অবৈধ উপায়ে গ্যাস বিক্রি

গাংনীতে  ভ্রাম্যমাণ আদালতে দু’ব্যবসায়ীকে   জরিমানা

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী বাজারে বিনা লাইসেন্সে গ্যাস বিক্রির দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দু’ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে গাংনী উপজেলা শহরে ভ্রাম্যমাণ আদাত বসিয়ে জরিমানা করা হয়। আদালত পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিথিলা দাস। ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, গাংনী উপজেলা শহরের শাফিউল বাসার ও আব্দুস সালাম বেশ কয়েক বছর ধরে লাইসেন্স বিহীন অবস্থায় গ্যাস বিক্রি করে আসছিল। গতকাল ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাদের প্রত্যেককে ১ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে।

পাইলট আটক হওয়ায় মোদির সব পরিকল্পনা নস্যাৎ!

ঢাকা অফিস ॥ বুধবার সকালেও বেশ ফুরফুরে ছিলেন নরেন্দ্র মোদি। পাকিস্তানের ভূখন্ডে আক্রমণ করে দেশবাসীর কাছে হিরো সেজেছিলেন বিজেপির হয়ে জেতা এ প্রধানমন্ত্রী। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ব্যালটবক্সের ভোট প্রায় নিশ্চিত করছিলেন তিনি। কিন্তু এর রেশ শেষ না হতেই পাকিস্তান ভূখন্ডে ভারতীয় যুদ্ধবিমান ভূপাতিতের পাশাপাশি উইং কমান্ডার আটকের খবরে ভেস্তে যায় সাজানো পরিকল্পনা। ভোটের আগে, দেশকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে সরকার- বিরোধীদের রোষানলের পাশাপাশি সহ্য করতে হচ্ছে পাকিস্তানের নানা ট্রল (ব্যঙ্গ)। ভারতের সামরিক বাহিনীর পূর্ব নির্ধারিত যৌথ ব্রিফিং স্থগিত করা হয়েছে। দেশটির সেনাবাহিনী স্থানীয় সময় বিকাল ৫টায় ওই ব্রিফিং করার কথা ছিল। ভারতের বার্তা সংস্থা এএনআই জানায়, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীর যৌথ ব্রিফিং স্থগিত করা হয়েছে। এটি সন্ধ্যা ৭টায় করা হবে। এদিকে পাকিস্তানে আটক পাইলটকে মুক্তি দেয়ার ঘোষণা দিয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান প্রশংসায় ভাসছেন। খোদ ভারতীয়রাও তার এ সিদ্ধান্তকে ইতিবাচন হিসেবে বর্ণনা করেছেন। ইমরান খানের এ ঘোষণার পর ভারতজুড়ে স্বস্তি নেমে এসেছে। পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে টুইট করেন। টুইট বার্তায় অমরিন্দর সিং বলেন, ‘আমি খুবই খুশি। আমরা দাবি করছি যথাশীঘ্রই তাঁকে মুক্তি দেয়া হবে। আমি মনে করি এটি একটি ভালো উদ্যোগ এবং এটি বজায় থাকবে।’ এদিকে পাকিস্তানিরাও ইমরান খানের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। এক টুইট বার্তায় পাকিস্তানের বিশিষ্ট সাংবাদিক মাজহার আব্বাস বলেছেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর এ সিদ্ধান্ত একটি শুভ বার্তা বয়ে আনবে। পাকিস্তানের রাজনৈতিক বিশে¬ষক মুয়িদ পীরজাদা বলেন, এটা স্পষ্ট- লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করেই জম্মু-কাশ্মির নাটক সাজিয়েছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২০০২ সালেও প্রথমবার গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সময় এ কৌশল অবলম্বন করেন। কিন্তু, উইং কমান্ডার ধরা পরায় পুরোপুরি ফেঁসে গেছেন। এদিকে বিশে¬ষকদের অভিমত, পাকিস্তানের হাতে ঘুড়ির নাটাই থাকলেও; বেশ হিসাব-নিকাষ করে এগোচ্ছে ইমরান প্রশাসন। নয়াদিলি¬র রাজনৈতিক বিশে¬ষক সঞ্জয় কাক বলেন, পাকিস্তান সরকার নিরাপদ দূরত্বে থেকে পাশার দান দিচ্ছে। দৃশ্যতঃ পুরো খেলাটা এখন তাদের হাতে। রাজনৈতিক বিশে¬ষক আদনান নাসিমুল¬াহ বলেন, ভারত-পাকিস্তান দীর্ঘদিন ছায়াযুদ্ধ করছে। যার মূলে রয়েছে- কাশ্মির উপত্যকা। আপাতত, দু’দেশের মাঝে হামলা-পাল্টা হামলা বন্ধ থাকলেও; যে কোন মুহূর্তে পরিস্থিতি গড়াতে পারে ভিন্ন খাতে। খুব সাবধানে পা ফেলতে হবে উভয়পক্ষকে। কারণ, সামান্য ক্রটির কারণেও বেঁধে যেতে পারে আরেকটি রক্তক্ষয়ী যুদ্ধ। এর আগে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে পাকিস্তানে আটক রয়েছেন ভারতীয় নৌবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা কুলভূষণ যাদব। নতুনভাবে, বুধবার আজাদ-কাশ্মিরে যুদ্ধবিমান বিধ্বস্তের পর আটক হলেন উইং কমান্ডার অভিনন্দন।

 

৫০ শতাংশ ভোট পড়েছে, ধারণা ইসি সচিবের

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচনে ও দুই সিটির কাউন্সিলর পদের ভোট মিলিয়ে ভোটের হার ৫০ শতাংশ হতে পারে বলে মনে করছেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। গতকাল বৃহস্পতিবার দিনভর ভোট শেষে কমিশনের মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। হেলালুদ্দীন বলেন, ঢাকা উত্তর সিটির মেয়াদ আছে আর বছর খানেক। উপ নির্বাচনে নির্বাচিতরা ওই পর্যন্তই দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীও তেমন নেই, তাই ভোটারদের আগ্রহ কম থাকতে পারে। কিন্তু যেখানে ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে নির্বাচন হয়েছে, সেখানে বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হয়েছে। ভোটারদের উপস্থিতিও সেখানে ভালো ছিল।” উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচনের পাশাপাশি ঢাকার দুই সিটির ১৮টি করে মোট ৩৬টি নতুন ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ভোট হয়েছে বৃহস্পতিবার। পাশাপাশি ঢাকা উত্তরের ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে হয়েছে উপনির্বাচন। সকাল ৮টায় শুরু হওয়া বৃষ্টি ঘণ্টা দুই পর থামলেও ভোটারদের উপস্থিতি সেভাবে বাড়েনি।   ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, “ঢাকার উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচন ও উত্তর-দক্ষিণে সম্প্রসারিত ওয়ার্ডে প্রায় ৫০ শতাংশ ভোট পড়তে পারে সবমিলিয়ে- আমরা এটি ধারণা করছি। তবে এটি চূড়ান্ত নয়। পটুয়াখালীর নির্বাচনে প্রায় ৭০ ভাগ ভোটারের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।” বৃহস্পতিবার ঢাকার উত্তর-দক্ষিণ ছাড়াও পটুয়াখালী, আমতলী, কালিগঞ্জের পৌরসভা নির্বাচনেও শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, কোথাও কোনো কেন্দ্র স্থগিত হয়নি। ইসির যুগ্মসচিব আবুল কাসেম ও জনসংযোগ পরিচালক যুগ্মসচিব এসএম আসাদুজ্জামানও সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

