গাংনীতে আর্ন্তজাতিক সাক্ষরতা দিবস পালিত

গাংনী প্রতিনিধি ॥ সারা বিশ্বের ন্যায় মেহেরপুরের গাংনীতে আর্ন্তজাতিক সাক্ষরতা দিবস পালিত হয়েছে। দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে দিবসটি উপলক্ষে গাংনী উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি উপজেলা শহরের প্রধান-প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এতে নেতৃত্ব প্রদান করেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার শামসুজ্জোহা। এ সময় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীরা অংশ গ্রহণ করেন। অন্যদিকে দাতা সংস্থা ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ও বেসরকারী সংস্থা ‘কারিতাস’আলোঘর, খুলনা অঞ্চল (লাইট হাউজ) প্রকল্পের আয়োজনে চৌগাছা খ্রীষ্টানপাড়া শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন করা হয়। শনিবার সকালে বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী সিরাজুল ইসলাম স্যারের নেতৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি চৌগাছা গ্রামের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালিতে শিক্ষাকেন্দ্রের শিক্ষিকা-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ অংশ গ্রহণ করেন। পরে শিক্ষাকেন্দ্র চত্বরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ক্যাথলিক চার্চের বিশপ ও চৌগাছা শিশু শিক্ষাকেন্দ্রের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি আব্রাহাম মন্ডলের প্রতিনিধি আব্দুল আলিম মাষ্টার। সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের মেহেরপুর জেলা শাখার সভাপতি এবং গাংনী ফুলকুঁড়ি কিন্ডার গার্টেন এন্ড হাই স্কুলের অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন গাংনী উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইত্তেফাক সংবাদদাতা আমিরুল ইসলাম অল্ডাম, কারিতাস দামুড়হুদার এডুকেশন সুপারভাইজার মিল্টন মন্ডল, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ সাবেক যুবলীগ নেতা আব্দুস সালাম প্রমুখ। এসময় বক্তব্য রাখেন, গাংনী পাইলট স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক মতিয়ার রহমান, সাংবাদিক সাহাজুল ইসলাম সাজু, চৌগাছা গ্রাম আ.লীগের সভাপতি আব্দুল খালেক, সহ- সভাপতি আনারুল ইসলাম, স্কুল পরিচালনা পর্ষদের সদস্য মনা রোজারিও, পল গ্রেগরী, বুলু পেরেরা, তেমতি কোড়াইয়া, শিক্ষা কেন্দ্রের প্রধান শিক্ষিকা কনিকা পারভীন ও সহকারী শিক্ষিকা রতœা কোড়াইয়া প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিরাজুল ইসলাম বলেন, এ বছরের মূলসুর বা প্রতিপাদ্য বিষয়, ‘সাক্ষরতা অর্জন করি, দক্ষ হয়ে জীবন গড়ি’। আমরা সবাই সাক্ষর জ্ঞান সম্পন্ন মানুষ হয়ে উঠি। সন্তানকে সাহসী করে গড়ে তুলতে হলে মাকে সাহসী হতে হবে। এলাকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠী, হতদরিদ্র-অস্বচ্ছল , ঝরেপড়া, প্রতিবন্ধী ছেলে মেয়েদের শিক্ষার আলো জ্বালাতে কারিতাস শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে প্রতিষ্ঠানটি কাজ করে যাচ্ছে এটি খুশির বিষয়। তিনি আরও প্রশংসা করে বলেন, গাংনীর অনেক নামী-দামী স্কুলে শিক্ষার্থীরা ফেল করেছে। অথচ এই শিশু শিক্ষা কেন্দ্র থেকে ১৬ জন পিইসি পরীক্ষাই সবাই পাশ করেছে এটা গর্বের ব্যাপার। তিনি শিক্ষকদেরও শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মানোন্নয়ন ও শৃংখলা বজায় রাখতে ভূঁয়শী প্রশংসা করেন। এছাড়াও উপজেলার হাড়িয়াদহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, সাহেবনগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কাজীপুর ইউনিয়ন সিবিও দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করে।

আরো খবর...