নির্যাতিত রোহিঙ্গা নারীদের কাহিনী শুনলেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

ঢাকা অফিস ॥ জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা- ইউএনএইচসিআর এর বিশেষ দূত হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি কক্সবাজারে অবস্থান করা মিয়ানমারে নির্যাতিত রোহিঙ্গা নারীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। জোলি গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় বেসরকারি বিমান সংস্থা নভোএয়ারের একটি বিমান যোগে কক্সবাজার পৌঁছান বলে জানিয়েছেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসাইন। ইউএনএইচসিআর এর কক্সবাজার কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্তাব্যক্তিদের বরাত দিয়ে ইকবাল হোসাইন বলেন, কক্সবাজার বিমানবন্দরে অবতরণের পর হলিউড অভিনেত্রী সরাসরি উখিয়ার ইনানীস্থ হোটেল রয়েল টিউলিপের উদ্দেশে রওনা দেন। তিনি সেখানে পৌঁছে আধা ঘণ্টা অবস্থানের পর রওনা দেন টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, ‘‘জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার বিশেষ দূত হিসেবে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে আসা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি দুপুর দেড়টায় টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়নের চাকমারকূল পৌঁছান। পরে সেখানে থাকা রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলো ঘুরে ঘুরে দেখেন। ‘‘এ সময় অ্যাঞ্জেলিনা জোলি মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে জাতিগত সহিংসতায় নির্যাতন নিপীড়নের শিকার হয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা নারীদের সঙ্গে একান্তভাবে আলাপ করেন এবং তাদের খোঁজ খবর নেন। রোহিঙ্গারাও নির্যাতন নিপীড়নের কাহিনী তার কাছে তুলে ধরেন।’’ রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে বিকেলে টেকনাফের দমদমিয়া এলাকায় রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য নির্মিত ট্রানজিট ক্যাম্প পরিদর্শনে যাবেন বলে জানিয়েছেন ইকবাল হোসাইন। পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, হলিউড অভিনেত্রী জোলির টেকনাফের ট্রানজিট ক্যাম্প পরিদর্শন শেষ করার পর উখিয়ার ইনানীস্থ হোটেল রয়েল টিউলিপের উদ্দেশে রওনা দেবেন। তিনি সেখানে রাত্রিযাপন করবেন। মঙ্গলবার সফরের দ্বিতীয় দিনে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির উখিয়ার কুতুপালং ডি-৫ ক্যাম্পসহ কয়েকটি রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের কথা রয়েছে। এ সময় জাতিসংঘের বিশেষ এ দূত গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার তথ্য ইউএনএইচসিআর এর সংশ্লিষ্টরা অবহিত করলেও তা এখনো নিশ্চিত হওয়া সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। এর আগে গত বছর কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে এসেছিলেন জাতিসংঘের শিশু তহবিল বিষয়ক সংস্থা- ইউনিসেফ এর বিশেষ দূত, বলিউড ও হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

ঝিনাইদহে ক্যান্সারে আক্রান্ত সঙ্গীত শিল্পী ফারহা ইসলাম জ্যোতির চিকিৎসায় আর্থিক সাহায্যের দাবি

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ॥ ক্যান্সারে আক্রান্ত জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী সঙ্গীত শিল্পী ফারহা ইসলাম জ্যোতির চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহযোগিতার প্রচার শুরু হয়েছে। সোমবার দুপুরে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বরে এ কর্মসূচীর আয়োজন করে সাংস্কৃতিক কর্মীরা। এসময় কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সুষেন্দু কুমার ভৌমিক, অংকুর নাট্য একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন জুলিয়াস, বিবর্তন নাট্য গোষ্টির সভাপতি রাজু আহম্মেদ মিজান, জাগরণ সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বাবুল আক্তার লাল্টু, কাঞ্চনপুর নাট্য গোষ্টির সাধারণ সম্পাদক তারেক হোসেন পল্লব, নৃত্য শিল্পী তরিকুল ইসলাম দিদারসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। এসময় সাংস্কৃতিক কর্মীরা জানান, ঝিনাইদহের কৃতিসন্তান সংগীত শিল্পী ফারহা ইসলাম জ্যোতি জাতীয় পর্যায়ে ৫ বার পুরস্কার পেয়েছেন। প্রায় এক বছর আগে ওভারি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়। বর্তমানে সে মুম্বায়ের শুশ্রাত হাসপাতালে ডাঃ সুরেশ আদভানীর তত্বাবধানে চিকিৎসাধীন। তাকে সুস্থ করে তুলতে প্রায় ২০ লাখ টাকা প্রয়োজন। প্রায় ২ বছর চিকিৎসা চালাতে হবে। ওর বৃদ্ধ বাবার পক্ষে এত টাকা যোগাড় করা সম্ভব নয়। সহায় সম্বল বিক্রি করে চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছেন। বক্তারা বলেন, আমার-আপনার সাহায্য ও ভালবাসাই পারে ওকে বাঁচিয়ে রাখতে এই পৃথিবীতে। জ্যোতিকে সাহায্য পাঠনোর ঠিকানা- সোনালি ব্যাংক ঝিনাইদহ শাখার হিসাব নং-২৪০৭৫০১০৩১২২৯। প্রয়োজনে যোগাযোগ- জ্যোতির বাবা খন্দকার আব্দুর রশীদ,মোবাইল নং-০১৭১৬-০০৩১৯৬।

বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে কুষ্টিয়ায় আলোচনা সভা ও মানববন্ধন

