প্রদর্শিত হবে। ঢাকা থেকে সারা দেশে চলাচলকারী ৩৩ টি আন্তঃনগর ট্রেনের মধ্যে প্রাথমিকভাবে ৮টি আন্তঃনগর ট্রেনে নতুন নিয়মে টিকিট বিক্রি আজ থেকে শুরু হচ্ছে। যারা কিনবেন তাদের যাত্রার দিন নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২০ মার্চ থেকে। বাংলাদেশ রেলওয়ে সূত্র জানিয়েছে, কালোবাজারি রোধে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এর আগে গত ১ জানুয়ারি সোনার বাংলা ট্রেনে এ পদ্ধতি চালু করা হয়েছিল। এখন সোনার বাংলা ট্রেনের সাথে নতুন করে যুক্ত হচ্ছে সুবর্ণ, মহানগর গোধূলি, মহানগর প্রভাতী, পদ্মা, চিত্রা, পারাবাত ও দ্রুতযান এক্সপ্রেস। একটি এনআইডি নম্বরে সর্বোচ্চ ৪টি টিকিট কেনা যাবে। তবে ১ বার নাম নিবন্ধন করলে পরবর্তীকালে আর নতুন করে নিবন্ধন করতে হবে না। বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইট/ ই সেবায়, মোবাইল অ্যাপ ও স্টেশন কাউন্টারে নিবন্ধন (রেজিস্ট্রেশন) করা যাবে। এ ব্যাপারে রেলওয়ের মহাপরিচালকের দফতর থেকে পাঠানো এক চিঠিতে বলা হয়, এসব ট্রেনের ১ম সিট/ ১ম বার্থ, এসি সিট/এসি বার্থ ও স্নিগ্ধার টিকিট কেনার ক্ষেত্রে নিবন্ধন প্রয়োজন হবে। শোভন শ্রেণীর টিকিটের বিষয়ে কিছু উল্লেখ নেই চিঠিতে। তবে এ ব্যাপারে রেলওয়ের মহাপরিচালক কাজী মোঃ রফিকুল আলম জানিয়েছেন, শোভন শ্রেণীর টিকিটের ক্ষেত্রেও এ নিয়ম প্রযোজ্য হবে। রেলসূত্র জানায়, প্রতিবেশী দেশ ভারতে টিকিটে নাম লেখা পদ্ধতি চালু রয়েছে। সেখানে যিনি ভ্রমণ করবেন তার নামেই টিকিট সংগ্রহ করতে হয়। অন্যজনের টিকিট দিয়ে ভ্রমণ করার কোনো সুযোগ নেই। ট্রেনে আলাদা চেকিং হয়, গরমিল হলেই যাত্রীদের আটক করা হয়। সূত্র আরো জানায়, গত ১ জানুয়ারি থেকে সোনার বাংলা এক্সপ্রেসে মোবাইল নম্বর ও এনআইডি অথবা জন্মসনদ দিয়ে টিকিট বিক্রি শুরু করা হয়। প্রথম দিকে কিছু সমস্যা হলেও পরবর্তীতে এর সুফল মেলে। এ কারণেই গত ১৩ ফেব্র“য়ারি রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালকের সভাপতিত্বে রেলভবনে রেলওয়ের টিকিট সংক্রান্ত সভায় এ নতুন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। জানা গেছে, যারা টিকিট বিক্রি করবেন (বুকিং সহকারী), তাদেরকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। যাতে তারা যাত্রীর নাম সঠিক বানানসহ লিখতে পারেন। এ প্রসঙ্গে কমলাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বলেন, সোনার বাংলায় এনআইডি চালু করায় সুফল পাওয়া গেছে। নতুন ব্যবস্থাপনায় টিকিট নিতে কী যাত্রীদের ভোগান্তি  পোহাতে হবে -এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোন ভোগান্তি হবে না। কারণ একবার নিবন্ধন করলে দ্বিতীয়বার আর করতে হবে না। পরবর্তীকালে যাত্রীর মোবাইল নম্বর সার্চ দিলেই সব তথ্য চলে আসবে। তিনি আরো বলেন, যেসব কাউন্টার থেকে টিকিট দেয়া হয়, সেই কাউন্টার থেকেই নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ করে টিকিট সংগ্রহ করা যাবে।

কালুখালীতে রতনদিয়া ইউপি হতে কালিকাপুর ইউপি পর্যন্ত সড়কের কার্পেটিং কাজের উদ্বোধন

ফজলুল হক ॥ গতকাল রাজবাড়ীর কালুখালীতে রতনদিয়া ইউপি হতে কালিকাপুর ইউপি পর্যন্ত সড়কের ০০ মিটার হতে ৮৯০ মিটার পর্যন্ত সড়কের প্রশস্থকরণ ও মেরামতের কার্পেটিং কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। সকাল ১১টায় রতনদিয়া ইউনিয়নে অরুণগঞ্জ বাজারের রাম পালের হোটেলের সামনে এ সড়কের শুভ উদ্বোধন করেন উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ তৌহিদুল হক জোয়াদ্দার। এসময় কাজের দায়িত্বপ্রাপ্ত সার্বিক তত্বাবধায়ককারী উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোহাম্মদ আলী  ও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দাস এন্টার প্রাইজ এর দায়িত্বপ্রাপ্ত সাব কন্টাক্টার মোঃ আব্দুল লতিফ সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। একই দিনে প্রায় ৪২ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স জিএম ট্রেডার্স কর্তৃৃক ৬৩৩ মিটার এ রাস্তার  মাজবাড়ী ইউপি হতে অরুণগঞ্জ জিসি সড়কের মদন মোহন আঙ্গীনা হতে স্টেশন বাজার হয়ে রেলগেট পর্যন্ত পুনঃনির্মাণ কার্পেটিং কাজের উদ্বোধন করা হয়।

