সরাসরি বিশ্বকাপ দিয়ে ফিরতে হবে স্মিথ-ওয়ার্নারকে

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ ২২ মার্চ শুরু পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ। ২৮ মার্চ শেষ ডেভিড ওয়ার্নার ও স্টিভেন স্মিথের নিষেধাজ্ঞা। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের শেষ দুই ম্যাচে এই দুই ক্রিকেটারকে রাখা হবে কিনা, এই নিয়ে জল্পনা ছিল তুমুল। শেষ পর্যন্ত দুজনের কাউকে রাখা হলো না দলে। বিশ্বকাপ দলে থাকলে সরাসরি বিশ্ব আসর দিয়েই অস্ট্রেলিয়া দলে ফিরবেন দুজন। বিপিএল থেকে কনুইয়ের চোট নিয়ে ফিরে ওয়ার্নার ও স্মিথ এখন আছেন পুনবার্সন প্রক্রিয়ায়। চোট না থাকলে বিশ্বকাপ দলে তাদের থাকা একরকম নিশ্চিতই। সেজন্যই আলোচনা ছিল পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে দুজনকে খেলিয়ে বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত করে তোলা হবে কিনা। সিরিজের শেষ দুই ম্যাচ ২৯ ও ৩১ মার্চ। তবে অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচক ট্রেভর হন্স জানালেন, আইপিএল দিয়ে দুজনের ফেরাকেই উপযুক্ত মনে হয়েছে তাদের। “স্টিভ ও ডেভিড এখন কনুইয়ের চোট কাটিয়ে ওঠার পথে পুনবার্সনে আছে। আমরা একমত হয়েছি যে ওদের ফেরার সম্ভাব্য সেরা পথ হতে পারে আইপিএল। বিশ্বের সেরা কিছু ক্রিকেটার নিয়ে এই টুর্নামেন্ট বেশ শক্তিশালী।” ২৩ মার্চ শুরু হতে যাওয়া আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদে খেলবেন ওয়ার্নার; রাজস্থান রয়্যালসে স্মিথ। চোট কাটিয়ে ফেরার পথে দুজনই শুরু করেছেন ব্যাটিং অনুশীলন। চোটের কারণে ভারতের বিপক্ষে চলতি সিরিজে না থাকা মিচেল স্টার্ক থাকছেন না পাকিস্তান সিরিজেও। গত মাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টে ১০ উইকেট নেওয়ার পর থেকেই পায়ের পেশির চোটে মাঠের বাইরে দলের মূল স্ট্রাইক বোলার। বিশ্বকাপের আগে তাকে নিয়ে ঝুঁকি নিতে চায় না দল। দলের ও নিজের বাজে ফর্ম নিয়ে সমালোচনা থাকলেও অধিনায়ক হিসেবে আস্থা রাখা হয়েছে অ্যারন ফিঞ্চের ওপরই। ওয়ানডের অস্ট্রেলিয়া দল: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), প্যাট কামিন্স (সহ-অধিনায়ক), অ্যালেক্স কেয়ারি (সহ-অধিনায়ক), উসমান খাওয়াজা, শন মার্শ, পিটার হ্যান্ডসকম, প্লেন ম্যাক্সওয়েল, অ্যাশটন টার্নার, মার্কাস স্টয়নিস, ন্যাথান কোল্টার-নাইল, জাই রিচার্ডসন, কেন রিচার্ডসন, জেসন বেহরেনডর্ফ, ন্যাথান লায়ন, অ্যাডাম জ্যাম্পা।

আরো খবর...