আবারও প্রধানমন্ত্রী হওয়া উচিত মোদির: কঙ্গনা

বিনোদন বাজার ॥ বলিউড তারকা কঙ্গনা রানাউতের রাজনীতিতে আসার ইঙ্গিত বেশ পুরোনো। তবে কি আবারও সে প্রসঙ্গ ঘুরেফিরে আসছে! প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ নায়িকাকে নিয়ে এমন প্রশ্ন উঠেছেই! সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে বেশ ইতিবাচক বক্তব্য দেন কঙ্গনা। নরেন্দ্র মোদির আগামী নির্বাচনের পরও প্রধানমন্ত্রী থাকা উচিত বলে মত দেন তিনি। জি-নিউজ বলছে, বলিউড ‘কুইন’ কঙ্গনার রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ে বেশ আগে। এমনকি তিনি নির্বাচনে লড়ছেন বলেও শোনা গিয়েছিলে। যদিও পরে তিনি রাজনীতিতে আসার খবর একপ্রকার অস্বীকারই করেন। তার কথায়, আমি যে ধরনের পোশাক পরি, তা মেনে নিয়ে যদি কোনো রাজনৈতিক দল আমাকে নিতে চায় তাহলে আমার আপত্তি নেই। আসলে রাজনীতি খারাপ নয়।’ তবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে যে তার পছন্দ তা প্রথম থেকেই জানিয়ে আসছেন কঙ্গনা। ফের একবার নরেন্দ্র মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি, শর্ট ফিল্ম ‘চলো জিতে হ্যায়’ এর স্ক্রিনিংয়ে যোগ দিতে যান কঙ্গনা । শর্ট ফিল্মটি নরেন্দ্র মোদির প্রথম জীবনের প্রেক্ষাপটে অনুপ্রাণিত হয়ে তৈরি। অনুষ্ঠানে কঙ্গনা বলেন, ছবিটি ভীষণ সুন্দরভাবে নির্মিত হয়েছে। এখানে তুলে ধরা হয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, তার ছেলেবেলায় ভীষণ সংবেদনশীল শিশু ছিলেন, যার জীবন বিভিন্ন ঘটনাক্রমের মধ্যে দিয়ে কাটে। তবে আমার মনে হয়, ছবিটা যতটা না নরেন্দ্র মোদির সম্পর্কে তুলে ধরা হয়েছে, তার থেকেও এখানে বেশি উঠে এসেছে আমাদের কথা। সমাজের প্রয়োজনে কীভাবে সকলকে জেগে উঠতে হবে, সেই কথা। ছবিতে নরেন্দ্র মোদির জীবনের খুব সামান্য অংশই উঠে এসেছে বলে জানান তিনি। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে কঙ্গনা বলেন, ‘তিনি প্রধানমন্ত্রী (মোদি) হওয়ার জন্য উপযুক্ত মানুষ। কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে তিনি এই জায়গায় পৌঁছেছেন। তার যোগ্যতা নিয়ে আমার কোনও সন্দেহ নেই।’ যদিও এদিন নিজের রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেননি কঙ্গনা। তবে কিছুদিন আগে এক সাক্ষাৎকারে কঙ্গনা তার রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার বিষয়ে বলেন, ‘আমি রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার বিরোধী নই। তবে সেই বয়সে এখনও পৌঁছিনি। দেশের জন্য যেখানে প্রয়োজন হবে আমি সেখানে পৌঁছে যাব।’

আরো খবর...