গাংনীতে গরু ব্যবসায়ী নিখোঁজ

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কাজীপুর ইউনিয়নের পীরতলা গ্রামের গরু ব্যবসায়ী আজগর আলী (৪৭) নিখোঁজ হয়েছেন। নিখোঁজ আজগর আলী পীরতলা গ্রামের মধ্যপাড়ার আবুল সর্দারের ছেলে। গত ২ মার্চ আজগর আলী নিখোঁজ হন। নিখোঁজ আজগর আলীর ছেলে সাজ্জাদ রহমান জানান, আমার বাবা একজন গরু ব্যবসায়ী। ব্যবসার সুবাদে বাবা গরু কেনার উদ্দেশে গত ২ মার্চ সকালে বাড়ি  থেকে পাবনার সিটির হাটে বের হন। সে থেকে তিনি নিখোঁজ রয়েছেন। আজ পর্যন্ত বাবার কোন খোঁজ-খবর না পেয়ে গাংনী থানায় জিডি করেছি। জিডি নং-২২৬।  তারিখ-০৬/০৩/১৯ ইং। বাড়ি থেকে বেরানোর সময় আমার বাবার কাছে ৬০ হাজার টাকা ছিল।

কালুখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

চেয়ারম্যান পদে আ’লীগের মনোনয়ন চান নিলুফা

কালুখালী প্রতিনিধি ॥ আসন্ন কালুখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন চান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোকসেদ আলী মন্ডলের সুযোগ্য কন্যা মেহেদী হাচিনা পারভিন নিলুফা। তিনি গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনয়ন নিয়ে ১নং রতনদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়ে চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তাঁর পিতা মরহুম মোকসেদ আলী মন্ডল মহান মুক্তিযুদ্ধের সক্রীয় অংশগ্রহণ করেন এবং সে সময় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী সময়ে অত্র অঞ্চলে সুসংগঠিত করেন। মেহেদী হাচিনা পারভীন নিলুফা ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে ইউনিয়নের সর্বসাধারণকে নির্বিঘেœ সকল ধরনের নাগরিক সেবা প্রদান করে আসছেন। রতনদিয়া ইউনিয়নের একটি বৃহৎ জনগোষ্ঠি বৃহত্তর পদ্মা নদীর চরাঞ্চলে  বসবাস করায় তাদের ব্যাপক হারে সরকারী ও ব্যক্তিগত ভাবে সাহায্য সহযোগী করে থাকেন। ইতোমধ্যে তিনি ইউনিয়ন সহ অন্যান্য ইউনিয়নে আলাপচারিতা করে সুপরিচিতি লাভ করেছেন। তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয় ও কালুখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের শাখা অফিস থেকে দলীয় মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন এবং বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ইউনিয়নে তাঁর সমর্থকদের সাথে নিয়ে গণসংযোগ করে বেড়াচ্ছেন। এ ব্যাপারে মেহেদী হাচিনা পারভীন নিলুফা’র সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ পরিবারে জন্মগ্রহণ করায় ছোটবেলা থেকে বাবার মুখ থেকে বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ শুনে বড় হয়েছি। রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও রাজবাড়ী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম এর সুপরামর্শে রাজনীতি করে আসছি। বর্তমান সরকার নারী নেতৃত্বকে যেভাবে সামনে নিয়ে আসছে তাতে আশা করি নারী নেতৃত্বের চলমান ধারা অব্যাহত রাখতে দল থেকে আমাকে মনোনয়ন দিবে। মনোনয়ন পেলে সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে দল-মত নির্বিশেষে সকলকে নিয়ে নির্বাচনের মাঠে নামবো এবং সাধারণ জনগণ আমাকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করবে বলে আশা করি।

১১শ’ বাসসহ হাসিনা-মোদির ৪ প্রকল্পের উদ্বোধন

ঢাকা অফিস ॥ ভারত থেকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের জন্য (বিআরটিসি) ১ হাজার ১০০টি বাস ও ট্রাক সরবরাহসহ ৪টি প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যকার ভিডিও কনফারেন্সে। সোমবার বেলা সোয়া ১টায় ভিডিও কনফারেন্স শুরু হয়। কনফারেন্সের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী মোদি বক্তব্য রাখেন। প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, ভারত-বাংলাদেশের মধ্যকার বহুমাত্রিক সহযোগিতার ফলে প্রতিবেশী দেশটির সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক আরো মজবুত হলো। তিনি বলেন, ভারত থেকে বিআরটিসির জন্য বাস পাওয়ায় আমাদের দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার আরো উন্নয়ন হবে। এছাড়া যানবাহন সংকটেরও অনেকটা সমাধান হবে। যাত্রীদের দুর্ভোগ কমবে। পানি শোধনাগার, কমিউনিটি ক্লিনিকসহ অন্য যেসব প্রকল্পের উদ্বোধন হলো, সেগুলো বাংলাদেশের মানুষের কল্যাণে আসবে- বলেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে আগামী ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে নরেদ্র মোদির সাফল্য কামনা করেন। তিনি বলেন, বাংলাদেশে কোনো সন্ত্রাসী সংগঠনের ঠাঁই হবে না। এছাড়া কাশ্মীরে নিহতদের জন্য সমবেদনা এবং সন্ত্রাসী কার্যক্রমের জন্য ঘৃণা প্রকাশ করেন। অপরদিকে নরেদ্র মোদি শুভেচ্ছা বক্তব্যে উল্লেখ করেন, পরিবহন সেক্টরসহ বিভন্ন সেক্টরে আমরা বাংলাদেশকে যে সহযোগিতা করছি তাতে বাংলাদেশের মানুষ উপকৃত হবে। এসব সহযোগিতার মাধ্যমে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে। ‘শেখ হাসিনার সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে সহযোগিতা করা গৌরবের’ বলেও মনে করেন মোদি। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য যে কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন আমি তার সফলতা কামনা করি।’ মোদি বলেন, ‘আগামী নির্বাচনে আবার ক্ষমতায় আসতে পারলে সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।’ তিনি বাংলায় বলেন, ‘ভারত-বাংলাদেশের বন্ধুত্ব চিরজীবী হোক’। বিআরটিসি সূত্র জানায়, ভারত থেকে প্রাপ্ত ঋণে কেনা ৬০০ বাস ও ৫০০ ট্রাকের মধ্যে ৩০০টি ডাবল ডেকার, ১০০টি নন-এসি, ১০০টি সিটি-এসি ও ১০০টি ইন্টারসিটি এসি বাস। ট্রাকগুলোর মধ্যে ৩৫০টি ১৬ দশমিক ২ টন বহন ক্ষমতাসম্পন্ন এবং ১৫০টি ১০ দশমিক ২ টন বহন ক্ষমতাসম্পন্ন। এখন পর্যন্ত ৪৭টি বিআরটিসি বাস ও ২৫টি ট্রাক বাংলাদেশে পৌঁছেছে। বাকি বাস ও ট্রাক চলতি বছরের জুনের মধ্যে  পৌঁছবে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সূত্র জানায়, ২ প্রধানমন্ত্রী ভারত সরকারের অনুদানের আওতায় জামালপুর, শেরপুর, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৩৬টি কমিউনিটি ক্লিনিক উদ্বোধন করেন। বাকি যেসব প্রকল্পের উদ্বোধন হয় সেগুলো হলো- পিরোজপুর জেলার ভান্ডারিয়া পৌরসভায় ১১টি পানি বিশুদ্ধকরণ প্লান্ট এবং সার্ক দেশগুলোতে ন্যাশনাল নলেজ নেটওয়ার্ক (এনকেএন) সম্প্রসারণের আওতায় বাংলাদেশে এনকেএন সম্প্রসারণ।

