দৌলতপুরে অগ্নিকান্ডে ১২টি ঘর ভষ্মিভূত

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে রান্না ঘরের চুলা থেকে অগ্নিকান্ড ঘটে ৬টি বাড়ির ১২টি ঘর পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। অগ্নিকান্ডে নগদ আড়াই লক্ষ টাকা, আসবাবপত্র, খাদ্য-শস্য, পোশাক পরিচ্ছদসহ অন্তত ১৫লক্ষ টাকার সম্পদ পুড়ে ছাই হয়েছে। গতকাল রবিবার দুপুর ২টার দিকে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের ময়রামপুর কান্দিরপাড়া গ্রামে অগ্নিকান্ডের এ ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার ও এলাকাবাসী জানায়, ওই গ্রামের মাহাতাব উদ্দিনের রান্না ঘরের চুলা থেকে অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হলে মুহুর্তের মধ্যে তা প্রতিবেশীদের বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে। এলাকাবাসী আগুন নিয়ন্ত্রনে ব্যর্থ হলে ভেড়ামারা ফায়ার সার্ভিস দল গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রন করলেও আগুনে মাহাতাব উদ্দিন, প্রতিবেশী হানিফ, মজনু, বাচ্চু, হাফেজ ও নাহারুলের ১২টি ঘর পুড়ে ছাই হয়। আগুনে মাহাতাব উদ্দিনের ঘরে থাকা ব্যবসার নগদ আড়াই লক্ষ টাকাসহ ৬পরিবারের ১৫ লক্ষ টাকার সম্পদ পুড়ে ভষ্মিভূত হয়েছে। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো বর্তমানে খোলা আকাশের নীচে রয়েছে।

 

অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন (২-০) সদকী ইউপি দল

কুমারখালীতে সমাপ্ত হলো স্বাধীনতা কাপ ভলিবল টুর্ণামেন্ট’র বর্ণিল আয়োজন

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে স্বাধীনতা কাপ ভলিবল টুর্ণামেন্টের বর্ণিল আয়োজন সমাপ্ত হয়েছে। গতকাল বিকাল ৫টায় থেকে খেলা শুরু হয়। কয়া ইউনিয়ন পরিষদ দল, পৌরসভা দল ও সদকী ইউনিয়ন পরিষদ দলের মধ্যে চরম প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ খেলা উপহার দেয় উভয় দলের খেলোয়াড়বৃন্দ। শেষ পর্যন্ত ফাইনালে উত্তীর্ণ হয় সদকী ইউনিয়ন পরিষদ দল ও কয়া ইউনিয়ন পরিষদ দল। চরম প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ এই টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলায় সদকী ইউনিয়ন পরিষদ দল কয়া ইউনিয়ন পরিষদ দলকে পরাজিত করায় নিজেরা অপরাজিত দলের গৌরব অর্জন সহ ২-০ সেটে বিজয়ী হয়। খেলা শেষে পুরস্কার বিতরণের মধ্যদিয়ে গতকাল রবিবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলা পরিষদ মাঠে এই টুর্ণামেন্টের পুরস্কার বিতরণী ও আনুষ্ঠানিকতার সমাপ্তি ঘোষনা করেন, কুষ্টিয়া- ৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ। সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পৌর সভার মেয়র মো: সামছুজ্জামান অরুণ, সহকারি কমিশনার (ভুমি) মুহাম্মদ নুর- এ আলম, উপজেলা কৃষি অফিসার দেবাশীষ কুমার দাস, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো: ওমর ফারুক, উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মোহাম্মদ আলী, অফিসার ইনচার্জ এ, কে, এম মিজানুর রহমান, শিলাইদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: সালাহ্ উদ্দিন খান তারেক, জগন্নাথপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: ফারুক আহমেদ খান, সদকী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আব্দুল মজিদ, পৌর সভার প্যানেল মেয়র এস, এম রফিকুল ইসলাম রফিক সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে টুর্ণামেন্টের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ দলের ম্যানেজার এবং খেলোয়াড়দের হাতে ট্রপি সহ প্রাইজ মানি তুলে দেন প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ সহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ। চ্যাম্পিয়ন দলের ম্যানেজার ও সদকী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ খেলোয়াড়দের সঙ্গে নিয়ে চ্যাম্পিয়ন ট্রপি ও প্রইজমানি (৪০ হাজার টাকা) গ্রহণ করেন। অন্যদিকে, রানার্স আপ দলের ম্যানেজার ও কয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল ইসলমা স্বপন খেলোয়াড়দের সঙ্গে নিয়ে রানার্স আপ ট্রপি ও প্রাইজমানি (২০ হাজার টাকা) গ্রহণ করেন। এ সময় টুর্ণামেন্টে অংশগ্রহণকারী সকলের ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদেরকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা সহ অতিথিদেরকেও শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান করা হয়েছে। টুর্ণামেন্ট পরিচালনা করেন, কুষ্টিয়া সরকারি মহিলা কলেজের ক্রীড়া শিক্ষক মিলন হোসেন, কুষ্টিয়ার কৃতি খেলোয়াড় আরজু এবং কুমারখালী উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক রেজাউর রহমান।

 