“আমি আছি, আমি থাকব” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে গতকাল সারা বিশ্বে সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বিভিন্ন ভাবে পালিত হলো বিশ্ব ক্যান্সার দিবস। বিশ্ব ক্যান্সার দিবস উপলক্ষে “আমি আছি, আমি থাকব” এই শ্লোগানকে আকড়ে ধরে  ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রত্যয়ে গতকাল কুষ্টিয়ার পোড়াদহে সাফ’র আয়োজনে এক আলোচনা সভা, মানববন্ধন ও লিফলেট ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠিত হয়। মাষ্টার আলমগীর এর পরিচালনায় জনসচেতনতার জন্য বক্তব্য রাখেন সাফ‘র নির্বাহী পরিচালক ও জেলা তামাক নিয়ন্ত্রণ টাস্করফোর্স কমিটির সদস্য মীর আব্দুর রাজ্জাক। তিনি বলেন, এক গবেষণায় বলা হচ্ছে যারা ধূমপানে বা জর্দ্দা গ্রহনে অভ্যস্ত, তাদের জানা উচিত এগুলো ক্যান্সার হওয়ার জন্য ৬০ শতাংশ দায়ী। প্রতিরোধ নিরাময়ের চেয়ে ভাল। তাই আমরা প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে আগ্রাধিকার দিবো। ক্যান্সার প্রতিরোধে আমরা যা করতে পারি তাহলো, তামাকজাত দ্রব্য (সিগারেট, জর্দ্দা, গুল)  পরিহার করবো, কন্যাশিশুদের বাল্যবিবাহ থেতে বিরত রাখবো, চর্বি জাতীয় খাবার খাওয়া কমিয়ে দিব, প্লাস্টিকের পাত্রে খাবার সংরক্ষণ করবো না,  অলসতা পরিহার করবো এবং নিয়মিত ব্যায়াম এবং খেলাধূলা করবো, ফাস্ট ফুড এড়িয়ে চলবো, ক্যামিক্যাল মিশ্রিত খাবার পরিহার করবো, রাসায়নিক সারমুক্ত জৈব সারযুক্ত অর্গানিক খাবার খাওয়ার চেষ্টা করবো, প্রখর রোদে সূর্যের নিচে বেশিক্ষণ থাকবো না, মোবাইল বা সেলফোন কম ব্যবহার করবো, বাঁচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়াবো, হরমোন সর্ম্পকে সর্তক থাকবো, অতিরিক্ত সুগার ক্যান বা চিনি গ্রহন সর্ম্পকে সর্তক থাকবো, অতিরিক্ত লাল মাংস এবং প্রক্রিজাত খাবার পরিহার করার চেষ্টা করবো। আলোচনা শেষে জনসচেতনতা বৃদ্ধির জন্য মানববন্ধন করা হয় এবং লিফলেট বিলি করা হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

মোটরসাইকেল চুরি করে পালানোর সময় সড়ক দূর্ঘটনায় ভেঙ্গে গেলো চোরের পা

গাংনী প্রতিনিধি  ॥ একটি মোটরসাইকেল চুরি করে স্থানীয়দের ধাওয়া খেয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় আব্দুর রহমান ওরফে রনি (২৮) নামের এক চোর আহত হয়েছে। আহত রনি কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার কাকলীদহ মেহেরনগর গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে। রোববার সন্ধ্যার দিকে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ষোলটাকা ইউনিয়নের আমতৈল গ্রামে চোরচক্রের সদস্য আব্দুর রহমান ওরফে রনিকে আটক করে স্থানীয়রা। স্থানীয়রা জানান, গত রোববার সন্ধ্যায় গাংনী উপজেলার ষোলটাকা ইউনিয়নের কোদাইলকাটি গ্রামের আব্দুর করিমের ছেলে রায়হান আলীর ১টি মোটরসাইকেল চুরি করে পালাচ্ছিল চোর চক্রের সদস্য আব্দুর রহমান ওরফে রনি। এ সময় স্থানীয়দের ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময়  আমতৈল গ্রামের কবরস্থানের কাছে একটি আলমসাধু গাড়ীর সাথে মুখোমুখি ধাক্কা লেগে চোর চক্রের সদস্য আব্দুর রহমান ওরফে রনি আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে গাংনী থানা পুলিশের একটিদল ঘটনাস্থলে পৌঁছে রনিকে উদ্ধার করে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নেয়। এবং তাকে আটক দেখিয়ে একটি মামলা করে। গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান, আব্দুর রহমান রনির একটি পা ভেঙ্গে গেছে।

চাচার ‘প্রস্তাবে মা সাড়া না দেওয়ায়’ খুন হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শিশু হালিমা

ঢাকা অফিস ॥ চাচার অনৈতিক প্রস্তাবে মা সাড়া না দেওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শিশু হালিমা আক্তারকে হত্যা করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে। এ ঘটনায় হালিমার চাচা হেলাল মিয়া (২৬) ও তার সহযোগী রুবেল মিয়াকে (২২) আটক করেছে পুলিশ। তারা ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের ভাদুঘর এলাকার বাসিন্দা। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন সোমবার সংবাদ সম্মেলনে বলেন, রোববার রাতে আটকের পর হেলাল এই হত্যাকান্ড ঘটানোর কথা স্বীকার করেছেন। শনিবার ভোরে বাড়ি থেকে নিঁখোঁজের পর বেলা পৌনে ১টার দিকে বাড়ির কাছেই শহরের ভাদুঘর এলাকার আমির হোসেনের মেয়ে হালিমার লাশ মেলে। পুলিশ কর্মকর্তা আলমগীর বলেন, “অভিযোগ পাওয়া গেছে যে নিহত হালিমার মাকে তার চাচা হেলাল মিয়া মাস খানেক আগে কুপ্রস্তাব দেন। এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে বাগবিতন্ডাও হয়। এর পর থেকে হেলাল প্রতিশোধপরায়ণ হয়ে ওঠেন বলে স্বীকার করেছেন। তখন থেকেই হেলাল হালিমাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। “কয়েকদিন আগে হালিমাকে বাড়ির পাশে পুকুরের পানিতে ডুবিয়ে হত্যার পরিকল্পনা করেন হেলাল, কিন্তু পরিবেশ অনুকূলে না থাকায় সেই পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়। শনিবার সকালে সুযোগ পেয়ে হেলাল তাকে চিপস দিয়ে বাড়ির বাইরে নিয়ে যান। বাড়ির অদূরেই একটি বহুতল ভবনের পাশে নিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন হেলাল ও রুবেল।” জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. রেজাউল কবির, জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার আবু সাঈদ, জেলা বিশেষ শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইমতিয়াজ আহম্মেদ ও সদর থানার ওসি মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন।