ভাইস চেয়ারম্যান পদে সকলের দোয়া প্রার্থী হাকিম লোকমান হোসেন

কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান প্রদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা হাকিম মোঃ লোকমান হোসেন সকলের নিকট দোয়া প্রার্থনা করেছেন। তিনি মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে বৈধ প্রার্থীতা পেয়েছেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা হাকিম মোঃ লোকমান হোসেন বলেন, “কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদে ভাইস চেয়ারম্যান পদে সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করি। সেই সাথে সম্মানীত ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছি। সকলের দোয়া ও ভালোবাসায় আশা করি জয়লাভ করবো। আমি মুক্তিযোদ্ধার স্বপক্ষের শক্তিকে ভোট দেয়ার অনুরোধ জানাই। আমি জয়লাভ করলে সততা ও নিষ্ঠার সাথে দেশ ও জনগণের স্বার্থে কাজ করবো। গরিব-দুঃখি, মেহনতি মানুষের পাশে দাঁড়াবো। বিনা পয়সায় গরিব-দুঃখি মানুষের ইউনানী চিকিৎসা প্রদান করবো।” সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আগের রাতেই ভোট দেওয়া হয়ে গেছে – রিজভী

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র কে হবেন তা ভোটের আগের রাতেই নির্ধারিত হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন বর্জন করা বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোটের দিনের দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তার এ মন্তব্য আসে। তিনি বলেন, আজকে যে নির্বাচন দেখছেন তা নির্ধারণ হয়ে গেছে, ঠিক হয়ে গেছে গতকাল (গত বুধবার) রাতেই। যাকে দেওয়ার, সরকারের মনোনীত যিনি, তাকে ভোট দিয়ে ব্যালট অলরেডি সেখানে (বাক্সে) পড়ে গেছে। ব্যালট বক্স স্টাফিং হয়ে গেছে গত রাতেই। নিঃসন্দেহে। আজকে শুধু ফলাফল ঘোষণা করবে। গত ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে ভরাডুবির পর সরকারে বিরুদ্ধে কারচুপির অভিযোগ তোলা বিএনপি ও শরিকরা ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং দুই সিটির ৩৬টি নতুন ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে না। নিরুত্তাপ এ নির্বাচন নিয়ে ভোটারদের মধ্যেও তেমন আগ্রহ দেখা যায়নি। অধিকাংশ কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি ছিল একেবারেই কম। সে প্রসঙ্গ টেনে রিজভী বলেন, দেখুন, আজকে সারা শহরের কী পরিস্থিতি, কী অবস্থা! কোথাও কোনো উত্তাপ, কোনো প্রতিযোগিতা আছে কী? নির্বাচন তো আমাদের দেশে একটা উৎসব। সেই উৎসবের লেশমাত্র আছে কোথাও? এখানে বিরাজ করছে এক ধরনের কবরের নীরবতা। বিএনপি নেতা রিজভীর ভাষায়, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার গণতন্ত্রের উত্তাপ, গণতন্ত্রের প্রতিযোগিতাকে ‘হত্যা’ করেছে। বাংলাদেশকে একটা স্বৈরাচারী দেশে পরিণত করেছে তারা। এখন একটা নির্বাচন দেখাতে হবে, দেখাচ্ছেন। অর্থা’ স্বৈরশাহীর চেহারার মধ্যে প¬াস্টিক সার্জারি করে একটা গণতন্ত্রের চেহারা দেখাতে চাচ্ছেন তারা। কিন্তু সেটাও তারা (সরকার) পারছেন না, ওইটাও ব্যর্থ হচ্ছে। স্বৈরশাহীর চেহারা এত নির্মম-নিষ্ঠুর যে, প¬াস্টিক সার্জারি করে ওটা ঢেকে রাখতে পারছেন না, ওটা বেরিয়ে পড়ছে। ঢাকা উত্তরের ভোটার সিইসি কে এম নূরুল হুদা সকালে উপ নির্বাচনে ভোট দিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ভোটকেন্দ্রে ভোটার না আসার দায় নির্বাচন কমিশনের নয়। এ দায় রাজনৈতিক দলগুলোর এবং প্রার্থীদের। তার ওই বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, জনগণ ও দেশের রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে বর্তমান সিইসি ও নির্বাচন কমিশনের কোনো ‘গ্রহণযোগ্য’ নেই। যে দেশে ভোটের আগের রাতেই ব্যালট পেপারে সিল মেরে ব্যালট বাক্স ভর্তি করা হয়, ভোট চুরি হয়, ভোট দিতে পারে না, সেদেশের জনগণের কাছ থেকে বর্তমান নির্বাচন কমিশন ধিক্কার ছাড়া অভিনন্দন পাওয়ার যোগ্য নয়। একাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রসঙ্গ টেনে রিজভী বলেন, সিইসি জনগণকে প্রতারিত করেছেন। তার আজ্ঞাবহ জীবন দর্শনের জন্য গণতন্ত্র এখন রাহুগগ্রস্থ। ৩০ ডিসেম্বর ভোট চুরির মহোৎসব করে একটা অবৈধ শাসকগোষ্ঠিকে রাষ্ট্রক্ষমতায় বসিয়ে দেশকে গভীর সংকটে নিপতিত করার হোতা হচ্ছেন সিইসি কে এম নূরুল হুদা। দেশের জনগণ ও রাজনৈতিক দলগুলো এখন এই কমিশন থেকে ‘মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে’ বলে মন্তব্য করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব। অবৈধ সরকার নিজেদের আসন আরো পাকাপাকি করতে বিএনপির চেয়ারপারসনকে নিয়ে ষড়যন্ত্রে মেতেছে মন্তব্য করে বিএনপি নেতা বলেন, অসুস্থ দেশনেত্রীকে টানাহেঁচড়া করে ঘনঘন আদালতে নিয়ে আসা, অন্ধকারাচ্ছন্ন শ্বাসরুদ্ধকর পরিবেশে তাঁর জন্য আদালত স্থাপন করা, তাঁর পছন্দমতো চিকিৎসকদের দিয়ে চিকিৎসা করতে না দেওয়া, তাঁকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বিশেষায়িত হাসপাতালে না নেওয়া, সাত দিন পর পর নিকটাত্মীয়দের সঙ্গে দেখা করতে না দেওয়া, আত্মীয়স্বজনকে দেখা করতে দিতে বিলম্ব করা, অস্বাস্থ্যকর ও কীটপতঙ্গে ভরা কারাকক্ষে থাকতে বাধ্য করা। খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে রুহুল কবির রিজভী বলেন, যে মামলায় অন্যরা জামিন পেয়েছেন, সেই একই মামলায় তাঁকে জামিন না দেওয়া ইত্যাদিতে প্রমাণিত হয়, সরকার দেশনেত্রীকে এক অশুভ পরিণতির দিকে ঠেলে দিতে চায়। সে জন্যই বেআইনিভাবে নির্দোষ খালেদা জিয়াকে আটকে রাখা হয়েছে। ২৯ ডিসেম্বরের মিডনাইট নির্বাচন অনুষ্ঠিত করা হবে বলেই খালেদা জিয়াকে বেশ কয়েক মাস আগেই কারান্তরীণ করা হয়েছে। গণতন্ত্রের সূর্যকে অস্তগামী করার জন্যই খালেদা জিয়া এখন কারাগারে। আমরা আবারও আহ্বান জানাচ্ছি, এই মুহূর্তে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবুল খায়ের ভুঁইয়া, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, তাইফুল ইসলাম টিপু ও মুনির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

