স্টার্কের বোলিং তোপে বিধ্বস্ত শ্রীলঙ্কা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ গোলার মতো এক ডেলিভারি, বেরিয়ে গেল অফ স্টাম্পে চুমু দিয়ে। কিন্তু বেলস পড়া তো বহুদূর, নড়ার নামও নেই! মিচেল স্টার্ক অবাক। তবে হতাশ হলেন না। এক বল পরই তার ১৪৬ কিলোমিটার গতির ইয়র্কারে বোল্ড শেষ ব্যাটসম্যান বিশ্ব ফার্নান্দো। স্টার্ক পূরণ করলেন ম্যাচ ১০ উইকেট। শ্রীলঙ্কা হলো হোয়াইটওয়াশড। ক্যানবেরার টেস্ট অভিষেকে উদ্ভাসিত জয় পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া। শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছে ৩৬৬ রানে। ২ ম্যাচের সিরিজ তারা জিতে নিয়েছে ২-০তে। টেস্টের চতুর্থ দিনে সোমবার শেষ ইনিংসে ৫১৬ রানের লক্ষ্যে নেমে ১৪৯ রানেই গুটিয়ে গেছে লঙ্কানরা। প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও পাঁচটি উইকেট নিয়েছেন মিচেল স্টার্ক। ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বার ম্যাচে ১০ উইকেট নিলেন বাঁহাতি ফাস্ট বোলার, দুটিই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। মানুকা ওভালে বিনা উইকেটে ১৭ রান নিয়ে দিন শুরু করেছিল শ্রীলঙ্কা। স্টার্ক ছোবল দিতে সময় নেন কেবল সাত বল। দারুণ ডেলিভারিতে বোল্ড করে দেন লঙ্কানদের বড় ভরসা দিমুথ করুনারতেœকে। এরপর উইকেট এসেছে নিয়মিত বিরতিতে। স্টার্ক ও প্যাট কামিন্সের গতি ও স্কিলের সামনে দাড়াঁতে পারেনি লঙ্কান ব্যাটিং। ফিফটি করতে পারেননি কেউ, গড়ে ওঠেনি কোনো পঞ্চাশ রানের জুটিও। গুঁড়িয়ে যায় তারা দেড়শ ছোঁয়ার আগে। এই নিয়ে সবশেষ সাত টেস্টের ছয়টি হারল শ্রীলঙ্কা। এই সিরিজের চার ইনিংস মিলিয়ে তাদের রান ৬৪৭, অস্ট্রেলিয়ায় যা তাদের ইতিহাসে এক সিরিজে সর্বনিম্ন। ভারতের কাছে নিজেদের মাটিতে প্রথমবারের মতো টেস্ট সিরিজ হেরে যাওয়ার পর অস্ট্রেলিয়া এবারের গ্রীষ্ম শেষ করল স্বস্তিতে। কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার ও অধিনায়ক টিম পেইন জুটির এটি প্রথম সিরিজ জয়। সংক্ষিপ্ত স্কোর: অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস: ৫৩৪/৫ ইনিংস ঘোষণা। শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: ২১৫। অস্ট্রেলিয়া ২য় ইনিংস: ১৯৬/৩ ইনিংস ঘোষণা।  শ্রীলঙ্কা ২য় ইনিংস: (আগের দিন ১৭/০) ৫১ ওভারে ১৪৯ (দিমুথ করুনারতেœ ৮, থিরিমান্নে ৩০, চান্দিমাল ৪, ডিকভেলা ২৭, মেন্ডিস ৪২, কুসল পেরেরা ০, ধনাঞ্জয়া ৬, চামিকা করুনারতেœ ২২, দিলরুয়ান ৪, রাজিথা ২*, বিশ্ব ০; স্টার্ক ৫/৪৬, রিচার্ডসন ১/২৯, লায়ন ০/৫১, কামিন্স ৩/১৫, লাবুশেন ১/৬)। ফল: অস্ট্রেলিয়া ৩৬৬ রানে জয়ী। সিরিজ: ২ ম্যাচ সিরিজে অস্ট্রেলিয়া ২-০তে জয়ী। ম্যান অব দা ম্যাচ: মিচেল স্টার্ক। ম্যান অব দা সিরিজ: প্যাট কামিন্স।

 

আরো খবর...