মানসিক রোগীর সম্পদের ওপর অধিকারসহ সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠক

ঢাকা অফিস ॥ মন্ত্রিসভা মানসিক রোগীর সম্পদের ওপর অধিকারসহ সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের লক্ষ্যে মানসিক স্বাস্থ্য অধিকার আইন-২০১৮’র খসড়ায় চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে। গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তাঁর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সংস্কার ও সমন্বয়) এন এম জিয়াউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, বর্তমান প্রেক্ষাপট বিবেচনায় একটি সময়োপযোগী আইন প্রণয়নের লক্ষ্যে এই খসড়া তৈরি হয়েছে। তিনি বলেন, ১৯১২ সালের এ সম্পর্কিত আইনকে হালনাগাদ করে আলোচ্য খসড়াটি প্রণীত হয়েছে। এতে মানসিক অসুস্থ ব্যক্তিকে অপরাধে জড়িত হওয়ার প্ররোচনা এবং নিবন্ধন ছাড়া মানসিক হাসপাতাল স্থাপন ও পরিচালনার দায়ে কঠোর শাস্তির বিধান রয়েছে। সরকার মানসিক অসুস্থতায় আক্রান্তদের সেবার সম্প্রসারণ, উন্নয়ন, নিয়ন্ত্রণ ও সমন্বয়ের জন্য সকল কর্মকান্ড পরিচালনা করবে। সরকার মানসিক রোগীদের দীর্ঘমেয়াদে চিকিৎসা দেবে এবং সংক্ষুব্ধ ব্যক্তির প্রতিকার পাওয়া পথ সহজতর করতে মানসিক স্বাস্থ্য পর্যালোচনা কমিটি গঠন করবে। এতে বেসরকারি খাতে হাসপাতাল ও ইনস্টিটিউট স্থাপনের বিধানও রয়েছে। খসড়ায় মানসিক অসুস্থতা নিয়ে মিথ্যা সনদ দিলে ৩ লাখ টাকা জরিমানা বা এক বছর কারাদন্ড বা উভয় দন্ডের বিধান রয়েছে। মানসিক অসুস্থ ব্যক্তির চিকিৎসা ও ব্যবস্থাপনা ও তাদের সম্পত্তির তালিকা প্রণয়নে অবহেলা বা এ সম্পর্কিত আদালতের কোন আইনের মান্যতায় ব্যর্থতার দায়ে সংশ্লিষ্ট অভিভাবক ও ম্যানেজারের ৫ লাখ টাকা জরিমানা বা ৩ বছরের কারাদন্ডের বিধান রয়েছে খসড়ায়। সভায় জাতীয় ডিজিটাল কমার্স পলিসি-২০১৮’র অনুমোদন দেয়া হয়। জিয়াউল আলম বলেন, ক্রমবর্ধনশীল আইসিটি ভিত্তিক বাণিজ্যের সুযোগ সম্প্রসারণে এ অনুমোদন দেয়া হয়। এ আইনের আওতায় ই-লেনদেন সম্পর্কিত বিভ্রান্তি নিরসনে প্রচারণার লক্ষ্যে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় একটি সেল গঠন করবে। বৈঠকের শুরুতে বিশ্বকাপ টি-২০ ক্রিকেটের চূড়ান্ত আসরে স্থান করে নেয়ার জন্য বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানানো হয়। বৈঠকে আইনমন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হকের বড় বোন সায়মা হকের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে একটি শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়। মন্ত্রিসভা বিদায়ী অর্থ সচিব মুসলিম চৌধুরীকে ধন্যবাদ জানায়। তাকে ৪ বছরের জন্য কম্পট্রোলার ও অডিটর জেনারেল পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলে জানান জিয়াউল আলম।

আরো খবর...