জেএমবির নারীদের প্রশিক্ষক গ্রেপ্তার

ঢাকা অফিস ॥ রাজধানীর ফার্মগেট থেকে মধ্যরাতে এক সন্দেহভাজন জঙ্গিকে গ্রেপ্তারের খবর জানিয়ে র‌্যাব বলছে, বাপ্পী সরকার নামের এই যুবক জেএমবির নারীদের প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করছিলেন। র‌্যাব-২ এর কর্মকর্তা পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন ফারুক গতকাল বৃহস্পতিবার বলেন, বুধবার মধ্যরাতে বাপ্পীকে (২৪) গ্রেপ্তার করা হয়। যাত্রাবাড়ী থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে তিনি পলাতক ছিলেন। “বাপ্পী জেএমবির নারী শাখার প্রশিক্ষক। তার কাছ থেকে উগ্রবাদী ও প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত বই উদ্ধার করা হয়েছে।” তাকে জিজ্ঞাসাবাদে আরও তথ্য বেরিয়ে আসবে বলে জানান তিনি।

 

বড় দল না এলে ভোটার উপস্থিতি কম হতেই পারে ঃ নাসিম

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচনে কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার প্রেক্ষাপটে আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপি একটি বড় দল, তারা নির্বাচনে না এলে এটা হতেই পারে। বিএনপিসহ অধিকাংশ দলের বর্জনের মধ্য দিয়ে বৃহস্পতিবার ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং দুই সিটি করপোরেশনে নতুন যুক্ত হওয়া ওয়ার্ডগুলোতে প্রতিনিধি বাছাইয়ে ভোট হচ্ছে। নির্বাচনী কর্মকর্তারা সকাল থেকে ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে বসলেও মেয়র নির্বাচনের অধিকাংশ কেন্দ্রেই ভোটার উপস্থিতি ছিল হাতে গোনা। এরমধ্যে দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে কৃষক শ্রমিক পার্টির আয়োজনে ‘শেরে বাংলা থেকে বঙ্গবন্ধু ও বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট’ শিরোনামের এক আলোচনায় বক্তব্যে এ বিষয়ে কথা বলেন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের সমন্বয়ক নাসিম। তিনি বলেন, “বিএনপি বারবার ভোট বর্জনের মাধ্যমে গণতন্ত্রকে হত্যা করার চক্রান্ত করছে। ভোট বর্জনের মাধ্যমে আপনারা জনগণের কাছ থেকে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।” আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য নাসিম বলেন, “বিএনপি একটি বড় দল। বড় দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করলে ভোটকেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতি কম হতেই পারে। তাছাড়া আজকে সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের দিন আবহাওয়ার অবস্থাও ভালো ছিল না। সেই জন্য ভোটারের উপস্থিতি কম।” আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের জোট শরিক ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেন, “আজকে সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, গণতন্ত্র এখন মৃত। আমি বলব, আপনারা যখন ক্ষমতায় ছিলেন তখন দেশের গণতন্ত্র চৌদ্দ হাত মাটির নিচে নিয়ে গিয়েছিলেন। “আপনারা নির্বাচন থেকে পালিয়ে যাবেন, ভোট বর্জন করবেন আবার বলবেন গণতন্ত্র মৃত, এটাই আপনাদের কথা। বেটারে, তোরা এখন বইয়া পড়, আমরা দেশটাকে নির্বিঘেœ উন্নয়নের মাধ্যমে এগিয়ে নিয়ে যাই।” মুহাম্মদ শাহ আলমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, আওয়ামী লীগ নেতা বলরাম পোদ্দার, বঙ্গবন্ধ সাংস্কৃতিক সম্পাদক অরুন সরকার রানা, কৃষক শ্রমিক পার্টির মহসচিব ফোরকান আলী হাওলাদার।

ভারত-পাকিস্তানকে সংযত থাকার আহ্বান জানাল বিশ্ব

ঢাকা অফিস ॥ পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলাকে কেন্দ্র করে দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তিধর দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে যে যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে তাদেরকে সংযত থাকার আহ্বান জানিয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। বুধবার কাশ্মীরের আকাশে জঙ্গি বিমানের লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে দুই দেশ নিজেদের ক্ষমতা জাহির করেছে। পরস্পরের বিমান ভূপাতিত করার দাবি করেছে দু’পক্ষই। যুক্তরাজ্যের জুনিয়র পররাষ্ট্রমন্ত্রী মার্ক ফিল্ড বলেছেন, তিনি বুধবার ভারত ও পাকিস্তানের দূতদের সঙ্গে কথা বলবেন এবং তাদেরকে তাদের দেশকে সংযত থাকতে বলার আহ্বান জানাতে বলবেন। ওদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও টেলিফোনে দুই দেশের পরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে ‘সামরিক শক্তি প্রদর্শন’ এড়িয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বলে জানায় বিবিসি। পম্পেও বলেন, “আমি উভয় মন্ত্রীকেই বলেছি, আমরা চাই ভারত ও পাকিস্তান উভয় দেশ সংযম দেখাক এবং যেকোনো মূল্যে উত্তেজনা বৃদ্ধি এড়িয়ে যাক।” রাশিয়াও চলমান পরিস্থিতিতে ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করে সব পক্ষকে ধৈর্য ধারণের আহ্বান জানিয়ে বলেছে, ‘রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক উপায়ে’ উদ্ভূত সমস্যার সমাধান করা উচিত। চীন এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেশগুলোও একই ধরনের আহ্বান জানিয়েছে। বেইজিংয়ে এক নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে বুধবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লু কং ভারত ও পাকিস্তান উভয় পক্ষকে সংযম প্রদর্শনের আহ্বান জানান।

 

জাতিসংঘে রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনে ভূ-রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের গুরুত্ব তুলে ধরলো বাংলাদেশ