হালসায় আলেয়া ডায়াগনষ্টিক সার্ভিসেসের উদ্বোধন

মিরপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার হালসা বাজারে ‘আলেয়া ডায়াগনষ্টিক সার্ভিসেস’ এর  উদ্বোধন করা হয়েছে ৷ গতকাল সোমবার বিকেলে হালসা বাজারের শাকদহচর পুলিশ ক্যাম্প রোডে আলেয়া ডায়াগনষ্টিক সার্ভিসেসের উদ্বোধন করেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালক মিশকাতুর রহমান মিঠুন (বিএসসি, মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট)৷ এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্রভাষক ছানাউল্লাহ, ডাঃ নজরুল ইসলাম, ডাঃ সোহেল রানা, শওকত আলী, রাজ্জাক মন্ডল, শাহাদৎ হোসেন, আব্দুল্লাহ আল মামুন, মজনুর রহমান বাদশা, তারিকুল ইসলাম, শাকিল আহম্মেদ, কবি শাহিন আলী, রইসুল ইসলাম, শফিকুর রহমান, শুভ প্রমূখ ৷উদ্বোধন অনুষ্ঠানে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন হালসা  কেন্দ্রীয় ঈদগাহ জামে মসজিদের পেশ ঈমাম আলহাজ্ব হাফেজ হযরত মাওঃ ছগির আহম্মেদ ও শাকদহচর জামে মসজিদের পেশ ঈমাম মাওঃ সাইদুর রহমান ৷

বিএনপি ছাড়লেন আলী আসগর লবি

ঢাকা অফিস ॥ বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য আলী আসগর লবি দল থেকে পদত্যাগ করেছেন। কারণ হিসেবে তিনি নিজের অসুস্থতার কথা জানান। আলী আসগর লবি গতকাল সোমবার গণমাধ্যমকে বলেন, গত ২৪ জানুয়ারি তিনি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বরাবর পদত্যাগপত্র পাঠিয়েছেন। এই সময়ে এসে পদত্যাগ করার বিষয়ে বিএনপির এই নেতা এবং ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমি অসুস্থ। গত ১০ বছর ধরে আমি কোনো কিছুতে নাই।’ আলী আসগর বলেন, থাইরয়েডের ক্যানসারের অস্ত্রোপচার করিয়েছেন। শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় তিনি রাজনীতির সঙ্গে নেই। অন্য কোথাও যোগদান প্রসঙ্গে আলী আসগর জানান, আপাতত তিনি কোথাও যুক্ত হচ্ছেন না। ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার পর আলী আসগর লবি অনেক বেশি পরিচিত হয়ে ওঠেন। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছেড়ে দেওয়া খুলনা-২ আসনে জিতে তিনি সাংসদ হন। সেই সময় ক্ষমতার অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেছিল ‘হাওয়া ভবন’। বিএনপির বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান এখান থেকে দল পরিচালনা করতেন। লবি হাওয়া ভবনের ঘনিষ্ঠ ছিলেন।

মানববন্ধন সফল করতে দেশবাসীর প্রতি ঐক্যফ্রন্টের আহ্বান

ঢাকা অফিস ॥ আগামী ৬ ফেব্র“য়ারি কালো ব্যাজ ধারণ করে মানববন্ধন সফল করতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। গতকাল সোমবার ঐক্যফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জোটের মহানগর নেতাদের সমন্বয় সভা শেষে সংবাদ সম্মেলন করে এ আহ্বান জানানো হয়। এতে বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম। তিনি বলেন, ভোট ডাকাতির প্রতিবাদে আগামী ৬ ফেব্র“য়ারি বিকাল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে কালো ব্যাজ ধারণ করে মানববন্ধন হবে। ২৪ ফেব্র“য়ারি অনুষ্ঠিত হবে গণশুনানি, কীভাবে কোথায় হবে, সেটা পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে। আমরা ৬ তারিখের কর্মসূচি সফল করতে সভা করেছি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে অভিযোগ করে অনতিবিলম্বে পুনরায় নির্বাচন দাবি করেন তিনি। সালাম আরও অভিযোগ করেন, ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচিতদের শপথ নেয়াসহ বিভিন্নভাবে প্রলুব্ধ করে উৎকণ্ঠার মধ্যে বিভেদ তৈরির চেষ্টা করছে সরকার। ঐক্যফ্রন্টের মধ্যে কোনো বিভেদ নেই। ঐক্যফ্রন্ট ঐক্যবদ্ধ আছে। সংবাদ সম্মেলনে গণফোরামের নেতা জগলুল হায়দার আফ্রিক, মোস্তাক আহমেদ, রফিকুল ইসলাম পথিক, বিএনপি নেতা নবী উল¬াহ নবী, কাজী আবুল বাশার, বিকল্পধারার অ্যাডভোকেট শাহ আহমেদ বাদল, এল কে চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের মমিনুল ইসলাম, ঐক্য প্রক্রিয়ার মোহাম্মদ নূরুল হুদা মিলু চৌধুরী, রাজু আহমেদ খান, গণদলের এটিএম গোলাম মাওলা চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জবিতে ছাত্রলীগের সংঘর্ষের ঘটনায় ৪ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ঢাকা অফিস ॥ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় চারজনকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে প্রশাসন। গতকাল সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও প্রকাশনা দপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ ফিরোজ আলম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বহিষ্কৃতরা হলেন গণিত বিভাগের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের শাহরিয়ার রহমান শান্ত (আইডি: বি-১৭০৩০২০৪৬), তৌহিদুল ইসলাম তুহিন (আইডি: বি-১৭০৩০২০৬৯), অর্থনীতি বিভাগের ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের মেহেদী হাসান (আইডি: বি- ১৬০৪০১০৫৮) এবং সিএসই বিভাগের আব্দুল¬াহ আল রিফাত। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ৩ ফেব্র“য়ারি ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের দুই গ্র“পের বিবাদমান শিক্ষার্থীদের মধ্যে অনাকাক্সিক্ষত ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রাথমিক তদন্তে শৃংখলাভঙ্গের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাদেরকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বহিষ্কৃত থাকা অবস্থায় শিক্ষার্থীরা কোনো ক্লাস এবং পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন না। রোববার প্রেমঘটিত বিষয়কে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পক্ষের সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়ায়। সংঘর্ষে কয়েকজন আহত হন। সংঘর্ষের সময় হেলমেট পরিহিত ছাত্রলীগের দুই গ্র“পের কর্মীরা লোহার রড, লাঠি, হাতুড়ি, চাপাতিসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ক্যাম্পাসে মহড়া দেয়। সংঘর্ষের পর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিত করে কেন্দ্রীয় কমিটি।