গাংনী মহিলা ডিগ্রী কলেজের উদ্যোগে এমপি খোকনকে সংবর্ধনা

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের নব-নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য ও গাংনী মহিলা ডিগ্রী কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি সাহিদুজ্জামান খোকনকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল ১১টার দিকে গাংনী মহিলা ডিগ্রী কলেজ চত্বরে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ খোরশেদ আলী। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন,সংসদ সদস্য সাহিদুজ্জামান খোকন। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন গাংনী থানার ওসি হরেন্দ্রনাথ সরকার (পিপিএম),কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সদস্য নুরজাহান বেগম ও মনিরুজ্জামান আতু,সংসদ সদস্য সাহিদুজ্জামান খোকনের সহ-ধর্মীনি ও আ.লীগ নেত্রী লাইলা আরজুমান শিলা। কলেজের প্রভাষক মহিবুর রহমান মিন্টুর সঞ্চালনায় এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গাংনী উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক  ও হিজলবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান,চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গার হারদী কলেজের প্রভাষক সালাউদ্দীন,গাংনী মহিলা ডিগ্রী কলেজের উপাধাক্ষ নাসির উদ্দীন,প্রভাষক রমজান আলী,হাবিবুল্লাহ রহন,রফিকুল ইসলাম,হাবিবুর রহমান,কলেজের শিক্ষার্থী ইসরাত জাহান স্মৃতি প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থী,অভিভাবক,গাংনী উপজেলার বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ গণমান্য ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানের শুরুতে কলেজের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য সাহিদুজ্জামান খোকন শুভেচ্ছা জানানো হয়। পরে আলোচনা সভা ও শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।  অনুষ্ঠান শুরুর আগে সংসদ সদস্য সাহিদুজ্জামান খোকনসহ অন্যান্য অতিথিরা অনুষ্ঠান স্থলে পৌঁছালে,কলেজের অধ্যক্ষ,উপাধাক্ষ,প্রভাষক ও শিক্ষার্থী ফুল ছিটিয়ে তাকে স্বাগত জানান। অতিথিকে স্বাগত জানাতে সু-সজ্জিত ব্যান্ডদলের সদস্য তাদের বাদ্যযন্ত্র বাজান।

বীর মুক্তিযোদ্ধা বদর উদ্দিন বদু’র ৭ম মৃত্যু বার্ষিকীতে দোয়া মাহফিলের আয়োজন

নিজ সংবাদ ॥ আগামীকাল ৫ মার্চ বীর মুক্তিযোদ্ধা বদর উদ্দিন বদু’র ৭ম মৃত্যু বার্ষিকী। এ উপলক্ষ্যে দোয়া ও মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। আগামীকাল ৫ মার্চ বাদ যহর কুষ্টিয়া শহরের আড়–য়াপাড়াস্থ ১নং বাহাদুর বিশ্বাস লেনে নিজ বাসভবনে এবং বাদ আছর বীর মুক্তিযোদ্ধা বদর উদ্দিন বদু ভাব সঙ্গীত ও শান্তি আশ্রমে এ দোয়া ও মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। উক্ত দোয়া মাহফিলে এলাকাবাসি, মুক্তিযোদ্ধা সংগঠনের সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, আওয়ামীলীগ ও এর সকল অঙ্গসংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ, লালন-বাউল, ভাব সঙ্গীতের সকল ভক্তবৃন্দদের দোয়া মাহফিলে উপস্থিত থাকার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা বদর উদ্দিন বদুর ছোট ভাই মোঃ রেজাউল হক।

 

 সেক্টর কমান্ডরস ফোরাম, মুক্তিযুদ্ধ-৭১’র মেহেরপুর জেলা শাখার সস্মেলন অনুষ্ঠিত

মেহেরপুর প্রতিনিধি ॥ ১৯৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, প্রচার-প্রসার, ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস প্রনয়ন ও সংরক্ষন, ৭১-এর মুক্তিযুদ্ধে ক্ষতিগ্রস্থদের পক্ষে ন্যায় বিচারের দাবী সহ মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যানমুখী কর্মসূচী বাস্তবায়নের লক্ষ্য নিয়ে গতকাল মেহেরপুর জেলায় অনুষ্ঠিত হলো বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধোর চেতনায় বিশ্বাসীদের এক বিশাল সম্মেলন। সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম, মুক্তিযুদ্ধা-৭১ সংগঠনের মেহেরপুর জেলা শাখার উদ্যেগে বামন্দীতে অনুষ্ঠিত এ জেলা সম্মেলনে উপস্থিত হয়েছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ সহ বিভিন্ন শ্রেনী ও পেশার মানুষ। জেলার বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আগত মুক্তিযোদ্ধাদের সরব উপস্থিতিতে জমে উঠেছিল এ সম্মেলন স্থল । সম্মেলনের প্রথম পর্যায়ে সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক। ২য় পর্যায়ের অনুষ্ঠিানে সভাপতি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ মোজাম্মেল হক। সম্মেলনের শুরুতে সংগঠনের প্রতিবেদন উপস্থাপন সহ স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ডাঃ নুরুল হুদা। তিনি তার বক্তব্য বলেন সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম একটি অরাজনৈতিক ও নিরপেক্ষ সংগঠন, অত্র জেলা শাখার সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের অন্যান্য কোন সংগঠনের সাথে কোন বিরোধ যেমন সেই, তেমনি সম্পৃক্ততা-ও নেই। সম্পূন স্বাধীন ও নিরপক্ষ পছায় পথ চলে।  মুক্তিযুদ্ধার মূল চেতনা তথা গনতন্দ্র, বাঙ্গালী  জাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র এবং ধর্ম নিরপেক্ষ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় জনমত গড়ার প্রত্যয় নিয়ে সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সর্ব মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন (অব) আঃ মালেক । ইঞ্জিানিয়ার (অবঃ) নুরুল ইসলাম, হায়দার  আলী, আশরাফ আলী, মাষ্টার, আঃ বাকী, ইদ্রিস আলী, তাহাজ উদ্দীন, গোলাম মোস্তফা, মজিবর রহমান, মজনুর রহমান, হযরত আলী, জামাত আলী,  আবুবকর, ময়নাল হক, পাতান আলী, দেলোয়ার হোসেন সহ অন্যরা। সম্মেলনে ডাঃ মোঃ নুরুল হুদা-কে সভাপতি এবং ক্যাপ্টেন (অবঃ) আঃ মালেক-কে সাধারন সম্পাদক করে ২৫ সদস্য বিশিষ্ট সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম-মুক্তিযুদ্ধা৭১, মেহেরপুর জেলা শাখার নতুন কমিটি গঠিত হয়। একই সম্মেলনে মোঃ ফজলুল হক কে সভাপতি এবং তাহাজ উদ্দীন কে সম্পাদক করে সেক্টর কমান্ডারস  ফোরাস, গাংনী উপজেলা শাখার ২১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি গঠিত হয়। সম্মেলনে নব গঠিত কমিটির সাফল্য কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

