ভেড়ামারায় পূর্ব শক্রতার জেরে পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধন

মামলা দায়ের

আল-মাহাদী ॥ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা রায়টা এলাকায় প্রতিপক্ষের প্রতিহিংসার শিকার হয়ে নিঃস্ব হয়েছে এক মৎস্য চাষী। পূর্ব শক্রতার জের ধরে গভীর রাতে পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় ১০০ মণ মাছ নিধন করে দিয়েছে একটি কুচক্রীমহল। ঘটনাটি ঘটিয়েছে ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের রায়টা মহলদারপাড়া এলাকায়। এবিষয়ে রায়টা এলাকার মৃত সামছুল সরকারের পুত্র বাচ্চু বাদী হয়ে আদালতে একই এলাকার মহাসিন মহলদার সান্টু, মিন্টু, মালেক, ফরিদ ও বুলবুল মহলদারকে আসামী করে আদালতে মামলা দায়ের করেছে। যাহার মামলা নং : ভেড়ামারা সিআর ১৬৯/১৮ (দন্ডবিধি ৩২৮/৩৪)। লিখিত অভিযোগে প্রাপ্ত সুত্র মোতাবেক, রায়টা এলাকার মৃত সামছুল সরকারের পুত্র বাচ্চুর বাড়ি সংলগ্ন ৯ বিঘা জমির উপর নির্মিত পুকুরে দীর্ঘদিন ধরে সে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষাবাদ করে জীবিকা ধারন করে আসছে। এদিকে একই এলাকার মহসিন মহলদার সান্টু, মিন্টু, মালেক, ফরিদ ও বুলবুল মহলদারসহ একটি মহল এই পুকুর নিয়ে নানাবিধ ষড়যন্ত্র করে আসছে। বিভিন্ন সময় তারা প্রাণনাশ সহ পুকুরের মাছ বিষ দিয়া মেরে ফেলবো মর্মে মামলার বাদী ও আত্মীয় স্ব-জনদের হুমকি ধামকি প্রদান করে আসছে। এরই জের ধরে গত ২৭ আগস্ট দিবাগত রাত অনুমান ২ টা হতে ৫ টার মধ্যে যেকোন সময় পূর্ব শক্রতার জের ধরে আসামীগণ পুকুরের মাছ ধ্বংস করার উদ্দেশ্যে বিষ প্রয়োগ করে। এতে প্রায় ১০০ মণ মাছ যার আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ৮ লক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন করে বলে লিখিত অভিযোগ সুত্রে পাওয়া যায়। ঘটনার দিন ভোর ৫ টার দিকে মামলার বাদী ও পুকুরের স্বত্বাধিকারী বাচ্চু পুকুর সংলগ্ন পান বরজে পান ভাঙ্গতে গিয়ে পুকুরের দিকে নজর পড়ে এবং দেখতে পাই বিপুল পরিমান মাছ মরিয়া পানিতে ভাসিতেছে। কিন্তু ঘটনার পর থেকেই আসামীরা বাদী পক্ষের লোকজন মাছ মারা বিষয়ে কোন প্রকার মামলা মোকাদ্দমা না করার জন্য মর্মে বাদী ও বাদীর নানাপ্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন করতে থাকে। এই ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে।

আরো খবর...