গাংনীতে সড়ক দূর্ঘটনা প্রতিরোধে মতবিনিময়

গাংনী প্রতিনিধি ॥ ইটভাটা মালিকদের সাথে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এর  মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেলে উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পালের আহ্বানে বৈধতা, পরিবেশ সংরক্ষণ ও সড়ক দূর্ঘটনা রোধে জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল। এ সময় বক্তব্য রাখেন,গাংনী থানার প্রতিনিধি এসআই মিলন সরকার, গাংনী উপজেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি এনামুল হক, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান আতু, উপজেলা ব্যারেল-চিমনি ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি বাবলু মিয়া ও সাংবাদিক আমিরুল ইসলাম অল্ডাম,এ সিদ্দিকী শাহিন প্রমুখ। সভায় গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল ইটভাটা মালিকদের উদ্দেশে বলেন, সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী অবৈধভাবে গড়ে তোলা ইটভাটা মালিকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার কথা থাকলেও শুধুমাত্র মানবিকতার কারণে আপনাদের আহ্বান করেছি । আপনাদের ইটভাটার কারণে পথচারীদের দুর্ভোগ,স্বাস্থ্যঝুঁকি,পরিবেশের ক্ষতিসাধন ও সড়ক দূর্ঘটনা রোধে আমি ব্যক্তিগত ভাবে সতর্ক করার লক্ষ্যে জরুরী সভার আয়োজন করেছি। তিনি আরও বলেন, সড়কের পাশ থেকে ইটভাটার মাটি, কাঠসহ অন্যান্য উপকরণ ৭ দিনের মধ্যে সরিয়ে ফেলতে হবে। ইটভাটার সামনের সড়কে প্রতিদিন রাস্তা পরিস্কার করতে হবে। প্রয়োজনে প্রতিদিন পানি দিয়ে ধৌত করতে হবে। তিনি বলেন, ইটভাটার কারণে হালকা বৃষ্টি হলেই যানবাহন চালকরা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। ফলে প্রতিদিনই সড়ক দূর্ঘটনায় পঙ্গুত্ব ও মৃত্যু ঘটছে।এটা আমরা মেনে নিতে পারিনা। এছাড়া জনবসতিপূর্ণ  এলাকায়  ইটভাটা নির্মাণ ও আবাদী জমি থেকে মাটি গ্রহণ না করার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ট্রেড লাইসেন্স করারও তাগিদ দেয়া হয়। এই নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রয়োজনে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে মোটা অংকের জরিমানা করা হবে। কোন ক্রমেই ছাড় দেয়া হবে না। কারও সুপারিশ শোনা হবে না। জরুরী সভায় উপজেলার সকল ইটভাটা মালিক (৬০টির অধিক) ও  সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরো খবর...