 

 

আলমডাঙ্গার প্রাগপুর থেকে বোমা সাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার

আলমডাঙ্গা অফিস ॥ আলমডাঙ্গার ওসমানপুর ফাঁড়ি পুলিশ প্রাগপুর মাদ্রাসার জঙ্গল থেকে একটি পরিত্যক্ত বোমা উদ্ধার করেছে। রোববার দুপুরের দিকে মিস্ত্রিরা কাজ করার সময় ওই বোমাটি দেখে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ বোমা সাদৃশ্য বস্তুটি উদ্ধার করে। জানা গেছে,আলমডাঙ্গার প্রাগপুর গ্রামে মাদ্রাসার ভেতরে দুপুরের দিকে রাজ মিস্ত্রিরা কাজ করার সময় জঙ্গলের মধ্যে একটি বোমা পড়ে থাকতে দেখেন। সংবাদ পেয়ে ওসমানপুর ফাঁড়ি পুলিশ লাল টেপ মোড়ানো বোমাটি উদ্ধার করে। ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই শাহিন জানান, সংবাদ পেয়ে আমরা প্রাগপুর মাদ্রাসার ভেতরের জঙ্গল থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় বোমা সাদৃশ্য একটি বস্তুটি উদ্ধার করেছি।

মিরপুরে কামারুল আরেফিনের পক্ষে নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিনের পক্ষে নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে পৌর ৭নং এলাকায় এ নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে উপজেলা কৃষক লীগের সাবেক সভাপতি আমজাদ শেখের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ফেরদৌস ওহায়েদ জোয়ার্দ্দার। মিরপুর পৌর যুবলীগ নেতা ও পুলিশিং কমিটির সভাপতি মশিউর রহমান নাসিমের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক ও কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ¦ মহাম্মদ আলী জোয়ার্দ্দার,  উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বিএম জুবায়ের রিগান, উপজেলা আওয়ামী সদস্য শুকুর আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আরশেদ আলী, উপজেলা যুবলীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ জোয়ার্দ্দার, শ্রমিক লীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক সাইফুজ্জামান হিরা, বারুইপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক রবিউল ইসলাম, ওয়াড আওয়ামী লীগের সভাপতি সমসুর রহমান, সাবেক কাউন্সিলর বিল্লাল হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগের নেতা খন্দকার জিন্নাহ, পৌর যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক নাহিদ হোসনে, আওয়ামীলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন, মুক্তার আলী, সাবেক কাউন্সিলর ওহিদ মন্ডল, পৌর যুবলীগ নেতা রেজা, ইয়াকুব শেষ, সোপান আলী প্রমুখ। এসময় প্রায় দুই শতাধিক নেতাকর্মী ও স্থানীয় জনগন উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত সকল নেতৃবৃন্দরা আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকে কামারুল আরেফিনকে সমার্থনের জন্য আহব্বান জানান।

মিরপুরে কামারুল আরেফিনের মতবিনিময় সভা

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন সাধারন নেতাকর্মী ও ভোটারদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় উপজেলার সদরপুর গ্রামে তার নিজ এলাকায় স্থানীয় নেতাকর্মী ও সাধারন ভোটারদের সাথে এ মতবিনিময় করেন। ওয়াড আওয়ামীলীগের সভাপতি আজিজুল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সদরপুর ওয়াড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেন, সদরপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মাসুদ রেজা মাসেদ, বিশিষ্ট সমাজসেবক সাজেদুর রহমান, নোমাজ আলী, শহিদুল ইসলাম ভোলা, সানোয়ার হোসেন, আলী হোসেন, রমজান আলী সাহেব, জমির উদ্দিন, রেজাউল ইসলাম পটল, হামিদুল ইসলাম প্রমুখ। মতবিনিময় সভায় আসন্ন ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের পক্ষে কাজ করার আহব্বান জানান নেতৃবৃন্দরা। সেই সাথে বাংলাদেশের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে মিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান কামারুল আরেফিন প্রথম হওয়ায় এলাকাবাসী মিষ্টি বিতরন করেন।