ঢাকা অফিস ॥ জাতিসংঘের চলতি অভিবাসন সপ্তাহে আয়োজিত আলোচনায় রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনের ক্ষেত্রে ভূ-রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের গুরুত্ব তুলে ধরেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রসচিব এম শহীদুল হক। গত বুধবার সাধারণ পরিষদের সভাপতি আয়োজিত ‘আন্তর্জাতিক অভিবাসন ও উন্নয়ন’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অনুষ্ঠানে মিশ্র অভিবাসন, মানবপাচার, অনিয়মিত অভিবাসনসহ অভিবাসনের জটিল বিষয়গুলো নিরসনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের জাতীয় অভিবাসন কাঠামোর গুরুত্ব তুলে ধরেন পররাষ্ট্রসচিব। আইওএম এর মহাপরিচালক অ্যান্তোনিও ভিতোরিনো, জাতিসংঘে নিযুক্ত আয়ারল্যান্ডের স্থায়ী প্রতিনিধিসহ সভায় উপস্থিত সবাই পররাষ্ট্রসচিব উপস্থাপিত বাংলাদেশের অভিবাসন কাঠামোর ভূয়সী প্রশংসা করেন। সভায় আইওএম-এর মহাপরিচালক নবগঠিত জাতিসংঘ অভিবাসন ফোরামের অর্জিত সাংগঠনিক অগ্রগতি সম্পর্কে সদস্য রাষ্ট্রসমূহকে অবহিত করেন। ‘আন্তর্জাতিক অভিবাসন ও উন্নয়ন’ শীর্ষক ইভেন্টটিতে প্যানেলিস্ট হিসেবে আরো অংশ নেন জাতিসংঘের লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় অঞ্চল সংক্রান্ত অর্থনৈতিক কমিশনের নির্বাহী সচিব অ্যালিসিয়া বার্সেনা, ইউরোপীয় কমিশনের সহযোগিতা ও উন্নয়ন বিষয়ক মহাপরিচালক হেনরি এটি গেইজার, আন্তর্জাতিক মালিক সংস্থার (আইওই) মহাসচিব রবার্তো সুয়ারেজ-সান্তোস। অনুষ্ঠানের মডারেটরের দায়িত্বে ছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত স্পেনের স্থায়ী প্রতিনিধি প্রতিনিধি আগুস্তিন সান্তোস। সাধারণ পরিষদের সভাপতির সঙ্গে বৈঠকে অবিভাসন সপ্তাহের উচ্চ পর্যায়ের ইভেন্টসমূহে যোগদানের পাশাপাশি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভাপতি (পিজিএ) মারিয়া ফার্নান্দে এস্পিনোসা’র সাথে একান্ত বৈঠক করেন পররাষ্ট্রসচিব শহীদুল হক। অত্যন্ত সৌহার্দপূর্ণ এ বৈঠকে সাধারণ পরিষদের সভাপতি জলবায়ু পরিবর্তন, শান্তির সংস্কৃতি ও রোহিঙ্গা ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সক্রিয় নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন। ‘দুর্যোগে বাস্তুচ্যুতি সংক্রান্ত প্লাটফর্ম’ এর চেয়ারম্যান হিসেবে বাংলাদেশের দায়িত্বশীল ভূমিকারও প্রশংসা করেন তিনি। শুক্রবারও অভিবাসন সংক্রান্ত কয়েকটি উচ্চ পর্যায়ের ইভেন্টে অংশ নিবেন পররাষ্ট্রসচিব।

ঝিনাইদহে মাদক মামলায় ৩ জনের যাবজ্জীবন অন্য ৩ জনকে ১৪ বছর করে কারাদন্ড

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ঝিনাইদহে পৃথক মাদক মামলায় ৩ জনকে যাবজ্জীবন ও আরো  ৩ জনকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক এবং দ্বিতীয় আদালতের  দায়িত্বে থাকা বিচারক মোঃ  গোলাম আজম এ রায় প্রদান করেন। আদালত সুত্রে জানা যায়, গত ২০১৩ সালের এপ্রিল মাসের ৫ তারিখে জেলার শৈলকুপা উপজেলার লাঙ্গলবাধ বাজার থেকে সন্দেহ জনক গতিবিধির কারনে শাহাদৎ হোসেন ও জয়নাল আবেদিন নামে দুই ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশ। পরে তাদের কাছে থাকা ব্যাগ থেকে ১০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের নামে মামলা দায়েরের দীর্ঘ শুনানী শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক তাদেরকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড করেন।  অন্যদিকে, ২০১২ সালের সেপ্টেম্বর মাসের ২৬ তারিখে কালীগঞ্জ থানা এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে মিজানুর রহমানের বাড়ি থেকে ২৬ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। পরে মাদক মামলায় শুনানী শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক তাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন। এদিকে ২৬/০৮/১৩ তারিখে মহেশপুর উপজেলা সামন্তা এলাকা থেকে র‌্যাব কর্তৃক ৩৮০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধারসহ ৪ জনকে আটক করে। পরে দীর্ঘ শুনানী শেষে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক ৩ জনকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করে।

 

আজ কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধু পরিষদের চিত্রাংকন প্রতিযোগীতা

ঐতিহাসিক ৭মার্চ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার আয়োজনে আজ ১ মার্চ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টায় কুষ্টিয়া পৌরসভার বিজয় উল্লাস চত্বরে চিত্রাংকন ও আবৃতি প্রতিযোগীতা আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান হবে। অনুষ্ঠানে সকলকে উপস্থিত থাকার জন্য আহবান জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি মতিউর রহমান লাল্টু ও সাধারণ সম্পাদক শামসুর রহমান বাবু। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আমলাপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে এ্যাডঃ অনুপ নন্দীকে শুভেচ্ছা

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর ও আমলাপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির কমিটির প্রধান উপদেষ্টা এ্যাডঃ অনুপ কুমার নন্দী জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হওয়ায়, আমলাপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়েছে। ২৮ ফেব্র“য়ারি বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে কুষ্টিয়া শহরের আমলাপাড়াস্থ এ্যাডঃ অনুপ কুমার নন্দীর কার্যালয়ে এ শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়।

এ সময় আমলাপাড়া সার্বজনীন পূজা মন্দির কমিটির সভাপতি এ্যাডঃ অঘোর কুমার সরকার, সাধারণ সম্পাদক সুজিত কুমার ঘোষ, সহ-সভাপতি সনৎ কুমার পাল বাবলু, সহ-সভাপতি সাংবাদিক সুজন কুমার কর্মকার, সাংগঠনিক সম্পাদক নিশিত কুমার বিশ্বাস, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক নিমাই অধিকারী, কোষাধ্যক্ষ সহদেব অধিকারী সাধু, দপ্তর সম্পাদক সমীর সরকার সোনা, সৎকার সম্পাদক প্রতাপ ঘোষ, প্রচার সম্পাদক নিপেন চক্রবর্তী, সহ-প্রচার সম্পাদক বিপুল অধিকারীসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বালিয়াপাড়া স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়ানুুষ্ঠানে আতাউর রহমান আতা

লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলাকেও প্রাধান্য  দেওয়া উচিৎ

শাকিব পারভেজ ॥ কুষ্টিয়া সদর উপজেলার বালিয়াপাড়া স্কুল এন্ড কলেজে ২দিনব্যাপি বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠান পালিত হয়েছে। গতকাল সকাল ৯টায় বালিয়াপাড়া স্কুল এন্ড কলেজ অডিটোরিয়ামে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। গভর্নিং বডির সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন মৃধার সভাপতিত্বে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও নব- নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা।

প্রধান বক্তা ছিলেন সদর  উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আক্তারুজ্জামান বিশ্বাস।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আতা বিভিন্ন ধরনের প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়ন, ছাত্র-ছাত্রীদের লেখাপড়ার মান বৃদ্ধির জন্য অনুপ্রেরনামুলক কথা বলেন। ছাত্রছাত্রীদের উদ্দেশ্যে তিনি বিশেষ করে বলেন লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলাকেও প্রাধান্য দেওয়া উচিৎ এতে শরীর ও মন সুস্থ থাকে যা লেখাপড়ার মানউন্নয়নে বিশেষ ভুমিকা রাখে। এছাড়াও মধ্যাহ্নভোজ শেষ করে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের সাথে মতবিনিময়কালে এলাকার উন্নয়ন ও প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন সর্ম্পকিত আলোচনা করেন। এসময় তিনি প্রতিষ্ঠানের খেলার মাঠ মাটি ও বালি দিযে ভরাট করে ভালোভাবে খেলার উপযোগী করবেন বলে আসস্ত করেন। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করেন প্রভাষক আজিজুর রহমান এবং আব্দুল মান্নান বাদশা। পুরস্কার বিতরনী, নৃত্য ও দেশাত্ববোধক গানের মধ্যো দিয়ে অনুষ্ঠানটির সমাপ্তি হয়। সার্বিক তত্বাবধায়নে ছিলেন অত্র প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আবু বকর সিদ্দিক। সার্বিক তত্বাবধায়ন সহকারী ছিলেন মোয়াজ্জেম হোসেন, মাকছুদা খাতুন, সাইদুর রহমান, ছানোয়ার হোসেন, হেলেনা খাতুন, মহিদুল ইসলাম, সোহরাব হোসেন, জালাল উদ্দিন, জাহাঙ্গীর আলম, সেলিম উদ্দিন ও সজিবুল ইসলাম।  গত ২৭ ফেব্র“য়ারি শুরু হয় ক্রীড়াপ্রতিযোগিতা। পর্যায়ক্রমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত, তোপধ্বনি, মশালসহ মাঠ প্রদক্ষিণ ও ক্রীড়া শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের ক্রীড়া শপথ পাঠ করান ক্রীড়া শিক্ষক মহিদুল ইসলাম। ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন ঘোষনা করেন অধ্যক্ষ আবু বকর সিদ্দিক। ক্রীড়া পরিক্রমায় ছিল স্কুলের বালকদের জন্য ৪টি গ্র“প ও বালিকাদের জন্য ৪টি গ্র“প, ৮টি গ্র“পে মোট ২৪টি খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের জন্য ছিল ২টি খেলা ও কলেজ শাখার ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ছিল মোট ১০টি খেলা। এছাড়াও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষারর্থীদের জন্য ছিল ২টি খেলা ও বহিরাগতদের জন্য ছিল ১২০০ মিটার দৌড়।

কালুখালীতে কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে মুগ-তিলবীজ ও সার বিতরণ

ফজলুল হক ॥ গতকাল রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলাতে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচীর আওতায় ১০০ জন কৃষকদের মাঝে মুগডাল বীজ ও ১০০জন কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে তিলবীজ ও সকলের মাঝে সার বিতরণ করা হয়েছে। বেলা ১২টায় উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত ২০০জন কৃষকের মাঝে এ বীজ ও সার বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন নাহার। এসময় উপজেলা কৃষি অফিসার মো. মাছিদুর রহমান, সমাজসেবা অফিসার মোঃ জিল্লুর রহমান, সমবায় অফিসার মোল্লা সাইফুল ইসলাম সহ অন্যান্য অফিসারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গাংনীতে ক্রেতা-বিক্রেতার সংঘর্ষের ঘটনায় মহিলাসহ আহত-৩

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার  চেংগাড়া বাজারে ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় মহিলাসহ ৩ জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন-চেংগাড়া গ্রামের পূর্বপাড়ার মৃত তাহাজ উদ্দীনের ছেলে আব্দুল মান্নান (৩৮), একই গ্রামের স্কুল পাড়ার আলী হোসেনের ছেলে হোটেল ব্যবসায়ী মহিবুল ইসলাম (৪৫) ও তার স্ত্রী ওলিদা খাতুন (৪০)। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে চেংগাড়া বাজারে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান,দুপুরে আব্দুল মান্নান চেংগাড়া বাজারের হোটেল ব্যবসায়ী মহিরুল ইসলামের হোটেলে সিংয়াড়া কিনতে যান। সিংয়াড়ার (মূল্য) দাম কষাকষি নিয়ে হোটেলে দায়িত্ব থাকা মহিরুলের স্ত্রী ওহিদা খাতুনের সাথে আব্দুল মান্নানের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মান্নান উত্তেজিত হয়ে হোটেলে রাখা সিংয়াড়া ও পিয়াজু ফেলে দেয়। এ নিয়ে ওহিদা প্রতিবাদ করতে গেলে, মান্নান তাকে চড়-থাপ্পড় মারেন। এ সময় ওহিদার স্বামী হোটেল মালিক মহিরুল ও মান্নানের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। মান্নান মহিরুলকে পিটিয়ে আহত করে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে হোটেলে রাখা হাসুয়া দিয়ে মহিরুল মান্নানকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করেন। এ ঘটনায় মহিরুল,তার স্ত্রী ওহিদা ও মান্নান আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

