মউরার হ্যাটট্রিকে রূপকথার জন্ম দিলো টটেনহ্যাম

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ বার্সেলোনার বিপক্ষে লিভারপুলের অবিশ্বাস্য জয়ের রেশ কাটতে না কাটতে আরেকটি শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ের সাক্ষী হলো ফুটবল বিশ্ব। প্রতিপক্ষের মাঠ থেকে জিতে আসা আয়াক্স ফিরতি পর্বের প্রথমার্ধেই জোড়া গোল করে বসে, কোণঠাসা হয়ে পড়ে টটেনহ্যাম হটস্পার। ওখান থেকে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ায় তারা। লুকাস মউরার হ্যাটট্রিকে অসাধারণ এক জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফাইনালে ওঠে ইংলিশ ক্লাবটি। ইয়োহান ক্রুইফ অ্যারেনায় বুধবার রাতে শেষ চারের ফিরতি পর্বের ম্যাচে ৩-২ গোলে জিতে মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল। অ্যাওয়ে গোলে এগিয়ে থাকায় ফাইনালের টিকেট পায় তারা। গত সপ্তাহে টটেনহ্যামের মাঠে ১-০ গোলে জিতেছিল আয়াক্স। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো ‘অল ইংলিশ’ ফাইনাল দেখতে যাচ্ছে ফুটবলপ্রেমীরা। এর আগে ২০০৭-০৮ আসরের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও চেলসি। আগামী ১ জুন মাদ্রিদের ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোয় শিরোপা লড়াইয়ে বার্সেলোনাকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠা লিভারপুলের মুখোমুখি হবে টটেনহ্যাম হটস্পার। বল দখলে রেখে আক্রমণাত্মক ফুটবলের পরিকল্পনায় নামা আয়াক্স ম্যাচের পঞ্চম মিনিটেই গোল আদায় করে নেয়। হতে পারতো আগের মিনিটেই। দুসান তাদিচের নিচু শট ইংলিশ ডিফেন্ডার কিরান ট্রিপিয়ারের পায়ে লেগে উঁচু হয়ে জালে ঢুকতে যাচ্ছিল। ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক উগো লরিস। ওই কর্নারেই দারুণ হেডে দলকে এগিয়ে দেন মাতাইস দি লিট।

আরো খবর...