 

দৌলতপুরে জাগরণী চক্র ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সদস্যদের মাঝে কম্বল বিতরণ

নিজ সংবাদ ॥ জাগরনী চক্র ফাউন্ডেশন দৌলতপুর শাখায় তাদের সদস্যদের মাঝে ১ হাজার ২৫০পিচ কম্বল বিতরন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাঃ শারমিন আক্তার। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন ফাউন্ডেশনের উত্তর অঞ্চল উপপরিচালক  মোঃ এ কে আজম, কুষ্টিয়া জোনের জোনাল ম্যানেজার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, আল্লারদর্গা এরিয়া এরিয়া ম্যানেজার মোঃ আব্দুস সহিদ, ঝাউদিয়া এরিয়া এরিয়া ম্যানেজার মোঃ আব্দুর রহিম, কুমারখালি এরিয়া এরিয়া ম্যানেজার  মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, দৌলতপুর শাখার শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ নূর ইসলাম, প্রাগপুর শাখার শাখা ব্যবস্থাপক মোঃ শিমুল হোসেন, দৌলতপুর শাখার শাখা হিসাবরক্ষক মোঃ আব্দুল বারীসহ অন্যান্যরা।

প্রধানমন্ত্রী হাসিনাকে ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আসিয়ান আরো বেশি সম্পৃক্ত হবে

ঢাকা অফিস ॥ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর সংগঠন আসিয়ান বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে আরো বেশি সম্পৃক্ত হবে। ইন্দোনেশিয়ার সফররত পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেতনো এল. পি. মারসুদিও গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর সংসদ ভবনস্থ কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে একথা বলেন। সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন। ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য নির্মীয়মান অবকাঠামো দেখতে আসিয়ানের দু’টি টিম মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য সফর করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি মিয়ানমার থেকে অন্য সম্প্রদায়ের লোকজনও বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টা করছে। শেখ হাসিনা বলেন, চীন, ভারত ও জাপান মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য বাড়ি-ঘর তৈরি করছে। ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে ব্যাপক আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও নারী ক্ষমতায়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন। বাংলাদেশে নারী ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, প্রশাসন, বিচার বিভাগ, শিক্ষা, ক্রীড়া এবং সেনাবাহিনী ও আইন-শৃংখলা বাহিনীগুলোসহ সকল ক্ষেত্রে দেশের নারীরা বর্তমানে খুবই উচ্চ পদে রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী ও ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী দু’জনেই দু’দেশের মধ্যে বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে সন্তোষ প্রকাশ করেন। বৈঠকের শুরুতে রেতনো এল. পি. মারসুদিও চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করায় শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান ও ঢাকায় ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত রিনা প্রিতিয়াসমিয়ারসি সোয়েমারনো এসময় উপস্থিত ছিলেন।

 

‘ইরানকে নজরে রাখতে’ ইরাকে মার্কিন সেনা চান ট্রাম্প

ঢাকা অফিস ॥ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ইরানকে নিবিড়ভাবে নজরে রাখার জন্য ইরাকে মার্কিন সামরিক উপস্থিতি বজায় রাখা জরুরি। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ইরানকে নিবিড়ভাবে নজরে রাখার জন্য ইরাকে মার্কিন সামরিক উপস্থিতি বজায় রাখা জরুরি। রোববার আমেরিকার সিবিএস নিউজ চ্যানেলে ‘ফেস দ্য নেশন’ প্রোগ্রামে এক সাক্ষাৎকারে ইরানকে ‘আদতেই একটি সমস্যা’ বলে উলে¬খ করেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, “ইরাকের ঘাঁটিতে যুক্তরাষ্ট্র অনেক অর্থব্যয় করেছে। আমরা এ ঘাঁটি রেখেও দিতে পারি। এর একটি কারণ হল, আমি ইরানের ওপর একটু নজর রাখতে চাই। কারণ ইরান আদতেই একটি সমস্যা।” ট্রাম্পের একথার মানে ইরাকে সামরিক উপস্থিতি বজায় রেখে ইরানে হামলা করার সক্ষমতাটাই হাতে রাখা কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “না। কারণ, আমি ইরানকে লক্ষ্য রাখতে পারাটাই চাই।” ইরানকে ‘বিশ্বের এক নম্বর সন্ত্রাসী দেশ’ আখ্যা দিয়ে মধ্যপ্রাচ্যে সহিংসতা উস্কে দেওয়ার জন্য তেহরানকে দায়ী করেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, “আমি যা করতে চাই, তা হচ্ছে কেবল নজর রাখা। ইরাকে আমাদের চমৎকার এবং ব্যয়বহুল সামরিক ঘাঁটি আছে। গোলযোগপূর্ণ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন এলাকা নজরে রাখার মতো মোক্ষম জায়গাতেই সে ঘাঁটি অবস্থিত।” ট্রাম্প আরো বলেন, “সিরিয়া থেকে ফিরিয়ে নেওয়া কিছু সেনা ইরাকের ঘাঁটিতে যাবে। আর সবশেষে কিছু সেনা দেশে ফিরবে।” সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা ফেরানো নিয়ে সামরিক উপদেষ্টা ও গোয়েন্দা প্রধানদের সতর্কবার্তার পরও ট্রাম্প তার সিদ্ধান্তের পক্ষ সমর্থন করেই কথা বলেছেন। তবে সিরিয়া থেকে কবে সেনা ফেরানো হবে তার কোনো সময়সীমা উলে¬খ করেননি তিনি। ওদিকে, ভেনেজুয়েলা প্রসঙ্গে ট্রাম্প সাক্ষাৎকারে বলেন, সেখানে যুক্তরাষ্ট্র সামরিক ব্যবস্থা নেওয়ার কথাটাও বিবেচনায় রেখেছে। তিনি বলেন, “কথাটি আমি বলতে চাই না। কিন্তু এটি অবশ্যই একটি বিকল্প পন্থা হিসাবে হাতে আছে।” ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর পদত্যাগের জন্য পশ্চিমা দেশগুলোর চাপ বাড়তে থাকার মধ্যে ট্রাম্প একথা বললেন। ওয়াশিংটন ভেনেজুয়েলা সংকটে হস্তক্ষেপ করবে কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প ওই কথা বলেন।