অগ্নিঝরা মার্চ

ঢাকা অফিস ॥ আজ পহেলা মার্চ। অগ্নিঝরা মার্চের প্রথম দিন। ১৯৭১-এর মার্চ বাঙালি জাতির জীবনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ফেব্র“য়ারি যেমন আমাদের ভাষার মাস; মার্চ তেমনি আমাদের স্বাধীনতার মাস। ১৯৫২-এর একুশে ফেব্র“য়ারি থেকে ১৯৭১-এর ছাব্বিশে মার্চ পর্যন্ত জাতীয় মুক্তিসংগ্রামের প্রতিটি দিনই ছিল সংগ্রামমুখর। আর ১৯৭১-এর মার্চ মাসের প্রতিটি ক্ষণ, প্রতিটি মুহূর্ত ছিল বৈপ¬বিক। আর তাই প্রতিবছর মার্চ মাস এলেই মননে-চেতনায় ভেসে ওঠে উত্তাল সেই দিনগুলোর কথা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দূরদর্শী প্রজ্ঞা আর জাতীয় চার নেতার সম্মিলিত সিদ্ধান্তে এবং তাঁদের নির্দেশ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে সকল ষড়যন্ত্রের জাল ছিন্ন করে, বিচ্ছিন্নতাবাদের দায় এড়িয়ে, কী করে আমরা এক সাগর রক্তের বিনিময়ে মুক্ত করেছিলাম প্রিয় মাতৃভূমিকে। সেসব ঐতিহাসিক ঘটনার স্মৃতিচারণে আজও মনে পড়ে রক্তঝরা ’৭১-এর মার্চের দিনগুলোর কথা। প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া ঢাকায় এসে ১২ ও ১৩ জানুয়ারি এই দুই দিন বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে দু’দফা আলোচনায় মিলিত হন। আলোচনার ফলাফল সম্পর্কে বঙ্গবন্ধু সাংবাদিকদের জানান, ‘আলোচনা সন্তোষজনক হয়েছে এবং প্রেসিডেন্ট খুব শীঘ্রই ঢাকায় জাতীয় পরিষদের অধিবেশন আহ্বানে সম্মত হয়েছেন।’ অপরদিকে ঢাকা ত্যাগের প্রাক্কালে তেজগাঁও বিমানবন্দরে জেনারেল ইয়াহিয়া সাংবাদিকদের বলেন, ‘দেশের ভাবী প্রধানমন্ত্রী শেখ মুজিব তাঁর সঙ্গে আলোচনা সম্পর্কে যেসব কথা বলেছেন তা পুরোপুরি সঠিক।’ ঢাকা থেকে ফিরে এহিয়া খান লারকানায় ভুট্টোর বাসভবনে যান এবং সেখানে জেনারেলদের সঙ্গে এক গোপন বৈঠকে মিলিত হন। মূলত লারকানা বৈঠকেই নির্বাচনী ফলাফল বানচালের নীলনকশা প্রণীত হয়। অতঃপর জানুয়ারির শেষ দিকে ভুট্টো তাঁর দলবলসহ ঢাকায় আসেন এবং জানুয়ারির ২৭ ও ২৮ তারিখে বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বঙ্গবন্ধু ১৫ ফেব্র“য়ারির মধ্যে জাতীয় পরিষদের অধিবেশন আহ্বান এবং শাসনতন্ত্র ৬ দফা ভিত্তিক হবে বলে জানান। আর ভুট্টো বলেন, ‘আরও আলোচনার প্রয়োজন’ এবং তিনি ফেব্র“য়ারির শেষদিকের আগে পরিষদের অধিবেশন আহ্বানের বিরোধিতা করেন। এরপর ফেব্র“য়ারির ১৩ তারিখে এক সরকারি ঘোষণায় জানানো হয় যে, প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান ঢাকায় প্রাদেশিক পরিষদ ভবনে পাকিস্তানের শাসনতন্ত্র রচনার জন্য ৩ মার্চ বুধবার ৯টায় জাতীয় পরিষদের অধিবেশন আহ্বান করেছেন। এদিকে ১৪ ও ১৫ ফেব্র“য়ারি আওয়ামী লীগের ওয়ার্কিং কমিটির সভায় বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনার বিস্তারিত বিবরণ তুলে ধরেন। ওয়ার্কিং কমিটি আলোচনা অনুমোদন করে এবং বঙ্গবন্ধুকে ‘জনগণের আশা-আকাঙ্খা ও অধিকার আদায়ের জন্য যে কোন পন্থা গ্রহণের পূর্ণ অধিকার প্রদান করে।’ ১৫ ফেব্র“য়ারি ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে বক্তৃতায় বঙ্গবন্ধু চক্রান্তকারীদের এই মর্মে হুঁশিয়ার করে দেন যে, ‘ফ্যাসিস্ট পন্থা পরিহার করে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে সংখ্যাগুরুর শাসন মেনে নিয়ে দেশের ঐক্য ও সংহতি বজায় রাখুন। জনগণের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর ব্যবস্থা বানচাল করার যে কোন উদ্দেশে তৎপর গণতান্ত্রিক রায় নস্যাৎকারীগণ আগুন নিয়ে খেলবেন না।’ তিনি আরও বলেন, ‘দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণের দেয়া অধিকার বলে আমরা ৬-দফার ভিত্তিতেই শাসনতন্ত্র প্রণয়ন করব। সাত কোটি বাঙালির বুকে মেশিনগান বসিয়েও কেউ ঠেকাতে পারবা না।’ অন্যদিকে ১৫ ফেব্র“য়ারি ভুট্টো এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন যে, ‘আওয়ামী লীগের ৬ দফার ব্যাপারে আপোস বা পুনর্বিন্যাসের আশ্বাস পাওয়া না গেলে তার দল জাতীয় পরিষদের আসন্ন ঢাকা অধিবেশনে যোগদান করতে পারবে না।’ ১৭ ফেব্র“য়ারি ভুট্টো তার পার্টি অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘৩ মার্চ ঢাকায় জাতীয় পরিষদের যে অধিবেশন শুরু হচ্ছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে পিপল্স পার্টির জন্য তাতে যোগদান করা একেবারেই অর্থহীন।’ এরপর ১৮ ফেব্র“য়ারি ভুট্টো তাঁর সহকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আওয়ামী লীগ, পিপলস পার্টি ও সেনাবাহিনী-দেশে এই তিনটি শক্তিই আছে, আমরা কোন চতুর্থ শক্তির কথা স্বীকার করি না।’ জাতীয় পরিষদের অধিবেশনে যোগদান করতে অস্বীকার জ্ঞাপন করলে প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় বিষয়াদি নিয়ে আলোচনার জন্য ভুট্টোকে আমন্ত্রণ জানান। ১৯ ফেব্র“য়ারি ভুট্টো ও ইয়াহিয়া খানের মধ্যে ৫ ঘণ্টাব্যাপী আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। সম্ভবত ১৭ জানুয়ারি লারকানা বৈঠক এবং ১৯ ফেব্র“য়ারি রাওয়ালপিন্ডি বৈঠকেই বাঙালি হত্যার চক্রান্ত ও নীলনকশা চূড়ান্ত রূপ লাভ করে। পিন্ডি থেকে করাচী ফিরে গিয়ে ভুট্টো স্পষ্ট জানিয়ে দেন যে, ‘জাতীয় পরিষদের অধিবেশনে যোগদান না করার সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের কোন ইচ্ছা তাঁর নেই।’ ক্রমেই এটা স্পষ্ট হয়ে ওঠে যে, পাকিস্তানের সামরিক চক্র ’৭০-এর নির্বাচনে বাঙালির অকুণ্ঠ রায়কে বানচাল করার জন্য ভুট্টোকে ক্রীড়নক হিসেবে ব্যবহার করছে এবং ভুট্টো নিজেও সানন্দে ব্যবহৃত হচ্ছেন।