রোহিঙ্গাদের জন্য মাসে ব্যয় আড়াই হাজার কোটি টাকা – পররাষ্ট্র মন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ রোহিঙ্গাদের জন্য বাংলাদেশ প্রতিমাসে তিনশ’ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকারও বেশি। খবর রেডিও ফ্রি এশিয়ার। শুক্রবার রেডিও ফ্রি এশিয়ার সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠান বেনার নিউজকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নতুন করে আর কোন রোহিঙ্গা শরণার্থী গ্রহণ করবে না বাংলাদেশ। গেল সপ্তাহে জাতিসংঘেও একই ঘোষণা দিয়েছে সরকার। ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনী, বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) ও স্থানীয় লোকজন মিলে সেখানকার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির ওপর বর্বর নির্যাতন শুরু করে। হত্যা করা হয় ২৫ হাজার মানুষকে। অগ্নিসংযোগের পাশাপাশি ১৮ হাজার নারীকে ধর্ষণ করা হয়। আন্তর্জাতিক সংস্থার হিসাবে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর থেকে সাত লাখ ৪৫ হাজার রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে এসেছে। জাতিসংঘ এ ঘটনাকে জাতিগত নিধন হিসেবে বর্ণনা করে থাকে। পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, ‘পৃথিবীতে ১৯২টি দেশ রয়েছে। তাদেরও রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়া উচিত। শুধু আমাদেরকে কেন আশ্রয় দিতে হবে। আমরা আর কোন রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিতে পারবো না।’ তার ভাষায়, ‘বর্তমানে বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের পেছনে প্রতি মাসে ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যবহার করছে। বছরে এই টাকার পরিমাণ দাড়ায় ৩ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলার।’ তবে এই টাকা কিছু অংশ আন্তর্জাতিক সংস্থা থেকেও আসে বলে জানিয়েছেন তিনি। ২০১৮ সালের নভেম্বরে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর কথা ছিলো। কিন্তু রাখাইনে অনুকূল পরিবেশ তৈরি না হওয়ায় সেটি শুরু করা যায় নি।