কালুখালীতে আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মাঝে উপবৃত্তি প্রদান

ফজলুল হক ॥ গতকাল সোমবার রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার ৩২৮ জন আদিবাসী শিক্ষার্থীদের মাঝে ৪ লাখ টাকার উপবৃত্তি প্রদান করা হয়েছে। সকাল ১০টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে উপবৃত্তি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন নাহার, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আবুল কালাম আজাদ, সমাজসেবা অফিসার মোঃ জিল্লুর রহমান প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা । এছাড়াও কালুখালী রতনদিয়া ও মাজবাড়ী ইউপি আদিবাসী সমিতির সভাপতি রাম প্রসাদ, বোয়ালিয়া ইউপি আদিবাসী সমিতির সভাপতি কুমারেশ ও উপজেলা আদিবাসী সমিতির সভাপতি কাঞ্চনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

গাংনীতে ভূঁয়া দলিলে নামজারি করায় সহোদরের মধ্যে বাড়ীর জমি নিয়ে বিরোধ

গাংনী প্রতিনিধি  ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে ভূঁয়া দলিলে নামজারি করায় সহোদরের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ এখন পারিবারিক কলহের রূপ নিয়েছে। এ নিয়ে যে কোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। গাংনী উপজেলা পরিষদ কার্যালয় ও গাংনী পৌর শহরের প্রাণিসম্পদ অফিসের পার্শ্বে বসবাসকারী সহোদর নূরুল ইসলাম ও মোনায়েম হোসেনের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত জমি সংক্রান্ত বিরোধ চললেও অদ্যাবধি কোন সুষ্ঠু মিমাংসা হয়নি। জানা গেছে, গাংনী পৌর শহরের প্রাণিসম্পদ অফিসের পার্শ্বে বসবাসকারী মৃত আকবর আলীর ছেলে নূরুল ইসলাম ও মোনায়েম হোসেন একই জায়গায় বসাস করে আসছেন। বাবা আকবর আলী মারা যাওয়ার পর তাদের মা আশুরা বেগমের নামে বাড়ীর জমির মালিকানা হয়। নূরুল ইসলামরা ৪ ভাই ২ বোন। ব্যবসা  সংক্রান্ত কারণে সে সময় ব্যাংক থেকে বাবার নেয়া ঋণ পরিশোধ করার শর্তে চুক্তিমোতাবেক মা আশুরা বেগম ২ ছেলে নূরুল ইসলাম ও মোনায়েম হোসেনকে বাড়ীর ৭ শতাংশ জমি হেবাবেল এওয়াজ দলিল  সম্পাদন করে দেন। ৪৬ নং চৌগাছা মৌজার আরএস ২০৩ খতিয়ানের ৮৭৫৭ দাগে ০৭ শতক জমি ২৬/১০/ ১৯৯৩ সালে ৮৪৭৩ নং দলিলে সম্পন্ন করে দেন। এরমধ্যেই নূরুল ইসলাম  ৬১০০নং দলিলে তার ছোট ভাই গোলাম ফারুককে .০১৫০ একর জমি বিক্রয় করে দেয়। পরবর্তীতে গোলাম ফারুক আবার ভাই মোনায়েমের কাছে ৯৮১৭ নং দলিলে .০১২৫একর জমি হস্তান্তর করে। এদিকে নূরুল ইসলাম ও মোনায়েম হোসেন সময়মতো ব্যাংক ঋণ পরিশোধ না করায় রেকর্ডীয় মালিক আশুরা বেগম গাংনী  সহকারী জজ আদালত দেওয়ানী ৬৪/২০০০ নং মামলায় পূর্বের ৮৪৭৩ নং দলিল মালিক আশুরা বেগম বাতিলের রায় ডিগ্রী প্রাপ্ত হন। ২০/১১/২০০৩ তারিখে ৯৬৫৯ নং দলিলে  উক্ত দাগে সব শরীকের মাঝে জমি রেজিষ্ট্রী  করে দেন। এসময়  বড় ছেলে নূরুল ইসলামকে খোশ কবলা মূলে .০২২৫ একর জমি রেজিষ্ট্রী করে দেন। এই জমি নিয়েও মামলা করে মোনায়েম হোসেন। মামলাতে নূরুল ইসলাম ০৬-০৭-২০১০ ইং তারিখে রায় প্রাপ্ত হয়। এক্ষণে নালিশী  জমি নূরুল ইসলামের ভোগ দখল  ও বিল্ডিং থাকলেও  বিবাদী মোনায়েম হোসেন মিথ্যা এবং ভূয়া নাম খারিজের বলে দখল নিতে নানা কৌশল অবলম্বন করছে এবং  হয়রানি করছে। বার বার কোর্টের রায় পাওয়ার পরও মোনায়েম হোসেনের একজন নিকটাত্মীয় এডিসি রেভিনিউ থাকায় নাম জারি বাতিল না করে হয়রানি করছে। এনিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ বিভিন্ন জায়গায় দ্বারে-দ্বারে ঘুরেও সুষ্ঠু বিচার না পেয়ে বাদী নূরুল ইসলাম হতাশ হয়ে পড়েছেন। বিষয়টি সরেজমিনে তদন্তপূর্বক নাম খারিজ বাতিল করে সুষ্ঠু বিচার করার জন্য মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করা হচ্ছে।

পোড়াদহে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত যুবক হাবিবের মৃত্যু