ভোটার কম হওয়ার দায় আ. লীগের নয় – স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপ নির্বাচনে ভোটারদের কম উপস্থিতির দায় নির্বাচন কমিশনের না, রাজনৈতিক দলের- প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদার এমন বক্তব্যের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তবে রাজনৈতিক দল হিসেবে এর দায় থেকে আওয়ামী লীগ মুক্ত বলেও দাবি করেন তিনি। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় রাজধানীর রাজধানী উচ্চ বিদ্যালয়ে নিজের ভোট দেওয়া শেষে এক প্রশ্নের জবাবে কামাল সাংবাদিকদের বলেন, সিইসি ঠিকই বলেছেন যে, ভোটারদের কেন্দ্রে নিয়ে আসার দায়িত্ব তাদের না। তারা নির্বাচন আয়োজন করবেন মাত্র। ভোট দেওয়ার ইচ্ছার মালিক ভোটাররা। তবে এর জন্য আমরা দায়ী নই। আমাদের সমর্থকেরা ভোট দিচ্ছেন। এসময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, বৈরী আবহাওয়ার কারণে সকালে ভোটার উপস্থিতি কম ছিল। তবে এখন বাড়ছে। যেমন আমার নিজেরই ভোট দিতে সময় লাগলো আপনারা দেখেছেন। আবার যেসব ওয়ার্ডে কাউন্সিলর নির্বাচন হচ্ছে সেখানে ভোটারদের অনেক উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। এখন পর্যন্ত ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে হচ্ছে এবং পুরোটা সময় তেমনই শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। পাশাপাশি বিরোধী প্রার্থীদের কর্মী-সমর্থকদের কোন ধরনের বাধা দেওয়া হচ্ছে না বলেও দাবি করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত বেশিরভাগ কেন্দ্র পরিদর্শনের সুযোগ হয়নি আমার। আবার সব কেন্দ্রের সার্বিক অবস্থার প্রতিবেদন এখনও পাইনি। তবে যতটুকু দেখেছি আর জেনেছি, তাতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। আর বিরোধীদের কথা বললে বলবো যে, আমার সঙ্গে এখন বিরোধী মার্কার (বাঘ) প্রার্থী শাহীন খান এখানেই উপস্থিত আছেন। তাহলে বাধা এল কোথায়?

ভোটার না আসার দায় রাজনৈতিক দলের – সিইসি

ঢাকা অফিস ॥ ঢাকা উত্তরের মেয়র পদে উপনির্বাচন এবং দুই সিটির নতুন ৩৬টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদের নির্বাচনে ভোটর উপস্থিতির কম হওয়ার দায় রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীরদের বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নূরুল হুদা। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উত্তরার ৫ নম্বর সেক্টরে আইইএস উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। উত্তরের ভোটার নূরুল হুদা ভোট দেওয়ার পর সাংবাদিকদের বলেন, ভোটকেন্দ্রে ভোটার না আসার দায় নির্বাচন কমিশনের নয়। এ দায় রাজনৈতিক দলগুলোর এবং প্রার্থীদের। তিনি বলেন, “আমি আগেই বলেছি, দুটি কারণে ভোটার উপস্থিতি কম থাকতে পারে। একটি হচ্ছে স্বল্প সময়ের জন্য এই নির্বাচন, এক বছর পরে আবার নির্বাচন হবে- সেজন্য কম হতে পারে। আর সব রাজনৈতিক দল অংশ না নেওয়ায় ভোটাররা প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হবে না ভাবলে কম হতে পারে।” অধিকাংশ দলের বর্জনে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচনের প্রচারে এবার উত্তাপ ছিল না। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বৃষ্টি থাকায় ৮টায় ভোট শুরুর পর অধিকাংশ কেন্দ্র ছিল ফাঁকা। বেশিরভাগ কেন্দ্রেই নির্বাচনী কর্মকর্তা আর এজেন্টদের খোশগল্পে অলস সময় কাটাতে দেখা গেছে।  সিইসি যে কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন, সেই আইইএস উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তিনটি কেন্দ্রে যথাক্রমে ২৯২৯টি, ২৪৬৯টি, ৩২৮১টি ভোট রয়েছে। সকাল সোয়া ১০টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে সব মিলিয়ে মোট ৫১টি। সিইসি বলেন, “দিন গড়ালে মানুষ বাড়তে পারে। তবে উপস্থিতি ওই রকম সংখ্যক নাও হতে পারে। আমরা সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি করে দিই। রাজনৈতিক দলগুলো কিংবা প্রার্থীদের ভোটার নিয়ে আসতে হয়। আমরা বলে দিই পরিবেশ সুষ্ঠু আছে, সবকিছু নিরাপদ আছে এবং সবাই ভোট দিতে আসতে পারে। ” নির্বাচন ব্যবস্থায় কোনো ত্রুটি নেই দাবি করে নূরুল হুদা বলেন, “ পোলিং অফিসার, প্রিজাইডিং অফিসার, আইন-শৃংখলাবাহিনী নিয়োগ করে দিয়েছি। কোনো ক্রটি আছে বলে আমরা মনে করছি না। প্রথম দুই ঘণ্টায় এ কেন্দ্রে এক শতাংশের কম ভোট পড়ার বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে সিইসি বলেন, “এখন কিছু বলা যাচ্ছে না। ভোটতো ৪টা পর্যন্ত। তার পর বলা যাবে কেমন ভোট পড়ল।”

গত অর্থবছরে রাজস্ব আয় আড়াই লক্ষ কোটি টাকা – অর্থমন্ত্রী

ঢাকা অফিস ॥ অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, গত অর্থবছরে অভ্যন্তরীণ সম্পদ থেকে রাজস্ব আয় ২ লাখ ৬ হাজার ৪০৭ কোটি ২৫ লাখ টাকা। তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার সংসদে সরকারি দলের সদস্য মোজাফফর হোসেনের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, এর মধ্যে আমদানি ও রপ্তানি পর্যায়ে রাজস্ব আয় হয়েছে ৬১ হাজার ৮১৭ কোটি ৮৮ লাখ টাকা, স্থানীয় পর্যায়ে মূসক মূল্য সংযোজন কর থেকে আয় ৭৮ হাজার ৮৯৪ কোটি ১৮ লাখ টাকা এবং আয়কর ও ভ্রমণ কর থেকে ৬৫ হাজার ৬৯৫ কোটি ১৯ লাখ টাকা। মুস্তফা কামাল বলেন, চলতি অর্থবছরের রাজস্ব আহরণের নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা ২ লাখ ৯৬ হাজার ২০১ কোটি টাকা। তিনি বলেন, অভ্যন্তরীণ সম্পদ তথা রাজস্ব খাতের পরিধি আরো সম্প্রসারণের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। সরকার অভ্যন্তরীণ সম্পদ খাতের পরিধি সম্প্রসারণের জন্য আয়কর খাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নিয়েছে – ওবায়দুল কাদের