কুমারখালীতে আ’লীগের বর্ধিত সভায় বক্তারা

দলীয় প্রার্থী ও নৌকার পক্ষে থাকুন প্রতিপক্ষ হবেন না

কুমারখালী প্রতিনিধি ॥ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় আবুল হোসেন তরুণ অডিটোরিয়াম মিলনায়তনে এ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়।উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দল মনোনীত উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল মান্নান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সদর উদ্দিন খান। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, কুষ্টিয়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, কুমারখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও পৌর সভার মেয়র মো: সামছুজ্জামান অরুণ, কুষ্টিয়া শহর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আতাউর রহমান আতা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো: সালাহ্ উদ্দিন খান তারেক, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক সাদ আহমেদ। নির্বাচন উপলক্ষে আয়োজিত এই সভায় পৌর আওয়ামী লীগসহ ১১টি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খান বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যেভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচন করে জয়লাভ করেছি। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও একইভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচন করতে চাই। এ জন্য দলের নেতা, কর্মী ও সমর্থকদেরকে দলীয় প্রার্থী ও নৌকার পক্ষে থাকার আহবান জানিয়েছেন। এ সময় তিনি হুঁশিয়ারী দিয়ে বলেছেন, দলের কেউ দলীয় প্রার্থী ও নৌকার প্রতিপক্ষ হবেন না, তাহলে পরিণাম মোটেও ভালো হবেনা। সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ বলেছেন, দলের সিদ্ধান্তের বাহিরে গিয়ে যারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন, তারা নির্বাচনী মাঠে কাউকেই সঙ্গে পাবেন না। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের পরিচয় বহন করে নৌকার প্রতিপক্ষ হয়ে নির্বাচনী মাঠে টিকে থাকা যাবেনা। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা ঐক্যবদ্ধ থাকুন, বিভ্রান্ত হবেন না, এ নির্বাচনেও নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। তাই কাউকেই ছাড় দেওয়া হবেনা। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও পৌর সভার মেয়র মো: সামছুজ্জামান অরুণ বলেছেন, আওয়ামী লীগের কোন নেতা-কর্মীরা কেউ নৌকার বিপক্ষে নির্বাচন করলে মুঠোফোনে তাদের ছবি তুলে আমাদেরকে দিবেন, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বর্ধিত এ সভা শেষে জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ পৌর ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকদের সঙ্গে ঘরোয় বৈঠকে বসেন।  এই বর্ধিত সভা সঞ্চালনা করেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আশাদুর রহমান আশা। উল্লেখ্য, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কুমারখালীতে চেয়ারম্যান পদে কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের সবেক প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদ হোসেন জাফরের ছোট ভাই জয়নাল আবেদীন ও কুষ্টিয়া-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য সুলতানা তরুণের ছোট ছেলে গোলাম জিলানী নজরে মুর্শেদ (পিটার) বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন।

 

দৌলতপুরে বিদেশী পিস্তুল, গুলি ও ম্যাগজিনসহ বাঘার সন্ত্রাসী সোহেল রানা আটক

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে বিদেশী পিস্তুল, গুলি ও ম্যাগজিনসহ সোহেল রানা (৩৫) নামে এক সন্ত্রাসী পুলিশের অভিযানে আটক হয়েছে। গতকাল রবিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের বৈরাগীরচর এলাকার পদ্মার চর থেকে তাকে আটক করা হয়। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পদ্মা নদীর চরে অবৈধভাবে বালি উত্তোলনকারীদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় করার জন্য সন্ত্রাসীদের সশস্ত্র অবস্থানের গোপন সংবাদ পেয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশের টহল টিম ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পালানোর চেষ্টা করলে সন্ত্রাসী সোহেল রানাকে একটি বিদেশী পিস্তুল, ২রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিনসহ আটক করে পুলিশ। আটক সন্ত্রাসী পার্শ্ববর্তী রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামের কাজল শেখের ছেলে। তার বিরুদ্ধে বাঘা ও দৌলতপুর থানায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগ ও মামলা রয়েছে। সন্ত্রাসী আটকের বিষয়ে দৌলতপুর থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম জানান, দূর্গম চরাঞ্চলে অভিযান চালিয়ে একটি বিদেশী পিস্তুল, ২রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিনসহ সোহেল রানা নামে এক সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে। জিঞ্জাসাবাদ চলছে বিস্তারিত তথ্য পরে জানানো সম্ভব হবে।

কুষ্টিয়া ক্যান্সার সোসাইটিকে প্রজেক্টর প্রদান

=আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুরে সামাজিক সচেতনতা মূলক এবং অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান কুষ্টিয়া ক্যান্সার সোসাইটিকে তাদের ক্যন্সার সচেতনতা কার্যক্রমকে আরো বেগবান করতে বিনামূল্যে একটি প্রজেক্টর প্রদান করেছেন আমলার কৃতি সন্তান আমেরিকান প্রবাসী মাসুদুল ইসলাম লিপু (মন্টু)। গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় কুষ্টিয়া ক্যন্সার সোসাইটির কার্যালয়ে এ প্রজেক্টর প্রদান করেন তিনি। এসময় কুষ্টিয়া ক্যন্সার সোসাইটির সভাপতি ফরিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন আমলার কৃতি সন্তান আমেরিকান প্রবাসী মাসুদুল ইসলাম লিপু (মন্টু)। অনুষ্ঠানে কুষ্টিয়া ক্যন্সার সোসাইটির সাধারন সম্পাদক তারিকুজ্জামানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আমলাসদরপুর কিন্ডার গার্টেনের পরিচালক মাসুম আল মাজি, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মনিরুল ইসলাম, কুষ্টিয়া ক্যান্সার সোসাইটির সহ-সভাপতি একরামুল হক, সদস্য নাজমুল, মাহফুজ, রনি, ছোটন, শাউন, মাহফুজ, বিপ্র বেধ, রয়েল, গালিব, লাল চাঁদ, রিপন প্রমুখ।

