দৌলতপুরের চিলমারী জুতাশাহী পশুহাট নিজ এলাকায় স্থানান্তরের প্রতিবাদে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগ

দৌলতপুর প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের চিলমারী করারী জুতাশাহী স্কুলবাজার সরকারী পশুহাট নিজ সুবিধামত স্থানে স্থানান্তরের প্রতিবাদে চিলমারী ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন। গতকাল সোমবার ভূক্তভোগী এলাকাবাসীর গণসাক্ষরিত অভিযোগ দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট দেওয়া হয়। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, উপজেলার চিলমারী ইউনিয়নের করারী জুতাশাহী স্কুলবাজার সরকারী পশুহাট থেকে সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকা রাজস্ব আদায় হয়ে থাকেন। পদ্মার ভাঙ্গনে পশুহাট স্থানটি ভেঙ্গে নদী গর্ভে চলে যাওয়ায় এলাকাবাসী জনস্বার্থের কথা ভেবে নিকটবর্তী ও সুবিধাজনক স্থানে স্থানান্তর করে পশুহাটের কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন। এরফলে পূর্বের ন্যায় সরকারের রাজস্ব আদায় অব্যাহত রয়েছে। কিন্তু চিলমারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমেদ ব্যক্তি স্বার্থে ও অসৎ উদ্দেশ্যে পার্শ্ববর্তী রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন সংলগ্ন ভারত সীমান্ত ঘেষা স্থানে স্থানান্তরের চেষ্টা করছেন। যা জনস্বার্থ বিরোধী হবে এবং সেই সাথে সরকারের রাজস্ব আদায়ের বর্তমান ধারা হ্রাস পাবে। তাই চিলমারীবাসীসহ পশু ব্যবসায়ীদের কথা বিবেচনা করে চিলমারী পশুহাটটি সুন্দর ও সুবিধাজনক স্থানে স্থানান্তর করা জরুরী বলে দাবি করেছেন অভিযোগকারী চিলমারী এলাকাবাসী। বৃহৎ জনগোষ্ঠীর কথা ভেবে পূর্বের পশুহাট সংলগ্ন এলাকায় পশুহাটটি স্থানান্তরের জোর দাবি জানিয়ে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভূক্তভোগী এলাকাবাসী।

আরো খবর...