নেইমারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ॥ প্যারিসে এক নারীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ আনা হয়েছে ব্রাজিলের তারকা ফুটবলার নেইমারের বিরুদ্ধে। নেইমারের পক্ষ থেকে অভিযোগটি অস্বীকার করে বলা হয়েছে, এটি ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়ের চেষ্টা। ব্রাজিলের সাও পাওলোর এক পুলিশ প্রতিবেদন অনুযায়ী ওই নারীর অভিযোগ, প্যারিসের এক হোটেলে গত মাসে যৌন নিপীড়নের ঘটনাটি ঘটে। কোপা আমেরিকায় খেলতে এখন নিজ দেশে আছেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার। পুলিশ প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইনস্টাগ্রামে পরিচয়ের পর পিএসজি ফরোয়ার্ড নেইমার তাকে প্যারিসের একটি হোটেলে দেখা করতে আসতে বলেন। ব্রাজিল থেকে ফ্রান্সে আসার বিমান টিকেট ও হোটেলের ভাড়াও নেইমার দেন। ১৫ মে যখন নেইমার হোটেলে আসেন তখন তিনি ‘মাতাল’ ছিলেন। আলাপচারিতার এক পর্যায়ে তিনি আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠেন এবং ওই নারীর অনিচ্ছা সত্ত্বেও জোর করে যৌন মিলন করেন। ফরাসি পুলিশকে অভিযোগ না করে নারীটি দুই দিন পর ব্রাজিলে ফেরত আসেন কারণ তিনি ‘মানসিকভাবে দুর্বল ছিলেন এবং অন্য দেশে এ বিষয়ে অভিযোগ করতে চাননি’। এ নিয়ে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশের পর নেইমারের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে বলা হয়, ২৭ বছর বয়সী খেলোয়াড় এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। “তিনি খবরটি দেখে অবাক হলেও ঘটনাগুলো তার আগেই জানা কারণ কয়েক দিন আগে তাকে ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় করার চেষ্টা করেছিলেন ওই নারীর প্রতিনিধিত্ব করছেন দাবি করা এক আইনজীবী।” “নেইমারের আইনজীবীদের ঘটনাটি সঙ্গে সঙ্গে জানানো হয়েছে এবং সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।” পুলিশকে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় প্রমাণ দেওয়া হবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়। এর আগে নেইমারের বাবা নেইমার দস সান্তোস অভিযোগের বিষয়ে ব্রাজিলের ব্রান্দ টিভিকে বলেন, “এটা পরিষ্কার যে এটা ছিল একটি ফাঁদ।” “যদি প্রয়োজন হয় আমরা নেইমারে হোয়াটসঅ্যাপে মেয়েটির সঙ্গে তার যে আলাপ হয়েছে তা দেখাব।” জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব খোয়ানো এবং ক্লাব ফুটবলে বিভিন্ন শাস্তির মুখোমুখি হওয়া নেইমারের জন্য অভিযোগটি আরেকটি আঘাত হয়ে এল।

আরো খবর...