সভাপতি আব্দুস ছাত্তার, সাধারণ সম্পাদক মোসলেম উদ্দিন

কুষ্টিয়া জেলা দেওয়ানী আদালত আইনজীবি সহকারী সমিতি নির্বাচন সম্পন্ন

নিজ সংবাদ ॥ ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে কুষ্টিয়া জেলা দেওয়ানী আদালত আইনজীবি সহকারী সমিতির দ্বিবার্ষিক সাধারণ নির্বাচন (২০১৯-২০২১) সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে ৮৬জন ভোটারের সবাই ভোট প্রদান করেন। কুষ্টিয়া আইনজীবি ভবনের নিচ তলায় জেলা আইনজীবি সহকারী সমিতির অফিস কক্ষে রোববার সকাল ১০ থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত বিরতীহীনভাবে গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে সভাপতি পদে তৃতীয় বারের মতো নির্বাচিত হন আব্দুস ছাত্তার ডাবলু ও সাধারণ সম্পাদক পদে চতুর্থ বারের মতো নির্বাচিত হন মোসলেম উদ্দিন। প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন বিজ্ঞ পিপি ও জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি এড. অনুপ কুমার নন্দী। নির্বাচন কমিশনার ছিলেন জেলা আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক এড. শেখ মোঃ আবু সাঈদ এবং সহকারী কমিশনার ছিলেন এড. শামসুজ্জামান মনি ও এড. এমরান হোসেন দোলন। এরআগে ১৬ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির ২ জন সহ-সভাপতি, ৫জন সিনিয়র সদস্য ও ৫জন জুনিয়ার সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হন। বাঁকি ৪ পদে রোববার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরমধ্যে ৪৬ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আব্দুস ছাত্তার ডাবলু। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শাহজাহান আলী পেয়েছেন ২৩ ভোট এবং ইয়াসিন আলী পেয়েছেন ১৭ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে বিপুল ভোটে চতুর্থ বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন আইনজীবি সহকারীদের জনপ্রিয় নেতা মোসলেম উদ্দিন। তিনি পেয়েছেন ৭০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শ্রী দুলাল কুমার সরকার পেয়েছেন মাত্র ১৫ ভোট। এছাড়া যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন ৩জন। এরমধ্যে আল-আমীন খান ৭০ ও এনামুল হক ভাদু ৪৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তাদের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আনিসুর রহমান পেয়েছেন ৩৩ ভোট।

বাংলাদেশে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৫০ হাজার ৭৮১ জন – স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, বাংলাদেশে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৫০ হাজার ৭৮১ জন। গতকাল রোববার সংসদে সরকারি দলের সদস্য এম আবদুল লতিফের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো জানান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আন্তর্জাতিক ক্যান্সার গবেষণা সংস্থার (আইএআরসি) ২০১৮ এর প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। মন্ত্রী বলেন, আক্রান্ত ক্যান্সার রোগীর মধ্যে ১ লাখ ৮ হাজার ১৩৭ জন রোগী মৃত্যুবরণ করেছেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, তামাক, বায়ুসহ অন্যান্য দূষণ, অনিরাপদ খাদ্যাভ্যাসের কারণে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা বাড়লেও ‘গ্লোবাল এডাল্ট টোবাকো সার্ভে (জিএটিএস), ২০০৯ এবং জিএটিএস, ২০১৭-এর তুলনামূলক তথ্যচিত্রে দেখা যায় যে, তামাকের ব্যবহার কমে যাওয়ার ফলে ক্যান্সার রোগীর সংখ্যা ক্রমহ্রাস পাচ্ছে। জাহিদ মালেক বলেন, জিএটিএস, ২০০৯ এ তামাক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ৪৩ দশমিক ৩ ভাগ যা জিএটিএস, ২০১৭ এ ৩৫ দশমিক ৩ ভাগে নেমে এসেছে।

কাশ্মীর সীমান্তে গোলাগুলি অব্যাহত পাকিস্তানি সৈন্যসহ নিহত ৭

ঢাকা অফিস ॥ শান্তির বার্তা দিতে পাকিস্তান আটক ভারতীয় বৈমানিক অভিনন্দন বর্তমানকে ছেড়ে দিলেও কাশ্মীর সীমান্তে দুইদেশের সেনাদের মধ্যে গোলাগুলি অব্যাহত আছে। জম্মু ও কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর দুপক্ষের অব্যাহত গোলাগুলিতে বেসামরিক ও পাকিস্তানের দুই সৈন্যসহ দুপক্ষের অন্তত সাত জন নিহত হয়েছেন বলে খবর। ডনের খবরে বলা হয়, শনিবার বিকালে পরিস্থিতির হালানাগাদ তথ্যে পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর জনসংযোগ বিভাগ আইএসপিআর জানিয়েছে, নাকিয়াল সেক্টরে ভারতীয় বাহিনীর গোলার জবাব দেওয়ার সময় দুই সৈন্য নিহত হয়েছেন। পাকিস্তানি সেনাদের পাল্টা হামলায় ভারতীয় সেনারাও হতাহত হয়েছে এবং ভারতীয়দের সীমান্ত পোস্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে দাবি করেছে পাকিস্তানি বাহিনী।  এর আগে এক বিবৃতিতে আইএসপিআর কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখার অপরপাশ থেকে ভারতীয় বাহিনীর ছোড়া গুলিতে দুই বেসামরিক নিহত ও এক নারী ও ১৯ বছরের এক তরুণসহ তিন জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছিল। অপরদিকে এনডিটিভির খবরে বলা হয়, ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের পুঞ্চ জেলার নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর শুক্রবার রাতভর গোলাগুলিতে রুবানা কসার (২৪) নামে এক মা এবং তার দুই শিশু সন্তান নিহত হয়েছে। পাকিস্তানি সেনাদের ছোড়া গোলার আঘাতে ওই মা ও তার শিশুরা নিহত হয়েছে বলে দাবি ভারতের। গত আটদিন ধরে কাশ্মীরের পুঞ্চ এবং রাজৌরি জেলার নিয়ন্ত্রণ রেখায় প্রতিবেশী দুইদেশের সেনাদের মধ্যে গোলাগুলি চলছে। দেশ দুটি নিয়ন্ত্রণ রেখার পাঁচ কিলোমিটারের মধ্যে অবস্থিত সব স্কুল অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে। জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় এক আত্মঘাতী হামলায় ভারতের আধাসামরিক বাহিনীর ৪০ জনেরও বেশি জওয়ান নিহত হওয়ার পর এর দায় স্বীকার করে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ।এ নিয়ে ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনা বৃদ্ধির মধ্যেই আন্তর্জাতিক সীমান্ত অতিক্রম করে পাকিস্তানের বালাকোটে জইশ-ই-মোহাম্মদের কথিত আস্তানা ও শিবিরে হামলা চালায় ভারতীয় জঙ্গিবিমান।ভারতীয় এই বিমান হামলার জেরে দুপক্ষের মধ্যে উত্তেজনা চরমে পৌঁছে ও সীমান্তে গোলাগুলি শুরু হয়। কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপরে আকাশে দুপক্ষের মধ্যে খন্ড বিমান যুদ্ধও হয়। এতে ভারতের অন্তত একটি মিগ-২১ বিধ্বস্ত হয় ও এর পাইলট অভিনন্দনকে আটক করে পাকিস্তানি বাহিনী। শুক্রবার রাতে পাইলট ভারতীয় বিমান বাহিনীর উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে ভারতের হাতে তুলে দেয় পাকিস্তান। পাকিস্তানের এ সিদ্ধান্তে উত্তেজনা আরও ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা হ্রাস পেলেও কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর দুপক্ষের মধ্যে গোলা বিনিময় থামেনি।

