কুষ্টিয়ায় ‘নাতির ছুরিকাঘাতে’ নানা নিহত

খোকসা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলায় ‘নাতির ছুরিকাঘাতে’ নানা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় নাতিসহ দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। নিহত মজিবুর রহমান (৭৫) উপজেলার সমসপুর ইউনিয়নের সন্তোষপুর গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। আটককৃতরা হলেন নাতি নাঈম (২১) ও নাঈমের এক মামি। খোকসা থানার ওসি এবিএম মেহেদী মাসুদ প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের তথ্য দিয়ে বলেন, “নাঈমের সঙ্গে একই পরিবারের এক নারীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। রোববার গভীর রাতে তাদের অন্তরঙ্গ অবস্থায় দেখে ফেলেন নানা মজিবুর। এ সময় নাঈম ঘটনা প্রকাশ হবার ভয়ে নানাকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান।” পরিবারের সদস্যরা মজিবুরকে উদ্ধার করে খোকসা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই গিয়ে নাঈমকে তার কুমারখালীর বাড়ি থেকে আটক করে। ওসি মেহেদী বলেন, আটকের পর নাঈম তার পরকীয়া প্রেমের কথা স্বীকার করলে ওই নারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। হত্যাকান্ডের সঙ্গে ওই নারীর সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা খতিয়ে দেখা যাচ্ছে। লাশ কুষ্টিয়া সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি মেহেদী।

আরো খবর...