লজ্জাজনক হারের পর সরফরাজের কটাক্ষ করে শোয়েব আখতারের টুইট

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ বিশ্বকাপের মতো গুরুত্বপূর্ণ টুর্নামেন্টের শুরুতেই ১০৫ রানে অলআউট পাকিস্তান। দলের এমন পারফরম্যান্সে রীতিমতো হতাশ কিংবদন্তি ক্রিকেটাররা। এ নিয়ে পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের কঠোর সমালোচনা করছেন দেশটির সাবেক ক্রিকেটাররা। এদিকে পাক অধিনায়কের কঠোর সমালোচনা করে তার ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন তুললেন দেশটির গতি তারকা শোয়েব আখতার। এমন ফিটনেস নিয়ে তিনি কিভাবে একটি দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সেটাই এখন বড় প্রশ্ন বলে মন্তব্য করেন তিনি। শুক্রবার বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে নাস্তানাবুদ হওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেন শোয়েব আখতার। সেখানে তিনি বলেন, বিশ্বকাপের মতো ম্যাচ খেলার জন্য পুরোপুরি আনফিট সরফরাজ। সরফরাজ যখন টস করতে আসলেন, তখন দেখা গেলো তার পেট বেরিয়ে আসছে। তার চেহারায় চর্বির পরিমাণ বেড়ে গেছে। অধিনায়কের শরীরে খেলোয়াড়দের মতো কাঠামো দেখা যায়নি। শোয়েব আরও বলেন, সেই প্রথম অধিনায়ক, যাকে আমি দেখলাম পুরোপুরি আনফিট। খেলায় দেখলাম সে নিজেকে নাড়াতে পারছে না এবং উইকেটের পেছনেও তাকে বল ধরতে খুব সংগ্রাম করতে দেখলাম। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে ৭ উইকেটের ব্যবধানে পাকিস্তানের পরাজয়ের ক্ষোভ এভাবেই অধিনায়ক সরফরাজের ওপর উগড়ে দেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস। এর আগে পাকিস্তানের এই সাবেক তারকা টুইটারে হতাশা প্রকাশ করে বলেছেন, এটা পাকিস্তানের জন্য লজ্জাজনক পারফরম্যান্স। এতটা বাজে খেলবে কল্পনাও করতে পারিনি। তবে পাকিস্তান দল খারাপ খেলেছে এমনটা না জানিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অসাধারণ খেলেছে বলে টুইট করেছেন অনেক ক্রিকেটবোদ্ধারা। ভারতের সাবেক তারকা ক্রিকেটার ভিভিএস লক্ষণ ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রশংসা করে টুইটারে বলেন, উইন্ডিজ অসাধারণ পারফর্ম্যান্স করেছে। আমার বিশ্বাস তারা বিশ্বকাপে এভাবেই লড়াই অব্যাহত রাখবে। শুক্রবার ইংল্যান্ডের নটিংহামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে পাকিস্তান। ক্যারিবীয় পেসারদের গতিতে বিধ্বস্ত হয় সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন দলটি। প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ১০৫ রানে অলআউটের লজ্জায় পড়ে পাকিস্তান। মামুলি স্কোর তাড়া করতে নেমে ৭ উইকেটে জয় পায় ক্যারিবীয়রা। সংক্ষিপ্ত স্কোর ঃ পাকিস্তান: ২১.৪ ওভারে ১০৫/১০ (বাবর ২২, ফখর ২২, ওয়াহাব রিয়াজ ১৮, মোহাম্মদ হাফিজ ১৬; থমাস ৪/২৭, হোল্ডার ৩/৪২)। ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ১৩.৪ ওভারে ১০৮/৩ (গেইল ৫০, নিকোলাস পুরান ৩৪; আমির ৩/২৬)। ফল: ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭ উইকেটে জয়ী।

 

আরো খবর...