জগন্নাথের ওই ছাত্র রিমান্ডে

ফেইসবুকে মন্তব্য

ঢাকা অফিস ॥ ফেইসবুকে ধর্ম নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে গ্রেপ্তার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ফরহাদ হোসাইন ফাহাদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে পাঠিয়েছে ঢাকার একটি আদালত। ঢাকার মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস গতকাল শুক্রবার তার দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন বলে আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা এসআই হেলালুদ্দিন জানিয়েছেন। গত সপ্তাহে একটি টেলিভিশন চ্যানেলের ফেইসবুক পেইজে শেয়ার করা নিউজের নিচে ‘ফরহাদ এইচ ফাহাদ’ নামের অ্যাকাউন্ট থেকে করা মন্তব্যের একটি স্ক্রিনশট ছড়িয়ে পড়ে। এরপর ফাহাদের ‘ফাঁসির’ দাবিতে ক্যাম্পাসে মিছিল-সমাবেশ শুরু করে ধর্মভিত্তিক ছাত্র সংগঠন ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন। এদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের দুই নেতাও তাদের সঙ্গে যোগ দেন। বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা নূর-ই-আলম কোতোয়ালি থানায় ফাহাদের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের একটি মামলা দায়ের করেন। আরেক ছাত্রলীগ নেতা মিজানুজ্জামান খান শামীম বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে ফাহাদের স্থায়ী বহিষ্কার চেয়ে আবেদন করেন।

বৃহস্পতিবার কোতোয়ালি থানা পুলিশকে চিঠি পাঠিয়ে ফাহাদকে গ্রেপ্তার করতে বলে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এরপর রাতেই খুলনা থেকে জগন্নাথের বাংলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের এই ছাত্রকে ধরে আনে পুলিশ। তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ড চান কোতোয়ালি থানার এসআই রুবেল খান। রিমান্ড আবেদন বাতিল চেয়ে ফাহাদের পক্ষে কোনো আবেদন পড়েনি। ফাহাদ নিজেই আদালতে কথা বলেছেন জানিয়ে এসআই হেলাল বলেন, ছেলেটি ‘ভুল স্বীকার করে’ আদালতের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। “ফাহাদ বলেছে, আমি দরিদ্র পরিবার থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করতে এসেছি। রিমান্ডে দিলে আমার শিক্ষা জীবন ধ্বংস হয়ে যাবে। আমি সচেতনভাবে মহানবীকে (সা.) হেয় করিনি।

আরো খবর...