 

নবনির্বাচিত আন্তবিশ^বিদ্যালয় কর্মকর্তা ফেডারেশনের পক্ষ থেকে মেয়র আনোয়ার আলীকে ফুলেল শুভেচ্ছা

গতকাল সন্ধায় ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের কর্মকর্তা সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও আন্তবিশ^বিদ্যালয় কর্মকর্তা ফেডারেশনের নবনির্বাচিত মহাসচীব মীর মূর্শেদুর রহমান পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আনোয়ার আলীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। পরে কুষ্টিয়া পৌরসভার ম.আ.রহিম মিলনায়তনে ২য় তলায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। মেয়র আনোয়ার আলী তার বক্তব্যে বলেন, প্রথমত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানায়, কারণ এই ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় কুষ্টিয়াতে প্রতিষ্ঠার পেছনে তিনি নেপথ্যে কাজ করেছেন। কুষ্টিয়ায় ইসলামী বিশ^বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল বলে আজ এখান থেকে মীর মূর্শেদের মত নেতৃত্ব গড়ে গড়ে উঠছে। মূর্শেদ অনেক বড় দায়িত্ব পেয়েছে এজন্য  আমরা সবাই মূশের্দকে সহযোগিতা করলে কুষ্টিয়ার মুখ উজ¦ল করবে বলে আমি মনে করি। ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের কর্মকর্তা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ও আন্তবিশ^বিদ্যালয় কর্মকর্তা ফেডারেশনের নবনির্বাচিত মহাশচীব মীর মূর্শেদুর রহমান তার বক্তব্যে বলেন, মেয়র মহোদয়ের সংস্থর্শে থাকার কারনে আজ আমার নেতৃত্ব এই পর্যন্ত পৌছেছে। আমি তার কাছে চিরকৃতজ্ঞ। আমার মা-বাবার পরেই তার স্থান।  মেয়র মহোদয়ের অভিঙতাকে কাজে লাগিয়ে ইসলামী বিশ^বিদ্যায় কর্মকর্তা ফেডারেশন ও আন্তবিশ^বিদ্যালয় কর্মকর্তা ফেডারেশন দূর্বার গতিতে এগিয়ে যাবে বলে আমি আশাকরি। ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের উপ-রেজিষ্টার আবুদর রশিদ বকুল’র পরিচালনায় এছাড়াও বক্তব্য রাখেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী আলিমুজুামান টুটুল, উপ পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক আব্দুল মুহিত বাবুল, উপ রেজিষ্টার নবাব আলী, কুষ্টিয়া পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের শতাধিক কর্মকতা। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

দৌলতপুরে প্রাইভেটকার ও ইয়াবাসহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী বিল্লাল আটক

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে একটি প্রাইভেটকার ও একশ পিচ ইয়াবাসহ বিল্লাল হোসেন ওরফে মাদক বিল্লাল (৩২) নামে এক শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলার মথুরাপুর ই্উনিয়নের কৈপাল নীচপাড়া এলাকার তার নিজ বাড়ি থেকে মাদকসহ তাকে আটক করা হয়। বিল্লাল হোসেন একই গ্রামের জামাল আলীর ছেলে। পুলিশ জানায়, দীর্ঘদিন ধরে বিল্লাল হোসেন নানা কৌশলে মাদকের ব্যবসা করে আসছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দৌলতপুর থানা পুলিশ বিল্লালের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে একটি চোরাই প্রাইভেটকার ও ১০০ পিচ ইয়াবা সহ বিল্লালকে আটক করা হয়। মাদক বিল্লাল আটকের বিষয়ে দৌলতপুর থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম জানান, বিল্লাল বিভিন্ন কৌশলে গোপনে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। নিজ বাড়িতে মাদক কেনা বেচার গোপন সংবাদ পেয়ে একটি টিম বিল্লালের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১০০ পিচ ইয়াবা ও একটি চোরাই প্রাইভেটকারসহ বিল্লাকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় দৌলতপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে যান রাষ্ট্রপতি

ঢাকা অফিস ॥ রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ আজ বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে যান। রাষ্ট্রপতি ও তাঁর সহধর্মিনী রাশিদা খানম ৪টা ১৭ মিনিটে হাসপাতালে যান এবং প্রায় ১৫ মিনিট সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর পাশে ছিলেন। মন্ত্রী গতকাল রোববার সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রাষ্ট্রপতি প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন বাসসকে একথা জানান। রাষ্ট্র প্রধান সেখানে চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেন এবং তার দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন। রাষ্ট্রপতি ওবায়দুল কাদেরের আশু আরোগ্যের জন্য দেয়া করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।