ডাকসু নির্বাচনও কলঙ্কিত করা হলো – রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘মধ্যরাতের ভোটের সংস্কৃতি থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও বের হতে পারেনি। ডাকসু নির্বাচনেও রাতে ব্যালট বাক্স ভরা হয়েছে। ডাকসু নির্বাচনকে কলঙ্কিত করা হয়েছে। ২৮ বছর পরে ডাকসু নির্বাচনে সাধারণ ছাত্রদের ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে।’ গতকাল সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। রিজভী বলেন, ‘নাৎসিবাদী গণতন্ত্রের নানারূপ এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিফলিত হয়েছে। ঢাবির ৪৩ হাজার শিক্ষার্থীর জন্য মোট ভোট কেন্দ্র করা হয়েছে ১৮টি হলে। অথচ ছাত্রলীগ ছাড়া সব সংগঠন ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা একাডেমিক ভবনে ভোট কেন্দ্র দাবি করেছিলেন। দাবি করেছিলেন ভোটের সময় বাড়ানো, স্বচ্ছ ব্যালট বাক্সের। কিন্তু এসব দাবি নাকচ করা হয়েছে। এমনকি নির্বাচনের সব ধরনের অনিয়মের প্রমাণ না রাখতে মিডিয়াকে পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে।’ খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে এসময় রিজভী বলেন, ‘যে পিজি হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) অন্য হাসপাতাল থেকে ক্লিনিক্যাল যন্ত্রপাতি ধার করে আনতে হয়, সেখানে কিভাবে সুচিকিৎসা সম্ভব। আওয়ামী নেতার চিকিৎসা সেখানে সম্ভব হয়নি। বিদেশ থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আনার পরও আওয়ামী নেতাদের বিদেশে পাঠাতে হয় চিকিৎসার জন্য। সেটিও আবার রাষ্ট্রীয় খরচে। অথচ বেগম জিয়ার নিজ দেশের বিশেষায়িত হাসপাতালে নিজ খরচে চিকিৎসা করানোর সুযোগ নেই। তাকে উন্নত চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। শুধু বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে মিডনাইট ভোটের সরকার প্রধানের প্রতিহিংসার তুষের আগুন ধিকিধিকি জ্বলার কারণেই তিনি কারান্তরালে এবং তাকে উন্নত চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে।’ রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, ‘তথ্যমন্ত্রী বলেছেন, খালেদা জিয়াকে সানগ্লাস পরা দেখলে মনে হয় না তিনি অসুস্থ। এ বিষয়ে আমার বলার কিছু নেই। আমি প্রেসিডিয়াম সদস্য মিসেস সাজেদা চৌধুরীর প্রজ্ঞা ও জাজমেন্টের প্রশংসা করি এ জন্য যে, তার দলেরই একজন নেতা ও মন্ত্রী সম্পর্কে তিনি বলেছিলেন বিশ্বের সেরা বেয়াদব। এমন কোনো কি ব্যক্তি আছেন? যাদের চোখে অপারেশন হওয়ার পর সানগ¬াস পরেন না? চোখের ক্ষত না সারা পর্যন্ত রোদ, ধূলা ও পানি থেকে চোখকে নিরাপদ রাখার জন্যই তো সানগ¬াস ব্যবহার করে।’ তিনি বলেন, ‘তথ্যমন্ত্রীর কথাবার্তা শুনলে মনে হয় মন্ত্রিত্ব রক্ষার গ্যারান্টির জন্যই আগের তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর চেয়ে এক ধাপ উপরে থাকতে চাচ্ছেন। সেজন্যই জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে দিনরাত অশ্রাব্য অশোভন মন্তব্য করতে দ্বিধা করছেন না।’ ‘আওয়ামী লীগের আরেকজন নেতা বলেছেন, খালেদা জিয়া সুস্থতা বোধ করায় হাসপাতালে যেতে চাচ্ছেন না’, -উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘ বেগম খালেদা জিয়ার গুরুতর অসুস্থতা নিয়ে মশকরা করতেই মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতারা প্রতিযোগিতায় নেমেছে। তার প্রতি সরকার প্রধানের বিদ্বেষ পোষণের কারণেই সরকার তাকে বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তির সুযোগ দিচ্ছে না।’ তিনি বলেন, ‘বারবার পরিবারের ও দলের পক্ষ থেকে কারা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করার পরও তাদের নির্দয় মনোবৃত্তির কোনো পরিবর্তন হয়নি। তারা জোর করে তাকে পিজি (বিএসএমএমইউ) পাঠাতে চায়। পিজিতে কয়েকমাস আগে বেগম খালেদা জিয়াকে ভর্তি করার পর তাকে চিকিৎসা না দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তার রোগ নির্ণয়ের জন্য তেমন কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়নি। যাও দু-একটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছিল তাও আবার জুনিয়র ও অদক্ষ টেকনিশিয়ান দ্বারা করানো হয়েছে। তাকে চিকিৎসা দিতে উচ্চ আদালতের নির্দেশ পর্যন্ত মানা হয়নি।’ এসময় খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন রিজভী। সংবাদ সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা রহমান ও প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী প্রমুখ।

কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ভেজাল সরিষার তেলসহ গ্রেফতার ১

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ায় র‌্যাবের অভিযানে ভেজাল সরিষার তেলসহ ১ জন গ্রেফতার হয়েছে। গতকাল সোমবার রাত সোয়া ১০ টার দিকে র‌্যাব জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১২, সিপিসি-১, কুষ্টিয়া ক্যাম্পের র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল কুষ্টিয়া জেলার সদর থানাধীন লাহিনী বটতলা পশ্চিমপাড়ায় অভিযান চালায়। অভিযানে গ্রামস্থ পিতা-মৃত আবুল মন্ডল তাহার বশত বাড়ী হতে আসামী ১। মোঃ মিলন (৪৫), পিতা- সাং-লাহিনী বটতলা পশ্চিমপাড়া, থানা ও জেলা-কুষ্টিয়াকে ৩৫০ লিটার ভেজাল সরিষার তৈল, ১টি তৈল তোলার হাত পাম্প, বিএসটিআই অনুমোদন বিহীন ব্যান্ড রোল (স্টিকার), যাতে লাভলী সরিষার তৈল, মোড়কজাতকারী মুক্তা ফুডস প্রোডাক্টস সহ বিভিন্ন লেখা এবং ১টি প¬াস্টিকের বস্তার ভিতর থাকা ৫৭ টি তৈল রাখার খালি বোতলসহ ওই এলাকার মৃত আবুল মন্ডলের ছেলে মোঃ মিলন (৪৫) কে গ্রেফতার করে। পরর্বতীতে উদ্ধারকৃত আলামতসহ ধৃত আসামীর বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া কুষ্টিয়া মডেল থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

ঝিনাইদহে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের আচরণবিধি ও আইনশৃঙ্খলা সভা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য তৃতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ও  আচরণবিধি মেনে চলার জন্য প্রার্থীদের নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান, ৫৮ বিজিবির সিও লে.কর্ণেল তাজুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস, ঝিনাইদহ র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আরিফ-উজ-জামান, স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক সাইফুর রহমান খান, আনসার ও ভিডিপি’র জেলা কমান্ড্যান্ট আব্দুল্লাহ আল হাদী, জেলা নির্বাচন অফিসার রোকনুজ্জামানসহ ৪ উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। এসময় নির্বাচনের আচরণ বিধি অনুসরণ ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে প্রার্থী ও প্রার্থীদের সমর্থকদের সহযোগিতা কামনা করা হয়। সেই সাথে সুষ্ঠু নির্বাচনের করতে সকল প্রকার সহযোগিতা করা হবে বলে আশ্বাস প্রদাণ করেন বক্তারা।