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ ইউনিয়নের কামারডাঙ্গা গ্রামের দিনমজুর  চাদুর ছেলে হাবিবুব রহমানের উপর হঠাৎ করে হামলা করে তার চাচাতো ভাই মকছেদ আলী, মুকতার আলী, মকছেদের মেয়ে শারমিন, সন্ত্রী সুটিলা এবং আর অনেকজন। জানা যায় জমি ক্রয় সংক্রান্ত বিষয়ে গত  ১৩ জানুয়ারি দুপুর দেড়টার সময় মকছেদগং পূর্বপরিকল্পিতভাবে কোদাল, আকড়া দিয়ে  কামারডাঙ্গা গ্রামের রাস্তার উপর একা পেয়ে হাবিবের উপর হামলা করে তাকে গুরুত্বর আহত করে। গ্রামবাসীরা অজ্ঞান অবস্থায় হাবিবুরকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থার অবনতি দেখে রাজশাহী মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রেফার্ড করেন। দীর্ঘ ২৩ দিন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে সোমবার  ভোরে সে মারা যায়। হাবিবের মৃত্যুতে কামারডাঙ্গা গ্রামে  শোকের ছায়া নেমে এসেছে সকল স্তরের মানুষের মাঝে। স্ত্রী সালমা খাতুন স্বামী হত্যাকারীদের উপযুক্ত শাস্তি দাবী করেন প্রশাসনের নিকট। সোমবার সন্ধ্যায় ময়না তদন্তে শেষে  কামারডাঙ্গা কবর স্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।

মিরপুরে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কাশেম জোয়ার্দ্দারের ব্যাপক প্রচার প্রচারণা

মিরপুর অফিস ॥ গতকাল সোমবার সকাল থেকে আমলা ও সদরপুর ইউনিয়নে আসন্ন উপজেলা নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যাস্ত সময় পার করলেন কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আবুল কাশেম জোয়ার্দ্দার। সকাল থেকে তিনি মিরপুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন। সকাল থেকেই ছুটে চলছে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। কুশল বিনিয়ম করছে সকল শ্রেণির মানুষের সঙ্গে। আমলা ও সদরপুর ইউনিয়নের গ্রামের গন্যমান্য  ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। অনেক ভোটার বলেন  তরুণ প্রজন্ম সহ  উপজেলার সকল শ্রেণির জনগণ নিয়ে সুন্দর আগামী গড়ার প্রত্যয় নিয়ে ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়বেন। গনসংযোগকালে তার সফরসঙ্গী ছিলেন- মিরপুর উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম বিশ্বাস, সহ-সভাপতি সাইফুর রহমান নাজিম, সহ-সভাপতি মীর আবু সাজ্জাদ সাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ আহম্মেদ, ক্রিয়া বিষয়ক সম্পাদক এনামুল হক রাজু, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ইবনে মিজান নান্নু, সহ-সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস, সদরপুর ইউনিয়ন যুবলীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক  মোঃ জুয়েল,  যুবলীগ নেতা মাসুম , আশরাফ মেম্বারসহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

ফুঁসে উঠছে এলাকাবাসী

দৌলতপুরে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে সড়ক নির্মাণের অভিযোগ

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার থানা মোড় থেকে আহসান নগর কারিগরি কলেজ পর্যন্ত ৩৬৬৫ মিটার সড়ক সংস্কার কাজ চলছে। বেশ জোরে সোরেই শুরু হয়েছে কাজটি। টাকার অংকও যে কম তা নয়। ২ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। কিন্তু কাজের মান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় ফুঁসে উঠছে এলাকাবাসী। তাদের অভিযোগ বিটুমিন, খোয়া সব সরঞ্জামাদিই নাকি মানসম্মত নয়। কোন কোন সরঞ্জাম বহু আগের ব্যবহৃত। যদিও কাজের মান যাচাই বা তদারকির দায়িত্ব স্থানীয় প্রশাসনের। তারা কিভাবে কাজ বুঝে নিবেন সেই দায়িত্বও তাদেরই। কাজে নয়, ছয় থাকলে তার জবাব দিহিতাও তাদের। তবে বর্তমান সরকার যেকোন অনিয়ম দুর্নীতিকে না বলেছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ নির্মানাধীন এই সড়কে বিভিন্ন এলাকায় সড়ক সংস্কার কাজে ফেলে দেয়া ১০ ট্রাক বিটুমিনযুক্ত পাথর নিয়ে এসে আবার বিটুমিন মিশিয়ে ব্যবহার করা হচ্ছে। সত্যতা প্রমাণ মিললেই ব্যবস্থা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক থানা মোড় এলাকার বাসিন্দা জানান কাজের মান দেখে মনে হচ্ছে খুব একটা ভালো নয়। কর্তৃপক্ষের নজর দেয়া উচিৎ। যদিও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ছাদিকুজ্জামান এন্টার প্রাইজের দাবী নিয়ম মেনেই কাজ হচ্ছে। কোন অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রশ্নই ওঠেনা। সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষ কাজ বুঝে নিচ্ছেন।

মিরপুর উপজেলা নির্বাচন

কারশেদ আলমের হাতেই নিরাপদ মশাল!

