কবি নজরুল মানবতার মুক্তির জন্য কাজ করে গেছেন

কুষ্টিয়ায় তিন দিনব্যাপি জাতীয় নজরুল সম্মেলনের উদ্বোধনীতে ড. রাশিদ আসকারী

নিজ সংবাদ ॥ কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মো: হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী) বলেছেন, নজরুল মানুষের কবি, মানবতার মুক্তির জন্য তিনি কাজ করে গেছেন। তিনি একদিকে গজল,  হামদ-নাথ, অন্যদিকে কীর্তন-ভজন লিখেছেন। এমন সম্মিলিত সত্ত্বার কবি বাংলা সাহিত্যে দ্বিতীয়টি নেই। তিনি বলেন, আজকের এই ঝঞ্ঝাবিক্ষুব্ধ পৃথিবীতে যেখানে সাম্প্রদায়িকতা ও মৌলবাদের নামে নানা রকমের দানবীয় গোষ্ঠী বিশ^শান্তিকে নস্যাতের চক্রান্তে লিপ্ত তাদের বিরুদ্ধে একমাত্র সাংস্কৃতিক হাতিয়ার হলো অনুবাদ, যার মধ্যদিয়ে বিশে^র বিভিন্ন দেশ-জাতি-ধর্মাবলম্বী মানুষদের মধ্যে মেলবন্ধন রচনা করা সম্ভব। সেল বা কমিটি গঠন করে বিপুল অর্থ বরাদ্দ করে শ্রেষ্ঠ অনুবাদকদের দিয়ে নজরুলের সমস্ত সাহিত্যকর্ম ও গানগুলো সংগ্রহ করে যদি আমরা ইংরেজির মাধ্যমে বিশে^র সকল মানুষের সামনে তুলে ধরতে পারি তাহলে একদিকে নজরুল-ঐতিহ্যের বিস্তার হবে অন্যদিকে একটি অসাম্প্রদায়িক পৃথিবী বিনির্মাণে মানুষে-মানুষে সেতুবন্ধন রচনা করা যাবে। কবি নজরুল ইন্সটিটিউটের উদ্যোগে এবং কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় গতকাল বৃহস্পতিবার কুষ্টিয়ার দিশা টাওয়ার মিলনায়তনে জাতীয় নজরুল সম্মেলনের উদ্বোধন, আলোচনাসভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ও উদ্বোধকের বক্তব্যে উপাচার্য এসব কথা বলেন। কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব বেগম আক্তারী মমতাজ, কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডা. রওশন আরা বেগম ও কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস. এম. তানভীর আরাফাত। মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন কবি নজরুল ইন্সটিটিউটের নির্বাহী পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব মো: আব্দুর রাজ্জাক ভুঞা। আলোচক হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন কুষ্টিয়া স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মোস্তাক আহমেদ ও নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মাসুদ রহমান। নজরুল ইন্সটিটিউটের সচিব আব্দুর রহিম অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন। কবি রেজাউদ্দিন স্টালিন অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি ও আলোচকদের নজরুল কর্ম ও জীবন নিয়ে প্রকাশিত এ্যালবাম এবং ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানশেষে সঙ্গীত, নৃত্য, আবৃত্তি, প্রবন্ধ রচনাসহ বিভিন্ন শাখায় প্রতিযোগিতায়  কুষ্টিয়ার দশটি স্কুলের সেরা শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়।

আরো খবর...