আমলায় বন্ধন সংস্থার হতদরিদ্রদের মাঝে বিনামূল্যে ভেড়া বিতরন

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে বিনামূল্যে ভেড়া বিতরণ করা হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলার আমলা বন্ধন সংস্থার আয়োজনে এবং বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় বন্ধন সংস্থার প্রধান কার্যালয়ে এ ভেড়া বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে বন্ধন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক তাহাজ্জেল হোসেন বাদশার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরপুর উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম নান্নু। অনুষ্ঠানে বন্ধন সংস্থার সমন্বয়কারী ওবাইদুল হকের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা ভেডেলপমেন্ট ফ্যাসিলিটেটর উত্তম কুমার বিশ^াস, জনসেবা সংস্থার নির্বাহী পরিচালক আতিয়ার রহমান বাবলু, সহায় সংস্থার নির্বাহী পরিচালক আব্দুর রহিম মজনু, বন্ধন সংস্থার ম্যানেজার খাইরুল আলম, কেউপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বজলুর রশিদ প্রমুখ। এসময় উপজেলার ১৭টি হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে ৩৪টি উন্নত জাতের ভেড়া বিতরণ করা হয়। এর আগে উক্ত পরিবার গুলোকে ভেড়া পালনের উপরে এক দিনের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

দৌলতপুর হেমাশ্রমে অনুষ্ঠিত হলো সাধুসঙ্গ

শরীফুল ইসলাম ॥ ‘আর কি বস্ব এমন সাধ বাজারে, না জানি কোন সময় কোন দশা ঘটে আমারে’ চরণ পাই যেন কালে কালে ফেলনা ওতুর অধম বলে’ লালনের এই মর্মবানীকে প্রতিপাদ্য করে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার সীমান্ত সংলগ্ন প্রাগপুর হেমাশ্রমে স্মৃতি বার্ষিকী বা সাধুসঙ্গ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আত্মশুদ্ধির ধারাবাহিকতায় জ্ঞানযোগ আর গুরু কর্মের মধ্য দিয়ে রবিবার সন্ধ্যায় প্রবীন সাধু ফকির নহির শাহ্র হেমাশ্রমে এ সাধুসঙ্গের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। এতে দেশের নানা প্রান্ত থেকে সাধুগুরু, লালন ভক্ত ও অনুসারীরা যোগ দেন এবং সেখানে তারা বসেন নিজ নিজ আসন পেতে। সাধুসঙ্গ অনুষ্ঠানে ফকির লালন সাঁইজির গীতজ্ঞান সুধা পরিবেশন করেন বাউল-সাধুুবৃন্দ। প্রবীণ সাধু ফকির নহির শাহ্র মতে দরবেশ লালন সাঁইজির পথ মত ছিল প্রকৃতিবাদী। প্রকৃতিবাদী হয়ে প্রকৃতি সাধানের মাধ্যমে নিজের আত্ম সংস্কার করে একজন সৎ মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠার যে মাধ্যম তা হলো সাধুসঙ্গ। আর সাধুসঙ্গের মাধ্যমে লালন সাইজর আত্ম দর্শন লাভ সম্ভব। ফকির রওশন সাধু’র মতে সত্যকে সাগর মনে করেন সাধুরা। আর এ সত্য সাগরে সবার পক্ষে সাতাঁর কাটা সম্ভব নয় বলে সাধুসঙ্গের আয়োজন করা হয়। আবার সত্যিকারের আলোর মানুষ হিসেবে সাধুদের কাছ থেকে দেখে সার্থক ভেবে সহজ মানুষ হিসেবে নিজেদের গড়ে তুলতে দেশের নানা প্রান্ত থেকে সাধুসঙ্গে যোগ দিয়ে থাকেন অনেক দর্শনার্থী। তবে সাধুদের মতে আত্মসুদ্ধি, আত্মতত্ব রক্ষা ও সাদা মনের মানুষ হতে হলে গুরু ভক্তির মাধ্যমে সেটা সম্ভব। আর এজন্য সাধুসঙ্গের প্রয়োজন। গতকাল সোমবার বিকেলে পূর্ন সেবা গ্রহনের মধ্য দিয়ে সাধুসঙ্গ অনুষ্ঠান শেষ হয়। সেই সাথে হেমাশ্রমে সাধুসঙ্গে যোগ দেওয়া সাধুগণ পরম প্রাপ্তি নিয়ে ফিরে যান নিজ নিজ ধামে।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী বাদশার ব্যাপক গণসংযোগ

আসন্ন কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী এবং কুষ্টিয়া সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোঃ আবু তৈয়ব বাদশা তার নির্বাচনী এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ ও মতবিনিময় করে চলেছেন। গতকাল সোমবার তিনি উপজেলার আলামপুর, পাটিকাবাড়ি, গোস্বামী দূর্গাপুর ও আব্দালপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ ও মতবিনিময় করেন। তিনি এসব এলাকায় পৌছালে এলাকাবাসী তাকে সাদরে গ্রহন করেন এবং ভোট দেয়ার প্রতিশ্র“তি দেন। এসময় বাদশা বলেন, আমি সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সদর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি হিসেবে ২০০৪ সাল হতে আপনাদের মাঝে আছি। আমি আপনাদের সন্তান হিসেবে আপনাদের পাশে থেকে এলাকার উন্নয়ন করতে চাই। আশারাখি ২৪ মার্চ ব্যালটের মাধ্যমে পালকি মার্কায় ভোট দিয়ে আমাকে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দিবেন। গণসংযোগকালে বাদশা’র সাথে ছিলেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

হাইকোর্টের রায়ে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন ভেড়ামারার ৮ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী

আল-মাহাদী ॥ হাইকোর্টে আইনী লড়াই শেষে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ৮ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তাদের প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছেন। সোমবার তাদের মাঝে প্রতীক বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে। মনোনয়ন পত্র দাখিলের সময় ২৫০ জন ভোটার’র স্বাক্ষর করা তালিকা জমা না দেওয়ার কারনে তাদের প্রার্থীতা বাতিল করে ছিলেন নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার। ৩য় ধাপে আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিনে ২৬ ফেব্র“য়ারী ৫ চেয়ারম্যান, ৮ ভাইস চেয়ারম্যান ও ৪ সংরক্ষিত আসনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সহ ১৭ জন মনোনয়ন দাখিল করেন। ১ মার্চ থেকে যাচাই বাছাই এ বাতিল হয় ৬ ভাইস চেয়ারম্যান ও ২ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের মনোনয়ন। কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক এবং উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার আসলাম হোসেন’র কাছে ৪ মার্চ আপিল করলে ৬ মার্চ তিনিও বাতিল করেন প্রার্থীদের মনোনয়ন। এরপরই ৭ মার্চ হাইকোর্টে আপিল করেন ৮ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী। হাইকোর্ট বিভাগের বিচারক জে বিএম হাসান এবং এ বি এম খাইরুল ইসলামের দ্বৈত বেঞ্চ এর বিজ্ঞ আদালতে শুনানী শেষে ৮ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আরিফুজ্জামান লিপটন, আবুল কালাম ডাবলু, বুলবুল হাসান পিপুল, সোলাইমান হোসেন, আনোয়ারুল আজীম বাবু, হাসান সরোয়ার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নার্গিস আক্তার ও সাগরী খাতুন’র মনোনয়ন বৈধ করা হয়। সোমবার সকালে রায়ের কপি ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সহকারী রির্টানিং অফিসার’র কাছে দাখিল করলে তিনি প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্ধ দেন। ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আরিফুজ্জামান লিপটন, আবুল কালাম ডাবলু, বুলবুল হাসান পিপুল জানিয়েছেন, দেরীতে হলেও আমাদের মনোনয়ন বৈধ হয়েছে। জনগনের আশা আকাঙ্খার প্রতিফলন ঘটাতেই এ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি। নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে জনগনের আশা পুরন করতে পারবো বলে আমাদের বিশ্বাস।

খালেদার অসুস্থতা নিয়ে বিএনপি রাজনীতি শুরু করেছে – নাসিম

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি না করতে দলটির নেতাদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখাপাত্র মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে বিএনপি অহেতুক মিথ্যাচার করছে। খালেদা জিয়া চিকিৎসা নিতে চাচ্ছেন না। কেউ যদি চিকিৎসা না নিতে চান তাহলে আমাদের কি করার আছে বলেন? নাসিম গতকাল সোমবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে এক আলোচনা সভায় এ আহবান জানান। ঐতিহাসিক ৭মার্চ উপলক্ষে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সংগঠনের সভাপতি নাজমুল হকের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিলীপ রায়, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করিম, বঙ্গবন্ধু একাডেমীর মহাসচিব হুমায়ুন কবির মিজি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বেগম খালেদা জিয়া অহেতুক জেদ ধরে চিকিৎসা নিচ্ছেন না। আপনি এখানে চিকিৎসা নেন তার মেডিকেল বোর্ড যদি কিছু বলে সরকার অবশ্যই ব্যবস্থা নেবে। আমরা তো অমানবিক নই। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে বিএনপি নেতারা রাজনীতি শুরু করেছে। এ রাজনীতি থেকে সরে আসুন। চিকিৎসা সেবা নিয়ে মিথ্যাচার করবেন না, কোন রাজনীতি করবেন না। তিনি বলেন, বিএনপির আন্দোলনের কোনো শক্তি নাই। শুধুমাত্র মিডিয়ার কল্যাণে তারা রাজনীতি করছেন। মিডিয়ার কল্যাণে তারা নিজের অস্তিত্ব টিকিয়ে রেখেছেন। অন্যসব নির্বাচনের মতো ডাকসু নিয়েও বিএনপি অহেতুক অভিযোগ তুলছে। এ ধারাবাহিকতায় থাকলে দলটি পুরোপুরি হারিয়ে যাবে।

ভোট খুবই শান্তিপূর্ণ এবং উৎসবমুখর হয়েছে – ভিসি

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন দুই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া খুব উৎসবমুখর ও শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক আখতারুজ্জামান। এ সময় তিনি আরো বলেন, ‘গণতন্ত্রের মূল্যবোধের বিশ্বাসে ভোট হয়েছে এবং এ ধারা অব্যাহত থাকবে’। গতকাল সোমবার ভোট গ্রহণ শেষে সাংবাদিকদের সামনে তিনি এসব কথা বলেন। শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানিয়ে ভিসি বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা সুশৃঙ্খল ও শান্তিপূর্ণ এবং উৎসবমুখর পরিবেশে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছে। আমি অনেকগুলো কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। শিক্ষার্থীরা গণতন্ত্রের রীতিনীতি অনুসরণ করেই ভোট দিয়েছে। সেখানে শিক্ষার্থীদের আমি লাইন দিয়ে ভোট দিতে দেখেছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের শিক্ষার্থীরা সুশৃঙ্খল। তাদের গণতন্ত্রের মূল্যবোধ রয়েছে। এটা দেখে আমি খুশি। তাদের এই মূল্যবোধ আমাদের অনুপ্রেরণা দেয়। সামনের দিনগুলোতে এই ধারা অব্যাহত থাকবে।’ উল্লেখ্য, সকাল ৮টা থেকে ডাকসুর ভোট গ্রহণ শুরু হয়। তবে বিভিন্ন হলে সিল দেওয়া ব্যালট উদ্ধারের ঘটনা এবং ছাত্রলীগ ছাড়া অন্য প্রার্থীদের ভোট কেন্দ্রে প্রবেশে বাধাদানের অভিযোগ আনা হয়। দুপুরে ছাত্রলীগ বাদে অন্য সব প্যানেলের প্রার্থীরা ভোট থেকে সরে দাঁড়ান। এর মধ্যে সাধারণ শিক্ষার্থী পরিষদ, স্বাধিকার স্বতন্ত্র পরিষদ, প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্য, ছাত্র ফেডারেশনসহ বিভিন্ন পদের স্বতন্ত্র প্রার্থীরা নতুন ভোট গ্রহণের পাশাপাশি দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘটের ঘোষণা দেন।