মিরপুর প্রতিনিধি ॥ আসন্ন কুষ্টিয়ারন মিরপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কারশেদ আলমের হাতেই নিরাপদ মশাল। তূণমুল জাসদের নেতা-কর্মীরা বলছেন জাসদ নেতা কারশেদ আলম ভালো লোক, মেধাবী রাজনৈতিক নেতা এ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে মশাল প্রতীকে অন্য কাউকে নয় জাসদের র্দুসময়ের ত্যাগী নেতা কারশেদ আলমকেই দেখতে চান তারা। উপজেলাবাসীর উন্নয়ন সমাজের শান্তি প্রতিষ্ঠা আর সমাজের সুন্দর পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে এ ক্ষেত্রে কারশেদ আলমের বিকল্প নেই। তাই মিরপুর উপজেলাবাসীর একমাত্র আস্থার মানুষ এখন কারশেদ আলম।  মিরপুর উপজেলাবাসীর জাসদ নেতা কারশেদ আলম। তিনি দীর্ঘদিন জাসদের রাজনীতিতে জড়িত। বর্তমানে জেলা জাসদের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক। কুষ্টিয়া জেলাতেও প্রভাবশালী নেতা হিসেবে পরিচিতিও রয়েছে তার। তূণমুল জাসদের নেতা-কর্মীরা বলছেন এ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কারশেদ আলমের বিকল্প নেই। তাই জাসদের মনোনয়ন প্রত্যাশী সবার থেকে এগিয়ে আছেন কারশেদ আলম। অন্যদিকে এই উপজেলা জাসদের নেতা-কর্মীদের একমাত্র আশ্রয় স্থান এখন কারশেদ আলম। কারণ জাসদ পরিবারের ভালোমন্দ তিনিই দেখভাল করেন। স্থানীয় জাসদ নেতাকর্মীদের বিভিন্ন সময় ঘটে যাওয়া অর্ন্তদ্বন্দ্ব দুর করার ক্ষেত্রেও কারশেদ আলমের ভূমিকা অন্যতম। উপজেলার সকল শ্রেণী পেশার মানুষের কাছে জনপ্রিয় নেতা এখন কারশেদ। জাসদ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মীরা এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে কারশেদ আলমের হাতেই মশাল নিরাপদ ভাবছেন। দলীয় নেতা-কর্মীসহ এ এলাকার সাধারণ মানুষের সাথে কথা বললে তারা জানান, ছাত্র জীবন থেকেই কারশেদ আলম জাসদ রাজনীতি’র সঙ্গে যুক্ত। আমলা সরকারি ডিগ্রি কলেজ জাসদ ছাত্রলীগের সভাপতি হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। রাজনীতিক সুদক্ষ নেতৃত্বের কারনে দায়িত্ব পান মিরপুর উপজেলা জাসদ ছাত্রলীগের সভাপতি হিসাবে। রাজনীতিক নেতা হিসাবে দক্ষতার পরিচয় দেওয়ায় ও নেতৃত্ব ক্ষেত্রে সাফল্য’র সাথে কাজ করায় এলাকার মানুষের আস্থাভাজন হন কারশেদ। তারপর উপজেলার গন্ডি পেরিয়ে নজরকারে জেলাবাসীর। তারপর জাসদ ছাত্রলীগের কুষ্টিয়া জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক হিসাবে নির্বাচিত হন কারশেদ আলম। এবার  লড়বেন এ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে। উপজেলার তালবাড়ীয়ার নয়ন বলেন, মানুষের সুখে দুখের কথা জানতে ছুটে বেড়ান জাসদ নেতা কারশেদ। শুধু তাই নয় কারশেদ আলম ভালো লোক জাসদের মনোনয়ন  পেলে এমন লোককেই ভোট দিলে পথ হারাবে না এই উপজেলাবাসী।  মিরপুর পৌরসভা এলাকার খালিদ হাসান বলেন, মশাল পেলে কারশেদ আলম জয়ী, তাই এবারের নির্বাচনে কারশেদ আলমের হাতেই মশাল নিরাপদ। এমন লোক জাসদ থেকে মনোনয়ন পেলে তাকেই ভোট দিবো আমরা।  এ বিষয়ে কারশেদ আলমের কাছে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশা করেন এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু সাহেব চাইলে ও তার আশীর্বাদে আমি অবশ্যই মশাল পাবো। দীর্ঘদিন রাজনৈতিক জীবনে ছাত্র সমাজের অধিকার আদায় ও গনসংগঠনে এসে সাধারন মানুষের মুক্তির লক্ষে শোষনমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠার লড়াই সংগ্রাম করে এসেছি, একই সাথে সাম্প্রদায়িকতা ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান স্পষ্ট, আমি উপজেলা নির্বাচন যদি করতে পারি এবং নির্বাচিত হতে পারি তাহলে আমার দীর্ঘ যে সংগ্রাম সেই নিরিখেই আমি সাধারন মানুষের মুক্তির লক্ষে কাজ করে যাবো।

দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিষ্ট্রেট কিছুই জানেন না

গাংনীর বেতবাড়ীয়া এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে অনিয়ম

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কাজীপুর ইউনিয়নের বেতবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এবছর নতুন করে এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র শুরু করা হয়েছে। পরীক্ষার প্রথম দিনে বাংলা ১ম পত্রে অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের জন্য প্রণীত বহু নির্বাচনী প্রশ্ন (এমসিকিউ) সরবরাহ করা হয়েছে নিয়মিত পরীক্ষার্থীদের। নিয়মিত পরীক্ষার্থীরা নতুন সিলেবাস অর্থ্যাৎ ২০১৯ সালের পরিবর্তে ২০১৮ সালের প্রশ্নে ৩০ মিনিট পরীক্ষা দিয়েছে। পরীক্ষা শেষে  ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা দেয়া ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। আধা ঘন্টা পরীক্ষা দিতে না পারায় পরীক্ষার্থী ও অভিভাবকরা পুণরায় পরীক্ষা গ্রহণসহ দোষীদের শাস্তি দাবী করেছেন। জানা গেছে, বেতবাড়ীয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ১ নং কক্ষে অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের প্রশ্নে প্রায় ৩৫-৪০ জন নিয়মিত শিক্ষার্থীর পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। এই অনিয়মের খবর দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট কাজী মোহাম্মদ অনিক ইসলাম কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন। কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী পার্শ্ববর্তী শিহালা (এসএমএন) মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী জান্নাতুন নেছাসহ অনেকেই অভিযোগ তুলে বলেন, আমাদের কক্ষে এমসিকিউ প্রশ্নপত্র ৫ মিনিট পরে দেয়া হয়েছিল অথচ নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই খাতা কক্ষ পরিদর্শকরা অনেকটা জোর করে কেড়ে নিয়েছে। এ ব্যাপারে  বেতবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ভূলবশতঃ ভিন্ন সিলেবাসের প্রশ্ন বিতরণ করা হয়েছিল। অল্প সময় পরেই জানতে পেরে প্রশ্ন ফিরত নিয়ে নতুন সিলেবাসের প্রশ্ন সরবরাহ করা হয়েছ্।ে পরীক্ষার্থীরা জানায় ততক্ষণে আমাদের ২/১টি প্রশ্নের উত্তর লিখা হয়ে গিয়েছিল। আমাদের আধা ঘন্টা সময় নষ্ট হয়েছে অথচ পরবর্তীতে ১ মিনিট সময়ও বেশী দেয়া হয়নি।  ভূল সিলেবাসের পরীক্ষা দিয়ে তাদের জীবন এখন অনিশ্চয়তায় পড়েছে। পরীক্ষার প্রথম দিনে ২০১৮ সালের প্রশ্নে পরীক্ষা নেয়া হয়েছে এমন প্রশ্নে দায়িত্বপ্রাপ্ত ম্যাজিষ্ট্রেট কাজী মোহাম্মদ অনিক ইসলাম জানান, আমি কিছুই জানিনা। প্রধান শিক্ষককে জানতে চাইলে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। তিনি কেন্দ্রে সাংবাদিকদের প্রবেশ নিষেধ বলে পরীক্ষার ম্যানুয়াল দেখাতে চান। তিনি দায়িত্বহীনতা ও গাফিলতির পরিচয় দিয়েছেন্ ।   এসময় বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষকরা জানায়, কেন্দ্রে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় থেকে কক্ষ পরিদর্শক হিসাবে যাদের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এরা সবাই পরীক্ষা সংক্রান্ত বিষয়ে অভিজ্ঞ না। কক্ষ পরিদর্শক হিসাবে যাদের পাঠানো হয়েছে এরা কেউ লাইব্রেরীয়ান, কেউ ক্রীড়া শিক্ষক, কেউ বা অফিস সহকারী। এ ব্যাপারে গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল জানান, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তক্রমে ইতোমধ্যেই অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব মনিরুল ইসলামকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মেহেরপুর জেলা প্রশাসক আতাউল গনি মোবাইল ফোনে জানান, এরকম অনিয়ম হয়ে থাকলে তদন্ত  করে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র সচিব, তদারকি কর্মকর্তা, ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দৌলতপুর সীমান্তে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর সীমান্তে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার হয়েছে। রবিবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের জামালপুর সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে একটি এলজি ও ৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার হয়। বিজিবি সূত্র জানায়, ১৫৩ সীমান্ত পিলার সংলগ্ন জামালপুর মধ্যপাড়া এলাকায় ৪৭বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনস্থ জামালপুর বিওপি’র টহল দল অভিযান চালিয়ে একটি বাঁশঝাড়ের ভেতর থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করে। পরে গতকাল সোমবার দুপুরে তা দৌলতপুর থানায় সোপর্দ করে।

