পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন ই.বি শাখা উদ্যোগে এতিম শিশুদের ইফতার ও রাতের খাবার

বিতরণ গতকাল ১৫ই রমজান বারুইপাড়া দারুল হিকমাহ হাফেজিয়া মাদ্রাসা এতিমখানা ও লিল্লাহবোর্ডিং এ পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্দ্যোগে এতিম শিশুদের মাঝে পুষ্টিকর ইফতার ও রাতের খাবার বিতরন করা হয়েছে। বাংলাদেশের ১৪টি বিশ্ববিদ্যালয়ের খাদ্য ও পুষ্টি বিভাগের শিক্ষার্থী ও প্রফেশনালদের নিয়ে গঠিত হয়েছে “পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন”। এটি খাদ্য ও পুষ্টি বিভাগের শিক্ষার্থী ও প্রফেশনালদের একটি অন্যতম প্রিয় সংগঠন। পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন বিভিন্ন ধরনের জনসচেতনতামুলক সামাজিক কার্যক্রমে অংশগ্রহন করছে। তারা জনসাধারনের মাঝে পুষ্টি বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। পুরো মাহে রমজান এ ১৪টি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা প্রায় ৩ হাজার সমাজের খেটে খাওয়া শ্রমজীবি বৃদ্ধ, রিক্সাচালক, দিনমজুর ও এতিমশিশুদের পুষ্টিকর ইফতার বিতরন করে যাচ্ছে। উল্লেখ্য যে, এরই ধারাবাহিকতায় পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার উদ্দ্যগে বারুইপাড়া, মিরপুর, কুষ্টিয়ায় অবস্থিত এতিমখানায় এতিম শিশুদের মাঝে পুষ্টিকর ইফতার ও রাতের খাবার বিতরন করেছে। পুষ্টিকর ইফতার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিতি ছিলেন পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মো. মাইনুর রেজা এবং সাধারন সম্পাদক এস. এম. সুমনসহ সকল সদস্যবৃন্দ। অনুষ্ঠানের সভাপতি বলেন, ”গ্রামের মধ্যে প্রত্যন্ত অঞ্চলে এমন একটি অনুষ্ঠান করতে পেরে আমি সত্যিই অনেক আনন্দিত। আমরা এর ধারাবাহিকতা রাখতে চাই। অনুষ্ঠানটির অর্থায়নের জন্য অনেক বড় ভাই-আপু এবং সংগঠনের সদস্যরা সহযোগিতা করেছেন। আমরা তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ”। সাধারন সম্পাদক বলেন, ”ভালবাসার পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন টিকে থাক আজীবন, নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে কাজ করেছি, এখন ও করছি এবং সামনেও করবো ইনশাআল্লাহ”। উক্ত অনুষ্ঠানে মাদ্রাসা ও এতিমখানার মুহতমীম হাফেজ মো. বাশার বলেন, ”পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন আরও সামনে এগিয়ে যাক। তাদের উদ্দেশ্যগুলো যেন সফল হয় সেই প্রার্থনাই করি। আমরা তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি”। ইফতারের পুর্বমুহুর্তে দোয়া অনুষ্ঠান হয়। এটি পরিচালনা করেন মুহতামীম হাফেজ মো. বাশার। পুষ্টিকর ইফতার ও রাতের খাবার পেয়ে শিশুদের মুখে হাসি ফুটে উঠেছে। এই হাসি চির অম্লান থাকুক তাদের মাঝে এই কামনাই করি। এগিয়ে যাক পুষ্টিবিদ ফাউন্ডেশন, অপুষ্টিমুক্ত হোক বাংলাদেশ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

আরো খবর...