গাংনীতে চাঁদার দাবীতে ব্যর্থ হয়ে ৪ শ্রমিককে পিটিয়ে আহত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ মেহেরপুরের গাংনীতে চাঁদার টাকা না পেয়ে ৪জন শ্রমিককে পিটিয়ে আহত করেছে স্থানীয় কয়েকজন চিহ্নিত ক্যাডাররা। হামলায় আহতরা হলেন, গাংনী উপজেলার রামনগর গ্রামের শ্রমিক সর্দার কামরুল ইসলাম, একই গ্রামের মুনছুর আলীর স্ত্রী শ্রমিক সামেনা খাতুন (৬০), সিদ্দিক আলীর স্ত্রী মানছুরা (৫৫)ও একই গ্রামের রাবেয়া খাতুন। গতকাল রোববার সকালের দিকে রামনগর গ্রামে হামলার ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে শ্রমিক সর্দার কামরুল ইসলাম গাংনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। বাকীরা প্রাথমিক চিকৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বামন্দী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হাবিল উদ্দীন জানান, কর্মসৃজন প্রকল্পের আওতায় রামনগর গ্রামের মুকুলের বাড়ি থেকে কবরস্থানের রাস্তায় মাটি ভরাটের কাজ চলছিল। রবিবার রামনগর গ্রামের খেদ আলীর ছেলে শরিফুল,কাবের আলীর ছেলে কমল, লালন, নৈমুদ্দীনের ছেলে আমিরুল ও কচিমুদ্দীনের ছেলে আজিজুল হক আমার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে। আমি তাদের চাঁদা দিতে রাজি না হওয়ায় ওই রাস্তায় কাজে নিয়োজিত শ্রমিকদের উপর হামলা করে। গাংনী উপজেলা  নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল জানান,সরকারী কাজে বাধা দেওয়ায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এদিকে অভিযুক্তরা জানান- রাস্তার পাশেই আমাদের বসতবাড়ি। বাড়ির সীমানার মাটি কেটে রাস্তায় দেয়াকে কেন্দ্র করে   শ্রমিকদের সাথে একটু ধাক্কাধাক্কি হয়েছে। নিজের দুর্নীতি আড়াল করতে হাবিল মেম্বার মিথ্যা অপবাধ দিয়েছেন।

আরো খবর...