প্রক্রিয়া শেষে আজ লাশ আসবে দেশে

কলকাতায় চিকিৎসাধীন কুষ্টিয়ার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব শাজাহান আলীর ইন্তেকাল

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া শহরের থানাপাড়া (শাপলা চত্বর) নিবাসী বিউটি ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপের মালিক মরহুম নিজাম উদ্দিনের বড় ছেলে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল বাসদ’র নেতা ও কুষ্টিয়া হাইস্কুল পরিচালনা পর্ষদের সদস্য শাজাহান আলী (৫২) আর আমাদের মাঝে নেই (ইন্না…. রাজেউন)।তিনি গতকাল সোমবার বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টায় কলকাতার টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। রাজনৈতিক, সামাজিক, ব্যবসায়ীক, সাংস্কৃতিক পরিমন্ডল ও পারিবারিকভাবে পরিচিতি পাওয়া এই মানুষটির মৃত্যুর খবরে কুষ্টিয়ার সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে। দুপুরের পর থেকেই মৃত্যুর খবরে বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষেরা কুষ্টিয়া পৌরসভার সামনে অবস্থিত তাঁর বাড়িতে এসে ভিড় করে এবং খোজঁ খবর নেন। গতকাল সোমবার চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছিল কিন্তু হাসপাতাল থেকে বের হওয়ার কিছু সময় আগে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে মরহুমের স্ত্রী ঝরা ও পুত্র ইঞ্জিনিয়ার ঝলক তার সাথে ছিল। সকল প্রক্রিয়া শেষে আজ মঙ্গলবার কুষ্টিয়ায় লাশ পৌছানোর পর কখন এবং কোথায় দাফন করা হবে তা পারিবারিকভাবে জানিয়ে দেয়া হবে।

শাজাহান আলীর ভাই মিজানুর রহমান ভিজা জানান-আমরা ৪ ভাই, এর মধ্যে শাজাহান বড়। বছর খানেক আগে তিনি জন্ডিসে আক্রান্ত হন। পরে লিভার সিরোসিস এবং সর্বশেষ লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। বাংলাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে ৬মাস পুর্বে কলকাতার টাটা মেমোরিয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন। তাঁর অবস্থার অবনতিতে সম্প্রতি চিকিৎসকগন হাল ছেড়ে দেন এবং তাকে দেশে ফেরার পরামর্শ দেন। গতকাল হাসপাতাল থেকে দেশে ফেরার কথা ছিল। সেই মতে সব ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু সকাল থেকে ক্রমেই অবস্থার অবনতি হতে থাকে। ভিজা জানান-আমরা দর্শনা সীমান্তে ভাইকে আনতে এ্যাম্বুলেন্স নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতিকালে দুপুরে খবর পেলাম সে মারা গেছেন। কলকাতা থেকে লাশ আনার যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ করতে সময় লাগছে। আজ যে কোন সময় শাজাহানের লাশ দেশে ফিরবে বলে আশা করছি। ভিজা আরো জানায়-মরদেহ দেশে ফিরলেই জানাজা ও দাফনের সময় সবাইকে জানিয়ে দেয়া হবে। সে তার ভাইয়ের জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেছে। মরহুম শাজাহান আলী শহরের সর্বত্র অতি পরিচিত মুখ ছিল। রাজনীতি, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে তার অবাদ বিচরন থাকায় সকলে তাকে চিনতো। খুব অল্প সময়ে যে কাউকে আপন করে নেয়ার মত ক্ষমতা ছিল। সর্বদা হাস্যজ্জল এই মানুষটি বাম প্রগতিশীল আন্দোলনের সংগ্রামী নেতা হিসেবে পরিচিত ছিলেন। বাসদ জেলা কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র কুষ্টিয়া জেলা কমিটির সহ-সভাপতি ও গণজাগরণ মঞ্চ কুষ্টিয়ার সংগঠক ছিলেন। মরহুমের একমাত্র ছেলে ইঞ্জিনিয়ার জান্নাতুল নাঈম ঝলক ও একমাত্র কন্যা লাবিবা নওরীন সুস্মি সানআপ ইন্টান্যাশনাল স্কুলের ৭ম শ্রেনীতে অধ্যায়নরত। মরহুম শাজাহানের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহল শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন এবং মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা সেই সাথে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।