গাংনীতে সহকর্মীদের চিকিতসার্থে শিক্ষকদের আর্থিক সহায়তা প্রদান

গাংনী প্রতিনিধি ॥ ‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য’ মানুষের বিপদে মানুষ সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবে এটাই মহত্ব। এরকম মহতি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষক সমাজ। গতকাল সোমবার বিকেলে গাংনী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে সহকর্মী শিক্ষকের চিকিৎসার্থে আনুষ্ঠানিকভাবে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করা হয়। সহকারী শিক্ষা অফিসার ও শিক্ষক প্রতিনিধিদের পক্ষ থেকে দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারের চিকিৎসার সাহাযার্থে নগদ ৮০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে। কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার অন্তর্গত প্রান্তিক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল্লাহ হকের চিকিৎসা ও সুস্থতা কামনায়  গাংনী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষকদের পক্ষ থেকে উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার এহসানুল হাবীবের মাধ্যমে নগদ ৮০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী অফিসার সামসুজ্জোহা, সাহাজাহান রেজা, মুন্দা-অলিনগর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক (শিক্ষক প্রতিনিধি) গোলাম ফারুক, বালিয়াঘাট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাহাবউদ্দীন, বড়-বামুন্দী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক গোলাম হাসান, গাংনী মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষক প্রতিনিধি পারভেজ সাজ্জাদ রাজা, মহম্মদপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জিয়া মহাঃ আহসান মাসুম, বাঁশবাড়ীয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাযহারুল ইসলাম, ভোমরদহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাশিদুল ইসলাম প্রমুখ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুন্ডি ঘাটপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক, প্রভাতী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জামালউদ্দীন, মৌবাড়ীয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাসুদুজ্জামান, পিপুলবাড়ীয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিউল ইসলাম, পূর্ব ছাতারপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হামিদুর রহমান, খলিসাকুন্ডির সহকারী শিক্ষক বকুল হোসেন। চিকিৎসার খোঁজ খবর শেষে অসুস্থ আব্দুল্লাহর সহকর্মীদের হাতে নগদ ৮০ হাজার টাকার সহায়তা প্রদান করা হয়।  পরে তার আশু  রোগ মুক্তি কামনা করা হয়। অর্থ প্রদান অনুষ্ঠানে সহকারী শিক্ষা অফিসার এহসানুল হাবীব এ সংক্রান্ত একটি ফান্ড করার আহ্বান জানান। উল্লেখ্য, দৌলতপুর উপজেলার প্রান্তিক সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল্লাহ হকের প্রথমত ব্রেন টিউমার ধরা পড়ে। পরে ডাক্তারী পরীক্ষায় ক্যান্সারের উপসর্গ ধরা পড়ে। বর্তমানে আব্দুল্লাহ ঢাকা ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার চিকিৎসায় ইতোমধ্যে সহায় সম্বল ও ২ বিঘা জমি বিক্রয় হয়ে গেছে। ডাক্তারী পরামর্শে তার চিকিৎসায় কমপক্ষে ২০ লাখ টাকা প্রয়োজন। চিকিৎসায় সাহাযার্থে সম্প্রতি গাংনী উপজেলার শিক্ষক সমাজের নিকট আবেদনের প্রেক্ষিতে উক্ত পরিমাণ অর্থ সহায়তা করা হয়।

 

আরো খবর...