এবার মিরপুরে সরকারী কাছ কর্তনের মহোৎসব

আমলা অফিস ॥ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের পর এবারে মিরপুরে সরকারী গাছ কর্তনের এক মহোৎসবের সৃষ্টি হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার চিথলিয়া ইউনিয়নের পাহাড়পুর এলাকার সরকারী চারটি মোটা মোটা মেহগুনি গাছ কর্তন করেছে স্থানীয় প্রভাবশালী। ঐ প্রভাবশালী উক্ত এলকার করিম শাহের ছেলে এবং সাবেক ইউপি সদস্য ফিরোজ আল মামুন। স্থানীয়দের অভিযোগ, সকালে সরকারী ক্যানেলের ধারের চারটি মোটা মোটা মেহগুনি গাছ কর্তন করেছে ফিরোজ আল মামুনের নেতৃত্বে কয়েকজন লেবার। কয়েকদিন পূর্বে পাশর্^বর্তী দৌলতপুর উপজেলার কালিদাসপুর এলাকায় সবুজ বনায়নক কর্মসূচির সরকারী সড়কের প্রায় অর্ধশত সরকারী গাছ কর্তনের অভিযোগ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় কোন দৃষ্টান্ত দেখা না যাওয়ায় এ ধরনের কর্মকান্ড করেছে বলে জানায় স্থানীয়রা।  উল্লেখ্যঃ গত ২০ জানুয়ারি কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের কালিদাসপুর এলাকায় বনায়ন কর্মসূচির প্রায় অর্ধশতাধিক গাছ কর্তন করে স্থানীয় প্রভাবশালী খুদি, শফি, আব্দুল্লাহ। পরে প্রমান লোপাট করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক হয় বিশু ও নাসির নামের দুইজন গাছ কর্তনকারী। অভিযোগ পাওয়ায় যায় দৌলতপুর উপজেলা বন কর্মকর্তা আরিফুল ইসলামের সাথে যোগসাজস্য করে অবৈধভাবে এ গাছ কর্তন করেছে। পরে বিষয়টি মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ধামাচাপা দেওয়া হয়। এজন্য এ ধরনের ঘটনা যেন পূর্নাবৃত্তি না ঘটে তাই প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে স্থানীয়রা।

 

আরো খবর...