গাংনীতে ডা. এম কে রেজার উপর হামলা, প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনী (উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স) হাসপাতালের চিকিৎসক এম কে রেজার উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

গতকাল রোববার দুপুর ২টার দিকে গাংনী হাসপাতাল কোয়ার্টারে হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার সাথে জড়িত গাংনী সনো ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক বিজয়কে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। হামলার শিকার গাংনী হাসপাতালের চিকিৎসক এম কে রেজা জানান, একটি রিপোর্ট দেখাকে কেন্দ্র করে গাংনী সনো ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক বিজয় হোসেনসহ তার ক্যাডার বাহিনী নিয়ে আমার উপর হামলা করে। গাংনী হাসপাতালের আরএমও ডাক্তার বিডি দাস জানান, হামলায় আহত এম.কে.রেজা বর্তমানে গাংনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ইতোমধ্যে অভিযুক্ত বিজয়সহ তার ক্যাডার বাহিনীকে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করা হয়েছে।  বিজয়সহ তার ক্যাডার বাহিনীর সদস্যদের গ্রেফতারে ব্যর্থ হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধ রাখা হবে। এছাড়া উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানানো হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।  কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পক্ষ থেকে হাসপাতালের প্রধান সহকারী আসাদুজ্জামান লিটন বলেন- বিজয় নারী কেলেঙ্ককারীসহ বহু অপকর্মের হোতা। ডাক্তার এম কে রেজার উপর অতর্কিত হামলার ঘটনায় তাকে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। এছাড়া সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। নিরাপত্তা নিশ্চিত ও অভিযুক্তদের গ্রেফতারে ব্যর্থ হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে। স্থানীয়রা জানান, বিজয় হাসপাতাল থেকে দালালের মাধ্যমে রোগীকে ভাগিয়ে নেওয়াসহ  রোগী ও তার স্বজনদের জিম্মি করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক আতাউল গনি বলেন-চিকিৎসকের উপর হামলার ঘটনা ন্যাক্কারজনক। দ্রুত অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হবে। পাশাপাশি গাংনী সনো ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কাগজপত্র যাচাই বাছাই করে অনিয়ম পেলে সিলগালা করে দেয়া হবে। মেহেরপুরের সিভিল সার্জন শামীম আরা নাজনীনের সাথে এ বিষয়ে কথা বলতে চাইলে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল দিলেও তিনি (রিসিভ) গ্রহণ করেননি।  গাংনী থানার ওসি ওবাইদুর রহমান জানান,অভিযুক্ত বিজয়সহ তার ক্যাডার বাহিনীকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

আরো খবর...