 

রাসায়নিকের গুদাম সরানোয় কোনো ধরনের ছাড় নয় – স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার প্রশ্ন জড়িত থাকায় পুরান ঢাকা থেকে রাসায়নিকের গুদাম সরানোর বিষয়ে কোনো ধরনের ছাড় না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। সরকার এ বিষয়ে ‘খুবই সিরিয়াস’ জানিয়ে তিনি বলেন, “নিমতলীর ঘটনার পরেই আমরা জাতীয় পর্যায়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে, পুরান ঢাকায় এ সমস্ত কেমিকেলের কারখানা যাতে না থাকে এবং দাহ্য পদার্থের গোডাউন যেন সরিয়ে নেওয়া হয়। প্রাথমিকভাবে আমরা দেখেছিলাম, কয়েক বছর তারা (ব্যবসায়ী) মেনেছিল। এখন দেখছি আবার তারা এ কর্মটি করেছে, যার খেসারত এটা (চুড়িহাট্টার আগুন) দিতে হল।” গত ২০ ফেব্রুয়ারি রাতে পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টায় অগ্নিকা-ে ৭১ জন প্রাণ হারান। ভয়াবহ ওই অগ্নিকা-ে পুড়ে যায় অন্তত পাঁচটি ভবন, যে ভবনগুলোর প্রায় প্রতিটিতে ছিল প্লাস্টিক দ্রব্য, রাসায়নিক কিংবা প্রসাধন সামগ্রীর গুদাম। নয় বছর আগে নিমতলীতে অগ্নিকা-ে শতাধিক মানুষের প্রাণহানির পর পুরান ঢাকার সব রাসায়নিকের গুদাম সরিয়ে ফেলার সুপারিশ করা হয়েছিল। এবারের অগ্নিকা-ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির জন্য দাহ্য পদার্থের গুদামকে দায়ী করা হলে পুরনো দাবিটি আরও জোরেশোরে ওঠে। এই প্রেক্ষাপটে সেবা সংস্থাগুলোর সমন্বয়ে একটি টাস্কফোর্স করে পুরান ঢাকা থেকে রাসায়নিক ও প¬াস্টিকের গুদাম সরিয়ে নেওয়ার জন্য অভিযান চলছে।

হাসপাতালে কাদেরকে দেখে গেলেন প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে গিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে দেখে এলেন দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজশাহীতে সেনাবাহিনীর একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পর ঢাকা ফিওে গতকাল রোববার বেলা সাড়ে ৩টায় বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি আছেন হৃদরোগে আক্রান্ত কাদের। বিকাল সোয়া ৪টার দিকে প্রধানমন্ত্রীকে ওই ভবন থেকে বেরিয়ে এসে চলে যেতে দেখা যায়। তবে এ সময় তিনি সাংবাদিকদের সামনে আসেননি। দলের পক্ষ থেকেও কোনো ব্রিফ করা হয়নি। চিকিৎসকরা বলছেন, ওবায়দুল কাদেরের তিনটি রক্তনালীতে ব্লক ধরা পড়েছে, যার একটি তারা অপসারণ করেছেন। কিন্তু জীবনশঙ্কা থাকায় কৃত্রিমভাবে তার শ্বাসপ্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। উন্নত চিকিৎসার জন্য ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুরে নেওয়ার প্রস্তুতি চললেও এই শারীরিক অবস্থায় তা সম্ভব হবে কি না- সে বিষয়ে চিকিৎসকরা নিশ্চিত নন।

 

‘জীবনশঙ্কায়’ ওবায়দুল কাদের

কা অফিস ॥ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের অবস্থা ‘সঙ্কটজনক’ বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।  তার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের কার্ডিওলজির অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান জানিয়েছেন, সেতুমন্ত্রীর তিনটি রক্তনালীতে ব্লক ধরা পড়েছে, যার একটি স্টেন্টিংয়ের মাধ্যমে অপসারণ করা হয়েছে। উনার অবস্থা ওঠানামার মধ্যে আছে। দোয়া করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই।… যেহেতু উনি ভেন্টিলেশনে আছেন, সেহেতু উনি জীবনশঙ্কায় আছেন বলতে পারেন।”