আ’লীগ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের হাঁটতে পারছেন – ডা. রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এখন সীমিত পর্যায়ে হাঁটাচলা করতে পারছেন। সিঙ্গাপুরে তার সঙ্গে থাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী গতকাল সোমবার এ তথ্য জানান।  তিনি বলেন, “সেতুমন্ত্রী এখন সীমিত পর্যায়ে হাঁটাচলা করতে পারছেন। স্বাস্থ্যের আশানুরূপ উন্নতি হওয়ায় মঙ্গলবার সকালে তাকে আইসিইউ থেকে কেবিনে নেওয়া হতে পারে।” ৬৭ বছর বয়সী ওবায়দুল কাদের হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ছাড়াও শ্বাসতন্ত্রের জটিল রোগ সিওপিডিতে (ক্রনিক অবসট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ) ভুগছেন। গত ৩ মার্চ সকালে শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি ঢাকার বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে ভর্তি হলে এনজিওগ্রামে তার হৃদপিন্ডের রক্তনালীতে তিনটি ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি ব্লক স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করেন চিকিৎসকরা। অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলে পরদিন বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার আম্বুলেন্সে করে তাকে সিঙ্গাপুরে নেওয়া হয়। সেদিন রাতেই একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করে ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসা শুরু করেন মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের চিকিৎসকরা। ডা. রিজভী শনিবার জানিয়েছিলেন, সেতুমন্ত্রী কাদেরের শরীর থেকে সব ধরনের যন্ত্র খুলে ফেলা হয়েছে। তিনি চিকিৎসক ও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে স্বাভাবিকভাবে কথা বলতে পারছেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককে দেখতে দলের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিনও এখন সিঙ্গাপুরে রয়েছেন। কাদেরের সঙ্গে তার স্ত্রী ইসরাতুন্নেসা কাদের ও ছোট ভাই বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মীর্জা ছাড়াও গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম এখন সিঙ্গাপুরে রয়েছেন।

ডাকসু নির্বাচন

ছাত্রদল, বাম জোট, কোটা আন্দোলন ও স্বতন্ত্রদের ভোট বর্জন

ঢাকা অফিস ॥ ভোটে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ তুলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রী ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রদল, বাম জোট, কোটা অন্দোলনসহ বেশ কয়েকটি প্যানেল। নতুন করে ডাকসু নির্বাচনের পুনঃতফসিল ঘোষণার দাবি জানানো হয়েছে এসব প্যানেলের পক্ষে থেকে। গতকাল সোমবার বেলা ১টায় ভোটের শেষ পর্যায়ে মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেয় সংগঠনগুলোর জোট, কোটা আন্দোলনকারীদের বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, স্বতন্ত্র প্রার্থীদের দুই মোর্চা স্বাধিকার স্বতন্ত্র পরিষদ ও স্বতন্ত্র জোট এবং ছাত্র ফেডারেশন। পরে মধুর ক্যান্টিনে আলাদা সংবাদ সম্মেলন করে ছাত্রদলও ভোট বর্জনের ঘোষণা দেয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে নির্বাচনের পরিবেশ নেই অভিযোগ করে বাম ছাত্র সংগঠনগুলোর দুই মোর্চা প্রগতিশীল ছাত্রজোট ও সাম্রাজ্যবাদবিরোধী ছাত্রঐক্যের ১১ সংগঠনের যৌথ প্যানেলের ভিপি প্রার্থী ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দী বলেন, “আমরা এই প্রহসনের নির্বাচন, জালিয়াতির নির্বাচন ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছি।” পুনঃতফসিলের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, “প্রশাসনকে এই ভোট বাতিল করে পুনরায় তফসিল ঘোষণা করতে হবে। যারা এই ভোট জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত তাদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে।” ভোটগ্রহণের সময়সীমা চার ঘণ্টা বাড়িয়ে সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ভোট নেওয়ারও দাবি জানান তিনি। লিটন বলেন, “হলগুলোতে ভোটের পরিবেশ নেই। ভোট হতে হবে অ্যাকাডেমিক ভবনে। ভোট গ্রহণে করতে হবে নতুন কমিটি।” সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, সলিমুল্লাহ মুসলিম হল, শহীদুল্লাহ হল, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের ভোট দিতে বাধা দিয়েছে। ডাকসুর ভিপি পদে ছাত্রলীগের প্রার্থী রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনের উপস্থিতিতে রোকেয়া হলে নারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা হয় এবং সেখানে সাধারণ শিক্ষার্থী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের প্যানেলের ভিপি প্রার্থী নুরুল হক নূরুর ওপর হামলা করা হয় বলে অভিযোগ আসে এই সংবাদ সম্মেলন থেকে।  নুরুল হক নূরু ছাড়াও সাধারণ শিক্ষার্থী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের এজিএস প্রার্থী ফারুক হাসান, ছাত্র ফেডারেশনের জিএস প্রার্থী উম্মে হাবিবা বেনজীর, স্বতন্ত্র জোটের ভিপি প্রার্থী অরণী সেমন্তী খান এবং স্বাধিকার স্বতন্ত্র পরিষদের জিএস প্রার্থী এ আর এম আসিফুর রহমান এই সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন। আলাদা সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলের ভিপি প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, “আমরা সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে দলকানা প্রশাসনের একপক্ষীয় আচরণ, রাতভর কুয়েত মৈত্রী হলে ব্যালটে ভোট প্রদান, বিভিন্ন প্রার্থীর ওপর হামলা ও ভোটারদের বাধা দেওয়াসহ বিভিন্ন অনিয়মের প্রতিবাদে ভোট বর্জন করলাম।” ছাত্রদল কর্মীরা এ সময় ‘প্রহসনের নির্বাচন মানি না’ বলে স্লোগান দেয়।

ঢাকায় যুক্তরাজ্যের নতুন হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসন

ঢাকা অফিস ॥ বাংলাদেশে যুক্তরাজ্যের নতুন হাইকমিশনার হচ্ছেন রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসন। তিনি অ্যালিসন ব্লেক সিএমজির স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন। সোমবার যুক্তরাজ্যের ঢাকা মিশন জানিয়েছে, রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসন মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদের কাছে তার পরিচয়পত্র পেশ করবেন। যুক্তরাজ্যের ঢাকা মিশন জানায়, রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসন বাংলাদেশে যুক্তরাজ্যের নতুন হাইকমিশনার হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন। রাষ্ট্রপতির কাছে পরিচয়পত্র পেশের পর তিনি যুক্তরাজ্যের হাই কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব নেবেন। বাংলাদেশের হাইকমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার আগে রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসন যুক্তরাজ্যের ফরেন অফিসে (এফসিও) অতিরিক্ত পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছিলেন। এর আগে তিনি যুক্তরাজ্য সরকারের জাতীয় নিরাপত্তা সচিবালয়ের কেবিনেট বিভাগের সচিবালয় ও বাস্তবায়ন বিভাগের পরিচালক, বৈদেশিক নীতি বিভাগের পরিচালক, কাবুল মিশনের উপপ্রধান, সিকাগের কনস্যুল জেনারেল, কাউন্টার টেরিরিজম বিভাগের (এফসিও) যুগ্ম-প্রধানসহ একাধিক দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে বাংলাদেশের হাইকমিশনার হিসেবে নিয়োগ পান অ্যালিসন ব্লেক। ২০১৬ সালের জানুয়ারি মাসে তিনি দায়িত্ব বুঝে নেন।

সংখ্যা লঘু কমিশন গঠনের দাবী পূরণ হবেই – আইনমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ জাতীয় সংখ্যা লঘু কমিশন গঠনের দাবী মন্ত্রিপরিষদ সভায় উপস্থাপনের আশ্বাস দিয়েছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেন, ‘এটি কেবল সময়ের ব্যাপার। এদাবী পূরণ হবেই।’ আইনমন্ত্রী সোমবার বিকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক সেমিনারে এ কথা বলেন। ‘আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইস্তেহারে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা : সরকার ও নাগরিক সমাজের করণীয়’ শীর্ষক এই সেমিনারের আয়োজন করে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি। আনিসুল হক বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর শাসনামলে কিন্তু সংখ্যা লঘু কমিশন গঠনের দাবী ওঠেনি। পচাত্তরের পর দীর্ঘ সময় সংখ্যালঘুরা নির্যাতনের শিকার হওয়ায় তাদের মধ্যে পুঞ্জীভুত ক্ষোভ থেকে এদাবী উঠেছে। তিনি বলেন, দীর্ঘ একুশটি বছর তারা বিচার পাওয়ার জন্য বিচার বিভাগের কাছেও যেতে পারেনি। আইনমন্ত্রী বলেন, আমাদের এখন অনেক উন্নয়ন হয়েছে। মানবাধিকারের ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্যও এ কমিশন গঠনের দাবী উঠেছে। আদালতে বিচারাধীন সংখ্যালঘুদের মামলাগুলো যাতে দ্রুত নিষ্পত্তি হয় সেজন্য প্রোসিকিউশনকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলবেন বলেও তিনি জানান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকলকে নিয়ে বাংলাদেশ গড়তে চান, কেবল একটি গোষ্ঠীকে নিয়ে নয়। অনুষ্ঠানের বাইরে সাংবদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আগামী এপ্রিল-মে মাসে অনুষ্ঠেয় জাতীয় সংসদের অধিবেশনে বৈষম্য বিরোধী আইন উপস্থাপনের লক্ষ্যে আইন মন্ত্রণালয় কাজ করছে। যুদ্ধাপরাধী সংগঠন হিসেবে জামায়াতের বিচার সংক্রান্ত আইন সংশোধনের বিষয়ে তিনি বলেন, আইনটি মন্ত্রিপরিষদের সভায় উপস্থাপনের অপেক্ষায় রয়েছে এবং এটা খুব শিগগিরই মন্ত্রিপরিষদের সভায় উপস্থাপন করা হবে। বিচারপতি শামসুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন ও একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

উপজেলায় ভোট পড়েছে ৪৩ শতাংশ

ঢাকা অফিস ॥ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে গত রোববার ৪৩ দশমিক ৩২ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নিজ কার্যালয়ে গতকাল সোমবার দুপুরে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।হেলালুদ্দীন বলেন, প্রথম ধাপে গতকাল ৪৩ দশমিক ৩২ শতাংশ নাগরিক তাঁদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পেরেছেন। যেসব কেন্দ্রের ভোট বন্ধ করা হয়েছে, সেগুলো কেন বন্ধ হয়েছে, তা তদন্ত করে দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, এটা নৈতিকতার বিষয়। অনেক সময় অনেকে নৈতিকতা হারিয়ে কোনো প্রার্থীর পক্ষে কাজ করে। তবে সেগুলো নজরে আসার সঙ্গে সঙ্গে কমিশন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে। বন্ধ হওয়া উপজেলায় ভোটের বিষয়ে তিনি বলেন, এগুলো পঞ্চম ধাপে বা নতুন কোনো তারিখ নির্ধারণ করে ভোট গ্রহণ করা হবে। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে ৭৮টি উপজেলায় রোববার ভোট নেওয়া হয়। সকাল আটটায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়। বিকেল চারটা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ চলে। এবারই প্রথম দলীয় প্রতীকে উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যদিও জাতীয় নির্বাচনের দুই মাসের বেশি সময় পর অনুষ্ঠিত এই স্থানীয় সরকার নির্বাচনের প্রচারের সময় সাধারণ ভোটারদের মধ্যে তেমন আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। এর কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, বিএনপিসহ সরকারবিরোধী রাজনৈতিক জোটগুলো এই নির্বাচন বর্জন করেছে। ইতিমধ্যে প্রথম ধাপের ১৫টি উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। রোববার প্রথম ধাপের ৭৮ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল ১ কোটি ৪২ লাখ ৪৮ হাজার ৮৫০ জন। মোট ভোটকেন্দ্র ৫ হাজার ৮৪৭টি। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিলেন ২০৭ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৮৬ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ২৪৯ জন। প্রথম ধাপের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ১৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।