ঢাকা অফিস ॥ কারাবন্দি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে বিএনপি রাজনীতি করছে বলে অভিযোগ করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি দাবি করেছেন, সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে নির্মাণাধীন দ্বিতীয় মেঘনা সেতু ও দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে কাদের এ দাবি করেন। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, শেখ হাসিনার সরকার অমানবিক নয়। সরকার খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে সব ধরনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে। তবে বিএনপি খালেদা জিয়ার অসুস্থতার চেয়ে রাজনীতিকেই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে। তার অসুস্থতা নিয়ে এখন তারা রাজনীতি করার পথ বেছে নিয়েছে। এমন রাজনীতি থেকে বিরত থাকতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ দলটির নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান কাদের। চলমান ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিরোধীদল না থাকায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ না হলেও শান্তিপূর্ণভাবেই হয়েছে বলে দাবি করেন কাদের। নির্মাণাধীন সেতুর ব্যাপারে মন্ত্রী বলেন, আগামি ঈদুল ফিতরের আগেই ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ৭৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন দ্বিতীয় কাঁচপুর সেতু, দ্বিতীয় মেঘনা সেতু ও দ্বিতীয় গোমতী সেতু উদ্বোধন করা হবে। আগামি ১০ মার্চ কাঁচপুরের সেতুটি প্রধানমন্ত্রী (শেখ হাসিনা) উদ্বোধন করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে। মেঘনা সেতু ও গোমতী সেতু পর্যায়ক্রমে এপ্রিল ও মে মাসের মধ্যেই কাজ সমাপ্ত হলে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ দু’টির উদ্বোধন করবেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন, এই তিনটি সেতু চালু হলে ঢাকা-চট্টগাম মহাসড়কে ঈদের সময়ে কোনো ধরনের যানজট থাকবে না। সাধারণ মানুষ অনায়াসে ঈদযাত্রা করতে পারবে। কাউকে কোনো ধরনের ভোগান্তিতে পড়তে হবে না। ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে উত্তেজনা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা যুদ্ধ চাই না, শান্তি চাই। উপমহাদেশের ক্রস-বর্ডার টেরোরিজম বা সীমান্ত-সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সরকার ‘জিরো টলারেন্স’ ঘোষণা করেছে। সীমান্তে যেসব সন্ত্রাসী গ্রুপ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে রয়েছে। এসময় মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ প্রশাসন এবং সড়ক-জনপথ ও সেতু বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

পিআইবির মহাপরিচালক শাহ আলমগীরের মৃত্যু

ঢাকা অফিস ॥ প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক সাংবাদিক মো. শাহ আলমগীর আর নেই। ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয় বলে পিআইবির প্রশিক্ষক জিলহাজ উদ্দিন জানান। শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তার মৃত্যুতে দেশের সাংবাদিকতা জগতে ‘অপূরণীয় ক্ষতি’ হল। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে পাঠানো এক শোক বার্তায় বলা হয়, শেখ হাসিনা পিআইবির মহাপরিচালকের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন এবং পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। তার কর্মজীবনের কথা স্বরণ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিকতার পাশাপাশি সাংবাদিকদের অধিকার আদায়ের সংগ্রামেও তিনি সব সময় সোচ্চার ছিলেন। অন্যদিকে, গভীর শোক প্রকাশ করে এক শোকবার্তায় রাষ্ট্রপতি বলেছেন, শাহ আলমগীরের মৃত্যু বাংলাদেশের গণমাধ্যম জগতের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি। তার নীতি ও আদর্শ সাংবাদিকদের জন্য অনুসরণীয় হয়ে থাকবে। রাষ্ট্রপতি তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি শাহ আলমগীরের বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। ২০১৩ সালের ৭ জুলাই থেকে তিনি পিআইবির মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। আগামি ৭ জুলাই পর্যন্ত তার দায়িত্বে থাকার কথা ছিল। পিআইবিতে যোগ দেওয়ার আগে এশিয়ান টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রধান সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন শাহ আলমগীর। তার শ্যালিকা শাহনাজ শারমীন জানান, হঠাৎ শাহ আলমগীরের রক্তে হিমোগে¬াবিন কমে গিয়েছিল। ডায়াবেটিসসহ বিভিন্নি শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি। গত ২১ ফেব্র“য়ারি রাতে অসুস্থ হয়ে সিএমএইচে ভর্তি হন পিআইবির মহাপরিচালক। পরদিন তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে তার চিকিৎসার জন্য ছয় সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ডও গঠন করা হয়েছিল। পরিবারের সদস্যরা জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টায় গোড়ানে নিজের বাড়িতে, আড়াইটায় পিআইবিতে, ৩টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে এবং ৪টায় উত্তরায় শাহ আলমগীরের জানাজা হবে। বিকাল ৫টায় উত্তরা ১২ নম্বর সেক্টরে তাকে দাফন করা হবে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা সাহিত্যে লেখাপড়া করা শাহ আলমগীরের সাংবাদিকতার শুরু উপমহাদেশের প্রথম শিশু-কিশোর সাপ্তাহিক কিশোর বাংলায়। ১৯৮০ থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত ওই পত্রিকায় সহ-সম্পাদক হিসেবে কাজ করেন তিনি। এরপর দৈনিক জনতা, বাংলার বাণী, আজাদ ও সংবাদ-এ কাজ করা আলমগীর ১৯৯৮ সালের নভেম্বর থেকে ২০০১ সালের সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত দৈনিক প্রথম আলোর যুগ্ম বার্তা-সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া চ্যানেল আইয়ে প্রধান বার্তা সম্পাদক, একুশে টেলিভিশনে হেড অব নিউজ, যমুনা টেলিভিশনে পরিচালক (বার্তা) এবং মাছরাঙা টেলিভিশনে বার্তা প্রধানের দায়িত্বেও তিনি ছিলেন। ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করা শাহ আলমগীর জাতীয় প্রেসক্লাবেরও সদস্য ছিলেন। তিনি শিশু কল্যাণ পরিষদ এবং শিশু ও কিশোরদের জাতীয় প্রতিষ্ঠান ‘চাঁদের হাট’এর সভাপতি এবং বাংলাদেশ শিশু একাডেমির পরিচালনা বোর্ডের সদস্য ছিলেন। সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি ২০০৬ সালে ‘কবি আবু জাফর ওবায়দুল¬াহ সাহিত্য পুরস্কার’, ২০০৫ সালে ‘চন্দ্রাবতী স্বর্ণপদক’, ২০০৪ সালে ‘রোটারি ঢাকা সাউথ ভোকেশনাল এক্সিলেন্স এওয়ার্ড’ এবং ২০০৪ সালে ‘কুমিল¬া যুব সমিতি অ্যাওয়ার্ড’ পান। শাহ আলমগীরের গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায়।