২০১৯ বিশ্বকাপেও ছক্কার বন্যা বয়ে দিতে চান গেইল

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইলের বিশ্বাস আগামী বছর ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপেও তিনি ছক্কার বন্যা বইয়ে দেবেন এবং বলেন, তার বিস্ফোরক স্টাইল ওয়ানডে ক্রিকেটকে বদলে দিয়েছে। সমগ্র বিশ্বে টি-২০ ক্রিকেটের ফেরিওয়ালা হিসেবে পরিচিত গেইল এবং শত শত বাউন্ডারিসহ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) এ পর্যন্ত তিন হাজারের বেশি রান করেছেন। সম্প্রতি নিজ মাঠে বাংলাদেশের কাছে ২-১ ব্যবধানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পরাজিত হওয়া ওয়ানডে সিরিজে তিনি মাত্র ১৪২ রান করেছেন। আগামী সেপ্টম্বরে ৩৯ বছরে পা রাখবেন বাঁ-হাতি এ তারকা ব্যাটসম্যান। এ ছাড়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে কখনো কখনো তার খারাপ সম্পর্কের কারণে সমালোচকদের ধারণা গেইলের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ। তবে এর সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেন তিনি। নয়াদিল্লীতে সাংবাদিকদের গেইল বলেন, ‘২০১৯ বিশ্বকাপের দিকে অগ্রসর হওয়া এবং ইংল্যান্ডে খেলাই উদ্দেশ্যে।’ এ ব্যাটসম্যান আরো বলেন, ‘আমরা নির্বাচক, অধিনায়ক এবং কোচের সঙ্গে আলোচনা করতে যাচ্ছি এবং দেখি কতটা কি করতে পারি।’ চলতি সপ্তাহে বাংলাদেশের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচে ৭৩ রান করা ইনিংসে সব ভার্সন মিলিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পাকিস্তানের শহিদ আফ্রিদির সর্বোচ্চ ৪৭৬টি ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ড স্পর্শ করেন গেইল। টি-২০ ক্রিকেটে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ১৮টি ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ডও রয়েছে তার দখলে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) গত আসরে এ রেকর্ড করা গেইল বলেন, তার খেলার ধরন সীমিত ওভারের ক্রিকেটকে বদলে দিয়েছে। টুইটারে নিজকে ‘ইউনিভার্স বস’ দাবি করে গেইল বলেন, ‘আমি মনে করি এমন রেকর্ডের জন্য আপনি মি. গেইলকে ধন্যবাদ জানাবেন। এমন সব কাজ তার পক্ষেই সম্ভব।’ ‘মোটের ওপর সবকিছুই পরিবর্তন হয়েছে, টেস্ট ক্রিকেটে পরিবর্তন এসেছে। খেলা দেখা মানুষের জন্য এটা আরো বেশি বিনোদনমূলক।’ তবে তার রান করার পদ্ধতি সাম্প্রতিক সময়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য কাজে আসছে না। ১৯৭০-৮০ দশকে বিশ্ব ক্রিকেটকে শাসন করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট। তবে বর্তমানে র‌্যাংকিংয়ে টি-২০ ক্রিকেটে সপ্তম, ওয়ানডেতে নবম এবং টেস্ট ক্রিকেটে অষ্টম স্থানে রয়েছে ক্যারিবীয়রা। গেইল বলেন, ‘রাতারাতি এমনটা হয়নি। এখানে অনেক মেধা আছে, তবে ধারাবাহিকতা নেই। এক ম্যাচ নয় সিরিজ জিততে খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাস দরকার।’ ‘সিরিজি জয় করাটা অভ্যাসে পরিণত করতে হবে। এটা দীর্ঘমেয়াদী একটি প্রক্রিয়া। বেশকিছু তরুণ খেলোয়াড় আসায় নিশ্চিতভাবেই আমাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যত রয়েছে।’  ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় আগামী বছরের বিশ্বকাপে এভিন লুইস, শিমরন হেটমায়ার এবং শাই হোপরা ভালো করবেন বলে উল্লেখ করেন গেইল। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৪৯ রান করা আইপিএলে রয়্যাল ব্যাঙ্গালুরুর সাবেক সতীর্থ বিরাট কোহলির ভূয়সী প্রশংসা করেন তিনি। ইংল্যান্ডের মাটিতে প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে সমালোচকদের জবাব দিয়েছেন ভারতীয় অধিনায়ক। গেইল বলেন, ‘এটা ছিলো একটি চমৎকার ও অধিনায়কোচিত ইনিংস। তিনি এমন ধরনের অনেক হাফ-সেঞ্চুরিকে সেঞ্চুরিতে পরিণত করেছেন, যা খুবই ভালো একটি ব্যাপার।’ তিনি আরো বলেন, ‘অধিনায়কের দৃষ্টিকোণ থেকে তিনি দলের খেলোয়াড়দের আত্মবিশ্বাসী হতে অনুপ্রাণিত করেন এবং ম্যাচ জিতেন।’

আরো খবর...