এই অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ওবায়দুল কাদেরকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। তবে এই শারীরিক অবস্থায় কাদেরকে দেশের বাইরে নেওয়া সম্ভব কি না, সে বিষয়ে নিশ্চিত নন চিকিৎসকরা। হঠাৎ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ওবায়দুল কাদেরকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে এনে করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে আওয়ামী লীগ নেতারাও হাসপাতালে ছুটে আসেন। পরে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের উপাচার্য অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এক ব্রিফিংয়ে ওবায়দুল কাদেরর সর্বশেষ পরিস্থিতি সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন। হানিফ বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডাক্তার ও পরিবারের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন, পরিস্থিতি মনিটর করছেন। উনি নির্দেশনা দিয়েছেন যেন হাসপাতালে অহেতুক ভিড় করা না হয়।” দলের নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ভোরে ফজরের নামাজের পর হঠাৎ করেই কাদেরের শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। অবস্থার দ্রুত অবনতি হতে থাকলে তাকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে নিয়ে আসেন তার স্ত্রী ইশরাতুন্নেসা কাদের। কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান বেলা ১১টার দিকে সাংবাদিকদের বলেন, হাসপাতালে আনার সঙ্গে সঙ্গে ওবায়দুল কাদেরের সিটি স্ক্যান করা হয়। রক্তচাপ কিছুটা স্থিতিশীল হলে করা হয় এনজিওগ্রাম। তাতে কাদেরের তিনটি আর্টারিতে ব্লক ধরা পড়ে। এর মধ্যে একটি অপসারণ করা হয়। কিন্তু যে কোনো মুহূর্তে পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে জানিয়ে সৈয়দ আলী আহসান সে সময় বলেন, উন্নত চিকিৎসার জন্য সেতুমন্ত্রীকে দেশের বাইরে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তারা। আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদ, সভাপতিম-লীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি খাত, শিল্পায়ন ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান ও শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহম্মেদ হোসেন, বি এম মোজাম্মেল হক ও আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য এস এম কামাল হোসেন, ইকবাল হোসেন অপু, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, পানি সম্পদ উপ-মন্ত্রী এনামুল হক শামীম, সাবেক বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, বিএমএ সভাপতি মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল ততক্ষণে হাসপাতালে এসে ওবায়দুল কাদেরের খোঁজ খবর নিয়ে যান। ওবায়দুল কাদেরের সর্বশেষ পরিস্থিতি জানাতে বেলা সোয়া ২টার পর হাসপাতালের নিচে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন ডা. সৈয়দ আলী আহসান। তিনি বলেন, “তিনটা নালীতে ব্লক ছিল। যেটা ক্রিটিকাল ছিল, এলইডি বলে, এলইডিতে ৯৯ পারসেন্ট, যেটার জন্য উনার এ প্রবলেমটা হয়েছে, আমরা শুধু সেটাকে সারাই করেছি। তবে সেটা পর্যাপ্ত নয়। যেহেতু তিনটা নালী সারানো দরকার। এ মুহূর্তে সেগুলো সারানো যাবে না। সারাতে গেলে আরো বিপদ ঘটবে।” সেতুমন্ত্রীর অবস্থা এখন কেমন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে এই চিকিৎসক বলেন, “উনার পরিস্থিতি অনেক উন্নতির দিকে গিয়েছিল। কিন্তু পরে আবার খারাপের দিকে গেছে। এ পর্যায়ে ওঠানামার মধ্যে আছে।… ২৪ থেকে ৭২ ঘণ্টা না গেলে বলা যাবে না যে পরিস্থিতি স্থিতিশীল।” সৈয়দ আলী আহসান জানান, বাকি যে দুটি রক্তনালীতে ব্লক আছে, তার একটি ৮০ শতাংশ বন্ধ। আগে কোনো এক সময় হার্ট অ্যাটাকে অন্য নালীটি ১০০ শতাংশ বন্ধ হয়ে যায়। এই অবস্থায় সিঙ্গাপুরে নেওয়া যাবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, “পরিস্থিতি এ মুহূর্তে বোঝা যাচ্ছে না।… আমি বলব, এখনই পাঠানো যাবে না।” ৬৭ বছর বয়সী ওবায়দুল কাদের ২০১৬ সালের ২৩ অক্টোবরে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তার আগে ছয় বছর তিনি দলের সভাপতি মন্ডলীতে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-ের পর আড়াই বছর কারাগারে ছিলেন কাদের। সেখান থেকেই তিনি ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন। পর পর দুই মেয়াদে তিনি ওই দায়িত্বে ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধ চলাকোলে কোম্পানীগঞ্জ থানা মুজিব বাহিনীর (বিএলএফ) অধিনায়ক কাদের প্রথম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে। মোট চারবার তিনি নোয়াখালী-৫ আসনের ভোটারদের প্রতিনিধি হিসেবে সংসদে এসেছেন। ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে জিতে আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন পর সরকার গঠন করলে ওবায়দুল কাদেরকে যুব, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেন। পরের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ হেরে গেলে ২০০২ সালের সম্মেলনে দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান ওবায়দুল কাদের। ২০০৭ সালে সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ন সরকারের সময়ে জরুরি অবস্থার মধ্যে দেশের বহু রাজনীতিবিদের মত ওবায়দুল কাদেরও গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে যান। প্রায় ১৮ মাস কারাগারে কাটানোর পর ২০০৮ সালে নবম সংসদ নির্বাচনের দুই মাস আগে তিনি জামিনে মুক্তি পান। ওই নির্বাচনে জয়ী হয়ে আবার ক্ষমতায় ফেরে আওয়ামী লীগ। প্রথমে তাকে তথ্য মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হয়। সরকারের মেয়াদের মাঝামাঝি সময়ে তাকে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী করেন প্রধানমন্ত্রী। তখন থেকেই ওই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ওবায়দুল কাদের। বর্তমানে এ মন্ত্রণালয়ের নাম সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়।

 

কাশ্মীরে ফের সংঘর্ষ, নিহত ৪ ভারতীয় সেনা

ঢাকা অফিস ॥ ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সংঘর্ষে ৫ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ২ সিআরপিএফ সেনা এবং ২ পুলিশ কর্মী। প্রাণ হারিয়েছে সাধারন এক বাসিন্দাও। খবর এনডিটিভির। জম্মু কাশ্মীরের হিন্দওয়ারাতে এ ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হিন্দওয়ারা একটি বাড়িতে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা লুকিয়ে আছে এমন খবর পেয়ে অভিযান চালায় দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। সেনাদের উপস্থিতি টের পেয়ে অতর্কিতে গুলি চালায় বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। এতে পাল্টা আক্রমণ চালায় দেশটির সেনা। এনআইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এখন পর্যন্ত সংঘর্ষ চলছে। পুরো এলাকা ঘিরে রেখেছে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী। হামলায় এ পর্যন্ত কতজন বিচ্ছিন্নতাবাদীর মৃত্যু ঘটেছে তা নিশ্চিত করে এখনো বলা যাচ্ছে না।